ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২২:০৭:৩৪

রাজশাহীতে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে টাকা ছিনতাই

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তাহেরপুরে পাট ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে পাঁচ লাখ টাকা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। ছিনতাইকারীর হামলায় আহত পাট ব্যবসায়ীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে তাহেরপুর পৌরসভার চকিরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত পাট ব্যবসায়ীর নাম ইউসুব আলী। তার বাড়ি তাহেরপুর পৌরসভার চকিরপাড়া এলাকায়। তাহেরপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ লুৎফর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনার পর তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়। তার মাথা ও শরিরে তিনটি ধরারো অস্ত্র ও লোহার রডের আঘাত রয়েছে। তদন্ত করে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের সনাক্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। ইউসুব আলীর শ্যালক সোহেল রানা জানান, শুক্রবার তাহেরপুর হাট বার। ভোর থেকেই তাহেরপুর হাটে পাট কেনাবেচা হয়। সে কারণে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে পাট কেনার জন্য একটি ব্যগে টাকা নিয়ে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। প্রতি হাট বারে তিনি একই সময় একই রাস্তা দিয়ে হেটে হাটে যান। সোহেল রানা আরও বলেন, বাড়ি থেকে একাই বের হয়ে প্রায় ১০০ গজের মত হেটে যান ইউসুব আলী। সেখানে একটি পুকুর পাড়ে ৩/৪ জন দুর্বৃত্ত তাকে পিছন থেকে প্রথমে লোহার রড দিয়ে আঘাত করে। এর পর চাইনিজ কুড়াল দিয়ে দুইটি কোপ দেয়। এতে সে পড়ে গেলে দুর্বৃত্তরা তার টাকা ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন গিয়ে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে খবর দেয় বলে জানান সোহেল। বাগমারা থানার ওসি নাছিম আহমেদ বলেন, ছিনতাইকারীদের সনাক্ত করতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে। দ্রুত তাদের ধরে আইনের আওতায় আনা হবে বলে আশা প্রকাশ করেন এই পুলিশ কর্মকর্তা। এসএইচ/  

রাজশাহীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় একটি বিকল বালুর ট্রাককে পেছন ধাক্কা দিয়েছে দ্রুতগামী একটি বাস। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২০ জন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার বিড়ালদহ মাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকিল আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিহতরা হলেন- রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার মুক্তারপুরের বাসিন্দা ট্রাকচালক জাকির হোসেন (২৮), ট্রাকের হেলপার একই এলাকার সুমন (২৫) এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার বাসিন্দা বাস হেলপার রিপু (২৫)। ওসি সাকিল উদ্দীন জানান, শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে যাচ্ছিল। রাত ১২টার দিকে রাস্তায় বিকল বালুর ট্রাকটিকে বাসটি ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে দমকল সদস্যরা লাশ উদ্ধার করে। আহতদের হাসপাতালে নেয় তারা। একে//

রাজশাহী পুলিশের জালে দেশের গাড়ি ছিনতাই চক্র

দেশে ট্রাকসহ গাড়ি চুরি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা নতুন নয়। একটি ট্রাক হারানোর সূত্র ধরে দেশের বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে চুরি ও ছিনতাই হওয়া ১২টি ট্রাক ও একটি প্রাইভেটকার উদ্ধার করেছে রাজশাহী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। একই সঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে ট্রাক চোর ও ছিনতাই সিন্ডিকেটের মুলহোতাসহ তিনজনকে। মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী জেলা পুলিশ লাইনে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার শহিদুল্লাহ।   তিনি বলেন, চলতি বছরের ৬ জুন বিকালে রাজশাহী জেলার গোদাগড়ির রাজবাড়ীহাট এলাকা থেকে একটি ট্রাক চুরি হয়। সেদিনই গোদাগাড়ী থানার একটি মামলা দায়ের করে ট্রাক মালিক। মামলাটি রাজশাহী জেলা গোয়েন্দা শাখা তদন্ত শুরু করে।গত ১০ জুন রাজবাড়ী জেলায় অভিযান চালিয়ে চালক আহাদ আলী শেখকে (৩০) গ্রেফতার ও চোরাই ট্রাকটি উদ্ধার করা হয়। শহিদুল্লাহ বলেন, আহাদ আলীর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাংলাদেশের ট্রাক চুরির মূল হোতা মনিরকে চট্রগ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয় গত ৪ জুলাই। এছাড়াও আহাদ আলির তথ্যে কুষ্টিয়া থেকে মনিরের প্রধান সহযোগী গিয়াসকে গ্রেফতার করা হয় ১৬ সেপ্টেম্বর।  পুলিশ সুপার বলেন,  আহাদ, মনির ও গিয়াসের দেওয়া তথ্যে চট্রগ্রাম, যশোর, মাগুড়া, কুষ্টিয়া, সিলেট, ফরিদপুরসহ দেশের বিভিন্নস্থান হতে চুরি ও ছিনতাই হওয়া ১২টি ট্রাক ও একটি প্রায়ভেটকার উদ্ধার করে রাজশাহী জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা। কেআই/ এসএইচ/  

পাবনায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

পাবনার আতাইকুলার শিবপুর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে কোরবান নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনায় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) গৌতম কুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। সোমবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে  একটি রিভালবার, গুলি ও বেশ কিছু ইয়াবা উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত কোরবান আতাইকুলা থানার যাত্রাপুর এলাকার কিয়ামুদ্দিনের ছেলে বলে জানা গেছে। তার বিরুদ্ধে একাধিক হত্যাসহ অন্যান্য মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গৌতম কুমার বিশ্বাস বলেন, সোমবার দিবাগত রাতে আতাইকুলা থানার শিবপুর-কৈজুরী সড়কের পাশে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। উভয়পক্ষের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ একপর্যায়ে মারা যান কোরবান। একে//

নাটোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

নাটোরের বড়াইগ্রামে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটলিয়নের (র‌্যাব) সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক মাদকবিক্রেতা নিহত হয়েছে। নিহত মাদকবিক্রেতার নাম সিরাজ উদ্দিন (৩৫)। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন র‌্যাবের দুই সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার রাত ১টা ৩০ মিনিটের দিকে উপজেলার কাটাশকোল গ্রামে এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ ঘটে। সোমবার সকালে র‌্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। জানা যায়, নিহত সিরাজ উদ্দিন উপজেলার বালিয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে। তার বিরুদ্ধে নাটোর জেলার বিভিন্ন থানায় চারটি মাদকসহ মোট পাঁচটি মামলা রয়েছে। সিরাজ বড়াইগ্রাম উপজেলার অন্যতম শীর্ষ মাদকবিক্রেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন। এসএ/  

রাজশাহীতে আ. লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীর গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী গোলাম রাব্বানীর নির্বাচনী শোডাউনের গাড়িবহরে হামলা হয়েছে।  রোববার দুপুরে গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের পিরিজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এই হামলার ঘটনায় অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে তার সমর্থকরা।  গোলাম রাব্বানী তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মুন্ডমালা পৌরসভার মেয়র। তিনি এবার রাজশাহী-১ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী। গত কয়েকদিন ধরে তিনি তার নির্বাচনী এলাকায় শোডাউন, পথসভা ও গণসংযোগ করছেন। গোলাম রাব্বানীর সমর্থক আলী আহসান জানান, গোলাম রাব্বানী একটি বিশাল গাড়িবহর নিয়ে গোদগাড়ীর মাটিকাটা ইউনিয়নের পিরিজপুর বাজারে ঢুকে।এ সময় পিরিজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরব আলীর নেতৃত্বে স্থানীয় সংসদ সদস্যের সমর্থকরা গাড়ি বহরে হামলা চালায় বলে অভিযোগ উঠেছে। এ সময় তারা হকিস্টিক ও লাঠি শোঠা দিয়ে গোলাম রাব্বানীর সমর্থকদের মারপিট করে এবং গাড়ি ভাংচুর করে। এতে বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ও একটি মাইক্রোবাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়। হামলার পরপর তারা দ্রুত সেখান থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর গোলাম রাব্বানীর সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরে তারা ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে। এ সময় তারা হামলাকারিদের ধাওয়া করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আরব আলী বলেন, গোলাম রাব্বানীর লোকজন বর্তমান সংসদ সদস্য ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীকে কটুক্তি ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বকে অবমাননা করে স্লোগান স্লোগান দিচ্ছিল। এ কারণে আমরা তাদের প্রতিহত করার চেষ্টা করেছি। মনোনয়ন প্রত্যাশী গোলাম রাব্বানী বলেন, আমার নৌকার পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছিলাম। হটাৎ করে কয়েকজন যুবক স্থানীয় এমপির পক্ষে শ্লোগান দিয়ে তাদের গাড়িবহরে হামলা চালায়। এতে অন্তত ২০ জন তার নেতাকর্মী আহত হন। তাদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও তাদের হামলায় ১০/১২টি মোটরসাইকেল ও একটি মাইক্রোবাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানান তিনি। গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, মনোনয়ন প্রত্যাশী গোলাম রাব্বানীর গাড়িবহরে হামলার খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়। তবে পুলিশ পৌঁছার আগেই হামলাকারিরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিলে হামলাকারিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। কেআই/ এসএইচ/

রাজশাহীতে যত ক্ষোভ বিলবোর্ড-ফেস্টুন-ব্যানারে

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে রাজশাহীর আসনগুলোতে শোভা পাচ্ছে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যসহ মনোনয়ন প্রত্যাশীদের বিলবোর্ড, ফেস্টুন ও ব্যানার। বিভিন্ন দিনের শুভেচ্ছা ও আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে এগুলো টাঙ্গানো হয়েছে। যাতে শোভা পাচ্ছে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছাড়াও বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী, সজিব ওয়াজেদ জয় এবং নৌকা প্রতীকের ছবি। তবে এ সব বিলবোর্ড, ফেস্টুন ও ব্যানার রাতের আধারে কেটে ফেলছে প্রতিপক্ষরা। রাজশাহীর ছয়টি আসনের মধ্যে পাঁচটিতেই একই চিত্র। সম্প্রতি কয়েকশ বিলবোর্ড, ফেস্টুন ও ব্যানার কেটে ফেলা হয়েছে। লাখ লাখ টাকা খরচ করে দলের নেতাকর্মী ও ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষন করে স্থানীয় এমপিসহ মনোনয়ন প্রত্যাশীরা এ সব টাঙ্গিয়েছে। এছাড়াও রয়েছে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সমর্থকদেরও বিলবোর্ড, ফেস্টুন ও ব্যানার। তবে সবচেয়ে বেশি কাটা হয়েছে নতুন মনোনয়ন প্রত্যাশীদেরগুলো। এ নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মধ্যেও দেখা দিয়েছে চরম ক্ষোভ। বিষয়টি তদন্ত করে এই ‘কাটিং পার্টি’র বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী সদর আসনে না থাকলেও পাঁচটি সংসদীয় আসনে শোভা পাচ্ছে স্থানীয় এমপিসহ অন্তত ৩০ মনোনয়ন প্রত্যাশীর কয়েক হাজার বিলবোর্ড, ফেস্টুন ও ব্যানার। এগুলো সবচেয়ে বেশি রয়েছে, রাজশাহী-১, রাজশাহী-৩, রাজশাহী-৪ ও রাজশাহী-৫ সংসদীয় আসনে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি কাটাকাটির ঘটনা ঘটছে রাজশাহী-৫ আসনে। রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর এলাকার এলাকার এক আওয়ামী লীগ কর্মী আমজাদ হোসেন বলেন, সকালে দেখি এক মনোনয়ন প্রত্যাশীর বিলবোর্ড পড়ে আছে। তো পরেন দিন দেখি এমপির ফেস্টুন ভাঙ্গা। এভাবে প্রতি রাতে নষ্ট করে ফেলা হচ্ছে প্রার্থীদের প্রচারের বিলবোর্ড, ফেস্টুন ও ব্যানার। রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ও রাজশাহী-৫ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী ডা. মনসুর রহমান জানান, লক্ষাধিক টাকা খবর করে প্রায় এক হাজার ফেস্টুন দুর্গাপুর ও পুঠিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় টাঙ্গানো হয়েছে। যার মধ্যে প্রায় অর্ধেক নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় এমপির সমর্থকরা তার ফেস্টুনগুলো নষ্ট করে দিয়েছে বলে অভিযোগ তার। একই ধরণের অভিযোগ এ আসনের আরেক মনোনয়ন প্রত্যাশী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদের। তারও বেশ কিছু বিলবোর্ডসহ ফেস্টুন রাতের অন্ধকারে কেটে ফেলা হয়েছে। অপরদিকে, রাজশাহী-৪ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী ও তাহেরপুর পৌরসভার দুইবারের মেয়র আবুল কালাম আজাদ বলেন, কয়েক লাখ টাকা খরচ করে কয়েক হাজার বিলবোর্ড ও ফেস্টুন ও পোস্টার পুরো নির্বাচনী এলাকায় দেওয়া হয়েছে। কিন্তু রাতে এ সব নষ্ট করে ফেলা হচ্ছে। এমপির সমর্থকরা তার বিলবোর্ড কেটে ফেলছে বলে অভিযোগ তার। রাজশাহী-৫ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওয়াদুদ দারা জানান, আমারও কয়েকশ ফেস্টুন ব্যানার নষ্ট করে ফেলা হয়েছে। নিজের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি করার জন্য তৃতীয় পক্ষ এ ধারণের ঘটনা ঘটাতে পারে বলে ধারণা করছেন তিনি। বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য ইতোমধ্যেই পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান এই সাংসদ। রাজশাহী জেলা পুলিশের মুখপাত্র ও সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আব্দুর রাজ্জাক খান বলেন, বিলবোর্ড, ফেস্টুন ব্যানার কেটে ফেলার ঘটনায় বিভিন্ন থানায় বেশ কিছু সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে পুলিশ তদন্তে নেমেছে। এর সঙ্গে জড়িতদের খোঁজা হচ্ছে। দোষিদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা। একে//

প্রভাষক পদে নিয়োগ দেবে পাবিপ্রবি

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (পাবিপ্রবি)। প্রতিষ্ঠানটি চার বিভাগে সাত জন্য প্রভাষক নিয়োগ দেবে। আগ্রহ ও যোগ্যতা থাকলে আপনিও আবেদন করতে পারেন। পদের নাম ও সংখ্যা *প্রভাষক ১) পরিসংখ্যান বিভাগ-০১ টি ২) ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ-০১ টি ৩) সমাজকর্ম বিভাগ-০১ টি ৪) ইংরেজি বিভাগ-০৪ টি আবেদনের নিয়ম আবেদনের নিয়ম, যোগ্যতা এবং বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ওয়েবসাইট www.pust.ac.bd এবং নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেখুন। আবেদনের সময়সীমা আগ্রহী প্রার্থীরা আগামী ১৫ অক্টোবর ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। সূত্র: দৈনিক সমকাল, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ এমএইচ/একে/

সিরাজগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধ নিহত

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর ও কামারখন্দে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১ বৃদ্ধ নিহত ও ২০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশংকাজনক বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার ছালাভরা কুনকুনিয়া বাজার ও বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের কামারখন্দের ঝাঐল ওভারব্রীজ এলাকায় এ দুটি দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত বৃদ্ধ আলিমুদ্দীন (৭০) কাজিপুর উপজেলার মনসুর নগর ইউনিয়নের কুমারিয়া বাড়ি গ্রামের হযরত আলীর ছেলে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সুত্রে জানা যায়, সিরাজগঞ্জ থেকে যাত্রীবাহী একটি বাস কাজিপুরে যাচ্ছিলো।বাসটি কাজিপুর উপজেলার ছালাভরা বাজার এলাকায় পৌছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজি অটোরিক্সার সঙ্গে মুখোমুখী সংঘর্ষ বাঁধে এতে ঘটনাস্থলেই বৃদ্ধ আলিমুদ্দীন নিহত ও অন্তত চারজন আহত হয়। আহতদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আংশকাজনক বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন। অপরদিকে একই সময় বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার ঝাঐল ওভারব্রীজ এলাকায় ঢাকা থেকে বগুড়াগামী এসএস পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অন্তত ১৬ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এদের মধ্যে বগুড়া জেলার শেরপুর উপজেলার একতারুল ইসলামের অবস্থা আশংকাজনক বলে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডাক্তার ফয়সাল আহমেদ নিশ্চিত করেছেন। কেআই/ এসএইচ/

বগুড়ায় জামায়াতের ৬ নারী নেতাকর্মী আটক

বগুড়ায় জামায়াতের নারী শাখার ৬ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। গোপন বৈঠককালে নাশকতার আশঙ্কায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের আটক করা হয়। শহরের দক্ষিণ কাটনারপাড়ার এলাকার সুলতান আলীর বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় বেশ কয়েকজন পালিয়ে যায়। রাত পৌনে ১০টায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ ও মামলার প্রস্তুতি চলছিল। আটকৃত নেতাকর্মীরা হলেন- শহরের দক্ষিণ কাটনারপাড়া এলাকার সুলতান আলীর স্ত্রী রোশেনা বেগম (৬০), একই এলাকার আমজাদ হোসেনের স্ত্রী জোবায়দা বেগম (৩৫), আবদুল খালেকের স্ত্রী কুলসুম বেগম (৬২), সিহাব পারভেজের স্ত্রী রুমা বেগম (৩৬), জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী হেলেনা বেগম (৪০) ও রেজাউল করিমের স্ত্রী খোদেজা বেগম (৫০)। সদর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) কামরুজ্জামান মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে শহরের দক্ষিণ কাটনারপাড়ায় সুলতান আলীর বাড়িতে জামায়াতের নারী শাখার বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী নাশকতার গোপন বৈঠক করছিল। গোপনে খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে গেলেও উল্লিখিত ৬ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেফতার নেতাকর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে। আরকে//

মোবাইল ফোন চার্জ : প্রাণ হারালো যুবক

পাবনায় মোবাইল ফোন চার্জ দিতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে প্রাণ হারালেন মধু হোসেন (২৬) নামে এক যুবক। মধু হোসেন পেশায় নির্মাণ শ্রমিক ছিলেন এবং ওই গ্রামের আবদুল মোমিনের ছেলে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে পাবনার চাটমোহর উপজেলার বিলচলন ইউনিয়নের বোঁথর মসজিদপাড়া গ্রামে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। স্বজনরা জানান, রাতে শোবার ঘরে ঘুমাতে যাওয়ার আগে মোবাইলে চার্জ দেয়ার সময় বিদ্যুতায়িত হয়ে বিছানা থেকে মাটিতে ছিটকে পড়েন মধু। পরে পরিবারের লোকজন তার গোঙানীর শব্দ পেয়ে ঘরে গিয়ে তাকে মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে দ্রুত উদ্ধার করে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মধু হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চাটমোহর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. পপি রানী কুন্ডু বলেন, বিদ্যুতায়িত হয়ে ঘটনাস্থলেই মধু হোসেন নামের ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আরকে//

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানা সদরের উত্তরপাড়া চিত্র দত্তের বাঁশ ঝাড় থেকে অধীর চন্দ্র মুরারী (৫৫) নামের এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে সলঙ্গা শরীফ সলঙ্গা গ্রামের প্রসন্ন চন্দ্র মুরারীর ছেলে। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে বাঁশ ঝাড়ের পাশে তার লাশ দেখতে পায়। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরিবারের লোকজন জানান, সোমবার সন্ধ্যায় অধীর বাড়ি থেকে বাজারের উদ্দেশে বের হয়।রাতে বাড়িতে ফেরেনি। সলঙ্গা থানার ওসি মো. ওহেদুজ্জামান জানান,ধারণা করা হচ্ছে, অধীর রাতের যে কোন সময় বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।  কে আই/

রাজশাহীতে ওষুধ কারখানা আগুন

রাজশাহী মহানগরীর টিকাপাড়ায় অবস্থিত একটি ফার্মাসিটিক্যাল ওষুধ কারখানায় অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে কেমিকো ফার্মাসিটিক্যাল ওষুধ কারখানার জেনারেটরের কক্ষে আগুনের সূত্রপাত ঘটে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে দমকল কর্মকর্তারা। রাজশাহী দমকল বিভাগের সিনিয়র স্টেশন অফিসার নুরুল ইসলাম জানান, ওষুধ কারখানার জেনারেটরের কক্ষে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহূর্তেই আগুন ওই ভবনে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় আতঙ্কে কারখানার শ্রমিকরা বের হয়ে আসেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিন’টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের আনে। তিনি বলেন, দমকল কর্মীরা পৌঁছার আগে ভয়াবহ আগুনের লেলিহান শিখা দ্রুত কারখানা ও আশেপাশে ছড়িয়ে পরে। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। জেনারেটারের ত্রুটিজনিত কারণে এই অগ্নিকান্ড হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। আগুনে জেনারেটারটি পুরোপুরি জ্বলে যাওয়া ছাড়া তেমন বড় ধরণের ক্ষতি হয়নি বলেও জানান দমকল কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম। কেআই/    

রাজশাহীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক বিক্রেতা নিহত

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার পাকুরিয়ায় র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। সোমবার গভীর রাতে এ ঘটনায় নিহত মাদক বিক্রেতা  দুলাল মিয়া (৪৫)। নিহত দুলাল মিয়া উপজেলার হরিহর গ্রামের মৃত ইব্রাহীমের ছেলে। সে ৪ থেকে ৫টি মামলার আসামী বলে র‌্যাব-৫ এর উপ-অধিনায়ক মেজর এএফএম আশরাফুল ইসলাম জানিয়েছেন। মেজর আশরাফুল ইসলাম জানান, সোমবার গভীর রাতে মোহনপুরে টহলের সময় কমপক্ষে ১০ জনের একটি দল ঘটনাস্থলে র‌্যাবকে দেখে পালাতে চেষ্টা করে। র‌্যাব তাদের পিছু নিলে তারা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। বাকিরা পালিয়ে গেলেও দুলাল মিয়াকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে ৫০৬ পিস ইয়াবা, একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলিসহ ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান ওই র‌্যাব কর্মকর্তা। কেআই/  

১৭ জন প্রভাষক নিয়োগ দেবে পাবিপ্রবি

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পাবিপ্রবি) ১৭ জন প্রভাষক নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহ ও যোগ্যতা থাকলে আপনিও আবেদন করতে পারেন। পদ ৮ বিষয়ে ১৭ জন যোগ্যতা ভিন্নি ভিন্ন বিভাগের জন্য ভিন্ন ভিন্ন যোগ্যতা চাওয়া হয়েছে। যোগ্যতা জানতে বিজ্ঞপ্তিটি দেখুন। আবেদনের নিয়ম আবেদনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইট www.pust.ac.bd এ প্রদত্ত ফরমেটে আবেদন করতে হবে। আবেদনপত্রের সঙ্গে ডকুমেন্টগুলো অবশ্যই সংযুক্ত করতে হবে। আবেদনপত্র রেজিস্ট্রার, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজাপুর, পাবনা বরাবরে ডাকযোগে পাঠাতে হবে। এছাড়া বিজ্ঞপ্তিটি সরাসরি পেতে প্রতিষ্ঠানটির এই http://www.pust.ac.bd/career/upload/Circular_Teacher_PUST_10.09.18.pdf লিংকটি দেখুন। আবেদনের সময়সীমা আগামী ৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখ মধ্যে আবেদন করতে হবে। একে//

রাণীনগর উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে চাকরির সুযোগ

নওগাঁর রাণীনগর উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে অফিস সহায়ক পদে একজনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহ ও যোগ্যতা থাকলে আপনিও আবেদন করতে পারেন। যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পাস হতে হবে। বেতন ৮২৫০-২০০১০ টাকা আবেদনের নিয়ম আবেদনপত্রের সঙ্গে যে কোনও তফশীল ব্যাংক হতে ৩০০ টাকার অফেরতযোগ্য ব্যাংক ড্রাফট, পে-অর্ডার, সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের সঙ্গিন ছবি তিন কপি, জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত ফটোকপি ও সব পরীক্ষা পাসের সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি সংযুক্ত করতে হবে। বিস্তারিত জানতে বিজ্ঞপ্তিটি দেখুন। আবেদনের সময়সীমা আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখের মধ্যে অফিস চলাকালীন সরাসরি অথবা ডাকযোগে পৌঁছাতে হবে। সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, পৃ.৪ একে//

মানব হিতৈষী ডা. আমজাদ হোসেনের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

পাকিস্তান সরকারের বাধা দমিয়ে প্রথম শিল্প কল কারখানা স্থাপনের উদ্যোক্তা ছিলেন ডা. মীর আমজাদ হোসেন। বাঙালিরা যাতে ব্যবসায়ীকভাবে সমৃদ্ধশালী হয়ে নিজেদের চাহিদা পুরণ করে আন্তর্জাতিক বাজারে তাদের পন্যের প্রসার না করতে পারে পাকিস্তান সরকারের এমন বাধা দমিয়ে এ উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি। পাকিস্তানী প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়ের অধীন সেনাবাহিনীর মেডিকেল কোরের এই ক্যাপ্টেন কর্মকর্তা ২ বছর পরই চাকরি ছেড়ে দিয়ে মুল লক্ষ্য ব্যবসায় মনোনিবেশ করে অভুতপুর্ব সফলতা অর্জন করার পাশাপাশি পর্যায়ক্রমে দেশের অন্যতম শিল্প উদ্যোক্তা, শিক্ষা, চিকিৎসা বিস্তার এবং সামাজিক অনেক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে ভুমিকা রেখেছেন। আজ ১১ সেপ্টেম্বর তার ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী। জানা যায়, ১৯২৫ সালের ১ অক্টোবর সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর গ্রামের মুসলিম পরিবারে জন্ম মীর মোহাম্মদ আমজাদ হোসেনের। তিনি খাদ্য রসিক হওয়ায় সুস্বাদু খাবার পছন্দ হলেও পারিবারিক দরিদ্রতার কারণে তা সম্ভব হত না। মিতাহারের ফলে মাত্র ৩৭ বছর বয়সে ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত হয়েও ৮৭ বছর পর্যন্ত সুস্থ অবস্থায় বেঁচে ছিলেন। যা সম্ভব হয়েছিল তার সুশৃঙ্খল জীবন-যাপন ও খাদ্যাভ্যাসের জন্য। এ জন্য তার পীর এবং শ্বশুর হযরত খাজা শাহ সুফী মোহাম্মদ ইউনুছ আলী এনায়েতপুরী (রঃ)-এর নসিয়ত ও স্বল্পহার তাকে অনুপ্রাণিত করেছিল। এলাকার স্থলপাকড়াশী ইন্সটিটিউট থেকে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শেষ করে ১৯৪৮ সালে ঐহিত্যবাহী কলকাতা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবি (বর্তমানে এমবিবিএস) পাশ করে ১৯৫১ সালে পাকিস্তানী মেডিকেল কোরে ক্যাপ্টেন পদে যোগ দিয়ে ১৯৫৩ সালে এ চাকরি ছেড়ে দিয়ে চট্টগ্রাম দিয়ে সুতার রং ও কেমিক্যাল আমদানী ব্যবসা শুরু করেন। তদানীন্তন পুর্ব পাকিস্তানের বাঙালী হিসেবে প্রথম ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে সুতার রং আমদানী করার জন্য এলসি খোলেন। যা দেশের তাঁত শিল্প সমৃদ্ধে বিরাট ভুমিকা পালন করে। এরপর পাটের ব্যবসা ও তা বিদেশ রফতানি, তাঁত কারখানা, ঢেউটিন, ওষুধের কাচামাল, কোরোসিন তেল আমদানী ব্যবসায় দক্ষতা ও দুরদর্শিতায় তার সফলতার ব্যাপক প্রসার ঘঠে। পুর্ব পাকিস্তানে দেশে প্রথম বারের মত ১৯৫৮ সালে টেক্সটাইল মিল করার সিদ্ধান্ত নিয়ে করাচিতে শিল্প মন্ত্রনালয়ে আবেদন করেন। কিন্তু অনুমতি না দিয়ে বাঙালিদের দ্বারা ব্যবসা হবেনা বলে তাকে ছাফ জানিয়ে দেয়া হয়। তখন হতাশ হয়ে ফিরলেও তিনি দমে জাননি। পরে তখনকার পুর্ব পাকিস্তানের গর্ভনর মোনেম খান ও পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী হোসেন শহীদ সোহরাওয়ারর্দীর সঙ্গে দেখা করে অনুমতি আদায় করে নেন। তবে পাক শিল্প মন্ত্রনালয় শর্ত জুড়ে দেন ঢাকায় না করে ৭৫ ভাগ বিহারী অধ্যুষিত পাবনার ঈশ্বরদীতে করার জন্য। নাছরবান্দা আমজাদ হোসেন এ শর্ত মেনে বাঙালিদের প্রতি পাকিস্তানীদের মনোভাব ভুল প্রমাণ করে অনুন্নত ঈশ্বরদীতে নানা প্রতিকুলতা মেনে জাপান থেকে মেশিনারিজ এনে চালু করেন আলহাজ টেক্সটাইল মিল। ১২ হাজার স্পনডলের এ মিলে ৫ শতাধিক মানুষের তখন কাজের সুযোগ হয়। এখান থেকে দেশের তাঁত শিল্পে সুতার চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রফতানি হতো। শুরু হয় কাপড় উৎপাদনও। এই সাফল্য পাকিস্তানী কর্তৃপক্ষকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় বাঙালিদের প্রতি তাদের কূদৃষ্টির মনোভাব কতটা ভুল। এরপর চট্টগ্রামের ক্যাপোক মিল, ১৯৬৭ সালে জামালপুরের সরিসাবাড়িতে আলহাজ জুট মিল, ১৯৮২ সালে ড্রাগ ইন্টা. লিমিটেড ওষুধ কোম্পানি, ১৯৯৪ সালে সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট প্রতিষ্ঠান এটিআই, এটিআই সিরামিকসহ বিভিন্ন ভারী শিল্প কারখানা গড়ে তোলেন। পরে ভারতের শিলিগুড়ি ও কুচবিহারে চা শিল্প সফল হলে এপারেও সম্ভব, এমন ধারণা নিয়ে পঞ্চগড়ে এমএম টি এস্টেট লিমিটেড সুবিশাল চায়ের বাগান গড়ে তোলেন। তিনি টানা ৩ বার বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় বাংলাদেশ টেক্সটাইল এ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। রাষ্ট্রায়ত্ব অলাভজনক প্রতিষ্ঠানগুলোকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রুপান্তর করেন। দেশের শ্রেষ্ঠ করদাতা এবং ব্যবসায়ী হিসেবে তিনি সিআইপি মনোনিত হয়েছেন। মানুষের দৌড় গোড়ায় বিশ্বের আধুনিক চিকিৎসা সেবা ও শিক্ষার বিস্তার কল্পে খাজা ইউনুছ আলী এনায়েতপুরী (রঃ) কে উৎস্বর্গ করে ২০০৩ সালে এনায়েতপুরে দেড়শ একর জায়গায় প্রায় ১২শ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫৮৬ বেডের দেশের বৃহৎ বিশ্বমানের অলাভজনক খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল, খাজা ইউনুছ আলী বিশ্ববিদ্যালয়, খাজা ইউনুছ আলী নার্সিং কলেজসহ বেশ কয়েকটি সেবা প্রতিষ্ঠান স্থাপন করেছেন। যা দেশ ও জনগনের জন্য সেবামূলক অলাভজনক ট্রাস্ট্রি প্রতিষ্ঠান। যেখানে দেশ-বিদেশের ছাত্র-ছাত্রীরা লেখা-পড়ার সুযোগের পাশাপাশি প্রতিদিন হাজারো সব ধরনের রোগীদের চিকিৎসা প্রদান করা হয়ে থাকে। এতে শিশু, প্রসূতি মা, ডেন্টাল রোগীদের ফ্রি চিকিৎসা এবং ৫ শতাংশ বেডে সব দরিদ্র রোগীদের ফ্রি চিকিৎসা দেওয়া হয়। এ প্রতিষ্ঠানের এমন সেবা কার্যক্রম দেশ-বিদেশে প্রসংশিত। এ জন্য বিভিন্ন সময়ে সরকারের কর্তা ব্যক্তি, বিদেশের রাষ্ট্রদূত এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ের গুরুত্বপুর্ন ব্যক্তিরা এ সব প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে উদ্যোক্তা আমজাদ হোসেনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। মানবতার কল্যাণে নিবেদিত এই মহষী ব্যক্তি ২০১২ সালের ১১ সেপ্টেম্বর পৃথিবী ছেড়ে চির বিদায় নিয়েছেন। তবে মানবিক কল্যাণে নিবেদিত তার প্রতিষ্ঠিত স্থাপনাগুলোর জন্য তিনি বেঁচে থাকবেন চির অম্লান হয়ে বলে জানালেন সিরাজগঞ্জ-৫ আসনের এমপি আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ মন্ডল, বাংলাদেশ এ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটির সাধারন সম্পাদক এফ.আর সরকার, সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির উপদেষ্টা সাইদুল ইসলাম, একুশে ফোরামের সিরাজগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আকতারুজ্জামান তারুকদার। তারা জানান, তিনি অজো পাড়াগায়ে বিশ্বমানের প্রতিষ্ঠান করে আমাদের এলাকাকে বিশ্ববাসীর কাছে পরিচয় করিয়েছেন। রাখছেন আধুনিক শিক্ষা, চিকিৎসা সেবায় ভুমিকা। আমরা মানবতার এই বীরকে চিরদিন স্মরণ রাখবো। এ দিকে খাজা ইউনুছ আলী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসার ডা. হোসেন রেজা জানান, ডা. আমজাদ হোসেন সমারোহ, বিলাস-বাসনাকে পছন্দ করতেন না। তিনি মানবতা আর মানুষকে নিয়ে ভাবতেন। এত বিত্ত-বৈভরের মালিক হয়েও তিনি খুবই সাদা-সিদে দিন যাবন করতেন। খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ৬ সদস্য বিশিষ্ট পরিচালনা বোর্ড রয়েছে। এর মধ্যে প্রয়াত চেয়ারম্যান ডা. এম এম আমজাদ হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ ইউসুফ রয়েছেন পরিচালকের দায়িত্বে। আর পরিবারের অন্যান্য ৫ সদস্য রয়েছেন বোর্ডের সদস্য হিসেবে। প্রতিষ্ঠানের পরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফ জানান, খাজা বাবা ইউনুছ আলী (রঃ) দিক নির্দেশনা অনুযায়ী প্রকৃত পক্ষে দেশের মানুষকে চিকিৎসা সেবা ও আধুনিক শিক্ষায় জাতিকে শিক্ষিত করতে আমার বাবা আমজাদ হোসেন অলাভজনক এই প্রতিষ্ঠান বাস্তবায়ন করেছেন। এটা আমাদের একার নয়, দেশের প্রতিটি মানুষের সম্পদ। তাই এ সম্পদ রক্ষার দায়িত্ব সরকার সহ সকলের। তিনি জানান, আমার বাবা মানুষের কল্যাণের ব্রত নিয়ে যে নির্দেশনা দিয়ে গেছেন, আমরা তা বাস্তবায়নে স্বচেষ্ট থাকবো। আজ রোববার সকালে ডাঃ মীর আমজাদ হোসেনের ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকীতে রুহের মাগফিরাত কামনা করে এনায়েতপুর পাক দরবার শরীফ, খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজে ও হাসপাতালে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। একে//

রাজশাহীতে র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ নিহত ১

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার পাকুরিয়ায় র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছেন। নিহত মাদক বিক্রেতার নাম দুলাল মিয়া (৪৫)। তিনি উপজেলার হরিহর গ্রামের মৃত ইব্রাহীমের ছেলে। সোমবার গভীর রাতে এই ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে ৫০৬ পিস ইয়াবা, একটি বিদেশি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ বর্তমান মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা হয়েছে। র‌্যাব-৫ এর উপ-অধিনায়ক এএফএম আশরাফুল ইসলাম জানান, সোমবার গভীর রাতে মোহনপুরে টহলের সময় কমপক্ষে ১০ জনের একটি দল ঘটনাস্থলে র‌্যাবকে দেখে পালাতে চেষ্টা করে। র‌্যাব তাদের পিছু নিলে তারা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। বাকিরা পালাতে সক্ষম হলেও আহত অবস্থায় দুলাল মিয়াকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে মোহনপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসএ/

সিরাজগঞ্জে ১৩ মাদকসেবী-ব্যবসায়ীর সাজা

সিরাজগঞ্জে র‌্যাবের হাতে আটক ১৩ মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীর ১৫ দিন করে সাজা দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আরিফুজ্জামান এর আদালতে হাজির করা হলে তাদের এই সাজা প্রদান করা হয়। এরা হলো সলঙ্গা থানার রানী নগর গ্রামের আব্দুল মমিন (৩১), চড়িয়া উত্তরপাড়ার আ. আলিম(৩২), হাটকান্দার মো.সামছুল আলম(৩৩),ছাদ্দাম হোসেন(২৭), মো. ফজলুল হক(২৬), মো. আলম(৩৩), আ. রাজ্জাক (২৮),আ. লতিফ(৩৪), মো. ধোপাকান্দির শাহাদত হোসেন (৩৫), রাধানগরের সুমন(৩৫), হাটিকুমরুলের মো. সুরত আলী(৬৫), বোয়ালিয়ার মো. শুভ(২৮) , বেলকুচির চন্দনগাঁতীর শাহাদত সরকার (৩৭)। র‌্যাব জানায়, র‌্যাব-১২ এর সিরাজগঞ্জ ক্যাম্পের ক্যাম্প কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.সাকিবুল ইসলাম খান এর নেতৃত্বে সোমবার সকালে হাটিকুমরুল গোল চত্বর এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় তাদের আটক করে ৩০০ গ্রাম গাঁজা, ৩টি মোবাইলসেট, ১৭টি সিমকার্ড ও নগদ-২১,৯৫৫ টাকা উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে আদালত প্রত্যেককে ১৫ দিন করে সাজা প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।কেআই/ এসএইচ/

রাজশাহীতে মানবাধিকারের ঘোষণাপত্রের ৭০ বছর পূর্তি উদযাপন

মানবাধিকারের সর্বজনীন ঘোষণাপত্রের ৭০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে এবং মানবাধিকারের ওপর গুরুত্বারোপের উদ্দেশ্যে রাজশাহীর হোটেল ওয়ারিশানে একটি আলোচনা সভা ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। আজ সোমবার বাংলাদেশে সুজারল্যান্ড এর দূতাবাস, জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারীর কার্যালয়, আইন ও সালিশ কেন্দ্র রাজশাহীতে এই উদযাপন আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো এবং সুইজারল্যান্ড দূতাবাস এর চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স ক্রিস্টফ ফিউকস্ বক্তব্য রাখেন।অনুষ্ঠানের মানবাধিকারবিষয়ক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, মানবাধিকারকর্মী খুশি কবির, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আ. ন. ম. ওয়াহিদ ও অধ্যাপক বখতিয়ার আহমেদ। সার্বিক আলোচনা পরিচালনা করেন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক শিপা হাফিযা। মানবাধিকারের ওপর নিবিড়ভাবে গুরুত্বারোপ করে আলোচকবৃন্দ নাগরিক অধিকার, নারীর অধিকার, জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত তৃতীয় ইউনির্ভাসেল পিরিয়ডিক রিভিউ (ইউপিআর) এর বাংলাদেশ সম্পর্কিত সুপারিশ নিয়ে আলোচনা করেন। এই আলোচনায় উপস্থিত দর্শকরাও সক্রিয়ভাবে মানবাধিকার ও দৈনন্দিন জীবনে মানবাধিকার চর্চা নিয়ে তাঁদের দৃষ্টিভঙ্গি ও অভিজ্ঞতা নিয়ে মতবিনিময় করে। এই অনুষ্ঠানটিতে রাজশাহীর মানবাধিকারকর্মী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যাপক অংশগ্রহণ লক্ষ্য করা যায়। এই অনুষ্ঠানে সুইজারল্যান্ড এর পুরষ্কারপ্রাপ্ত মানবাধিকার বিষয়ক চলচ্চিত্র ‘সনিতা’ প্রদর্শিত হয়।অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো বলেন, ‘ইউনির্ভাসেল পিরিয়ডিক রিভিউ (ইউপিআর)এর গুরুত্ব বর্ণনাতীত।ইউপিআর একটি দেশকে অধিকার ও ন্যায়বিচারের পথপ্রদর্শন করে সব ধরনের বৈষম্য ও সহিংসতা দূর করে এবং সমাজকে কণ্ঠস্বর প্রদান করে। ‘সুইজারল্যান্ড দূতাবাস এর চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স ক্রিস্টফ ফিউকস্ বলেন, ‘উন্নয়নের সঙ্গে মানবাধিকার ওতপ্রোত ভাবে জড়িত। তাই মানবাধিকার ও উন্নয়ন সমুন্নত রাখতে সুইজারল্যান্ড বাংলাদেশ সরকার, সুশীল সমাজ ও দেশের বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্থাদের সঙ্গে কাজ করে যাবে।’ রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত এই আলোচনা ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনীটি মানবাধিকারবিষয়ক একটি আন্তর্জাতিক ফিল্ম ট্যুর এর অংশ। সুইস ফেডারেল ডিপার্টমেন্ট অফ ফরেন অ্যাফেয়ার্স, জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশন, ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অ্যান্ড ফোরাম অন হিউম্যান রাইটস ইন জেনেভা ইতোমধ্যে বিশ্বের ৪৫টিরও বেশী দেশে এই ফিল্ম ট্যুর এর আয়োজন করেছে। বাংলাদেশের ছয়টি শহরে(ঢাকা, রংপুর, খুলনা, রাজশাহী, বরিশাল, চট্টগ্রাম)এই ফিল্ম ট্যুর আওতায় চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হচ্ছে। কেআই/ এসএইচ/

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি