ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০১৯ ৮:১৭:৫২

শান্তিপূর্ণ-সুষ্ঠু নির্বাচন হয়েছে: ইসি সচিব

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ শেষে জানিয়েছেন, এ নির্বাচন শান্তিপূর্ণ, অবাধ ও সুষ্ঠু পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে সাতটি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন ভবনে সোমবার (১৮ মার্চ) বিকাল ৫টা ৩০ মিনিটে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি এসব কথা বলেন। উপজেলা নির্বাচনে কী পরিমাণ ভোট পড়েছে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, ভোট পড়ার হার বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন রকম। কিছু কিছু জায়গায় কম, আবার কিছু কিছু জায়গায় বেশি ভোট পড়েছে। এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, তিন পার্বত্য জেলায় এবং দিনাজপুর, রংপুর ও সিলেটে বেশি ভোট পড়েছে। অন্যদিকে কক্সবাজার ও নওগাঁয় কম ভোট পড়েছে। এবার ভোটের হার কেমন তা আগামীকাল নিশ্চিত করা যাবে। গতবার ভোটের হার শতকরা ৪৩ ভাগ ছিল। এবার আশা করা যাচ্ছে আরও বেশি হবে। নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার এটিকে একতরফা নির্বাচন বলে অভিযোগ করেছেন। সাংবাদিকরা এ বিষয়ে তার মন্তব্য জানতে চাইলে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘এটি তার ব্যক্তিগত মতামত। নির্বাচন কমিশনে এ ধরনের কোনও আলোচনা হয়নি। সাম্প্রতিক সময়ে অনুষ্ঠিত কয়েকটি নির্বাচনের দেরিতে ব্যালটপেপার পৌঁছানোসহ কিছু অভিযোগের জবাবে ইসি সচিব বলেন, আসন্ন পৌর নির্বাচনে ব্যালটসহ সব সরঞ্জাম সকালেই পৌঁছানো হবে। নির্বাচন অনুষ্ঠানের সময় পরিবর্তন করে ৮টা-৪টার পরিবর্তে ৯টা-৫টা করা হবে। সব কেন্দ্র ইভিএম থাকবে। নির্ধারিত সময়ে ভোটের সরঞ্জাম পাঠানো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্র নির্ধারিত সময়ে পাঠানো সম্ভব হলে ভোটার সরঞ্জামও নির্ধারিত সময়ে পৌঁছানো সম্ভব হবে। আগামীতে সব সরঞ্জামসহ নির্বাচন-সংশ্লিষ্টরা ভোট শুরুর আগেই কেন্দ্রে পৌঁছে যাবেন। প্রসঙ্গত, ১৮ মার্চ ভোটগ্রহণের দিনক্ষণ ঠিক করে গত ৭ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে ইসি। ১৭টি জেলার ১২৯টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হলেও এর মধ্যে গোপালগঞ্জ জেলার পাঁচটি উপজেলার ভোট দ্বিতীয় দফার পরিবর্তে তৃতীয় দফায় নেওয়া হয়েছে। জানা গেছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন উপলক্ষে ১৭ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার টুঙ্গিপাড়া সফর কর্মসূচি নির্ধারিত থাকার কারণে তার নিরাপত্তাসহ সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে এ জেলার সব কয়টি উপজেলার ভোটের তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে। এদিকে, দ্বিতীয় ধাপে থাকা দিনাজপুর সদর উপজেলার ভোটও চতুর্থ ধাপে (৩১ মার্চ) স্থানান্তর করা হয়েছে। অন্যদিকে, আদালতের আদেশে দ্বিতীয় ধাপের তফসিল ঘোষিত গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ভোট স্থগিত হয়েছে। এছাড়াও ছয়টি উপজেলার সবগুলো পদে একক প্রার্থী থাকায় এরই মধ্যে এসব উপজেলার ফল ঘোষণার নির্দেশ দিয়েছে ইসি, যার কারণে এই ছয়টি উপজেলায়ও ভোটগ্রহণের প্রয়োজন পড়ছে না। ফলে সব মিলিয়ে ১১৬টি উপজেলায় সোমবার ভোট গ্রহণ করা হয়। দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৪৮ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ২৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান ১৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ১২ জন। যে ছয়টি উপজেলার সবগুলো পদেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে সেগুলো হলো– চট্টগ্রামের রাউজান, মিরেরসরাই, নোয়াখালীর হাতিয়া, ফরিদপুর সদর, পাবনা সদর ও নওগাঁ সদর। দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে মোট প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী এক হাজার ৩১০ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩৭৭ জন, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৫৩৯ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩৯৪ জন। এ নির্বাচনে মোট ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা সাত হাজার ৩৯টি। ভোটার রয়েছেন এক কোটি ৭৯ লাখ নয় হাজার ছয় জন। আরকে//

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসী হামলায় ৭ জনের মৃত্যুতে ইসির নিন্দা

দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে দায়িত্বপালন শেষে ফেরার পথে সন্ত্রাসীদের হামলায় ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা ও ভিডিপি সদস্যসহ সাত জনের মৃত্যুর ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সোমবার (১৮ মার্চ) রাতে ইসির যুগ্ম-সচিব (জনসংযোগ) এস এম আসাদুজ্জামান এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানান। বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে আজ দায়িত্বরত অবস্থায় রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলায় দুর্বৃত্তের হামলায় ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা ও আনসার সদস্যসহ ছয় জন নিহত হয়েছেন (সর্বশেষ প্রাপ্ত খবরে মৃতের সংখ্যা সাত)। এছাড়া কয়েকজন আহত হয়েছেন। তারা ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচনি ফলাফল ও মালামালসহ উপজেলা সদরে রিটার্নিং কর্মকর্তার দফতরে ফিরছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, নির্বাচন কমিশন জাতীয় দায়িত্বপালনরত ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের ওপর এমন কাপুরুষোচিত বর্বর হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। নির্বাচন কমিশন নিহতদের প্রতি গভীর শোক ও তাদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছে। একইসঙ্গে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এরই মধ্যে নির্বাচন কমিশন আহতদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছে। নির্বাচন কমিশন যেকোনো পরিস্থিতিতে নিহতদের পরিবার ও আহতদের পাশে আছে এবং থাকবে। আরকে//

মালয়েশিয়া যাচ্ছে কোস্ট গার্ডের জাহাজ

বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডের জাহাজ ‘সৈয়দ নজরুল’ মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠেয় ‘লিমা-১৯’ এ অংশ নিতে চট্টগ্রাম ছেড়ে গেছে। সোমবার (১৮ মার্চ) বেলা ১১টায় জাহাজটি চট্টগ্রামের বিসিজি বার্থ ত্যাগ করে। জাহাজের অধিনায়ক ক্যাপ্টেন শেখ মোহাম্মদ জসিমুজ্জামানের নেতৃত্বে ১২ কর্মকর্তা, ১০৬ নাবিক এবং ১১ জন বেসামরিক ব্যক্তি শুভেচ্ছা সফরে গমন করেন। জাহাজ পোতাশ্রয় ত্যাগের প্রাক্কালে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড বাহিনী পূর্ব জোনের জোনাল কমান্ডার ক্যাপ্টেন এম ওয়াসিম মাকসুদসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় জাহাজটিতে কর্মরত অফিসার ও নাবিকদের পরিবারের সদস্যরা স্বজনদের বিদায় জানান। জাহাজটি মালয়েশিয়া ছাড়াও ভারত ও থাইল্যান্ডের দুইটি বন্দরে শুভেচ্ছা সফর শেষে আগামী ৭ এপ্রিল চট্টগ্রাম ফেরার কথা রয়েছে। আরকে//

দেশের বিভিন্নস্থানে বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে

দেশের বিভিন্নস্থানে বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে। সোমবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ কথা জানানো হয়। এতে বলা হয়, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ এবং চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও-কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া সারাদেশে দিনের সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আজ সকাল ৬টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৮০ শতাংশ। সোমবার ঢাকায় সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬ টা ৯ মিনিটে এবং আগামীকাল ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৬ টা ৪ মিনিটে। গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল টেকনাফে ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং আজ দেশের সর্বনিন্ম ১৪ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রাজারহাটে। পরবর্তী ৭২ ঘন্টার আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়েছে, এ সময় বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ বিহার ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। (সূত্রঃ বাসস) কেআই/  

শুদ্ধসুরে জাতীয় সংগীত প্রতিযোগিতার চুড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত

দেশব্যাপী শুদ্ধসুরে জাতীয় সংগীত প্রতিযোগিতার চুড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আয়োজনে ২য় বারের মতো এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় সংগীত চর্চাকে অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে দেশব্যাপী প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে দলগত জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালেয়ের ব্যবস্থাপনায় এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সার্বিক সহযোগিতায় ১৮  মার্চ একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় চুড়ান্ত পর্যায়ের প্রতিযোগিতা। স্কুল, উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্য্যয়ে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রাথমিক,মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে প্রতিটি বিভাগে বিজয়ীদলগুলো জাতীয় পর্যায়ে চুড়ান্ত পর্বে অংশগ্রহণ করেছে। চুড়ান্ত পযায়ের প্রতিযোগিতায় সকাল ৮টা থেকে একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা প্লাজায় রেজিস্ট্রেশন শেষে সকাল ৯টায় একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে অংশগ্রহণ করে ২৪টি দল। দলগুলো যথাক্রমে প্রাথমিক পযায়ে ঢাকা বিভাগের মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুল এন্ড কলেজ, মোহাম্মদপুর, চট্টগ্রাম বিভাগের মেঘলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বান্দরবান,বরিশাল বিভাগের সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বরিশাল, খুলনা বিভাগের কেদারগঞ্জ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সরোজগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খেজুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইসলামপাড়া পৌর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং আলমডাঙ্গা আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ময়মনসিংহ বিভাগের বিদ্যাময়ী সরকারি প্রাথমিক উচ্চ বিদ্যালয়, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন, রাজশাহী বিভাগের রাঙ্গামাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোমস্তাপুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সিলেট বিভাগের স্কলার্স হোম পাঠানটুলা ক্যাম্পাস এবং রংপুর বিভাগের কুড়িগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কুড়িগ্রাম। মাধ্যমিক পযায়ে ঢাকা বিভাগের এস.এফ.এক্স গ্রীনহেরাল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, মোহাম্মদপুর, ঢাকা; চট্টগ্রাম বিভাগের খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, খাগড়াছড়ি; বরিশাল বিভাগের ভান্ডারিয়া বন্দর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ভান্ডারিয়া, পিরোজপুর; খুলনা বিভাগের সরকারি করোনেশন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, খুলনা; ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নেত্রকোণা; রাজশাহী বিভাগের নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নাটোর; সিলেট বিভাগের সরকারি এস.সি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ; এবং রংপুর বিভাগের ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, ঠাকুরগাঁও। উচ্চ মাধ্যমিক পযায়ে ঢাকা বিভাগের উদয়ন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, রমনা, ঢাকা; চট্টগ্রাম বিভাগের মহিলা কলেজ এনায়েত বাজার, চট্টগ্রাম; বরিশাল বিভাগের অমৃত লাল দে মহাবিদ্যালয়, বরিশাল; খুলনা বিভাগের শ্রীপুর সরকারি কলেজ, মাগুরা; ময়মনসিংহ বিভাগের মুমিনুন্নিসা সরকারি মহিলা কলেজ, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজ এবং কৃষি বিদ্যালয় কলেজ, ময়মনসিংহ; রাজশাহী বিভাগের উল্লাপাড়া বিজ্ঞান কলেজ, সিরাজগঞ্জ; সিলেট বিভাগের এম. সি কলেজ, সিলেট এবং রংপুর বিভাগের কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজ, রংপুর। চুড়ান্ত পযায়ের প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন শিল্পী বুলবুল ইসলাম, লিলি ইসলাম, ফাহিম হোসেন চৌধুরী, সাজেদ আকবর এবং সালমা আকবর। প্রতিটি পর্যায়ে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুল এন্ড কলেজ, ঢাকা; দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে কুড়িগ্রাম সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কুড়িগ্রাম; তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে মেঘলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বান্দরবান। মাধ্যমিক পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে সরকারী করোনেশন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, খুলনা; দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে সরকারী এস সি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়, সুনামগঞ্জ; তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চবিদ্যালয়, খাগড়াছড়ি। প্রথম স্থান অর্জন করেছে কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ, রংপুর; দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে মহিলা কলেজ, চট্টগ্রাম; তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে শ্রীপুর সরকারি কলেজ, মাগুরা। দুপুর ২টায় চুড়ান্ত পর্বের ফলাফল ঘোষণা ও সমাপনি অনুষ্ঠানে ফলাফল ঘোষণা করেন একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল এনডিসি ও অতিরিক্ত সচিব মোঃ আব্দুল মান্নান ইলিয়াস এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মো: সাইদুর রহমান। উল্লেখ্য, আগামি ২৬ মার্চ চুড়ান্ত পযায়ে বিজয়ীদেরকে পুরস্কার প্রদান করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কেআই/  

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ঋণ দিলে খেলাপি কমবে: শিল্পমন্ত্রী

বড় বড় ঋণ দিয়ে ঋণ খেলাপি না বাড়িয়ে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ঋণ দেওয়া বাড়াতে হবে এবং তাতে বিদ্যমান খেলাপি ঋণের বোঝা কমবে বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শনিবার সপ্তম জাতীয় এসএমই পণ্য মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার ও শিল্প সচিব আবদুল হালিম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী আরো বলেন, তেলো মাথায় তেল দেওয়া কমিয়ে দিতে হবে এবং সেই টাকা ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের মাঝে সহজ শর্তে দিতে হবে। তাহলে আমাদের দেশে যে ঋণ খেলাপের সমস্যা, সেই সমস্যা কমে যাবে। দেশে অর্থনৈতিক উন্নয়ন হবে। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের ‘হল অব ফেম’-এ শুরু হওয়া এই মেলা ২২ মার্চ পর্যন্ত চলবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা ঘুরে দেখার সুযোগ থাকছে। মেলায় ঢুকতে কোনো প্রবেশ ফি দিতে হবে না। এ বছর সারা দেশে থেকে ২৮০টি এসএমই উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য নিয়ে এই মেলায় অংশগ্রহণ করেছে। উদ্যোক্তাদের মধ্যে ১৮৮ জন নারী এবং ৯২ জন পুরুষ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে এসএমই উদ্যোক্তাদের অবদান ও অংশগ্রহণকে স্বীকৃতি এসএমই ফাউন্ডেশন পুরুষ ও নারী ক্যাটাগরিতে ‘জাতীয় এসএমই উদ্যোক্তা পুরস্কার-২০১৯’ দেওয়া হয়। পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- তাহরিমা বেগম, মো. অলি উল্লাহ, সুমনা সুলতানা সাথী, মহিউদ্দিন, নাজমা খাতুন কুসুম ও আরিফা ইয়াসমিন ময়ূরী। আরকে//

পাট হবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির নতুন চালিকাশক্তি

দেশের তৈরি পোশাক শিল্পের পর সবচেয়ে সম্ভাবনাময় খাত পাট ও পাটজাত পণ্য। তাই এ খাতের উন্নয়নে দরকার যুগোপযোগী নীতিমালা প্রণয়ন, নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানোর পাশাপাশি বহুমুখীকরণ অত্যন্ত জরুরি। এটি নিশ্চিত করতে পারলে পাটই হবে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির নতুন চালিকাশক্তি। সোমবার রাজধানীর মতিঝিলে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) উদ্যোগে আয়োজিত ‘পাট শিল্পের উন্নয়নে এর বহুমুখীকরণ : সম্ভাবনা ও প্রতিবন্ধকতা’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। সেমিনারে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক) প্রধান অতিথি এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টারের (পিপিআরসি) নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. হোসেন জিল্লুর রহমান বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা চেম্বারের সভাপতি ওসামা তাসীর। গোলাম দস্তগীর বলেন, বিশ্বব্যাপী প্লাস্টিক পণ্য বর্জনের ফলে আমাদের পাট ও পাটজাত পণ্যের চাহিদার নতুন দিগন্ত সূচনা হয়েছে। এ সুযোগকে কাজে লাগাতে হবে। তিনি বলেন, পাটের বীজ উৎপাদনে স্বনির্ভরতা অর্জন এবং পাটপণ্যের বহুমুখীকরণে গবেষণার কোনো বিকল্প নেই। এ জন্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ প্রদানে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালানো হবে। স্থানীয় বাজারে পাটপণ্যের চাহিদা বাড়ানো এবং সে অনুযায়ী উৎপাদন কার্যক্রম চালানো জন্য উদ্যোক্তাদের প্রতি আহবান জানান মন্ত্রী। স্বাগত বক্তব্যে ওসামা তাসীর বলেন, পৃথিবীর প্রায় ৬০টি দেশে বাংলাদেশে উৎপাদিত পাট ও পাটজাত পণ্য ব্যবহৃত হচ্ছে এবং এ ধরনের পণ্য রফতানি করে বাংলাদেশ প্রতিবছর এক বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বৈদেশিক মুদ্রা আয় করে থাকে। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশী পাট ও পাটপণ্যের বাজার সম্প্রসারণের জন্য এর বহুমুখীকরণ অত্যন্ত অপরিহার্য। পাট খাতের আধুনিকায়নে নতুন নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার ও চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সুফল কিভাবে এ খাতে ব্যবহার করা যায়, তার ওপর গুরুত্বারোপের আহ্বান জানান তিনি। তিনি জানান, বর্তমানে আমাদের দেশের উদ্যোক্তারা প্রায় ২৩৫ ধরনের পাটপণ্য উৎপাদন করেন এবং প্রায় ৫ মিলিয়ন লোক প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে পাট খাতের সঙ্গে সম্পৃক্ত। পাট খাতের পুনরুত্থান এবং পাট হতে কাগজ প্রস্তুুতকে উৎসাহিত করার জন্য জুট পাল্প অ্যান্ড পেপার অ্যাক্ট প্রণয়নের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। ড. হোসেন জিল্লুর রহমান বলেন, এ উপমহাদেশে পাটের মাধ্যমেই কৃষিপণ্যের বাণিজ্যিকীকরণ করা হয়েছে। কাল পরিক্রমায় পাট আমাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির নতুন চালিকা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। তিনি বলেন, পাটপণ্য শতভাগ মূল্য সংযোজনের পাশাপাশি কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে থাকে। তিনি বৈশ্বিক বাজারে বাংলাদেশি পাটপণ্যের সম্প্রসারণের জন্য ইতিবাচক ব্র্যান্ডিং পরিচালনার ওপর জোর দেন। তিনি এ খাতের উন্নয়নের লক্ষ্যে অতিদ্রুত পাটপণ্যের বহুমুখীকরণ, জুট পেপার অ্যাক্ট, বৈশ্বিক বাজার বিশ্লেষণ এবং পাটকল পরিচালনার ওপর গুরুত্বারোপ করা প্রয়োজন বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। মূল প্রবন্ধে ডিসিসিআই পরিচালক মো. রাশেদুল করিম মুন্না বলেন, বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী সারাবিশ্বে পাটপণ্যের ব্যবহার বৃদ্ধির ফলে পাটের উৎপাদন প্রায় ২ থেকে ৩ শতাংশ বেড়েছে। তাই এ খাত উন্নয়নে দেশের পাটখাতের উন্নয়নে গবেষণা পরিচালনা, বিনিয়োগ সহায়ক নীতিমালা প্রণয়ন, মানব সম্পদের দক্ষতা বৃদ্ধি, বিশেষায়িত পাটকল স্থাপন, বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের উৎপাদিত পাটপণ্যের ব্র্যান্ডিং বাড়ানো এবং জুট পেপার অ্যাক্ট প্রণয়নের আহ্বান জানান তিনি। অনুষ্ঠানে ডিসিসিআই পরিচালক এনামুল হক পাটোয়ারী, হোসেন এ সিকদার, কে এম এন মঞ্জুরুল হক, ইঞ্জিয়ার মো. আল আমিনসহ এ খাতের উদ্যোক্তা ও সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। আরকে//

ব্র্যাক ব্যাংকের এসএমই রিফাইন্যান্সিং স্কিম মতবিনিময়

ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড ও বাংলাদেশ ব্যাংক যৌথভাবে ‘স্মল অ্যান্ড মিডিয়াম সাইজড এন্টারপ্রাইজ ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম-২ (এসএমইডিপি২)’ শীর্ষক মত বিনিময় সভার আয়োজন করে। ২৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের এই রিফাইন্যান্সিং প্রকল্পের অধীনে ব্র্যাক ব্যাংক একটি উল্লেখযোগ্য অংশীদারী আর্থিক প্রতিষ্ঠান (পিএফআই)। ২ মার্চ ঢাকায় ব্র্যাক ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজেক্ট অফিসার ও ডেপুটি ডিরেক্টর আনদুল্লাহ আল মাসুদ, প্রজেক্ট জয়েন্ট ডিরেক্টর তরিকুল ইসলাম, ডেপুটি প্রজেক্ট ডিরেক্টর ও ডিজিএম মো. রেজাউল করিম সরকার ব্র্যাক ব্যাংকের কর্মীদের জন্য সেশনগুলো পরিচালনা করেন। কেআই/

রবি গ্রাহকদের জন্য মায়া’র ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা

গ্রাহকদের জন্য সম্প্রতি মায়া’র ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা চালু করেছে রবি। এ সেবার আওতায় গ্রাহকদের সমস্যা বা প্রশ্ন অনুযায়ী চিকিৎসক, থেরাপিস্ট ও লাইফস্টাইল বিশেষজ্ঞের পরামর্শ প্রদান করে মায়া। মোবাইল অ্যাপ, এসএমএস ও ওয়াপের (http://m.maya.com.bd/mayavas মাধ্যমে মায়া’র সেবা নিতে পারবেন গ্রাহকরা। এসএমএসের মাধ্যমে এই সুবিধা পেতে Start<space>Maya লিখে ২৩৩৩৩ নাম্বারে পাঠাতে হবে।গুগল প্লে স্টোর থেকে মায়া অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন গ্রাহকরা। রবির সকল গ্রাহকরা এই সেবাটি গ্রহণ করতে পারবেন। দৈনিক ২ টাকায় (সম্পূরক শুল্ক, ভ্যাট ও সারচার্জ ছাড়া) এসএমএস, ওয়াপ ও অ্যাপের মাধ্যমে বিভিন্ন ফিচার উপভোগ করতে পারবেন নিবন্ধিত গ্রাহকরা। অন-ডিমান্ড সার্ভিস ফিচারটি শুধু মায়া অ্যাপে পাওয়া যাবে (ওয়াপে নয়)। রবির যেকোন গ্রাহক মায়া অ্যাপটি ডাউনলোডের মাধ্যমে অন ডিমান্ড ফিচারটি পেতে পারেন। সম্পূরক শুল্ক, ভ্যাট ও সারচার্জ ছাড়া সপ্তাহে ৩৯ টাকায় এই সেবাটি পাবেন গ্রাহকরা। অন-ডিমান্ড সেবার আওতায় গ্রাহকরা সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত স্বাস্থ্য বিষয়ক যেকোন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতে পারবেন। ৯০ মিনিটের মধ্যে প্রথম দুটি প্রশ্নের উত্তর পাবেন গ্রাহকরা। আরো প্রশ্ন থাকলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে তার উত্তর দেয়া হবে। গ্রাহকরা নিজের কণ্ঠে তাদের প্রশ্ন পাঠাতে পারবেন। নির্দিষ্ট বিষয়ের ওপর নির্দিষ্ট বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিয়ে থাকেন। মায়া কমিউনিটির আওতায় থাকা গ্রাহকরা তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী বিশেষজ্ঞদের সাথে যুক্ত হওয়ার সুযোগ পান। তাই অনেকের জন্যই নির্ভরযোগ্য স্বাস্থ্য তথ্যের উৎস্য হয়ে উঠেছে মায়া। কেআই/

নেদারল্যান্ডসে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ৩, আহত ৯

নেদারল্যান্ডের উট্রাখ শহরে একটি যাত্রীবাহী ট্রামে বন্দুকধারীর হামলায় অন্তত তিনজন নিহত এবং ৯ জন আহত হয়েছেন। এক ভিডিও বার্তায় নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন উট্রাখ শহরের মেয়র জ্যান ভ্যান। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, গুলিবর্ষণের পর হামলাকারী একটি গাড়িতে করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে। হামলার ঘটনাটি শুরু হয় অক্তোবেরপ্লেইন জংশনের কাছে স্থানীয় সময় সকাল পৌনে দশটার দিকে। ঘটনাস্থলটি উট্রাখ শহরের পশ্চিম দিকে অবস্থিত। পুলিশ এলাকাটি ঘিরে রেখেছে। জরুরি সেবার গাড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। পুলিশ স্থানীয়দের ঘটনাস্থলে থেকে দূরে থাকার আদেশ দিয়েছে। ঘটনাস্থলের আকাশে হেলিকপ্টার উড়তে দেখা গেছে। শহরটির মেয়র তিনজনের নিহত হওয়ার ও ৯ জনের আহত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছেন। স্থানীয় স্কুলগুলোকে দরজা বন্ধ করে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। পুলিশ কর্মকর্তারা বলেছেন, তারা জঙ্গি হামলার কথা মাথায় রেখে তদন্ত শুরু করেছেন। নেদারল্যান্ডের জঙ্গিবাদ দমন বিভাগের সমন্বয়ক স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে ‘ক্রাইসিস টিম’ গঠন করে দিয়েছেন। উট্রাখের ইউনিভার্সিটি মেডিক্যাল সেন্টারকে জরুরি বিভাগ ব্যবহার করতে দেওয়ার আদেশ দেওয়া হয়েছে। নেদারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটে বলেছেন, তিনি এ ঘটনায় গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। পূর্বনির্ধারিত একটি কর্মসূচিও বাতিল করে দিয়েছেন তিনি। আরকে//

ফেনীতে দুই নারী মাদক ব্যবসায়ীর কারাদণ্ড

ফেনীতে মোসাম্মাৎ জোসনা (৫৩) ও মনোয়ারা বেগম (৪৯) নামের দুই মাদক ব্যবসায়ী নারীকে ২ বছর করে বিনাশ্রম কারাদন্ড, ২ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ১ মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। সোমবার ফেনী যুগ্ম জেলা ও দায়রা জর্জ অসীম কুমার দে’র আদালতে এ রায় ঘোষণা করা হয়। আদালতের ব্যাঞ্চ সহকারী মো. আমিনুল্লাহ জানায়, ২০০৬ সালের ২৩ জুলাই সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পশ্চিম পদুয়া দোলা মিয়া রাস্তার মাথায় অভিযান চালায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। এ সময় ১৫ বোতল ফেনসিডিলসহ জোসনা ও মনোয়ারাকে আটক করা হয়। পরে ওই ঘটনায় এএসআই বাহাউদ্দিন বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলায় ৩ জন স্বাক্ষীর জবানবন্দী শেষে ঘটনাটি সন্দেহাতিতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আইনগত সকল প্রক্রিয়া শেষে দুই আসামীকে ২ বছর করে বিনাশ্রমে কারাদন্ড, ২ হাজার টাকা জরিমানা,অনাদায়ে আরও ১ মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। আদালতের এপিপি এএসএম শহীদুল্লাহ জানান, জামিনের পর থেকে আসামীরা পলাতক রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিজ্ঞ আদালত জোসনা ও মনোয়ারাকে সাজা প্রদান করেন। কেআই/

গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত ৫

রাঙ্গামাটির সীমান্তবর্তী এলাকা সাজেক থেকে নির্বাচন শেষে ফেরার পথে সন্ত্রাসীদের গুলিতে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও সাত-আটজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। নিহতরা হলেন প্রিসাইডিং অফিসার শিজক কলেজের শিক্ষক আব্দুল হান্নান, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ভিডিপি সদস্য মো. আল-আমিন, ভিডিপি বিলকিস, ভিডিপি মিহির কান্তি দত্ত ও কিশালয় প্রাথমিক সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. আমির হোসেন। নিহত ও আহতরা সবাই কংলাক, মাচালং ও বাঘাইহাট এলাকায় নির্বাচনের দায়িত্বে ছিলেন। পুলিশ জানায়, উপজেলার ৯ কিলোমিটার এলাকায় নির্বাচন কর্মকর্তারা ভোটগ্রহণ শেষে উপজেলা সদরে আসার পথে সন্ত্রাসীরা গুলি চালালে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সবাইকে বাঘাইছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে। বাঘাইছড়ি থানা পুলিশের ওসি মঞ্জুর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা ঘটনা জানার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি এবং সবাইকে উদ্ধার করে বাঘাইছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হচ্ছে। উল্লেখ্য, ইউপিডিএফ সমর্থিত প্রার্থী বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বড়ঋষি চাকমা সকালে ভোটগ্রহণ শুরুর এক ঘণ্টা পর নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। আরকে//

বাগেরহাটে ৫‘শ পিচ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

বাগেরহাটে ৫’শ পিচ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী শামীম চৌধুরী ওরফে শামীমকে (৩১) আটক করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে বাগেরহাট শহরতলীর সিংড়াই উত্তর পাড়া এলাকা থেকে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সদস্যরা তাকে আটক করে। আটক শমীম বরগুনা জেলার বাসিন্দা। তার পিতার নাম রিপন চৌধুরী। বাগেরহাট মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক কাজী মো. কামরুজ্জামান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিংড়াই উত্তর পাড়ার একটি ভাড়া বাড়িতে অভিযান চালিয়ে শামীম চৌধুরী ওরফে শামীমকে (৩১) আটক করা হয়। এ সময় তার বাসায় তল্লাসী চালিয়ে ৫‘শ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তিনি আরও বলেন, আটক শামীম একজন পেশাদার মাদক বিক্রেতা। সে ঢাকা থেকে পাইকারী ইয়াবা এনে বাগেরহাটসহ দক্ষিণাঞ্চলে সরবরাহ করত। এর আগেও একাধিক বার তাকে আটকের চেষ্টা করা হলেও সুকৌশলে শামীম পালিয়ে যায়। সে বাগেরহাট শহরের বিভিন্নস্থানে বাসা ভাড়া নিয়ে দীর্ঘদিন মাদক ব্যবসা করে আসছে। তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দিয়ে তাকে বাগেরহাট মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। কেআই/

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ইসলামী ব্যাংকের পুষ্পস্তবক অর্পণ

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে (১৭ মার্চ) রোববার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড। ব্যাংকের রিস্ক ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব:) ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল মতিন এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) মুহাম্মদ মুনিরুল মওলা এর নেতৃত্বে ব্যাংকের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় ব্যাংকের পরিচালক প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল আলম, হেলাল আহমদ চৌধুরী, মো. সাইফুল ইসলাম, এফসিএ, এফসিএমএ, মো. জয়নাল আবেদীন, সৈয়দ আবু আসাদ ও মো. কামরুল হাসান, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মু. শামসুজ্জামান, ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মোহাম্মদ আলী, আবু রেজা মো. ইয়াহিয়া এবং তাহের আহমেদ চৌধুরীসহ  ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন নির্বাহী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। কেআই/

নিউ জিল্যান্ড ভ্রমণে সতর্কতা জারি

নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশি নাগরিকদের ভ্রমণের বিষয়ে ট্রাভেল অ্যালার্ট বা ভ্রমণ সতর্কতা জারি করেছে বাংলাদেশ। দেশটিতে যারা ভ্রমণের উদ্দেশ্যে যেতে চাইছেন তাদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে এই সতর্কতা নোটিশ জারি করা হয়েছে। সোমবার (১৮ মার্চ) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন এই তথ্য জানান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সেখানে সাম্প্রতিক নৃশংস হামলার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা বাংলাদেশিদের সেখানে ভ্রমণের ব্যাপারে সতর্ক করছি। সেখানকার সর্বশেষ পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, দেশটির দুটি মসজিদে বন্দুকধারীর গুলিতে পাঁচজন বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। এছাড়াও তিনজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। এছাড়াও এক বাংলাদেশি এখনও নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজ বাংলাদেশি কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একজন ভারতীয় সেখানে দাবি করেছে, শাওন নামে একজন বাংলাদেশি নিখোঁজ আছে। তিনি বলেন, আজ মন্ত্রিসভা বৈঠকে মন্ত্রিসভার শুরুতে নিউ জিল্যান্ডে ৫ বাংলাদেশিসহ ৫০ জন নিহতের ঘটনায় বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করা হয়েছে। এ ধরনের একটি জঘন্য হামলার ঘটনায় নিন্দা এবং নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়েছে। এছাড়াও এই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ সরকারের কাছে সমবেদনা জানানো হয়েছে। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোও আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করে এই নৃশংস ঘটনায় পাঁচ জন বাংলাদেশি নিহত হওয়ার জন্য সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। এ সময় দুই প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব সম্প্রদায়কে নিয়ে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে একযোগে কাজ করার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন। উল্লেখ্য, গত ১৫ মার্চ (শুক্রবার) নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল-নূর মসজিদ ও লিনউডের আরেকটি মসজিদে একজন বন্দুকধারী ঢুকে গুলি করে নামাজের প্রস্তুতিরত মুসল্লিদের গুলি করে হত্যা করে। নিউ জিল্যান্ডের ইতিহাসের সবচেয়ে নৃশংস এই সন্ত্রাসী হামলায় ৫০ মুসল্লি নিহত এবং আরও ৫০ জন আহত হন। হামলাকারী ব্রেন্টন ট্যারান্টকে পরে পুলিশ গ্রেফতার করে। ২৮ বছর বয়সী এই অস্ট্রেলীয় নাগরিক স্বঘোষিত শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদী, সে ওই হামলার দৃশ্য সরাসরি ফেসবুকে সম্প্রচারও করে। এই হামলার ১৫ মিনিট আগে সে নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে ই-মেইল করে হামলার জন্য যাচ্ছে বলেও জানায়। তার এই নৃশংস ভিডিও পরে সরিয়ে নিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। আরকে//

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট টূর্ণামেন্ট-২০১৯ অনুষ্ঠিত

প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট টূর্ণামেন্ট ২০১৯ এর ফাইনাল ম্যাচ ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্প্রতি লালমাটিয়া হাউজিং সোসাইটি স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে  অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী রাহেল আহমেদ। এ সময় ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাবিবুর রহমান, উপব্যবস্থাপনা পরিচালক-মো. তৌহিদুল আলম খান ও মো. হাবিবুর রহমান চৌধুরীসহ ব্যাংকের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট টূর্ণামেন্ট ২০১৯ এ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে –‘পিচ্ বার্নার্স’ ও রানার্সআপ হয়েছে ‘থান্ডারবোল্ট’। এবার প্রাইম ব্যাংকের বিভিন্ন বিভাগ ও ডিপার্টমেন্টের সমন্বয়ে ১২টি দল অংশগ্রহণ করে। প্রাইম ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় ও বিভিন্ন শাখার কর্মকর্তাসহ বিপুল সংখ্যক দর্শক ফাইনাল ম্যাচটি উপভোগ করেন। কেআই/

চাঁদা না দেওয়ায় লেগুনা চালকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা

আশুলিয়ায় চাঁদার টাকা না দেওয়ায় ৬ লেগুনা চালকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এসময় গাড়িগুলোতে ভাংচুর চালিয়ে চালকদের সঙ্গে থাকা নগদ টাকা ও মুঠোফোনও ছিনিয়ে নেয় সন্ত্রাসীরা। সোমবার আশুলিয়ার চারাবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। আহত লেগুনা চালকরা হলো, রবিউল ইসলাম (১৮), রানা  (১৯), মো. নয়ন (৩৫), ফরিদ উদ্দিন (৩৫) ও বাবুলসহ আরও একজন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সাভারের উলাইল থেকে আশুলিয়া বাজার পর্যন্ত প্রতিদিন প্রায় অর্ধশতাধিক লেগুনা চলাচল করে। এসব লেগুনা প্রতি ৫০টাকা করে চাঁদা দাবি করে চারাবাগ এলাকার সন্ত্রাসী শফিক মৃধা। তবে লেগুনা চালকরা চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে শফিক মৃধার নেতৃত্বে একদল অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী লেগুনা চালকদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তারা চালকদেরকে বেধরক পেটায় এবং তাদের সাথে থাকা নগদ টাকা ও মুঠোফোন ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় স্থানীয়রা একজোট হয়ে সন্ত্রাসীদের ধাওয়া করলে তারা ঘটনাস্থল থেকে দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে আহত পরিবহন চালকদেরকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত শফিক মৃধার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাবেদ মাসুদ বলেন,সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এ খবর লেখা পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি বলেও থানা সুত্রে জানা যায়। কেআই/

ঢাকার ৯৩ শতাংশ ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ

বাংলাদেশের জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বলছে, ঢাকার ৯৩ শতাংশ ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিক্রি করা হয়। তবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর বলছে এটি `বাস্তবতা বিবর্জিত` তথ্য। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বলছে, গত ছয় মাসে সংস্থার নিয়মিত বাজার অভিযানে যেসব ফার্মেসি বা ঔষধ বিক্রির দোকান পরিদর্শন করা হয়েছে তাতে ৯৩ শতাংশ ফার্মেসিতেই তারা মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পেয়েছেন। অধিদফতরের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বিবিসি বাংলাকে বলেন, তিনি নিজেসহ কয়েকজন কর্মকর্তা মনিটরিং টিমগুলোর নেতৃত্ব দিয়েছেন। প্রতিদিন আমাদের তিনটি টিম বাজার পরিদর্শনে গিয়েছি। গত ছয় মাসের চিত্র এটি যে যেসব এলাকায় আমরা কাজ করেছি বিশেষ করে ফার্মেসিগুলোকে সেখানে প্রায় প্রতিটিতেই কিছু না কিছু মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ আমরা পেয়েছি। আর এটি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। মিস্টার শাহরিয়ার বলেন, বিষয়টি নিয়ে তারা এখন ঔষধ ব্যবসায়ী অর্থাৎ ফার্মেসি মালিকদের সাথে কাজ করার উদ্যোগ নিয়েছেন। আসলে বিষয়টি বোঝানো গেলে এ সমস্যা প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে। অনেক জায়গাতেই মালিকরা সহায়তা করছেন। থানা ও জেলা পর্যায়েও কর্মকর্তাদের ব্যবসায়ী বা মালিকদের সাথে সরাসরি কাজ করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের হিসেবে, দেশে ফার্মেসির সংখ্যা এক লাখ ২৪ হাজারের মতো। তবে এসব লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠানের বাইরেও ব্যক্তি উদ্যোগে পরিচালিত হয় কয়েক হাজার ফার্মেসি। সাধারণত ফার্মেসীকে লাইসেন্স দেয়া বা কোনো অনিয়ম পেলে লাইসেন্স বাতিলের ক্ষমতা আছে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের। মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলছেন, অভিযানের সময় মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়া গেলে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কারাদণ্ড দেয়া ছাড়া আর সব পদক্ষেপই নিতে পারেন। সব ধরণের জরিমানা ছাড়াও প্রয়োজনে লাইসেন্স বাতিলের জন্য আমরা (ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর) সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ (ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর)কে বলতে পারি আইন অনুযায়ী। সাম্প্রতিক সময়ে একটি ফার্মেসী আমরা তাৎক্ষনিক বন্ধও করে দিয়েছি। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ৫ই মার্চ তারা শাহজাহানপুর ও ধানমন্ডিতে দুটি ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পেয়ে জরিমানা করেছেন ৫০ হাজার টাকা করে। বনানীতে একটি ফার্মেসিকেও জরিমানা করা হয়েছে গত ১১ই মার্চ। আবার ১২ই মার্চ ক্ষিলক্ষেতের একটি ফার্মেসি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এর বাইরেও শ্যামলী,মুগদাসহ আরও কয়েকটি এলাকায় নিয়মিত অভিযানে বেশ কিছু ফার্মেসিকে জরিমানা করা হয়েছে। মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলছেন, "এমনও হয়েছে যে একটি ফার্মেসিতে ঢুকেই ঔষধ রাখার বাক্সে হাত দিয়েই পেয়েছি মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ। কিন্তু তাদের সেটি নিয়ে কোনো বোধোদয়ই নেই। আমরা এখন তাদের বোঝানোরও চেষ্টা করছি যে এটি ভয়াবহ অন্যায় ও অসৎ চর্চা। সাধারণত ফার্মেসীকে ব্যবসার লাইসেন্স দেয়া বা কোনো অনিয়ম পেলে লাইসেন্স বাতিলের ক্ষমতা আছে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের।ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর যা বলছেসাধারণত ফার্মেসিকে ব্যবসার লাইসেন্স দেয়া বা কোনো অনিয়ম পেলে লাইসেন্স বাতিলের ক্ষমতা আছে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের। অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মুস্তাফিজুর রহমান বিবিসি বাংলাকে বলছেন, যে ফার্মেসিতে বড় সমস্যা হলো ফার্মাসিস্ট রাখা হয়না। তবে পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেক উন্নত হয়েছে। ব্যবসায়ীরাও আমাদের সহায়তা করছেন। তিনি বলেন, "ভোক্তা অধিকার থেকে যে তথ্য এসেছে সেটি বাস্তবতা বিবর্জিত। কিছু দোকানে এমন অনিয়ম হতে পারে সেটি ২/৩ শতাংশের বেশি হবেনা।" "নিয়মিত বাজার তদারকি করা হচ্ছে। স্টোর ম্যানেজমেন্ট বিশেষ করে কোনো ধরণের ঔষধ কিভাবে রাখতে হবে।" তিনি জানান: "আবার কোনো ঔষধের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে কোম্পানি সেগুলো বদলে নতুন ঔষধ দেবে-এটিও নিশ্চিত করা হয়েছে"। মি. রহমান বলেন, বাজারে এখন ৪০/৪৫ হাজার ঔষধের আইটেম আছে এবং বাজারে গিয়ে দশটি ঔষধ চাইলে সেখানে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ পাওয়া কঠিনই হবে। "তবে রেগুলার ফার্মাসিস্ট রাখা, মেডিসিন শপের কার্যক্রম নিয়ে আমরা প্রতিনিয়ত আলোচনা করছি। কাউন্সেলিং করানো হচ্ছে।" তিনি দাবি করেন, "এসব কিছু নিয়ে এখন ফার্মেসিগুলোতে আমরা নিয়মিত অনেক সময় দিচ্ছি। ফলে পরিস্থিতির অনেক উন্নত হয়েছে।" স্যাম্পল ঔষধ আর আন-রেজিস্টার্ড ঔষধঅধিদফতরের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলছেন, বাজারে নতুন উদ্বেগ হিসেবে দেখা দিয়েছে স্যাম্পল হিসেবে দেয়া ঔষধগুলো দোকানে চলে আসা। "বিভিন্ন কোম্পানি তাদের উৎপাদিত ঔষধ চিকিৎসকদের দিয়ে থাকেন। এগুলোতে অনেক সময় মেয়াদ উল্লেখই থাকেনা।" "কিভাবে যেনো এসব ঔষধ ফার্মেসিতে চলে আসছে। যেগুলো বিক্রেতারা গছিয়ে দিচ্ছেন ক্রেতাকে।" ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মুস্তাফিজুর রহমান বলছেন, এটি অনৈতিক যদি কেউ ইচ্ছে করে স্যাম্পল ঔষধ রাখেন ও বিক্রি করেন। তিনি বলেন, বাজারে ঔষধের ক্ষেত্রে আরেকটি সমস্যা হলো আন-রেজিস্টার্ড ঔষধ। "সাধারণত চোরাইপথে বা লাগেজে করে অনেক ঔষধ এনে বাজারে বিক্রি করেন কম দামে। এগুলোতে মেয়াদ সম্পর্কিত তথ্যই থাকেনা। কারণ এগুলো বৈধ পথে আসেনা। এগুলো কোনো কোনো ক্ষেত্রে বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে। তবে ব্যবসায়ীরা ক্রমশ এসব বিষয়ে সচেতন হচ্ছেন। আর আমরা কাউন্সেলিং করাচ্ছি প্রতিনিয়ত"। মডেল ফার্মেসিঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মি. রহমান বলছেন, নির্ভেজাল ঔষধ বিক্রি নিশ্চিত করতে তারা মডেল ফার্মেসি করছেন বিভিন্ন এলাকায়। ঢাকাসহ সারাদেশে পর্যায়ক্রমে দু`হাজারের বেশি মডেল ফার্মেসি হবে এবং প্রয়োজনে এ সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি। তিনি বলছেন ফার্মাসিস্ট রাখা, ক্রেতাদের ঔষধ ভালো করে বুঝিয়ে দেয়া, যথাযথভাবে ঔষধ সংরক্ষণসহ ক্রেতা স্বার্থ সংরক্ষণের জন্যই মডেল ফার্মেসি হচ্ছে। যেগুলোতে ব্যবসায়ীরা নির্বিঘ্নে কাজ করতে পারবেন। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন দুটি ক্যাটাগরির মডেল ফার্মেসি হচ্ছে যার একটি হচ্ছে ঢাকা বা বড় শহরগুলোতে আর অন্য ক্যাটাগরির ফার্মেসি হবে থানা ও জেলা পর্যায়ে। আরকে//

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে চট্টগ্রাম সমিতি-ঢাকা`র চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস পালন করেছে চট্টগ্রাম সমিতি-ঢাকা’। এই উপলক্ষে (১৭ মার্চ) রোববার সকাল ৯টা থেকে রাজধানীর ৩২ তোপখানা রোডের চট্টগ্রাম ভবনে শিশু কিশোরদের জন্য চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে। এতে প্রায় দুই শতাধিক প্রতিযোগী ও তাদের অভিভাবকদের উপস্থিতিতে পুরো ভবন মুখরিত হয়ে ওঠে। অনুষ্ঠান হল সাজানো হয়েছে রঙ-বেরঙয়ের বেলুন দিয়ে। ছবি এঁকে শিশুরা পেয়েছে পুরস্কার। অংশগ্রহণকারী সকল প্রতিযোগিকেই দেওয়া হয়েছে বিশেষ পুরস্কার, নানান উপহার এবং বেঙ্গল বিস্কুটের সৌজন্যে বেঙ্গল বিস্কুট। সাবেক নির্বাচন কমিশনার ও চট্টগ্রাম সমিতি-ঢাকা’র সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল মোবারকের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা অনুষদের ছাপচিত্র বিভাগের অধ্যাপক শিল্পী আবুল বারক্ আলভী এবং প্রধান বিচারক হিসেবে চট্টগ্রাম চারুকলা ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা-অধ্যক্ষ ও টইটম্বুরের উপদেষ্টা শিল্পী সবিহ্-উল আলম উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সমিতির মহিলা ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার সদস্য-সচিব এডভোকেট আনিচ উল মাওয়া (আরজু) এবং জীবন সদস্য ও বিশিষ্ট আর্টিস্ট কল্লোল বড়ুয়া। প্রধান অতিথিকে ক্রেস্ট প্রদান ও প্রধান বিচারককে ফুল দিয়ে বরণ করেন সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল মোবারক এবং অন্যান্য বিচারকবৃন্দকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান সমিতির সহসভাপতি ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আহবায়ক নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল মাবুদ। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল মাবুদ বলেন, ‘জাতীয় শিশু দিবসে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা সকল শিশু-কিশোরদের উন্মুক্ত ও তাদের মেধা বিকাশের একটি প্লাটফরম। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জন্ম দিনের কেক কাটা হয় এবং আজকে যাদের জন্মদিন তাদেরও জন্মদিনের উৎসব পালন করা হয়। আজকে যাঁরা এই চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে আয়োজনকে সুন্দর ও সার্থক করে তুলেছে এবং যাঁরা এর আয়োজনে সহযোগিতা করেছেন তাঁদের, অভিভাবক ও জীবন সদস্যসহ উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।’ শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন প্রতিযোগিতার আহবায়ক ও নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু একটি মহান আদর্শের নাম। তাঁর জন্ম না হলে বাংলাদেশ সৃষ্টি হতো না। আমরা স্বাধীনতা পেতাম না। তাঁর জন্মদিনে এই প্রতিযোগিতা আয়োজনে গর্ববোধ করি। প্রধান বিচারক বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী সবিহ্ উল আলম বলেন- ‘শিশুরা হচ্ছে ফুলের মত, ছবি আঁকার মাধ্যমে শিশুরা তাদের মনের বিকাশ ও সৃজনশীলতা ফুটিয়ে তোলে। তিনি উপমা দেন যে, কোনো বস্তু প্রারম্ভিক সময়ে আঘাত পেলে পরবর্তী সময়ে তা ধীরে ধীরে নষ্ট হয়ে এক জায়গায় স্থির হয়,অকেজো হয়ে যায়; তেমনি শিশুর মনকে যদি আঘাত করা হয় বা বিকশিত হতে না দেয়া হয় তাহলে একটা সময় পর তার আর কিছুই হবে না। আমি মনে করি, চিত্রাঙ্কনই শিশুকে বিকশিত ও সৃজনশীল করে তুলবে।’ প্রধান অতিথি শিল্পী আবুল বারক্ আলভী তাঁর সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন,‘প্রিয় শিশু-কিশোর সোনামণিারা, আজ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে তোমরা তাঁর মতো বড় হও।`  সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল মোবারক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় উপস্থিত শিশু-কিশোর ও অভিাভবকদের উদ্দেশে বলেন, ‘চিত্রাঙ্কন এমন একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য যার মাধ্যমে আপনি পৃথিবীর বুকে অমরত্ব লাভ করতে পারবেন। এই পৃথিবীতে এমন কিছু কিছু লোক আছে যাঁরা শ্রেষ্ঠত্ব ও অমরত্ব লাভ করেছেন। যেমন- লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চি বিখ্যাত চিত্রকর। তেমনি কণ্ঠশিল্পী হয়েও পৃথিবীতে অমর যায়। তাই চিত্রাঙ্কন কোনো ফালতু জিনিস নয়। এটিও বড় হওয়ার একটি সোপান।” তিনি আজকের অনুষ্ঠানে কষ্ট স্বীকার করে আসার জন্য সকলে প্রতি ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সভাপতি আবু আলম চৌধুরী, রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক, মো. আবদুল করিম, উপদেষ্টা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান ড. দীপক কান্তি চৌধুরী, হাসপাতাল কমিটির সদস্য-সচিব মো. মহিউল ইসলাম মহিম, নির্বাহী পরিষদের সহ-সভাপতি জয়নুল আবেদিন জামাল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম. সাইফুদ্দিন আহমদ (বাবুল), শফিকুর রহমান শফিক, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ফরিদুল আলম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এম. ওয়াহিদ উল্লাহ, স্বাস্থ্য ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো. মামুনুর রশীদ রাসেল, নির্বাহী সদস্য মো. শাহাদাত হোসেন চৌধুরী (হিরো), মোহাম্মদ মনসুর আলী চৌধুরী, মো. কামাল হোসেন তালুকদার, আহমদ মমতাজ, মোস্তফা ইকবাল চৌধুরী (মুকুল), মো. গিয়াস উদ্দীন চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দসহ সমিতির উল্লেখযোগ্য জীবন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। কেআই/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি