ঢাকা, শনিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৮ ২:২৯:২৩

বাংলাদেশি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ভয়’ দিল্লীতে শ্রেষ্ঠ

বাংলাদেশি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ভয়’ দিল্লীতে শ্রেষ্ঠ

ভারতের রাজধানি নয়াদিল্লীতে বিশ্বের ৯৩টি দেশের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘দিল্লি আন্তর্জাতিক চলচিত্র উৎসব-২০১৮’। ১৪ থেকে ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত চলে এই উৎসব। উৎসবে বাংলাদেশের পরিচালক জুয়েইরিযাহ মউ পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচিত্র ‘ভয়’-দ্য ফিয়ার অব সাইলেন্স শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের পুরস্কার জিতেছে।নবারূণ ভট্টাচার্যের কাহিনির ছায়া অবলম্বনে এবং বাংলাদেশ সরকারের বিসিটিআইয়ের (বাংলাদেশ সিনেমা ও টেলিভিশন ইন্সটিউট) অর্থায়নে নির্মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য এ চলচ্চিত্রটির নির্বাহী প্রযোজক মিতুল আহমেদ। এতে অভিনয় করেছেন হাসান জামিল, চন্দনা বিশ্বাস, রইসউদ্দিন, মোস্তফা তারেক ও নীহার লিখন প্রমুখ। সঙ্গীত সংযোজন করেছেন রনি নাজিম।এসএ/  
ফিলিপাইনের শরিফার মাথায় মিস এশিয়ার মুকুট

এবারের ‘মিস এশিয়া প্যাসিফিক ইন্টারন্যাশনাল’-এর মুকুট মাথায় উঠলো ফিলিপাইনের সুন্দরী শরিফা আকিলের। গত ৫০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম একজন মুসলিম তরুণী এ মুকুট বিজয়ী হলেন। সম্প্রতি ম্যানিলার পারফর্মিং আর্টস সেন্টারে আয়োজিত এ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশসহ ৫৫ দেশের প্রতিযোগী অংশ নেন। এবার বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন নিউইয়র্কের মারজানা চৌধুরী। তিনি ২০তম স্থান দখল করেছেন। ‘মিস বাংলাদেশ’ হিসেবে শিকাগোভিত্তিক একটি সংস্থার মাধ্যমে সিলেটের সন্তান মারজানা এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন। ব্রাজিল সুন্দরী গেব্রিয়েলা পালমা হয়েছেন প্রথম রানারআপ। দ্বিতীয় রানারআপ হয়েছেন কোস্টারিকা সুন্দরী মেলানিয়া গঞ্জালেজ। এছাড়া মঙ্গোলিয়ার মিশেল্ট নরম্যান্ডাক হয়েছেন তৃতীয় এবং চতুর্থ রানারআপ মুকুট জিতেছেন ভেনেজুয়েলা সুন্দরী মারিয়ানি এঙ্গারিতা। ফিলিপিনো সুন্দরীদের মুকুট জয়ের এটি পঞ্চম ঘটনা। এদিকে ‘মিস এশিয়া’ জয়ী শরিফা মুকুট জয়ের পর বলেছেন, ‘বর্তমান সময়ে সারাবিশ্ব ভয়ংকর যে সমস্যায় পড়েছে, সেটি হচ্ছে সাইবার ক্রাইম। এটিকে নিজ নিজ মূল্যবোধ থেকে প্রতিহত করতে হবে। তথ্য-প্রযুক্তির অপব্যবহার নয়, এর সদ্ব্যবহার করতে হবে মানবতার সার্বিক কল্যাণের পথ সুগম রাখতে।’ এসএ/

সোহেল রানা সবুজের প্রযোজনায় ‘পূজার আনন্দে’ 

এবারের শারদীয় দুর্গোৎসবে পূজার আনন্দে শিরোনামের একটি অনুষ্ঠানে ভিন্নরূপে হাজির হচ্ছেন অভিনেত্রী মৌটুসী বিশ্বাস,চলচ্চিত্র অভিনেত্রী রেসি এবং সঙ্গীত শিল্পী মৌটুসী পার্থ। ভক্তদের জন্য অভিনেত্রী মৌটুসী বিশ্বাস তার পছন্দের একটি খাবারের রেসেপি করে দেখাবেন তবে একটু ব্যতিক্রমভাবে।      মৌটুসী বিশ্বাস বলেন, পূজোয় আমরা বরাবরই চেষ্টা করি হরেক রকমের রান্না তৈরি করার। আমার পছন্দের এই খাবারের এই রেসিপিটি আশা করি দর্শকদের ভালো লাগবে। ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রেসিও হাজির হচ্ছেন নতুন পরিচয়ে। বিনোদন বিচিত্রার ফটোসুন্দরী এই তারকাকে এবারই প্রথম একজন দক্ষ বিউটিশিয়ান হিসেবে দেখতে পাবেন তার ভক্তরা। কেমন হবে পূজার সাজ? নিজ হাতে একজন মডেলকে সাজিয়ে তাই দেখাবেন রেসি। রেসি জানান, অনুষ্ঠানটির কনসেপ্ট ভালো লেগেছে। ধর্ম যার যার,উৎসব সবার । দূর্গাপূজা এখন একটি সার্বজনীন উৎসব। আর তাই, এই উৎসবে সবাই মন্দিরে মন্দিরে ঘুরতে যাওয়ার পাশাপাশি সচেতন থাকে তাদের নিজস্ব সাজ নিয়ে। আর তাই,দর্শকদের জন্য পূজার একটি সাজ নিয়ে হাজির হচ্ছি। কন্ঠশিল্পী মৌটুসী পার্থ। গানের অনুষ্ঠানের বাইরে এবারেই তাকে দেখা যাবে মূল ধারার কোন উপস্থাপকের ভূমিকায়। মৌটুসী পার্থ জানান, গান নিয়েই থাকতে ভালো লাগে। তবে, অনুষ্ঠান উপস্থাপনার এই কাজটি ছিলো আমার কাছে অনেকটাই চ্যালেঞ্জিং-এর মতো। আশা করি, দর্শকদের ভালো লাগবে। বৃহস্পতিবার,নবমী’র দিন পূজার বিশেষ অনুষ্ঠানমালায় একুশে টেলিভিশনে রাত ৮.৩০মিনিটে প্রচারিত হবে ‘পূজার আনন্দে’ অনুষ্ঠানটি। এটি প্রযোজনা করেছেন সোহেল রানা সবুজ। তিনি জানান, পরিচিত কিছু বিষয়গুলোকেই দর্শকদের সামনে নতুনভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশা করি,দর্শকদের ভালো লাগবে। এসি   

আবারও এভ্রিল কাণ্ড!

বিতর্ক যেন পিছুই ছাড়ছে না ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতা নিয়ে। গত বছর জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলকে নিয়ে যে অস্বস্তিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল, সেই একই ঘটনা উঠে এসেছে এবারের প্রতিযোগিতায়। যদিও প্রতিযোগিতা শেষ, তবে এতো দিনে সন্ধান মিলেছে এ বছর প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া এক প্রতিযোগীর বিয়ে সংবাদ। আফরিন সুলতানা লাবণী নামের এই প্রতিযোগী চ্যাম্পিয়ন বা প্রথম কিংবা দ্বিতীয় রানারআপ কিছুই হতে পারেননি। তারপরও এতো সব বিচার বিশ্লেষণ ও পর্যবেক্ষণ শেষেও কি করে বিবাহিত প্রেতিযোগী এতে অংশ নিয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে যে- লাবণী বিবাহিত এবং তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগটি করেছেন লাবণীর সাবেক স্বামী আতাউর রহমান আতিক। তারা জামালপুর সদর বাগেরহাটা কলেজ রোডের বাসিন্দা। আতিক পেশায় ব্যবসায়ী, পাশাপাশি কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতে মডেল হয়েও কাজ করেছেন তিনি। আতিকের দেয়া তথ্য মতে, ২০১৪ সালের ১৮ আগস্ট জামালপুর কোর্টে গিয়ে লাবণীকে বিয়ে করেন তিনি। দুই বছর সংসার করার পর ২০১৬ সালের ১৭ মে তাদের ডিভোর্স হয়। ডিভোর্সের পর লাবণীর নামে দুটি চুরির মামলাও করা হয়। যেগুলো এখনও নিষ্পত্তি হয়নি। গণমাধ্যমে তাদের বিয়ের কাবিননামা ও কাগজপত্র প্রকাশিত হয়েছে। লাবণীর স্বামী আতাউরের ভাষ্য,  ২০১২ সালের শেষের দিকে তাদের পরিচয় ও প্রেম হয়। আতাউর তখন ঢাকায় থাকতেন। লাবণীর মায়ের চিকিৎসা এবং লাবণীর পেছনে অনেক টাকা খরচ করেছেন তিনি। সে সময় রাজধানীর চকবাজারে সামসুল হক টাওয়ারে আতাউরের দুটি দোকান ছিল। যা এখন আর নেই। আতাউরের অভিযোগ, ‘লাবণী আমার অনেক টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। ওর নামে চুরির মামলাও করেছি। এখন সে ছাত্রলীগের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক। ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে ২০১৬ সালের মামলা ২০১৮ সাল পর্যন্ত নিয়ে এসেছে।’ তবে এই লাবণীকে ঘিরে রয়েছে আরও রহস্যময় খবর। এবার মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮ এর গ্র্যান্ড ফিনালে বিচারকদের অদ্ভুত প্রশ্ন আর প্রতিযোগীদের উত্তর নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ মানুষের মুখে মুখে ছিল সমালোচনার ঝড়। আলোচনা সমালোচনা হয়েছে প্রতিযোগীদের অদ্ভুত সব উত্তর নিয়ে। এসব বিষয়ের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন এই- লাবনী। প্রতিযোগীতার গ্র্যান্ড ফিনালেতে লাবণীকেও প্রশ্ন করা হয়। তার কাছে তিনটা উইশ সম্পর্কে বলতে বলেছিলেন বিচারক সাদিয়া ইবনাজ ইমি। কিন্তু লাবনীর উত্তরে বিব্রত হয়েছিলেন বিচারকদের সঙ্গে সঙ্গে দর্শকরাও। এ নিয়ে অনেক ট্রলও হতে হয়েছে লাবনীকে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এমন উত্তরের পেছনের রহস্য জানান তিনি। লাবনী বলেন, সেদিন তিনি কি উত্তর দিয়েছেন তা নিজেও জানেন না। কারণ মঞ্চে ওঠার কিছুক্ষণ আগে তিনি নাকি জানতে পারেন তার মা মারা গেছেন। তিনি বলেন, ‘পরে আবার জানতে পারি আমার মা মারা যায়নি, মার পাশের বেডের অন্য একজন মারা গেছে। এ অবস্থায় আমি ছিলাম স্টেজে কিন্তু মন ছিল হাসপাতালে মায়ের কাছে। এরপর ২ অক্টোবর আমার মাও মারা যান।’ লাবণী বলেন, ‘মাকে রেখে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার কারণ ছিল আমার মায়ের ইচ্ছা পূরণ করা।’ প্রসঙ্গত, গত ৩০ সেপ্টেম্বর বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে জাঁকজমক আয়োজনে ‘মিস ওয়ার্ড বাংলাদেশ ২০১৮’-এর গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর সেরা সুন্দরীর মুকুট উঠেছে পিরোজপুরের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীর মাথায়। তিনি এ বছরের ডিসেম্বরে চিনে অনুষ্ঠিতব্য ‘মিস ওয়ার্ল্ড’-এর মূল প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন। এসএ/

দূর্গা পূজা উপলক্ষে আসছে শর্টফিল্ম ‘হ্যালো ভালোবাসা’

‘ভালোবাসা আপেক্ষিক একটি বিষয়। এর ওপর কারো নিয়ন্ত্রণ থাকে না। কখন যে কার কাকে ভালো লেগে যায় তা বলা মুশকিল। তারপর যখন কেউ ভালোবাসায় জড়ায়। সপে দেয় নিজেকে। তখন অনেক সময় পরিবার সে সম্পর্ক মেনে নিতে চায় না। বাবা-মায়ের কথা মেনে নিয়ে তাদের পছন্দ মতো মানুষকে বিয়ে করবে তাতেও মন সায় দেয় না। কারণ সারাজীবন ভালোবাসার মানুষটির পাশে থাকার শপথ নিয়েছে যে মন। মনস্তাত্বিক দ্বন্দ্বে পড়ে যেতে হয় তখন। কোনটা করা উচিত, কোনটা করা উচিত নয়- সেটা বুঝতে পারে না।’ এমনই গল্পে সঞ্জয় সমদ্দার নির্মাণ করেছেন স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘হ্যালো ভালোবাসা’। ইভান সাইর গল্পে স্বল্পদৈর্ঘ্যটির চিত্রনাট্য করেছেন পরিচালক নিজেই। এ বিষয়ে পরিচালক সঞ্জয় সমদ্দার বলেন, ‘বাবা-মা যখন সন্তানের ভালোবাসা মেনে না নেয় তখন সন্তান কি করবে? সে বাবা-মায়ের কথা ভেবে ভালোবাসা সেক্রিফাইজ করবে? নাকি তার ভালোবাসার জন্য বাবা-মাকে ছেড়ে যাবে। এই প্রশ্নেগুলোর উত্তর পাওয়া যাবে এই শর্টফিল্মে।’ তিনি আরও বলেন, ‘ভালোবাসা যেমন সত্য, তেমন ভালোবাসর জন্য আমরা দায়িত্ববোধের জায়গা যেন ভুলে না যাই। পরিবারের প্রতি সবার দায়বদ্ধতা থাকে।’ এতে কেন্দ্রিয় দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন রেডিও জকি ইভান সাইর ও বৃষ্টি ইসলাম। রিফজয় ক্রিয়েশনস নিবেদিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি যৌথভাবে প্রযোজনা করেছেন রিফাত আরা এবং সঞ্জয় সমদ্দার। দূর্গা পূজা উপলক্ষে এটি পাসওয়ার্ড এন্টারটেইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পাবে। এসএ/

আমাকে ট্রলের শিকার হতে হয়নি : ঐশী

পিরোজপুরের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। ত্রিশ হাজার প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮’-এর মুকুট অধিকারি হয়েছেন তিনি। এবার চীনে অনুষ্ঠেয় ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ মুকুট জয়ের পর নিজের অনুভূতি নিয়ে ঐশী বলেন, ‘এটাকে ইতিবাচকভাবে দেখছি। বড় কিছু হতে গেলে পদক্ষেপগুলোও বড় হতে হয়। সেক্ষেত্রে আমাকে সেভাবেই চলাফেরা করতে হচ্ছে।’ চীনে যাওয়ার প্রস্তুতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘মানসিক প্রস্তুতি নিচ্ছি। কিছুদিন পর আমার যে গ্রুমার (নয়নিকা চ্যাটার্জী) রয়েছেন উনি আমাকে গ্রুমিং করাবেন। আমি শতভাগ এফোর্ট দেব। যতটা পরিশ্রম করা যায় তার সর্বোচ্চটা চেষ্টা করব। গ্রুমারকে ফলো করার চেষ্টা করব। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দেশকে উপস্থাপন করার মত করেই নিজেকে তৈরি করব।’ এবছরও প্রতিযোগিতাকে ঘিরে বেশকিছু সমালোচনা, বিতর্ক, বিদ্রুপ হয়েছে। এগুলো সম্পর্কে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী বলেন, ‘এটা অত্যন্ত স্বাভাবিক ঘটনা; ভুল মানুষেরই হয়। অনেক সময় সহজ জিনিসগুলো নার্ভাসনেসের কারণে ভুলে যাই। তাছাড়া যেটা হওয়ার সেটা হয়েই গেছে। টপটেনের একজনের দ্বারা ঘটনাটি ঘটেছে। সেক্ষেত্রে আমার উপরও কিছুটা দায়ভার আছে বলে মনে করি। কিন্তু এটাকে বাড়তি চাপ নেওয়ার কিছু নাই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমার খুব একটা ভুল বোধহয় ছিল না। বাকিদের মতো আমাকে ট্রলের শিকার হতে হয়নি। ভুল থাকলে তো অবশ্যই ট্রল করত। দেশের মানুষ ট্রলের ক্ষেত্রে ছাড় দেয় না।’ এসএ/  

‘এইচ-টু-ও’ বিতর্কে বিব্রত অনন্যা

বিতর্ক যেনো পিছু ছাড়ছে না ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া প্রতিযোগীদের ক্ষেত্রে। গতবছর বিয়ের খবর গোপন করা, একজন প্রতিযোগির নাম ঘোষণা করে অন্যজনকে মুকুট পড়িয়ে দেওয়াসহ বিভিন্ন ধরণের বিতর্ক সৃষ্টি করে এই ইভেন্টটি। তবে এবার এসেছে ভিন্ন প্রসঙ্গ। বিচারকদের প্রশ্নে প্রতিযোগিদের উত্তর দেওয়ার ধরণ নিয়ে সোশ্যাল সাইডে চলছে বিতর্ক। এবারের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় সেরা দশে ছিলেন অনন্যা অনু। গ্র্যান্ড ফিনালে ভুল উত্তর দেওয়ায় তাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এখন হচ্ছে আলোচনা ও সমালোচনা। সেদিন বিচারক খালেদ হোসেন সুজন অনন্যাকে প্রশ্ন করেন, ‘এইচ-টু-ও মানে কী?’ উত্তরে অনন্যা বলেছিলেন, ‘এইচ-টু-ও নামে ধানমণ্ডিতে একটি রেস্টুরেন্ট আছে।’ অনন্যার উত্তর শোনার পর থেকে ফেসবুকে চলছে সমালোচনার ঝড়। এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে অনন্যা বলেন, ‘এইচ-টু-ও নিয়ে এত কথা হবে, বুঝতে পারিনি। প্রথমত, প্রশ্নটা আমি বুঝতে পারিনি। আমাকে যদি বলা হতো কিসের সংকেত? তাহলে হয়তো আমি বুঝতে পারতাম। সঠিক উত্তরও দিতাম। আসলে আমি প্রশ্ন শুনে দ্বিধায় পড়ে গিয়েছিলাম। ভেবেছিলাম, শ্রদ্ধেয় বিচারক স্যার হয়তো মজা করে প্রশ্নটা করেছেন। মূল প্রশ্ন পরে করবেন। আমি মেনে নিচ্ছি, আমি ভুল উত্তর দিয়েছি। তাই বলে এটা এত ভাইরাল হবে? সবকিছুর তো ইতিবাচক ও নেতিবাচক দিকও থাকে। এ ঘটনারও হচ্ছে। যারা আমাকে ইতিবাচক কিংবা নেতিবাচক কথা বলছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ। আমার জন্য দোয়া করবেন, যাতে সামনে আরও ভালো কাজ করতে পারি।’ তিনি আরও জানান, ‘গতকাল ধানমণ্ডির এইচ-টু-ও রেস্টুরেন্ট থেকে আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। আমিও গিয়েছিলাম। রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের সবাই আমাকে সম্মান জানিয়েছেন। বনানীতে তাদের রেস্টুরেন্টের শাখা আছে, সেখানেও আমাকে যেতে বলেছেন। আমি হয়তো সেখানেও যাব।’ উল্লেখ্য, ঢাকা আইডিয়াল কলেজে বাণিজ্য বিভাগে পড়ছেন অনন্যা অনু। উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী তিনি। মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় আসার আগে থেকেই মিডিয়ায় তার পথচলা শুরু। তার অভিনীত ‘চাপাবাজ’ ধারাবাহিক প্রচারিত হচ্ছে। এর আগে ডিএ তায়েব পরিচালিত ‘ডিবি’ নাটকে অভিনয় করেছিলেন তিনি। এসএ/

কে এই ঐশী?

চলতি মৌসুমে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮’ নির্বাচিত হলেন পিরোজপুরের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। আগামী ৮ ডিসেম্বর থেকে চীনে অনুষ্ঠেয় ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতার মূল আয়োজনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন তিনি। রোববার রাতে রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সিটির রাজদর্শন হলে আয়োজিত গ্র্যান্ড ফাইনালে ঐশীর মাথায় মুকুট পরিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু কে এই ঐশী? কি তার পরিচয়? এসব প্রশ্ন আসতেই পারে। ১৮ বছর বয়সী ঐশী চলতি বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেছেন। তার বাবা একজন সমাজকর্মী, মা শিক্ষিকা। দুই বোনের মধ্যে তিনি ছোট। পড়াশোনার পাশাপাশি স্কুল ও কলেজে নিয়মিত বিতর্কে অংশ নিয়ে বেশ সুনাম অর্জন করেছে মেয়েটি। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা না থাকলেও যুক্ত আছেন নাচে। সাঁতার, আঁকাআঁকি, লেখালেখি, গান, উপস্থাপনায়ও তার সমান আগ্রহ রয়েছে বলে জানান। যুক্ত আছেন বাল্যবিবাহ নিয়ে সচেতনতামূলক কর্মকাণ্ডেও। সেরা সুন্দরীর মুকুট পরে উচ্ছ্বসিত ঐশী বলেন, ‘ভীষণ ভালো লাগছে। সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা থাকল।’ মূল আয়োজনে অংশ নেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি দেশকে ভালোবাসি, দেশের সংস্কৃতিকে ভালোবাসি। দেশের সংস্কৃতিকে মনে ধারণ করি। এতদিন আমি নিজের হয়ে লড়ছিলাম। এখন দেশের জন্য লড়ছি। এটা অনেক বড় দায়িত্ব আমার জন্য। সবার কাছে দোয়া চাইছি।’ এসএ/

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ হলেন ঐশী (ভিডিও)

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ হলেন পিরোজপুরের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। ত্রিশ হাজার প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে গ্র্যান্ড ফাইনালে তার-ই মাথায় উঠে আসে স্বপ্নের মুকুট।  রোববার রাতে রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সিটির রাজদর্শন হলে আয়োজিত গ্র্যান্ড ফাইনালে তার মাথায় মুকুট পরিয়ে দেওয়া হয়। প্রতিযোগিতায় প্রথম রানার আপ হয়েছেন নিশাত নাওয়ার সালওয়া এবং দ্বিতীয় রানার আপ হন নাজিবা বুশরা। ১৮ বছর বয়সী ঐশী চলতি বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করেছেন। তার বাবা একজন সমাজকর্মী, মা শিক্ষিকা। দুই বোনের মধ্যে তিনি ছোট। পড়াশোনার পাশাপাশি স্কুল ও কলেজে নিয়মিত বিতর্কে অংশ নিয়েছেন ঐশী। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা না থাকলেও যুক্ত আছেন নাচে। সাঁতার, আঁকাআঁকি, লেখালেখি, গান, উপস্থাপনায়ও তার সমান আগ্রহ রয়েছে বলে জানান। যুক্ত আছেন বাল্যবিবাহ নিয়ে সচেতনতামূলক কর্মকাণ্ডেও। অনুষ্ঠানে মূল বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন কণ্ঠশিল্পী শুভ্রদেব, মডেল ও অভিনেতা খালেদ হোসেন সুজন, মডেল শাবনাজ সাদিয়া ইমি ও ব্যারিস্টার ফারাবী। আইকন বিচারক হিসেবে ছিলেন মাইলস ব্যান্ডের শাফিন আহমেদ, হামিন আহমেদ ও কোরিওগ্রাফার আনিসুল ইসলাম হিরু। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন ডিজে সনিকা, আরজে নিরব ও আজরা মাহমুদ। অনুষ্ঠানে যে ১০ প্রতিযোগী অংশ নেন তারা হলেন নিশাত নাওয়ার সালওয়া, মনজিরা বাশার, ইশরাত জাহান সাবরিন, স্মিতা টুম্পা বাড়ৈ, আফরিন সুলতানা লাবণী, সুমনা নাথ অনন্যা, নাজিবা বুশরা, জান্নাতুল মাওয়া, শিরীন শিলা এবং জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী।এবার মূল তিনটি খেতাবের বাইরে আরো বেশ কয়েকটি অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়। ‘মিস ট্রেন্ডি অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন স্মিতা টুম্পা, ‘বিহেভিয়ার অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন আফরিন লাবণী, ‘মিস ইন্টিলিজেন্ট অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন নিশাত নাওয়ার সালওয়া, ‘বেস্ট ফ্যাশন রানওয়ে অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন মন্দিরা, ‘মিস স্মাইলি অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন অনন্যা, ‘মিস ফটোজেনিক অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন জান্নাতুল মাওয়া, ‘মিস ট্যালেন্টেড অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন নাজিবা বুশরা, ‘মিস পারসোনালিটি অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন শিরীন শিলা, ‘মিস স্পোর্টি অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন ইশরাত জাহান সাবরিন, ‘বেস্ট এপিয়ারেন্স অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছেন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। এর আগে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় ২০১৭ সালে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন জেসিয়া ইসলাম। তার আগে বাংলাদেশ থেকে ২০০১ সালে ৫১তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন তাবাসসুম ফেরদৌস শাওন। এসএ/    

এবার নীলফামারীতে ‘ইত্যাদি’

উত্তরের প্রাচীন জনপদ নীলফামারী। সেখানেই এবার ধারণ করা হয়েছে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’র এবারের পর্ব। এ পর্বে রয়েছে নীলফামারীর ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং নীল চাষের ওপর একটি প্রতিবেদন। নীলফামারীর সন্তান ইবরার টিপুর সঙ্গীতায়োজনে এ অঞ্চলের প্রায় ১৫০ বছর পুরনো একটি চটকা গান রয়েছে। ইবরার টিপুর সঙ্গে গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন টি ডব্লিউ সৈনিক, ফারুক ভূঁইয়া, তাজ, শাহীন ও সহশিল্পীবৃন্দ। এ ছাড়া নীলফামারীকে নিয়ে মোহাম্মদ রফিকউজ্জামানের কথায় এবং মেহেদীর সঙ্গীতায়োজনে একটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন উত্তরা ইপিজেডের এক দল শ্রমজীবী মানুষ। রয়েছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নেদারল্যান্ডসের নাগরিক আনোয়ারা বেগমের নিজের শিকড়ের সন্ধানের ওপর ফলোআপ প্রতিবেদনসহ তিনটি প্রতিবেদন। দর্শক পর্বের বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। এ পর্বে হানিফ সংকেতের সঙ্গে রয়েছে তার একটি ভিন্নরকম সাক্ষাৎকার। নিয়মিত পর্বসহ এবারও রয়েছে বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশ কিছু সরস অথচ তীক্ষষ্ট নাট্যাংশ। নিজ স্বার্থ পরমার্থ, শিশু সুরক্ষায় সংগঠন, ক্যামেরা আতঙ্ক, খাঁটি মানুষ তৈরির কারখানা, গণমাধ্যমের গণপরামর্শ কেন্দ্র, মোবাইল ফোন বিড়ম্বনাসহ বিভিন্ন বিষয়ের ওপর রয়েছে বেশ কয়েকটি নাট্যাংশ। বরাবরের মতো এবারও ইত্যাদির শিল্প নির্দেশনা ও মঞ্চ পরিকল্পনায় ছিলেন ইত্যাদির নিয়মিত শিল্পনির্দেশক মুকিমুল আনোয়ার মুকিম। ইত্যাদির এই পর্ব একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে আগামী ৫ অক্টোবর শুক্রবার রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর। ইত্যাদির রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন।এসএ/  

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফিনাল আজ

সুন্দরী প্রতিযোগিতা ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮’র গ্র্যান্ড ফিনাল আজ। অডিশন ও পারফরম্যান্স রাউন্ডে উত্তীর্ণ সেরা ১০ সুন্দরী গ্র্যান্ড ফিনালে অংশগ্রহণ করবেন। রাজধানীর বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটির রাজদর্শনে আজ সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হবে অনুষ্ঠানটি। সেরা ১০ সুন্দরীরা হলেন- নাজিবা বুশরা, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, সুমনা নাথ অনন্যা, মঞ্জিরা বশির তৃষা, জান্নাতুল মাওয়া, শিরিন শীলা, আফরিন লাবনী, নিশাদ নাওয়ার সালওয়া, ইসরাত জাহান সাবরিন এবং স্মিথা টুম্পা। প্রতিযোগিতার গ্র্যান্ড ফিনালে বিচারক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন হামিন আহমেদ, শাফিন আহমেদ, আমিরুল ইসলাম হিরু, শুভ্র দেব, খালেদ সুজন, ইমি ও ব্যারিস্টার ফারাবী। আরজে নিরব, মডেল ও কেরিওগ্রাফার আজরা মাহমুদ এবং ডিজে সনিকার উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করবেন মুকাদ্দেম বাবু ও নাসরিন চৌধুরী। অন্তর শোবিজের আয়োজনে গত ১৬ সেপ্টেম্বর এফডিসিতে শুরু হয় প্রতিযোগিতার অডিশন রাউন্ড। বাছাই প্রক্রিয়া শেষে সেরা সুন্দরী হিসেবে ১০ জনকে বাছাই করেন বিচারকরা। এই ১০ প্রতিযোগীকে গ্রুমিংয়ের মাধ্যমে তৈরি করা হয় গ্র্যান্ড ফিনালের জন্য। সেরা ১০ সুন্দরীকে নাচের প্রশিক্ষণ দিয়েছেন কোরিওগ্রাফার ইভান শাহরিয়ার সোহাগ। দেশি কোরিওগ্রাফার ছাড়াও বিদেশি স্বনামধন্য একজন কোরিওগ্রাফার সেরা সুন্দরীকে গ্রুমিং করাবেন। বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়ন প্রতিযোগী আসছে ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা। আজকের অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করবে এটিএন বাংলা। এসএ/  

রোববার নির্ধারণ হবে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে আগামীকাল। সেরা ১০ সুন্দরীদের মধ্য থেকে নির্বাচিত করা হবে এবারের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ। বসুন্ধরা কনভেনশন সিটির রাজদর্শন হলে রোববার বসতে যাচ্ছে এই সুন্দরীদের হাট। এবার চূড়ান্ত পর্যায়ে উত্তীর্ণ ১০ প্রতিযোগী হচ্ছেন- নিশাত নাওয়ার সালওয়া, মনজিরা বাশার, ইশরাত জাহান সাবরিন, স্মিতা টুম্পা বাড়ৈ, আফরিন সুলতানা লাবণী, সুমনা নাথ অনন্যা, নাজিবা বুশরা, জান্নাতুল মাওয়া, শিরীন শিলা এবং জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। আয়োজক প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরী বলেন, ‘সকল স্পন্সর, পার্টনার এবং মিডিয়ার প্রতি আমার অসীম কৃতজ্ঞতা। সেপ্টেম্বরের মধ্যেই মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় নাম পাঠাতে হয়। তাই আমরা এর মধ্যেই অনুষ্ঠান শেষ করে এনেছি। আর এবার সব প্রস্তুতি দারুণ। বিশ্বসেরার মুকুটের জন্য আমরাও দুর্দান্তভাবে লড়তে চাই।’ আয়োজক সূত্রে আরও জানা গেছে, এবার মূল পর্বের আগে প্রায় তিন মাস সময় পাওয়া যাবে। ফলে চূড়ান্ত বিজয়ীকে তৈরি করার সময় পাওয়া যাবে বেশি। বিশ্বখ্যাত গ্রুমার নয়নিকা চ্যাটার্জী তাকে তৈরি করাবেন। তার হাতেই ১৯৯৬ সাল থেকে একাধিক প্রতিযোগী বিশ্বসুন্দরীর মুকুট জিতেছেন। এবারের আসরে মূল বিচারকের দায়িত্ব পালন করছেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী শুভ্রদেব, মডেল ও অভিনেত্রী তারিন, মডেল ও অভিনেতা খালেদ সুজন, মডেল ইমি, ব্যরিস্টার ফারাবী। ফাইনালের  আইকন বিচারক হিসেবে থাকছেন মাইলস ব্যান্ডের শাফিন আহমেদ, হামিন আহমেদ এবং আনিসুল ইসলাম হিরু। ইতিমধ্যে অন্তর শোবিজের আয়োজনে গুলশান ২ এর নবনির্মিত পাঁচ তারকা হোটেল রয়্যাল প্যারাডাইস এ সেরা ১০ প্রতিযোগীকে নিয়ে গ্রুমিং পর্ব শেষ হয়েছে। ফাইনালের চূড়ান্ত মঞ্চ কাঁপাতে প্রস্তুত তারা। অনুষ্ঠানটি সরাসরি সমপ্রচার করবে এটিএন বাংলা। এটি উপস্থাপনার দায়িত্বে আছেন ডিজে সনিকা ও আরজে নিরব। ফাইনালে চূড়ান্ত বিজয়ী ৭ ডিসেম্বর চীনে মূল পর্বে যোগদানের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন। এসএ/

সেরা দশের সন্ধানে অন্তর শোবিজ

অনাড়ম্বরপূর্ণ আয়োজনে শুরু হয়েছে বিশ্বসুন্দরী খোঁজার ইভেন্ট ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮’। ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে এফডিসিতে শুরু হয় অডিশন রাউন্ডের কাজ। মিস ওয়ার্ল্ডের ৬৮তম আসরে অংশ নিতে এ মূহুর্তে রাজধানীতে চলছে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা। বিভিন্ন ধাপ শেষ করে এখন নির্বাচন করা হয়েছে টপ টেন। অন্তর শোবিজ আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় তৃতীয়বারে মতো অংশ নেবে বাংলাদেশ। কিন্তু গত বছর কিছু অনাকাঙ্খিত ঘটনায় আলোচনা-সমালোচনা হয় প্রতিযোগিতাটি নিয়ে। তাই এবার কিছু পরিবর্তন আছে বলে, জানান আয়োজক অন্তর শোবিজের কর্ণধার স্বপন চৌধুরী। স্বপন চৌধুরী বলেন, ‘গতবার মিথ্যা তথ্য দেয়ার কারনে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিল। এবার কেউ মিথ্যা তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করলে আমরা ১০ লক্ষ টাকা জরিমানার বিধান রেখেছি। পাশাপাশি আমাদের টিম এবং বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে তথ্য যাচাই বাছাই করছি।’ এবছর অনলাইনে আবেদন করে ৪১ হাজার প্রতিযোগী, সেখান থেকে প্রাথমিক বাছাই করে ডাকা হয় ৬শ সুন্দরীতে। আর ৪শ প্রতিযোগীর মধ্য থেকে বিচারক প্যানেল নির্বাচন করে ৬০ জনকে। ৬০ প্রতিযোগী বিভিন্ন পর্বে অংশ নেয়ার পর ১৬ সুন্দরীকে নিয়ে ২১ সেপ্টেম্বর এফডিসিতে অনুষ্ঠিত হয় টপ টেন বাছাই পর্ব। এই পর্বে নির্বাচিত ১০ জনের মধ্যে শুরু হবে গ্রুমিং। আর চূড়ান্ত পর্বে জানা যাবে বিশ্ব সুন্দরী বাছাই মঞ্চে কে উড়াতে যাবেন বাংলাদেশের পতাকা। এসএ/  

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি