ঢাকা, ২০১৯-০৪-২৪ ১২:২১:৩৫, বুধবার

শাওনের ‘ইলশেগুঁড়ি’ (ভিডিও)

শাওনের ‘ইলশেগুঁড়ি’ (ভিডিও)

মেহের আফরোজ শাওন। বহু প্রতিভাধর এই তারকা একটা সময় মিডিয়াতে বেশ সরব ছিলেন। বিশেষ করে প্রয়াত কথা সাহিত্যিক ও নির্মাতা হুমায়ূন আহমেদের বহু নাটক ও সিনেমায় তাকে দেখা গেছে। শুধু অভিনয় নয়, শাওনের অসাধারণ গানের ভক্তও কম নয়। শাওন নিজে নজরুল সংগীত শিল্পী। গান করেন সেই ছোটবেলা থেকেই। যদিও এসব কথা কমবেশি সবার জানা আছে। যারা শাওনের গান পছন্দ করেন, তাদের জন্য নতুন খবর। ২২ এপ্রিল, সোমবার প্রকাশ পেয়েছে তার নতুন গান ‘ইলশেগুঁড়ি’। এ প্রসঙ্গে শাওন বলেন, ‘ইলশেগুঁড়ি’ একটা ঘোর লাগা গান। কেমন যেন মায়া মায়া! বহুদিন পর নিজের জন্য গান করলাম। চলচ্চিত্রের জন্য গান করা হয়েছে মাঝে। ‘ইলশেগুঁড়ি’র ভিডিওর জন্য ৮ বছর পর ক্যামেরার সামনেও দাঁড়ালাম। কিছুটা আড়ষ্ট ছিলাম। প্রথম শটের পরই তা কেটে যায়। পরিচালক আমার ভালো বন্ধু। সে যেমনভাবে বলেছে তাই করে গেছি।’ ‘ইলশেগুঁড়ি’ গানটির কথা লিখেছেন জুলফিকার রাসেল এবং সুর করেছেন কলকাতার তুমুল জনপ্রিয় শিল্পী নচিকেতা চক্রবর্তী। সোমবার ধ্রুব মিউজিক স্টেশনে গানটির মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করা হয়। গানটি দেখুন : এসএ/  
তৃতীয় হয়েছে ‘ব্রান্ডিক্স বাংলাদেশ’

শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় ‘ব্রান্ডিক্স ক্যাজুয়াল ওয়্যার’ আন্তর্জাতিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় প্রথমবার অংশগ্রহণ করে ব্রান্ডিক্স বাংলাদেশ টিম। বিশ্বের ৩৪ টি দেশের অংশগ্রহণে কলম্বোর রাসাদিয়া মাঙালিয়ায় অনুষ্ঠিত হয় জমকালো এ প্রতিযোগিতা। চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় দেশীয় সংস্কৃতি ও মর্ডান ড্যান্সের সমন্বয়ে নান্দনিক নৃত্যে পরিবেশন করে বাংলাদেশ টিম। তাদের উপস্থাপনা ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করে। ব্রান্ডিক্স বাংলাদেশ টিম এর ড্যান্স কোরীওগ্রাফার মো. শাহাদাত হোসেন রাজু বলেন, আমাদের টিম প্রথমবারের মতো অংশগ্রহণ করে এই প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে বাংলাদেশের পতাকা তুলে ধরে brandix বাংলাদেশ। মোট ১৩জন গার্মেন্টস শ্রমিকদের নিয়ে আমরা এ টিম গঠন করি। দীর্ঘ অনুশীলনের পর তারা তাদের ভালো উপস্থাপনা দিয়েই বাংলাদেশের সম্মান সবার সামনে তুলে ধরে এবং বিজয়ী হয়। তিনি বলেন, গত ৬ বছর যাবত সেখানে প্রতিযোগিতা হচ্ছে। কিন্তু বাংলাদেশ এর আগে অংশ গ্রহণ করেনি। বিভিন্ন দেশ থেকে আগত টিম থেকে অডিশনের মাধ্যমে ৬ থেকে ৮টি টিমকে বাছাই করা হয় চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার জন্য। নানা বৈতরণী পার হয়ে সেখানে বাংলাদেশ তৃতীয় হয়েছে।  এসি  

লাকী আখান্দের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

সুরকার, সংগীত পরিচালক ও গায়ক লাকী আখান্দের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ। তিনি ফুসফুসের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে ২০১৭ সালের ২১ এপ্রিল ৬১ বছর বয়সে মারা যান। আশির দশকের তুমুল জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী লাকী আখান্দ একাধারে সঙ্গীত পরিচালক, সুরকার ও গীতিকার। সফট-মেলোডি, মেলো-রক, হার্ড-রক সব ধরণের গান তার ছোঁয়ায় অতুলনীয় হয়ে উঠতো। ১৯৮৪ সালে সারগামের ব্যানারে প্রথমবারের মতো একক অ্যালবাম বের করেন লাকী আখান্দ। ওই অ্যালবামের ‘এই নীল মণিহার’, ‘আমায় ডেকো না’, ‘রীতিনীতি জানি না’, ‘মা মনিয়া’, ‘আগে যদি জানতাম’ গানগুলো শ্রোতাদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলে। অসংখ্য জনপ্রিয় গানের সুর করেন তিনি। যার মধ্যে আছে, ‘যেখানে সীমান্ত তোমার’, ‘কবিতা পড়ার প্রহর এসেছে রাতের নির্জনে’ এবং ‘লিখতে পারি না কোনো গান আর তুমি ছাড়া’ ইত্যাদি। লাকী আখান্দের সমৃদ্ধ ও পরিচিত কিছু অ্যালবাম হলো- পরিচয় কবে হবে, বিতৃষ্ণা জীবনে আমার, আনন্দ চোখ, আমায় ডেকো না, দেখা হবে বন্ধু। শিল্পী লাকি আখান্দ ১৯৫৬ সালের ১৮ জুন জন্ম নেন। এসএ/

সঙ্গীতশিল্পী অমর পাল আর নেই

পশ্চিমবঙ্গের প্রবাদপ্রতিম সঙ্গীতশিল্পী অমর পাল আর নেই। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে গতকাল শনিবার বিকেলে কলকাতার এক হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৯৭ বছর। তার জন্ম বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, গতকাল সকালেও ছাত্রছাত্রীদের গানের ক্লাস করিয়েছেন অমর পাল। তারপরই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তার প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে পশ্চিমবঙ্গের শিল্পী মহলে। সুরকার ও গায়ক অমর পালের জন্ম ১৯২২ সালের ১৯ মে। মা দুর্গাসুন্দরী দেবীর কাছে লোকসঙ্গীতে হাতেখড়ি হয় তার। আট বছর উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতের তালিম নেন ওস্তাদ আলাউদ্দিন খানের ছোট ভাই আয়েত আলি খানের কাছে। ১৯৫১ সালে আকাশবাণী কলকাতা কেন্দ্রের লোকসঙ্গীত শিল্পী হিসেবে গান পরিবেশন করেন। দেবকী বসু, সত্যজিৎ রায়ের পরিচালিত ছবিতে গান গেয়েছিলেন তিনি। দেশ-বিদেশে একাধিক সম্মানে ভূষিত হয়েছিলেন অমর। ‘হীরক রাজার দেশে’ সিনেমাতে অমর পালের গাওয়া ‘কতই রঙ্গ দেখি দুনিয়ায়’ জনপ্রিয় হয়েছিল। এ ছাড়া তার প্রভাতি সঙ্গীত, ভাটিয়ালি গানও শ্রোতাদের মন জয় করে। এসএ/  

গানের রাজা হলেন খুলনার লাবিবা

খুলনার মেয়ে ফাইরুজ লাবিবা জিতেছেন  গানের রাজা-২০১৯ খেতাব। সব প্রতিযোগিদের পেছনে ফেলে বিজয়ীর মুকুট জিতে নেন লাবিবা। গানের উৎসব নির্ভর রিয়েলিটি শো ‘গানের রাজা’র চুড়ান্ত পর্ব শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে অতিথি বিচারক ছিলেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা। এ আয়োজনের মাধ্যমে বাংলাদেশ খুঁজে পেল দেশসেরা ‘গানের রাজা’। পুরস্কার হিসেবে গানের রাজাকে দেওয়া হয়েছে ৫ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থান অধিকারী নেত্রকোনার শফিকুল ইসলাম পেয়েছে ৩ লাখ এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী ময়মনসিংহের সিঁথি সরকার পেয়েছে ২ লাখ টাকা। সবার জন্য ছিল আরও আর্কষণীয় পুরস্কার।   প্রায় ৬ মাস আগে সারাদেশ থেকে ৬ থেকে ১৩ বছর বয়সী ৫ হাজারের বেশি শিশু অংশ নেয় এই রিয়েলিটি শোতে। তাদের মধ্য থেকে বাছাইকৃত ৫৪ প্রতিযোগিকে নিয়ে বিভিন্ন গ্রুমিং এবং তালিমের প্রক্রিয়া শেষে ৪০টি সফল পর্বের সম্প্রচার হয়। সেখান থেকে চূড়ান্ত পর্বের জন্য শীর্ষ ৫ প্রতিযোগীকে বাছাই করা হয়। তারা হলো- মেফতাহুর জান্নাত লরা (চাঁপাইনবাবগঞ্জ), ফাইরুজ লাবিবা (খুলনা), শফিকুল ইসলাম (নেত্রকোনা), পনি চামকা (রাঙামাটি) এবং সিঁথি সরকার (ময়মনসিংহ)। এ আয়োজনটি করে চ্যানেল আই। এসএ/

মুক্তি পেলো ঢাকা মেট্রোর থিম সং ‘সত্তা’ (ভিডিও)

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরীর পরিচালনায় শীর্ষস্থানীয় বাংলা ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ‘হইচই’-তে স্ট্রিম করা হচ্ছে এর প্রথম অরিজিনাল ওয়েব সিরিজ ‘ঢাকা মেট্রো’। এরই মধ্যে র‌্যাপার তৌফিকের কণ্ঠে ওয়েব সিরিজটির অফিসিয়াল থিম সং ‘সত্তা’ প্রকাশ করা হয়েছে। গানটি ইতিমধ্যেই শ্রোতাদের দারুণভাবে আকৃষ্ট করতে সক্ষম হয়েছে। ‘সত্তা’ গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন তৌফিক আহমেদ ও অদিত রহমান। তেজোদীপ্ত ও গতিময় ছন্দের এই গানটিতে সুর ও ছন্দের মিশ্রণে দারুণভাবে ফুটে উঠেছে জীবনের ধাঁধা ও বিশৃঙ্খলাময় দিক। তৌফিক আহমেদ ও ফয়সাল রড্ডির কথা ও অদিত রহমানের সুরে ‘ঢাকা মেট্রো’র থিম সংটির ছোট্ট পরিসরে উঠে এসেছে পুরো সিরিজটির সারকথা। গানটির মূল উপজীব্য ফেরদৌস হাসান নেভিল অভিনীত শহুরে জীবনের একঘেয়েমিতে অস্তিত্ব সঙ্কটে ভোগা চরিত্র ‘কুদ্দুস’ - এর জীবনে সুখ, স্বাধীনতা ও উদ্দেশ্য খুঁজে বের করার লড়াই। শুধুমাত্র হইচই অ্যাপ ও ওয়েবসাইটেই স্ট্রিমিং করা হচ্ছে অমিতাভ রেজা চৌধুরীর ‘ঢাকা মেট্রো’। একজন মানুষের একঘেয়ে শহুরে জীবনের শেকল ভেঙ্গে নিজের আপন সত্ত্বা পুন:আবিষ্কারের গল্পই তুলে ধরা হয়েছে ‘হাফস্টপ ডাউন’- এর এ পরিবেশনায়। জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী অপি করিম, অভিনেতা নেভিল ফেরদৌস হাসান ও শিশুশিল্পী শরিফুল ইসলামসহ এক ঝাঁক কুশলী অভিনয় শিল্পীর অভিনয়ে একটি মানুষের জীবনের মোট নয়টি ধাপ: সম্পর্ক, বিচ্ছেদ, স্মৃতি, মুক্তি, বন্দিজীবন, আত্মনিয়ন্ত্রণ, অবসাদ, বিভ্রম ও অন্তিমযাত্রা নিয়ে নির্মিত হয়েছে ব্যতিক্রমী এ ওয়েব সিরিজটি। এসএ/  

সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত

অপরিবর্তিত অবস্থায় লাইফ সাপোর্টে আছেন বরেণ্য সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দী। গতকাল সোমবার সকালে তার কিডনির ডায়ালাইসিস হয়েছে। তিনি ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। উল্লেখ্য, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে গত রোববার রাত ১০টার দিকে বরেণ্য সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দীকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পরই তাকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়েছে। এখনো তিনি লাইফ সাপোর্টেই আছেন। গত শুক্রবার শ্রীমঙ্গলে একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন সুবীর নন্দী ও তার পরিবার। রোববার পয়লা বৈশাখে শ্রীমঙ্গল থেকে ঢাকা ফেরার পথে উত্তরায় কাছাকাছি আসতেই শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে সুবীর নন্দীর। এরপরই তাকে সেখান থেকে সরাসরি সিএমএইচে নেওয়া হয়। দেশের জনপ্রিয় এই সংগীতশিল্পীর ১৯৮১ সালে প্রথম একক অ্যালবাম ‘সুবীর নন্দীর গান’ প্রকাশ হয়। ১৯৭৬ সালে ‘সূর্যগ্রহণ’ চলচ্চিত্রে প্রথম প্লে-ব্যাক করেন তিনি। দীর্ঘ ৪০ বছরের সংগীত ক্যারিয়ারে আড়াই হাজারেরও বেশি গান গেয়েছেন তিনি। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন পাঁচবার। সংগীতে অবদানের জন্য এ বছর তিনি পান দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদক। এসএ/

বিরতির পর ইশতিয়াকের ‘আইলো রে’

বেশ কয়েক বছরের বিরতির পর বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে নতুন চমক নিয়ে এলেন সঙ্গীত শিল্পী ইশতিয়াক হোসেইন। পহেলা বৈশাখকে কেন্দ্র করে মুক্তি পেয়েছে তার জনপ্রিয় গান ‘আইলো রে’ এর মিউজিক ভিডিও। ২০০৮ সালে মুক্তি পাওয়া এই গানটির নতুন চিত্রায়ন ইতিমধ্যেই সাড়া ফেলেছে সঙ্গীত প্রেমীদের মাঝে। ইশতিয়াকের গাওয়া এই গানের সুর করেছেন তিনি নিজেই। গানটির কথা লিখেছেন আসিফ ইফতেখার পিয়াস এবং সঙ্গীতায়োজন করেছেন মারুফ কামরুল হাসান। মিউজিক ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন সাঈদ আল নোমান সিয়াম। জনপ্রিয় চলচ্চিত্র ‘জাগো’র বেশ কয়েকটি গানে কন্ঠ দিয়ে, কথা লিখে এবং সুর করে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন ইশতিয়াক। চলচ্চিত্রটির টাইটেল ট্র্যাক ‘জাগো বাংলাদেশ’র একটি রূপে তিন কন্ঠ দিয়েছিলেন এবং সুর করেছিলেন। এছাড়াও অন্য দুটি জনপ্রিয় গান ‘কেন চলে গেলে দূরে’ এর সুরারোপ এবং ‘রুম ঝুম ঝুম বৃষ্টি’র কথা ও সুর করেছিলেন তিনি। এছাড়াও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘দুনিয়া’ এর জনপ্রিয় গান ‘কেন দু’চোখে শ্রাবণেরও ধারা’র স্রষ্টাও তিনি। গানের ভিডিওটি দেখুন : এসএ/

বাবুর সঙ্গে সাবরিনা বশিরের গান

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ডুয়েট গান প্রকাশ করলেন জনপ্রিয় অভিনেতা ও গায়ক ফজলুর রহমান বাবু ও কণ্ঠশিল্পী সাবরিনা বশির। গানের শিরোনাম ‘আমার ভিতর ঘরে’। গাওয়ার পাশাপাশি গানটিতে মডেলও হয়েছেন তারা। সাবরিনা বশির এর আগে কাজী শুভর সঙ্গে ‘মনটা চিন চিন’ শিরোনামে একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন। এরপর প্রকাশ করেছেন ‘হৃদপিন্ড’ শিরোনামের আরও একটি গান। এবার নিয়ে আসলেন ‘আমার ভিতর ঘরে’। গীতিকার দেলোয়ার আরজু শরফের কথায় গানটির সুর করেছেন অভি আকাশ। মিউজিক করেছেন মুশফিক লিটু। গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন মিউজিক ভিডিও নির্মাতা সৌমিত্র ঘোষ ইমন। নতুন গান প্রসঙ্গে ফজলুর রহমান বাবু বলেন, সাবরিনা বশির ভালো গান করেন। গানের কথাগুলোও সুন্দর। গানটি শুনে দর্শক শ্রোতাদের ভালো লাগবে বেল আমার বিশ্বাস।’ ‘আমার ভিতর ঘরে’ গানটি নিয়ে আশাবাদী শিল্পী। কণ্ঠশিল্পী সাবরিনা বশির বলেন, ‘গানটির কথাগুলো চমত্কার। কথার সঙ্গে মিল রেখে লিটু ভাই দারুণ মিউজিক করেছেন। ভিডিওটিও সুন্দর নির্মাণ হয়েছে। প্রেম, ভালোবাসা আর প্রিয়জনকে পাওয়ার সুন্দর হাহাকার গানটিতে ফুটে উঠেছে। গানটি মূলত কথা নির্ভর। সময়ের চাহিদার কারণে ভিডিও নির্মাণ করা হয়েছে। ভিডিওটিতে গানটির চমত্কার উপস্থাপনা পাবেন শ্রোতারা। আশা করি গানটি তাদের ভালো লাগবে।’ এসবি ইন্টারটেইনমেন্টের ইউটিউব চ্যানেলে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে ১৪ এপ্রিল গানটি প্রকাশ করা হয়। এসি  

বৈশাখে আসছে নতুন গান

বৈশাখে আসছে নতুন গান ‘বৈশাখী মেলায়’। গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন সাব্বির ও ঐশী। নতুন এ গানটির ভিডিওতে থাকছে চমক। যেখানে হৃদি শেখের পারফরমেন্স সংগীত প্রেমীদের মনে বৈশাখী ঝড় তুলবে, এমনটাই আশা সবর। গানটির মিউজিক ভিডিও মুক্তি পাবে আজ ১৩ এপ্রিল। গানচিলের ব্যানারে তাদের ইউটিউব চ্যানেলে দেখা যাবে এটি। ‘বৈশাখী মেলায়’ গানটি লিখেছেন গীতিকার রাজিব হাসান এবং সুর করেছেন মুনতাসির তুষার। মিউজিক আয়োজনে ছিলেন সালমান। গানটির ভিডিও তৈরি করেছেন নির্মাতা এস এম ফজলে রাব্বি আর সিনেমাটোগ্রাফার ছিলেন রাজু রাজ। গানটির ভিডিও এডিটিং করেছেন ফাহিন আরেফিন ইভান ও তাহসিন হোসেন। ‘বৈশাখী মেলায়’ গানটি সম্পর্কে সাব্বির বলেন, ‘বাংলাদেশের ট্র্যাডিশনাল ফোক সংগীত আর রক মিউজিকের মিশ্রণে তৈরি হয়েছে বৈশাখের এই ফিউশন গান। ‘মেলায় যাইরে’ গানটির পরে বাংলাদেশের সংগীত প্রেমীদের পহেলা বৈশাখ উদযাপনে এই গানটি নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে আমার বিশ্বাস। এই গানটি আমি বাংলাদেশের কিংবদন্তি শিল্পী মাকসুদুল হক-কে উৎসর্গ করছি।’ এসএ/  

বাবুর নতুন গান ‘আউল বাড়ি’

দর্শকপ্রিয় অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু। নাটক ও সিনেমায় অভিনয়ের পাশাপাশি গানও করেন তিনি। তার কণ্ঠ ইতিমধ্যেই সকলের হৃদয় জয় করতে সক্ষম হয়েছে। এবার নতুন একটি গান নিয়ে হাজির হচ্ছেন তিনি। গানটির শিরোনাম ‘আউল বাড়ি’। প্রদীপ সাহার কথায় গানটির সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন শহীদুল হাসান মন। এরই মধ্যে গানটির রেকর্ডিং শেষ হয়েছে। নতুন গান প্রসঙ্গে ফজলুর রহমান বাবু বলেন, ‘চমৎকার কথার গান এটি। সুর এবং সঙ্গীতায়োজনও ভালো লাগার মতো। গাওয়ার ক্ষেত্রে আমার সেরাটা গাওয়ার চেষ্টা করেছি। আশা করছি, গানটি শ্রোতা-দর্শকদের ভালো লাগবে।’ শিগগিরই গানটির ভিডিও নির্মাণ করে অনলাইনে প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এদিকে ফজলুর রহমান বাবু পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের একটি বিজ্ঞাপনে লোকসঙ্গীতে কণ্ঠ দিয়েছেন। বিজ্ঞাপনটি শিগগিরই দেশের বিভিন্ন টেলিভিশনে প্রচার হবে। অপরদিকে তার অভিনীত দুটি চলচ্চিত্র মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এ দুটি হচ্ছে- অরুণ চৌধুরীর পরিচালনায় ‘মায়াবতী’ ও মোহাম্মদ নূরুজ্জামানের পরিচালনায় ‘মাস্তুল’। এছাড়াও এ অভিনেতা আগামী ঈদুল ফিতরের জন্য বেশ কয়েকটি নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। এসএ/  

বৈশাখে সালমার চমক

কণ্ঠশিল্পী সালমা। ব্যাক্তিগত বিষয়ে টানাপোড়েন থাকলেও গানের সঙ্গে আছেন সব সময়। প্রতি নববর্ষ উপলক্ষে ভক্তদের জন্য নতুন গানের আয়োজন থাকে তার। এবারও এর ব্যতিক্রম হচ্ছে না। অন্যান্য বারের চেয়ে এবার সালমা একটু বেশি চমক নিয়ে আসছেন। একসঙ্গে তিন মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হচ্ছে তার। পহেলা বৈশাখের আয়োজন বলে প্রতিটি গান তৈরি করেছেন ফোক ধাঁচের কথা ও সুরে। এর মধ্যে ‘আউলা প্রেম’ শিরোনামের গানটির কথা লিখেছেন জিয়াউদ্দিন আলম। সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন জেকে মজলিশ। রিয়াজ খানের পরিচালনায় মিউজিক ভিডিওতে মডেল হয়েছেন আঁচল ও সানজু জন। একই গীতিকারের লেখা দ্বিতীয় গান ‘ভুলিয়া বন্ধু’-এর সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ওয়াহিদ শাহীন। সুর করেছেন গীতিকার নিজে। সৌমিত্র ঘোষ ইমনের পরিচালনায় ভিডিওতে মডেল হয়েছেন আবিক ও মায়া। মিউজিক ভিডিও দুটি প্রকাশ পাবে ম্যাপ ব্যাক এন্টারটেইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেলে। পাশাপাশি বৈশাখে ‘দিল না দিল না’ গানের ভিডিও প্রকাশ পাবে ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ইউটিউব চ্যানেলে। শাহ আলম সরকারের কথা ও সুরের এই গানের সঙ্গীতায়োজন করেছেন আমজাদ হোসেন। সৈকত নাসিরের পরিচালনায় ভিডিওতে মডেল হয়েছেন আশফিয়া ওহী ও জুয়েল। নতুন এই চকম প্রসঙ্গে সালমা বলেন, ‘ভক্তদের প্রত্যাশা পূরণে এবার একসঙ্গে তিন গানের ভিডিও প্রকাশ করছি। তিনটি গানেই শ্রোতারা পাবেন মাটির সুর, যা তাদের মনে দাগ কাটবে বলে আমার ধারণা।’ এসএ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি