ঢাকা, রবিবার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, || পৌষ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

কী লুকিয়ে আছে মুখের তিলে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:৫৪ ২৫ মে ২০১৭ | আপডেট: ১১:১৪ ২৭ মে ২০১৭

মুখমণ্ডলের তিল সাধারণত চেহারার সৌন্দর্য বাড়িয়ে দেয়। অনেকে তিল পছন্দও করেন। তবে এই তিল যে মানুষের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের নির্দেশক সেটা হয়ত অনেকেই জানি না। এ বিষয়ে সংস্কার বা কুসংস্কার দার্শনিকদের ভাবিয়েছে যুগ যুগ ধরে। বিশেষ করে পুরাণের কাহিনীর ভাণ্ডার চীনের দার্শনিকরা জীবনের অনেক সময় ব্যয় করেছেন তিলের তেলেসমাতি আবিষ্কারে। আর চীনের জ্যোতিষবিজ্ঞানের ‍অনেকাংশজুড়ে রয়েছে তিল। বুক অব অসপিসিয়াস এবং ইনঅসপিসিয়াস ডেটসে এ ব্যাপারে বিষদ ব্যাখ্যাও রয়েছে। শুধু চীন নয়, আমাদের পূর্বপুরুষরাও কিন্তু কম যাননি। কোথাকার তিল কী নির্দেশ করে তা ইটিভি অনলাইনের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

স্থান থেকে

আপনি শিশুসুলভ আচরণের অধিকারী তবে বিদ্রোহী। আপনার উৎসাহ এবং উদ্দীপনা থাকবে। আপনি সৃজনশীল এবং আপনাকে স্বাধীনতা দেওয়া হলে কাজকর্মে আপনি সফলতার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম। আপনার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ আপনাকে পছন্দ করবে। তবে কারো অধীনে কাজ করার চেয়ে আপনি নিজের উদ্যোগে কোনো কাজে হাত দিলে তাতে সফল হবেন বেশি। নিজেই নিজের বস হওয়ার সক্ষমতা রয়েছে আপনার। আপনি প্রতিশ্রুতিশীল মানুষ।

স্থান-

আপনি আবেগপ্রবণ মানুষ। আপনার মধ্যে হুটহাট করে কাজ করার প্রবণতা রয়েছে, যা আপনাকে অনন্য করে তুলবে। তবে অনেক বেশি মতামত বা দিকনির্দেশনা থাকলে আপনি জটিলতায় পড়বেন। বিতর্কমূলক জায়গায় থাকলেও আপনাকে বিরক্তির পাত্র হতে হবে না। এ জায়গায় তিল থাকলে আপনি বদমেজাজী স্বভাবের।

স্থান-

ভ্রুর উপরে তিল থাকলে আপনি ভাগ্যবান বা ভাগ্যবতী। তবে সৌভাগ্য আপনাকে অর্জন করে নিতে হবে। এর জন্য অন্য সবার চেয়ে আপনাকে বেশি পরিশ্রম করতে হবে। যা অর্জন করবেন তা ধরে রাখতে আপনাকে কৃপণ হতে হবে। কারণ দুষ্টু লোকেরা মিষ্টি কথা বলে আপনার সর্বনাশ করার তালে থাকবে। তাদের ব্যাপারে সতর্ক হতে হবে, যারা আপনাকে অল্প সময়ে ধনী বানিয়ে দিতে চাইবে। অন্যকে বেশি বিশ্বাস করবেন না। আপনার সহজাত প্রবৃত্তির ব্যাপারে সজাগ থাকবেন। আপনার আর্থিক সচ্ছলতার বিষয়ে কাউকে হস্তক্ষেপ করতে দেবেন না।

স্থান-

আপনি জ্ঞানদীপ্ত, সৃজনশীল, অভিজ্ঞ এবং সংস্কৃতিমনা। আপনার সৃজনশীলতা আপনার সৌভাগ্য, যশ ও সফলতার চাবিকাঠি। যাপিত জীবনের বিষয়ে আপনার হৃদকে প্রাধান্য দিতে হবে। যদি আপনি সাহসী হন, তবে সাফল্য অবশ্যাম্ভাবী।

স্থান-

আপনি অধিকসংখ্যক সদস্যবিশিষ্টি পরিবারের কেউ। যে কারণে আপনার রয়েছে বিষাদগ্রস্ততা। তাই আপনি অসুখী, যা আপনার কাজ এবং জীবনে ব্যাপক প্রভাব ফেলে। আপনি যদি শান্তি চান তবে বিচ্ছিন্ন হয়ে যান আপনার আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে।

স্থান-

এটা তিলের জন্য ভালো জায়গা নয়। আপনাকে দীনতা আলিঙ্গন করে থাকে। কারণ আপনি অমিতব্যয়ী। আপনার মধ্যে জুয়া খেলার ঝোঁক আছে। তবে কোথায় থামতে হবে তা আপনি জানেন। আপনি প্রেমের ভান করার ব্যাপারে সিদ্ধহস্ত। ভালো হয় যদি আপনি আপনার ভালোলাগার বিষয়গুলোর নির্ণায়ক হন। না হলে সমস্যায় পড়তে হতে পারে।


স্থান-

এটা যৌন দুর্বলতাকে নির্দেশ করে। এটা অপ্রত্যাশিত তিল। পারলে আপনি ওটাকে মুক্তি দিন। কারণ ওটা আপনার দুর্দশার প্রার্থনা সঙ্গীত আর সমস্যার পাহাড়।

স্থান-১০

নাকের নিচে তিল থাকা নির্দেশ করে যে, আপনি সৌভাগ্যের উত্তরপুরুষ। আপনি পরিবারের সদস্য দ্বারা পরিবেষ্টিত। আপনারও অনেক সন্তান এবং নাতিপুতি থাকবে, যারা আপনাকে জীবনভর সহায়তা করবে।

স্থান-১১

অসুস্থতা আপনার সঙ্গী। আপনি অসুস্থ হয়েই মৃত্যুবরণ করবেন। তবে তিলটি বড় ও কালো রঙের হলে আপনি ওটাকে তুলে ফেলতে পারেন। না হলে ওটাকে ঢাকতে বেশি বেশি ফাউন্ডেশন ব্যবহার করতে হবে।

স্থান-১২

এখানে তিল থাকা মানে আপনি সাফল্যমণ্ডিত। কিন্তু আপনার জীবন খুব নিয়ন্ত্রিত। আপনি ধনী হতে চান না, কিন্তু নাম কামাতে চান। যদিও আপনার অনেক সুযোগ রয়েছে উঁচুমানের জীবনযাপনের। পারিবারিকভাবে আপনার শান্তি আছে। যে সব মেয়েদের এ জায়গায় তিল আছে তারা আংশিক ভাগ্যবতী। তারা সব সময় আবেদনময়ী থাকতে ভালোবাসেন।


স্থান-১৩

সন্তানরা আপনার জীবনে দুঃখ ডেকে আনবে। তাদের সঙ্গে আপনার সম্পর্ক খুব ভালো হবে না। এর থেকে বের হওয়ার তেমন কোনো রাস্তা নেই আপনার। তবে পরিবর্তন আনতে সহ্যসীমা কিছুটা বাড়াতে হবে আপনাকে।

স্থান-১৪

আপনি খাবার প্রেমিক, যা আপনার জন্য অমঙ্গল বয়ে আনবে। কিছু কিছু খাবারের প্রতি আপনার এলার্জি আছে। তবে আপনি বেশি খেতে পছন্দ করেন।

স্থান-১৫

আপনি দৌড়ের উপর থাকেন। আপনার মধ্যে পুনঃউদ্ভাবনী শক্তি আছে। আপনি নিজের বাড়ির নকশা বার বার পরিবর্তন করেন। আপনি নতুন জিনিসের সঙ্গে পরিচিত হতে বেশি পছন্দ করেন। একটা জায়গায় আপনি বেশিদিন থাকতে পছন্দ করেন না। আপনি ভ্রমণ ও দুঃসাহসিক কাজ পছন্দ করেন। আপনার গভীর পর্যবেক্ষণশীল চোখ রয়েছে।

স্থান-১৬

খাবারের সময় আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে। একই সঙ্গে দাম্পত্যজীবনের ব্যাপারেও। কারণ এ দুটো আপনার বড় সমস্যা। স্থূলতা আপনার জীবনে বিষন্নতা ডেকে আনবে। আপনি রোমাঞ্চ করতে ভালোবাসেন। কখনও কখনও তা অন্যদের তুলনায় বেশি। এছাড়া আপনি বেশ সাধারণ। তবে কখনও কখনও আপনি জটিলতায় ভুগতে পারেন। এ কারণে আপনার মানসিক চাপও বাড়তে পারে।

স্থান-১৭

আপনি বিশেষ বৈশিষ্ট্যের অধিকারী। আপনি সামাজিকভাবে উদ্যমী এবং ভালো কথা বলতে পারেন। আপনার সাফল্যের ব্যাপারে আপনার আত্মতুষ্টি আছে। তবে এ জন্য আপনি সুনাম হারাতে পারেন, যা আপনার ওপর গভীর প্রভাব ফেলবে।

স্থান-১৮

আপনি ভ্রমণপ্রিয়। বিদেশ ভ্রমণের অপার সুযোগ রয়েছে আপনার। তবে সাগর পাড়ি দেওয়ার সময় আপনাকে সাতর্ক থাকতে হবে। কারণ আপনার তিল আপনাকে বাড়িতে থাকতে বলছে।

স্থান-১৯

অনেক বিত্ত-বৈভবের অধিকারী আপনি। এ কারণে আপনার বন্ধুও অনেক। তাই এই জায়গায় তিল থাকাকে ভালোই বলা হয়। তবে বিপরীত লিঙ্গের আক্রমণে আপনার মৃত্যু হতে পারে। গরম পানিতে আপনার মৃত্যুর সম্ভাবনা বেশি। তাই আপনার আকুলতাকে ঠাণ্ডা রাখুন।

স্থান-২০

আপনি খুব সৌভাগ্যবান হবেন, না হয় দুর্ভাগা। যদি এখানে আপনার তিল থাকে তাহলে আপনি ব্যাপক খ্যাতি লাভ করতেও পারেন অথবা দুর্নামে ভরা জীবন হতে পারে আপনার। আপনার সৃজনশীলতা বুদ্ধিমত্তা অনেক প্রখর। কিন্তু সেটা ভালো কাজেও ব্যবহৃত হতে পারে আবার খারাপ কাজেও। আপনি সহজে ক্ষমা করতে পারেন না আবার সহজে কোনোকিছু ভুলেও যান না। আপনি ইতিহাসে জাগয়া পাওয়ার মতো। তবে সেটা বিখ্যাতও হতে পারে আবার অত্যাচারী হিসেবেও।

স্থান-২১

এটা ভালো। এটা নির্দেশ করে জীবনভর পর্যাপ্ত পান করতে পারবেন ও খেতে পারবেন। এই তিল আপনার জীবনে খ্যাতি ও স্বীকৃতি ডেকে আনবে।

স্থান-২২

আপনার জীবন সুখী হবে এবং পার্থিব সবকিছু সহজে আপনার অধীনে আসবে। যদি খেলাধুলার প্রতি আপনার আগ্রহ থাকে তবে আপনার সফলতা আসবে। এই তিল ক্ষমতা নির্দেশ করে। আপনি যদি কোনো কোম্পানির নির্বাহী হন তবে আপনার সফলতা অবশ্যম্ভাবী।

স্থান-২৩

আপনি খুবই বুদ্ধিদীপ্ত। আপনি মেধাবী, পথচলার ক্ষেত্রেও বুদ্ধিদীপ্ত। আপনার উচ্চ সহজাত প্রবৃত্তি রয়েছে। আপনি অর্থবহ ও দীর্ঘ জীবনযাপন করবেন। জীবনের শেষ সময়গুলোতেও আপনার বন্ধুর অভাব হবে না। পরিবারের সদস্যরাও থাকবেন পাশে।

স্থান-২৪

আপনি যুবক বয়সে খ্যাতি অর্জন করবেন। তবে তা বৃদ্ধ বয়সের জন্য ধরে রাখতে হবে। কারণ এখানে যাদের তিল থাকে তারা বৃদ্ধ বয়সে কঠিন সময়ের মুখোমুখি হন।

স্থান-২৫

আপনি আপনার স্বীকৃত সমৃদ্ধি উপভোগ করবেন। তবে বাহুলত্যার ব্যাপারে সজাগ থাকবেন। আপনার আচার-আচরণে ঐতিহ্য ধরে রাখার চেষ্টা করুন। তাহলে আপনি দীর্ঘ সুখী জীবনের অধিকারী হবেন।

সূত্র : ফ্যাক্টসএনমিথস

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি