ঢাকা, শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ৫:২৯:৫৭

আলিয়া-রণবীরের মাধে ঝগড়া, ভিডিও ভাইরাল

আলিয়া-রণবীরের মাধে ঝগড়া, ভিডিও ভাইরাল

রণবীর-আলিয়ার সম্পর্কে চির ধরেছে। এখবর বহুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল। এবার ‘গলি বয়’ স্পেশাল স্ক্রিনিংয়ে সামনে চলে এল রণবীর-আলিয়ার সেই ঝগড়া। সিনেমা দেখে বের হয়ে গাড়ির মধ্যেই আলিয়ার সঙ্গে ঝগড়া করতে দেখা গেল রণবীরকে। ঘটনাটি পাপারাৎজি ক্যামেরাবন্দি হয়ে পড়তেই ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিওটি। বুধবার রাতে আলিয়ার সঙ্গে মিলে তার ও রণবীর সিং জুটির বহু চর্চিত ছবি ‘গলি বয়’ দেখতে গিয়েছিলেন রণবীর। সিনেমা দেখে যখন বের হলেন, তখন রণবীর-আলিয়া দুজনের মুখেই কোনও হাসি ছিল না। আলিয়াকে একপ্রকার কাঁদো কাঁদো মুখে লিফট থেকে বের হতে দেখা যায়। তারপর গাড়িতে ওঠার পর কোনও একটি বিষয় নিয়ে আলিয়ার সঙ্গে ঝগড়া করতে দেখা যায় রণবীরকে। আলিয়াকে অবশ্য সেই মুহূর্তে বিশেষ কথা বলতে দেখা যায়নি। তবে তারপর তাদের মধ্যে কী ঘটেছে, তা অবশ্য বোঝা যায়নি। কারণ ততক্ষণে গাড়িটা ওই জায়গা থেকে বের হয়ে যায়। এই ভিডিওটি ভাইরাল হতেই রণবীরকে একহাত নেন ভক্তরা। অনেকেই প্রশ্ন তোলেন আলিয়া কেন রণবীরের জন্য সময় নষ্ট করছেন? কেউ বলেন, রণবীরের সঙ্গে প্রেম করে জীবনের বড় ভুল করছেন আলিয়া। রণবীর সব সময়ই বিরক্তই থাকেন। প্রশ্ন তোলা হয়, আলিয়া কেন রণবীরকে সহ্য করছেন? এর থেকে ভালো অল্প বয়সী ভালো কাউকে আলিয়া বেছে নিন। কেউ কেউ আবার অন্য আলিয়া যাতে রণবীরকে ছেড়ে অন্য কাউকে বিয়ে করেন সেই পরামর্শ দেন। কারো কারো বক্তব্য রণবীর কাপুর আলিয়ার মুখ থেকে হাসি কেড়ে নিয়েছেন। আলিয়া রণবীরের থেকে অনেক বেশি ট্যালেন্টেড। কেউ কেউ আবার রণবীরকে অত্যন্ত খারাপ একজন মানুষ বলে বর্ণনা করেছেন। রণবীর নাকি কোনও মেয়েরই যোগ্য নন। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে রণবীরের প্রশংসায় ভরিয়ে দেন আলিয়া। পাশাপাশি এও স্বীকার করেন নেন, রণবীরের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানোর পর তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বড় বেশি আলোচনা হচ্ছে, বিষয়টি অনকে বেশি সংবাদমাধ্যমের দৃষ্টিটি আসছে, যেটা আগে কখনও হয়নি। তবে আলিয়ার কথায় তার আর রণবীরের সম্পর্ক নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে যেটাই লেখা হোক না কেন, তার কিছু যায় আসে না। তিনি এই সম্পর্কটাকে সবকিছু থেকে দূরে সুরক্ষিত রাখতে চান। তবে এভাবে চলতে থাকতে তাঁদের সম্পর্ক কত দূর এগোবে, তা নিয়ে ইতিমধ্য়েই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছেন। ভিডিও দেখতে নিচের লিংকটি দেখুন- https://www.instagram.com/p/Bt2XrcXjufv/?utm_source=ig_embed&utm_campaign=embed_video_watch_again তথ্যসূত্র: জি নিউজ এমএইচ/
মেয়ের চুলে রং করে ট্রোল হলেন মীরা

শাহিদ কাপুর পত্নী মীরা রাজপুত তার ২ বছরের মেয়ের চুলে রং করে ট্রোল হয়েছেন । এত ছোট বাচ্চার চুলে কেন রং করা হয়েছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন নেটিজেনরা। এবার সেই প্রশ্নেরই উত্তর দিলেন মীরা। আইএএনএস-কে মীরা এবিষয়ে জানান, ‘ এটা মোটেও চুলের রং নয়, এটা আঁকার রং। এটা একটা ক্ষণিকের বিষয়। এটা মিশার সঙ্গে একটা সুন্দর সময় কাটানোর একটা মুহূর্ত। এটা নিজের সন্তানকে সৃজনশীল করে তোলারই একটা উদ্যোগ। এটা কোনও গুরুতর বিষয় নয়।’ শাহিদ পত্নী মীরা মেয়ে মিশার ছবি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে পোস্ট করে লিখেছিলেন, ‘আমি অন্যান্য মায়েদের মতো নয়, আমি কুল মা।’ এত ছোট বাচ্চার চুলে কেন রং করা হয়েছে এর পরেই প্রশ্ন তোলের নেটিজেনরা। সামলোচনা করা হয়। এবিষয়ে অবশ্য শাহিদ কাপুরকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনও বলেন, ওটা এক্কেবারেই ছোটদের জন্য ক্ষণিকের বিষয়, অনেক পরিকল্পনা করে ওই ছবি তোলা হয়েছে। ওটা কোনও সিরিয়াস বিষয় নয়, আর ওটা চুলের রংও নয়। প্রসঙ্গত, এর আগে অ্যান্টি ক্রিমের বিজ্ঞাপন করার জন্যও ট্রোল হয়েছিলেন মীরা। তথ্যসূত্র: জি নিউজ এমএইচ/

সোয়াইন ফ্লুতে আক্রান্ত শাবানা আজমি

বর্ষীয়ান অভিনেত্রী শাবানা আজমি সোয়াইন ফ্লুতে ভুগছেন। তিনি মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে উদ্বেগের কোনও কারণ নেই বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসায় দ্রুত সাড়া দিচ্ছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী।ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, প্রচন্ড সর্দি ও কাশি নিয়ে পারিবারিক চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলেন শাবানা। যাবতীয় মেডিক্যাল পরীক্ষার পর রক্তে এইচ১এন১ ভাইরাসের প্রমাণ মেলে। তারপরই চিকিৎসকের পরামর্শে মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি হন শাবানা আজমি।যদিও সোয়াইন ফ্লু নিয়ে বিশেষ চিন্তিত নন জাভেদ পত্নী। বরং অসুস্থতার জন্য বিশ্রাম নিতে পেরে দারুণ খুশি তিনি। শাবানা জানিয়েছেন, এই সময়টা তিনি নিজের জন্য কাটাতে চান। ব্যস্ততার জন্য অলসভাবে বিছানায় শুয়ে চিন্তা ভাবনা করার সময় একদমই পান না তিনি। সোয়াইন ফ্লুর কারণে প্রয়োজনীয় বিশ্রাম তাকে নিতেই হবে। ফলে হেকটিক সিডিউল থেকে কিছুদিন বিরতি পাবেন ভেবেই আনন্দিত শাবানা।প্রসঙ্গত, শাবানাকে শেষবার দেখা গিয়েছিল জয়পুর সাহিত্য উৎসবে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন শাবানার স্কুলের সহপাঠী ও বন্ধু শোভা দে। ইনস্টাগ্রামে সেই ছবিও পোস্ট করেন অভিনেত্রী। এসএ/  

দেশে ফিরলেন ইরফান খান

বলিউড তারকা ইরফান খান। নিউরোএন্ডোক্রাইন টিউমারের চিকিৎসা নিতে দেশের বাইরে ছিলেন তিনি। অবশেষে লন্ডন থেকে ভারত ফিরেছেন অভিনেতা। তবে দেশের ফেরার পর তাকে নিয়ে শুরু হয়েছে নানান জল্পনা।কেউ বলছেন, আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি ‘হিন্দি মিডিয়াম টু’র শুটিংয়ে অংশ নেবেন তিনি। আবার কেউ বলছেন, ভারতের একটি হাসপাতালে পুনরায় চিকিৎসা নিচ্ছেন এই জনপ্রিয় অভিনেতা।তবে ইরফান খানের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানান, ভারতে ফিরলেও ইরফানের অভিনয় করার বিষয়টি এখনো ঠিক হয়েনি। কিন্তু মানুষ নিশ্চিত হওয়া ছাড়াই নানা রকম কথা ছাড়াচ্ছেন। যা সত্য নয়। আর ‘হিন্দি মিডিয়া টু’র শুটিং কবে শুরু হবে, সেটাও এখনো ঠিক হয়নি।সাকেট চৌধুরী পরিচালিত ‘হিন্দি মিডিয়াম’ ২০১৭ সালে মুক্তি পায়। সিনেমাটি বক্স অফিসে বেশ ভালো ব্যবসা করে। প্রথম পর্বে দারুণ অভিনয়ের সুবাদে সেরা অভিনেতা হিসেবে ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড ঘরে তুলেছেন ইরফান খান।এরপরই এর দ্বিতীয় কিস্তি অর্থাৎ ‘ইংলিশ মিডিয়াম টু’ নির্মাণের ঘোষণা দেন নির্মাতা। কিন্তু ইরফান খান অসুস্থ থাকার কারণে এতোদিন সিনেমাটির কাজ স্থির ছিল। খুব শিগগিরই সিনেমাটির শুটিং শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।এসএ/  

রণবীর-আলিয়ার চুমুর দৃশ্য কর্তন

চলতি সপ্তাহেই মুক্তি পাচ্ছে জোয়া আখতারের সিনেমা ‘গাল্লি বয়’। তবে তার আগে সেন্সরের কাচির নিচে সিনেমাটি। রণবীর সিংহ এবং আলিয়া ভাট অভিনিত এ সিনেমায় এই জুটির একটি চুমুর দৃশ্য সহ বেশ কয়েকটি ঘনিষ্ঠ দৃশ্য বাদ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ভারতীয় সেন্সর বোর্ড।গণমাধ্যম সূত্রে খবর, রণবীর-আলিয়ার ১৩ সেকেন্ডের একটি চুম্বন দৃশ্য বাদ পড়েছে। তা ছাড়া বেশ কিছু গালাগালি ব্যবহার হয়েছিল। সেগুলোও বাদ পড়েছে।ইতিমধ্যেই বার্লিন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে প্রশংসা পেয়েছে ‘গাল্লি বয়’। সিনেমার ট্রেলার দেখেও সাধারণ দর্শকের মধ্যে কৌতূহল তৈরি হয়েছে। উল্লেখ্য, সিনেমাটি এক র‌্যাপারের গল্প নিয়ে নির্মিতি হয়েছে। মুম্বাইয়ের বস্তিতে থাকা সেই র‌্যাপার নিজের আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতির উন্নতি চায়। সে আদৌ পারবে কি নিজেকে পরিবর্তন করতে? তা নিয়েই এগিয়েছে চিত্রনাট্য। বাস্তবে এক র‌্যাপারের জীবন থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই সিনেমাটি তৈরি করেছেন জোয়া।সূত্র : আনন্দবাজারএসএ/

সানির যমজ পুত্রের জন্মদিনের ভিডিও ভাইরাল

সানি লিওনের যমজ দুই ছেলে আশের ও নোয়া সিং ওয়েবার। সানির কোলে তারা। দুজনের গায়ে মাখা কেকের নীল ক্রিম। সানির পেছনে দাঁড়িয়ে আছে ড্যানিয়েল। মেয়ে নিশা কৌর ওয়েবারকে কোলে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। এমন কিছু ছবি দিয়ে একটি ভিডিও বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন সানি।কিছুদিন আগে আশের ও নোয়ার ১১ মাসে পা দেওয়ার ছবি প্রকাশ করেছিলেন সানি। তাদের দুজনের সঙ্গে নিশার একটি ছবিও পোস্ট করেছিলেন সানি। এবার যমজ দুই পুত্র সন্তানের ১ বছরের জন্মদিনের সেলিব্রেশনের ছবি দিয়ে ভিডিও বানিয়ে পোস্ট করলেন অভিনেত্রী। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে- সানির দুই ছেলে আশের ও নোয়ার সামনে রাখা দুটি নীল কেক। তাতে তাদের নাম লেখা রয়েছে। সেই কেক দুটি দেখে অবাক বিস্ময়ে তাকিয়ে রয়েছে ছোট্ট আশের ও নোয়া। সেগুলো আসলে কী তা বোঝায় ক্ষমতা ওই দুই শিশুর নেই। তাদের সঙ্গে বসে রয়েছে বোন নিশা। দুই ভাইয়ের জন্মদিনের কেক দেখে তার চোখে মুখে উচ্ছ্বাস ধরা পড়েছে। তারপর ওই দুটি কেককে খেলার জিনিস ভেবেই তা পুরো গায়ে তা মেখে নিচ্ছে।ক্যাপশানে সানি লিওন লিখেছেন, ‘গত একবছর আমার জীবন আশের ও নোয়ার সঙ্গে অসাধারণভাবে কেটেছে। আর নিশা হল তাদের প্রিয় বড় বোন। এরাই প্রতিদিন সকালে আমার জীবনে আলো এনে দেয়। এভাবেই তোমাদের দেখে প্রতিদিন সকালে যেন আমার ঘুম ভাঙে। তোমাদের (আশের, নোয়া ও নিশা) হাসি-কান্না, আদর, চুমু, জড়িয়ে ধরার মধ্যে দিয়েই যেন আমার জীবন কাটে। তোমাদের দুজনের জন্যই রইল জন্মদিনের অনেক শুভেচ্ছা। আমার জীবনের মন্ত্র হল আমি এভাবেই আমার জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত আমার পরিবারের সঙ্গে কাটাতে চাই ‘ সূত্র : জি নিউজ এসএ/  

আলিয়ার পর কার সঙ্গে প্রেমে করছেন সিদ্ধার্থ?

সিদ্ধার্থের জীবনে আলিয়া অধ্যায়ের শেষ হয়েছে বহুদিন হল। সিদ্ধার্থের প্রাক্তন আলিয়া আপাতত রণবীরে মজে রয়েছেন। তবে সিদ্ধার্থও আর একা নেই। তার জীবনেও ফের এসেছে নতুন ‘নায়িকা’। শোনা যাচ্ছে সিদ্ধার্থ নাকি এই মুহূর্তে নবাগতা তারা সুতারিয়ার সঙ্গে প্রেম করছেন। জানা যাচ্ছে, ‘স্টুডেন্ট অফ দ্যা ইয়ার-২’ এর মাধ্যমে বলিউডে পা রাখতে চলেছেন সে। তার সঙ্গে এই ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখছেন আরও এক নবাগতা অন্যন্যা পান্ডে। তাদের সঙ্গে এই ছবিতে দেখা যাবে টাইগার শ্রফকে। করণ জোহরের প্রযোজনা সংস্থার এই ছবির পরিচালনা করছেন পুনিত মালহোত্রাকে। প্রসঙ্গত ‘লাভ গুরু’ করণ জোহরের প্রযোজনা সংস্থার ছবি স্টুডেন্ট অফ দ্যা ইয়ার-১ এর মাধ্যমে বলিউডে পা রেখেছিলেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা ও আলিয়া ভাট। সেখান থেকেই শুরু হয়েছিল আলিয়া-সিদ্ধার্থের সম্পর্ক। যদিও সে সম্পর্ক ভেঙে যায়। সম্প্রতি ‘কফি উইথ করণ’-এ এসে আলিয়ার সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খোলেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। তার কথায়, আলিয়া সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তার সম্পর্কটা নেহাতই সামাজিক, তবে কখনওই সেটা তিক্ত নয়। সিদ্ধার্থ বলেন,‘আলিয়া আমি এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে এক সঙ্গে পথ চলা শুরু করেছিলাম। বরুণ, আলিয়া আর আমার মধ্যে একটা সুন্দর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আমরা অনেক ভালোলাগা-খারাপলাগা শেয়ার করেছি। অনেক আবেগ শেয়ার করেছি। তাই একটা বন্ধন তো থেকেই যাবে।’ ভবিষ্যতে আবারও আলিয়ার সঙ্গে কাজ করতে চাইবেন কিনা এপ্রশ্নের জবাবে সিদ্ধার্থ বলেন, ‘অনেকেই বলছেন আমাদের একসঙ্গে কাজ করা উচিত। এবার দেখা যাক, ভালো চিত্রনাট্য, ও পরিচালক যদি চান তাহলে নিশ্চয় করব।’ তথ্যসূত্র: জি নিউজ এমএইচ/

রণবীরের বাবা-মাকে নিয়ে মুখ খুললেন আলিয়া

বর্তমানে বলিউডের অন্যতম আলোচিত অভিনেত্রীদের মধ্যে আলিয়া ভাট একজন।আর বি-টাউন এখন আলিয়া-রণবীরের প্রেম নিয়ে গুঞ্জন চলছে অনেক বেশি। কিছুদিন আগে, আলিয়া-রণবীরের সম্পর্কের মধ্যে তিক্ততা তৈরি হয়েছে বলে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। তবে না, আলিয়া-রণবীরের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়নি। বরং তিনি যে রণবীরের জন্য বেশ খুশি সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তা স্পষ্ট করেছেন। সম্প্রতি ইন্ডিয়া টুডে-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রেমিক রণবীর ও হবু শাশুড়ি ও শ্বশুরমশাই নীতু সিং ও ঋষি কাপুরকে নিয়ে মুখ খুলেছেন আলিয়া। ‘ইন্ডিয়া টুডে’-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রণবীরের প্রতি তার ভালোলাগার কথা ব্যক্ত করেছেন আলিয়া। রণবীরের প্রশংসায় পঞ্চমুখ আলিয়া বলেন, ‘আমি আমার জীবনে এই রকম ন্যাচারাল অভিনেতা দেখিনি। ও আমার দেখা অন্যতম সেরা অভিনেতা। শুধু আমিই নয়, আরও অনেক মহিলা ও পুরুষরাই রণবীরকে অভিনেতা হিসাবে পছন্দ করেন। রণবীর শ্যুটিংয়ের সময় ভীষণই রিল্যাক্স থাকে।’ আলিয়ার কথায়, ‘রণবীরের চোখ ভীষণই সুন্দর, ওর চোখের মধ্যেই যে সততা লুকিয়ে রয়েছে। আমি সাধারণত আমার ডায়ালগ ভীষণ ভালোভাবে মনে রাখি। আমি শ্যুটিংয়ের সময় কখনওই ডায়ালগ ভুলি না। কিন্তু যখনই রণবীরকে অভিনয় করতে দেখি, আমি আমার ডায়ালগ ভুলে যাই। আর এটা শুধু রণবীরের জন্যই, ও কত সহজে সবকিছু করে ফেলে যেন কোনও ব্যাপারই না।’ সাক্ষাৎকারে শুধু রণবীরই নয়, হবু শাশুড়ি মা ও শ্বশুরমশাই ঋষি কাপুরকে নিয়েও মুখ খোলেন আলিয়া। তিনি বলেন, ‘নীতুজী ভীষণই ভালো মানুষ। তাকে আমার ভীষণ ভালো বন্ধু বললে ভুল হবে না। উনি ভীষণই ঠান্ডা মাথার মানুষ। খুব সুন্দর ভাবে জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যান। আমার মনে হয় রণবীর ওনার কাছ থেকেই এভাবে ঠান্ডাভাবে সবকিছু সামলাতে শিখেছে।’ আর হবু শ্বশুরমশাই ঋষি কাপুর ঠিক কেমন? এপ্রসঙ্গে আলিয়া বলেন, ‘আমি ওনার মতো ইউনিক মনুষ ঠিক কম দেখেছি। আমি যখনই ওনার সঙ্গে সময় কাটাই, তখন ভীষণই হাসি-ঠাট্টা, মজা-মশকরার মধ্যেই কেটে যায়। উনি এক্কেবারে ওনার মতোই। ’ তথ্যসূত্র: জি নিউজ এমএইচ/

মিটু নিয়ে হার্ভাডে বক্তৃতা দেবেন তনুশ্রী

বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের হাত ধরেই ভারতে #মিটু আন্দোলন বিস্তার করেছিল। এবার ওই তনুশ্রীর সাফল্যের মুকুটে যুক্ত হচ্ছে আরও একটি পালক। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলে বক্তৃতা করার ডাক পেলেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে নিজেই সে খবর জানালেন অনুরাগীদের। শনিবার ইনস্টাগ্রামে তনুশ্রী লেখেন, আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি বস্টনের হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলে ইন্ডিয়া কনফারেন্স-২০১৯ রয়েছে। স্নাতকস্তরের পড়ুয়ারা ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। তাদের কাছ থেকে আমন্ত্রণ পেয়েছি। হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল ও হার্ভার্ড কেনেডি স্কুলে বক্তৃতা করব। পডুয়াদের উদ্যোগে প্রতিবছরই হার্ভার্ডে ইন্ডিয়া কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর সেখানে হাজির থাকবেন সমাজকর্মী অরুণা রায়, সাংবাদিক বরখা দত্ত, চিত্র পরিচালক এস এস রাজামৌলি এবং রাজনীতিক আসাদউদ্দিন ওয়েইসি। তাদের সঙ্গেই মঞ্চে হাজির থাকবেন তনুশ্রী। ২০০৩ সালে মিস ইন্ডিয়া খেতাব জিতে গ্ল্যামার দুনিয়ায় প্রবেশ তনুশ্রী দত্তের। তার পর একাধিক হিট ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। কিন্তু আচমকাই বলিউড থেকে গায়েব হয়ে যান তিনি। গতবছর আমেরিকা থেকে দেশে ফিরলে জীবনটাই পাল্টে যায় তার। এর আগে ২০০৮ সালে একটি ছবির শুটিং চলাকালীন অভিনেতা নানা পটেকর তাকে হেনস্থা করেছিলেন বলে অভিযোগ তুলেছিলেন তনুশ্রী। সেই সময় প্রভাবশালী নানার বিরুদ্ধে তার এই অভিযোগ কানে তোলেনি কেউ। কিন্তু গতবছর নতুন করে বিষয়টি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়লে, গোটা দেশ তার সমর্থনে এগিয়ে আসে। তাকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে আরও অনেকেই নিজেদের ভয়াবহ অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন। বলিউডে #মিটু আন্দোলন এখনও জারি। তবে তনুশ্রী ফিরে গিয়েছেন আমেরিকায়।  অভিনয়ে আর ফেরার ইচ্ছা নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার এমএইচ/

রণবীরের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ আলিয়া

রণবীর কাপূর এবং আলিয়া ভাট কি প্রেম করছেন? বলিউডে এ জল্পনা বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে। জল্পনার ইঙ্গিত দুই তারকার আচরণ। বিভিন্ন সময়ে প্রেমের ইঙ্গিত দিলেও এখনও পর্যন্ত সম্পর্কের বিষয়ে প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি তারা। তবে রণবীরের পারফরম্যান্সে যে তিনি মুগ্ধ, তা আরও একবার স্পষ্ট করে দিলেন আলিয়া। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে আলিয়া বলেন, ‘আমি রণবীরের মতো এত নিরপেক্ষ অভিনেতা দেখিনি। শুধু আমিই ওকে অভিনেতা হিসেবে পছন্দ করি, এমন তো নয়। বহু মানুষ পছন্দ করেন। সাধারণত আমি কোনও দৃশ্যে ডায়লগ ভুলে যাই না। কিন্তু সামনে রণবীরকে পারফর্ম করতে দেখে আমি ডায়লগ ভুলে গিয়েছিলাম। ওর চোখে এতটাই সততা ছিল, নিজের পারফরম্যান্সের কথা আমার মনে ছিল না।’ রণবীরের পরিবারের সদস্যরাও আলিয়াকে পছন্দ করেন। বছরের শুরুতে নিউ ইয়র্কে কাপূর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আলিয়ার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। রণবীরের মায়ের সম্পর্কে আলিয়ার বক্তব্য, ‘নীতুজিকে আমি বন্ধু বলতে পারি।’আর রণবীরের বাবাকে নিয়ে আলিয়া বলেছেন, ‘ঋষিজি অসাধারণ। যখনই সময় কাটানোর সুযোগ পাই, মজা করে কাটে।’ সব মিলিয়ে রণবীর তো বটেই, কাপূর পরিবারেরও প্রিয় আলিয়া। সত্যিই কি বিয়ে করবেন এই জুটি? আপাতত অবশ্য এর উত্তর নেই। তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার এমএইচ/

বলিউড খল অভিনেতা মহেশের রহস্যজনক মৃত্যু

বলিউড অভিনেতা মহেশ আনন্দ আর নেই। তার বয়স হয়েছিল ৫৭ বছর। তবে তার মৃত্যু নিয়ে তৈরি হয়েছে নানান রহস্য। কারণ মহেশ আনন্দের মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছে তার নিজ বাড়ির নিজ কক্ষে। তবে ঠিক কীভাবে তিনি মারা গেছেন তা এখনও নিশ্চিত করা যায়নি। কেউ বলছেন- হার্ট অ্যাটাক, কেউ বলছে অন্যকোনো কারণে তিনি মারা গেছেন। আর এ জন্য মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায় পুলিশ। প্রসঙ্গত, নব্বইয়ের দশকে হিন্দি সিনেমার খল চরিত্রে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন মহেশ আনন্দ। তার অভিনিত সিনেমার মধ্যে রয়েছে- ‘শাহেনশাহ’, ‘মজবুর’, ‘স্বর্গ’, ‘থানাদার’, ‘গুমরাহ’, ‘খুদদার’, ‘বেতাজ বাদশা’, ‘বিজেতা’, ‘কুরুক্ষেত্র’ প্রভৃতি। সূত্র : কলকাতা ২৪ এসএ/

ভোটের আগে রূপালি পর্দায় ‘রাহুল গান্ধী’

গান্ধী পরিবারকে বাদ দিলে ভারতের রাজনীতি অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। বর্তমানে ইন্দিরা গান্ধী, রাজীব গান্ধীদের রাজনীতির ঐতিহ্য বর্তমানে বহন করছেন রাহুল গান্ধী। সদ্য আসরে এসেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীও। লোকসভা নির্বাচনের আগে এবার রূপোলি পর্দায় হাজির গান্ধী পরিবারের উত্তরসূরী তথা কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী। রাহুলের জীবন নিয়েই তৈরি হচ্ছে বায়োপিক। কয়েকদিন আগেই মুক্তি পায় ‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার।’ প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং-এর রাজনৈতিক জীবন নিয়ে তৈরি সেই ছবি নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয় যথেষ্ট। এবার ছবি হচ্ছে রাহুলকে নিয়ে। ছবির নাম My Name Is Raga. মুক্তি পেয়েছে ছবিটির টিজার। লোকসভা নির্বাচনের আগে স্বাভাবিকভাবেই এই ছবিকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে আলোচনা। এই ছবিতে কী লুকিয়ে থাকবে কোনও রাজনৈতিক বার্তা? উঠছে সেই প্রশ্নও। গান্ধী পরিবারের ছেলে হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই রাহুলের জীবনও ঘটনাবহুল। খুব ছোটবেলায় ঠাকুমা ইন্দিরা গান্ধীকে খুন হতে দেখেছেন। বাবাকেও একইভাবে হত্যা করা হবে কিনা, সেই ভয়ও পেয়েছেন ছেলেবেলায়। তারপর একটু একটু করে রাহুলের রাজনৈতিক উত্থান। কখনও হারের দায় নিয়েছেন মাথা পেতে, আবার কখনও জয়। সবটাই দেখানো হয়েছে এই ছবিতে। বাদ যায়নি রাহুল গান্ধীর চোখ মারার দৃশ্যও। ছবি পরিচালনা করেছেন রূপেশ পল। রাহুল গান্ধীর চরিত্রে রয়েছেন অশ্বিনী কুমার। মোদীর চরিত্রে রয়েছেন হিমন্ত কাপাডিয়া। আর মনমোহন সিং-র চরিত্রে রাজু খের। রাজু খের অভিনেতা অনুপম খেরের ভাই। অনুপম খের ‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ ছবিতে মনমোহন সিং-এর চরিত্রে অভিনয় করেন। সাংবাদিক বৈঠকে পরিচালক জানিয়েছেন, আসলে এই ছবিতে রাহুল গান্ধীকে বড় করে দেখানোর চেষ্টা হয়নি। পরিচালকের কথায়, এই ছবি আসলে এমন একজনের উত্থানের গল্প বলবে, যাকে বারবার আক্রমণ করা হয়েছে। দেখুন সেই টিজা   তথ্যসূত্র: এনডিটিভি এমএইচ/

মা কারিনার যে বিষয়টি অপছন্দ তৈমুরের

মা কারিনা কাপুর পেশায় একজন অভিনেত্রী। পেশার খাতিরে তাকে সব সময়ই মেকআপ করতে হয়। কিন্তু মাকে মেকআপে দেখতে নাকি একেবারেই পছন্দ করে না ছেলে তৈমুর আলি খান। আর এ কথা প্রকাশ্যে এনেছেন সাইফ আলী খান।সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সাইফ জানিয়েছেন, তিনি বিভিন্ন রকম পোশাক পরলে বা মেকআপ করলে তৈমুর চমকে যায় না। কিন্তু কারিনা মেকআপ করে সামনে গেলেই নাকি চমকে ওঠে ছেলে। এমনকি মেকআপে মাকে একেবারেই অপছন্দ তার। যা তার আচরণে সে বুঝিয়ে দেয়। প্রসঙ্গত, জন্মের পর থেকেই লাইমলাইটে রয়েছে তৈমুর। এ নিয়ে দ্বন্দ্ব রয়েছে পরিবারের অনেকেরই। কারিনার বাবা রণধীরের মতো কেউ কেউ মনে করেন, প্রতিদিন মিডিয়ায় তৈমুরের ছবি প্রকাশ উচিত নয়। আবার কারিনা মনে করেন, যেটা স্বাভাবিক সেটা দেখেই বড় হওয়া উচিত ছেলের। যে কোনও জায়গায় গেলে সে যে ফোকাসে থাকবে, সে যে স্টার কিড এই বোধটা তৈমুরের ছোট থেকেই তৈরি হওয়া উচিত।সূত্র : আনন্দবাজারএসএ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি