ঢাকা, রবিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৮ ১:৪৫:৩৪

দীর্ঘ বিরতির পর ফিরছেন মুক্তি

দীর্ঘ বিরতির পর ফিরছেন মুক্তি

মডেল, অভিনেত্রী মুক্তি। একটা সময় ছিল যখন তিনি নিয়মিত ছিলেন অভিনয়ে। কিন্তু মাঝে কিছু ব্যক্তিগত কারণে মিডিয়া থেকে দূরে ছিলেন তিনি। নতুন খবর হচ্ছে- সব ঝামেলা চুকিয়ে আবারও মিডিয়ায় নিয়মিত হয়েছেন তিনি। বিরোতীর সময়ে মুক্তি ছিলেন দাদার বাড়ি খুলনার দৌলতপুরে। অভিনয়ে নিয়মিত হওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছেন তিনি। এরই মধ্যে বৈশাখী টিভিতে প্রচারচলতি সাজ্জাদ হোসেন দোদুল পরিচালিত ধারাবাহিক নাটক ‘ছায়াবিবি’-তে অভিনয়ে যুক্ত হয়েছেন মুক্তি। শুটিং থাকলে খুলনা থেকে ঢাকায় আসেন। তবে কাজের পরিমাণ বাড়িয়ে স্থায়ীভাবে ঢাকায় থাকার পরিকল্পনা করছেন অভিনেত্রী। নতুন ধারাবাহিক ‘ছায়াবিবি’র পাশাপাশি মুক্তি এরই মধ্যে শেষ করেছেন বিটিভির নাটক ‘দ্য ম্যারিজ’-র কাজ। এছাড়াও শামীম জামানের পরিচালনায় সিক্যুয়াল নাটক ‘নূরা পাগলা-টু’ এবং রাকেশ বসুর পরিচালনায় ধারাবাহিক নাটক ‘শেষ ভালো যার’ এ কাজ করছেন। আজ তুষার মাহমুদের পরিচালনায় পূবাইলে একটি খণ্ড নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেবেন। প্রসঙ্গত, ১৯৯৯ সালে তৌকীর আহমেদের বিপরীতে মিনহাজুর রহমানের পরিচালনায় ‘অগ্নিগিরি’ নাটক দিয়ে মিডিয়ায় পথচলা শুরু হয় মুক্তির। মুক্তি যে শুধু মডেল ও ছোট পর্দার অভিনেত্রী তা কিন্তু নয়। তিনি অভিনয় করেছেন সিনেমাতেও। হাছিবুল ইসলাম মিজানের নির্দেশনায় ‘তুমি আছো হৃদয়ে’ সিনেমাতে অভিনয়ের মাধ্যমে বড় পর্দায়ও অভিষেক ঘটে। সর্বশেষ তিনি শাহাদাৎ হোসেন লিটনের ‘জোর করে ভালোবাসা হয় না’ সিনেমাতে অভিনয় করেন শাকিব খানের বিপরীতে। এসএ/
নারী নির্মাতার আত্মহত্যার চেষ্টা 

একজন নারী নির্মাতা আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। আজ দুপুরে ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এ খবর জানিয়েছেন তিনি নিজেই। রাজধানী ধানমণ্ডির সেন্ট্রাল হাসপাতালে এখন ভর্তি আছেন নাট্যনির্মাতা তাসলিমা মুক্তা। নির্মাতা হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে এই শহরে এসেছিলেন তিনি। কিন্তু নির্মম এই শহরে বেঁচে থাকার আশাটুকুও যখন নিভে যাচ্ছিল তখন আত্মহত্যার মতো পথ বেছে নেওয়ার চিন্তা করেন।        ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে তিনি তার কষ্টের কথা তুলে ধরেন। তিনি লিখেছেন, ‘অনেকের ভাষায় সুইসাইড করা মহাপাপ। কিন্তু যেখানে বেঁচে থাকাটাই কঠিন, সেখানে সুইসাইড করা পাপ না পুণ্য, হিসাবটা করে কে? কয়দিন থেকেই প্রচণ্ড ডিপ্রেসড। বিশেষ করে কাজ নিয়ে। চারপাশের অবস্থা নিয়ে। যদি সত্যি জানতাম একদিন এ অবস্থা হবে, তাহলে সত্যি শাহবাগে ফুল বিক্রি করা ভালো ছিল।’ মুক্তা আরও লিখেন, ‘আমারা যারা বেশির ভাগ ছেলেমেয়ে ঢাকার বাইরে থেকে ঢাকায় কাজ করতে আসি, তাদের বেশির ভাগ ফ্যামিলি ঢাকায় থাকে না। এমনকি অনেকে সব ছেড়েই ঢাকা আসে। যেমন আমার ফ্যামিলি নেই। কেউ নেই, কিন্তু এই ১৪ বছরের সাত বছর এডি হিসেবে কাজ করে বাকি সাত বছর পরিচালনায় এসে কী ভয়াবহ অবস্থার মধ্যে পড়েছি, তা আমার মতো অনেকেই জানে। খাওয়া তো বাদ দিলাম, বাসা ভাড়া, সিকনেস শত কষ্ট করে একজন প্রডিউসার জোগাড় করার পর নাটক বানানো, কিছু সময় বিক্রি হয়ে যায়, কিন্তু প্রডিউসারকে টাকা দিতে চ্যানেল দেরি করে। বুকে হাত দিয়ে বলতে পারব, আমার চেয়ে খারাপ খারাপ মেকিং করা অনেক নাটক লবিংয়ের কারণে শুধু বিক্রি হয়ে যাচ্ছে। ওইদিন এক প্রডিউসার কল ধরেই বল্লো #রাজ তোমাদের কাজ দেয় না। তোমরা ওরে ভোট দিলা। টাকা পাই, টাকা দেয় না। অ্যাক্টরটা কোনোভাবে মিনিমাইস করা যায় আরেকটা। কতগুলো করব। ফ্যামিলিবিহীন মানুষ এক টাকা দিয়ে হেল্প করার মতো কেউ নেই। কাজ করি খাই। প্রডিউসাররা টাকা না দিলে আমাদের টেকনিক্যাল মানুষগুলাকে টাকা দিতে পারে না। মানুষ টাকা পায়, দিতে পারি না। ঈদ যায়, পূজা যায়, আমাদের কিছুই হয় না।’    তাসলিমা মুক্তা আরো যোগ করেন, ‘সবচেয়ে ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে পরশু আমার বাসার ইলেকট্রিক লাইন কেটে দিছে। যেটা আসলে আমি নিতে পারি নাই। এত ছোট লেগেছিল বলার বাহিরে। এখন পাঁচ মাসের বাসা ভাড়া বাকি। বলবেন আপনারা, তুমি মিডিয়া আসছ কেন? ভালোবেসে আসছি। দেশের জন্য কিছু করব, ক্রিয়েটিভ কিছু করার নেশা যাদের আছে, শুধু তারাই জানে। তাই বাধ্য হয়ে কাল বলেছিলাম, আর মিডিয়ায় কাজ করব না। ছেড়ে দেব। বাট পারি নাই, তাই সবকিছু থেকে বিদায়ই নিতে চেয়েছিলাম। বাঁচার সত্যি কোনো ইচ্ছে নেই, এ অভিমানেই চলে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আর একটুর জন্য হাতে মেইন শিরাটা বেঁচে গেল। সারা রাত এক সমুদ্রের রক্তে মধ্যে পড়ে ছিলাম। অনেকেই জানে, আমার থ্যালাসেমিয়া আছে। জানি না বিকেলে না আবার রক্ত নিতে হয়। আপনারা সবাই ভালো থাকবেন। এমনিতেই লোন আবার আজকে লোন জমা হলো। মানুষ বেঁচে থাকতে চায়, আমি আসলেই মরতে চাই। আর চাপ, হাইপ্রেশার সাহায্য হয় না। অনেকেই বলবে, এত তাড়াতাড়ি হেরে গেলাম। হেরে গেলাম। আমার মুভি বানানোর স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে গেল।’ এসি      

এবার পূজোয় কোনো নাটক করছি না: ঊর্মিলা

পূজোতে টেলিভিশনগুলোতে বিশেষ অনুষ্ঠানমালার হিড়িক থাকে। এবারও প্রতিটি চ্যানেলে পূজা নিয়ে থাকছে জমকালো আয়োজন। এজন্য ছোট পর্দার তারকাদের এই সময়ের ব্যস্ততাও থাকে অনেক। পূজোর নাটক নিয়ে, তবে এবার পূজোতে কোনো নাটকে দেখা যাবে না ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী উর্মিলাকে। কাজ না করার ব্যাপারে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘প্রতিবারই পূজোর নাটকে কাজ করে থাকি। তবে এবার ব্যতিক্রম হলো । পূজোয় আমি কোনো নাটক করছি না। অনেকটা পারিবারিক কারণে এবার কাজ করা হয়নি। আমার ছোট ভাইয়ার বিয়ের কারণে এবার পূজোর কোনো নাটকে কাজ করতে পারিনি। বিগত মাসখানেক বেশ ব্যস্ততায় কেটেছে।  কাজ না করতে পারাটা আমার কাছে একটা কষ্টের বিষয়।’    

প্রভার দুই

সুদর্শনী প্রভার নাটকে ‍উপস্থিতি বেড়েছে। বিশেষ করে উৎসব পার্বনে তার স্বরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায। এবার পূজায় একটি নাটকে থাকছেন তিনি। তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন জোভান। আগামী শুক্রবার দশমীতে বাংলাভিশনে প্রচার হবে প্রভা অভিনীত ‘ইতি কুহক’ নাটকটি। এছাড়া আরও একটি নাটকের অভিনয় শেষ করেছেন প্রভা। `ইতি কুহক` নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন অঞ্জন আইচ। নাটকটি চিত্রায়ণ হয়েছে নেপালে। নাটকটি প্রসঙ্গে প্রভা বলেন, বিশেষ দিবসের নাটকে অভিনয় করতে আমার অনেক ভালো লাগে। এই নাটকগুলোর দিকে দর্শকের আগ্রহ থাকে বেশি। এছাড়া এই নাটকের গল্পটি অন্যরকম। এতে দর্শক আমাকে নতুন একটি চরিত্রে দেখবেন বলে আশা করছি। এদিকে সম্প্রতি একই নির্মাতার ‘ভুলনা আমায়’ শিরোনামের আরো একটি নাটকের শুটিং শেষ করেছেন প্রভা। এটিতে তাকে দেখা যাবে মনোজ প্রামাণিকের সঙ্গে। বর্তমান ব্যস্ততা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই সময়ে টিভি নাটকে নিয়ে আমার সব ব্যস্ততা। বিভিন্ন ধরনের গল্প ও চরিত্রে অভিনয় করছি। এখন আগের মতো গৎবাঁধা চরিত্রে কাজ করা হচ্ছে না। দর্শকদের ভালো কিছু দিতে চাই। টিভি নাটকের বাইরে ‘রূপবতী’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করার কথা আছে। তবে কবে থেকে এটির শুটিং শুরু হবে এখনো নিশ্চিত নই। / এআর /

মেহজাবিনের কন্ঠে অঞ্জলি লহ প্রণাম…

পূজা উপলক্ষে দীর্ঘদিন পর যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরছে জয়ন্ত। আসার আগে বাসায় কাউকে জানান নি। পুরান ঢাকার অধিবাসী তার মা-বাবা চিন্তা-চেতনায় আধুনিক হলেও ধর্মীয় গোঁড়ামি রয়েছে তাদের মধ্যে। দরজা খুলে জয়ন্তকে দেখে তারা তো অবাক। পূজার আনন্দ বেড়ে দ্বিগুণ হলো তাদের। মায়ের মাথায় বুদ্ধি এলো, পূজার পরপরই জয়ন্তকে বিয়ে দিয়ে ঘরে বউ আনবে। এই চিন্তায় সারাদিন মশগুল। শুরু হলো চারদিকে মেয়ের খোঁজ লাগানো। এর মধ্যে একদিন খুব সকালে জয়ন্তের ঘুম ভাঙল মিষ্টি কণ্ঠের গান শুনে। কে যেন গাইছে `মমতাময়ী মা শারদা লহ অঞ্জলি লহ প্রণাম...`। গানের শব্দ শুনে এগোতে থাকে জয়ন্ত। দেখে তাদেরই বাসার ছাদে চিলেকোঠার ঘরে এক প্রান্তে ঠাকুরের আসনের সামনে সিগ্ধ সাজে একটি মেয়ে পূজা করছে আর গান গাইছে। মেয়েটিকে দেখতে দেখতে ঘোর লেগে যায় জয়ন্তের। হঠাৎ দেখে, সামনে একটি হাত প্রসাদ বাড়িয়ে দিয়েছে। মেয়েটি বলে ওঠে `প্রসাদ?` ঘোর ভাঙে জয়ন্তর। মেয়েটি মুচকি হেসে চলে যায়। সেদিন মা আয়োজন করে জয়ন্তকে মেয়ে দেখতে নিয়ে যায়। মেয়েটিকে পছন্দ হয়ে যায় জয়ন্তের মায়ের। কিন্তু কোনো কিছুতেই জয়ন্তের আর মন বসে না। রাতে আবার চুপি চুপি ছাদে ওঠে মেয়েটিকে দেখার জন্য। এভাবে এগিয়ে যায় নাটকের গল্প। সেই মেয়েটি হচ্ছে মেহজাবিন চৌধুরী। মেহজাবিন ছাড়াও দেবী নাটকে অভিনয় করেছেন এসএন জনি, মানস বন্দ্যোপাধ্যায়, করভী মিজান প্রমুখ। ১৯ অক্টোবর রাত ৯টায় এটিএন বাংলায় প্রচার হবে বিশেষ নাটকটি। / এআর /

‘আমি কি বোরখা পরে ঘুরব?’

মডেল অভিনেত্রী পিয়া জান্নাতুল। নিজের দক্ষতা দিয়ে মিডিয়ায় শক্ত অবস্থান তৈরি করেছেন তিনি। শুধু দেশে নয়, দেশের বাইরেও নিজের দক্ষতা প্রমাণ করেছেন। তবে মাঝে মাঝে ভক্তদের ভালোবাসার পাশাপাশি কটু কথাও শুনতে হয় তাকে। আর এটি নিয়ে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করলেন আন্তর্জাতিক মানের এই মডেল। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি প্রকাশ করেছিলেন পিয়া। যা দেখে কেউ কেউ তার সমালোচনা করছেন। আর এতেই রেগে গেলেন পিয়া। ফেসবুক লাইভে এসে তার জবাব দিয়েছেন তিনি। লাইভে পিয়া বলেন, ‘পাবলিক ফিগার এজন্য এত কথা সহ্য করি। অনেকে শুনিয়ে শুনিয়ে অনেক কথা বলে। এত লম্বা, এত মোটা, এত শুকনা! অনেক কথা বলতে থাকে। আমরা তো কাউকে দেখে এসব বলি না। কারণ আমরা ম্যানার জানি। বাসায় শিখেছি, বড় হয়ে শিখেছি। আপনি একটা অশিক্ষিত পরিবার থেকে আসছেন এ সবাইকে আপনার বোঝাতে হবে? এটা খুব দুঃখজনক।’ পিয়া আরও বলেন, ‘জাতি হিসেবে আমরা খুবই শিক্ষিত, ভদ্র এটা আমরা বারবার দেখাতে চাই মানুষকে। আমি একটা কথা জানতে চাই... আমি মডেল। এর পাশাপাশি আমার পড়াশুনা শেষ, আইনজীবী হয়ে গিয়েছি কিংবা ব্যবসা করছি। কিন্তু মানুষ তো আমাকে মডেল হিসেবেই চেনে। তাহলে আপনারা আমার কাছে কী আশা করেন? আমি বোরখা পরে ঘুরব? বোরখা করে ছবি আপলোড দেব? হিজাব পরে, নেকাব পরে.. এরকম কোনো কিছু? আমি যদি মডেল নাও হতাম, আমি যা পরি নিজের পছন্দেই পরি।’ এই মডেল আরও বলেন, ‘বুঝতে পারি যে আমরা মানসিকভাবে অনেক কিছু গ্রহণ করতে প্রস্তুত না। ঠিক আছে প্রস্তুত হওয়ার দরকার নাই। তাই করেন যা আপনার করতে ইচ্ছে হয়। বাসায় বসে থাকেন। ফেসবুক চালাবেন না, ইনস্টাগ্রাম চালাবেন না। কিছু দেখা লাগবে না। কিন্তু মানুষকে কেন বিরক্ত করবেন? আমি এটাই বুঝি না। আপনার কথা শোনার জন্য কেউ বসে নাই। আপনার কী মনে হয় আপনার কথা শুনে আমি হিজাব পরতে নেমে যাব? না। আমি তাই করবো যা করতে আমি পছন্দ করি।’ যদিও এই লাইভেও দেখা গেছে কেউ কেউ তাকে আক্রমনাত্মক কথা বলে আক্রমন করছেন। এসএ/

এবার দেবী মেহজাবিন

বৈচিত্রময় চরিত্রে সাবলীল অভিনয়ে আলাদা করে নিজের চাহিদা তৈরি করে নিয়েছেন অভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী। তাইতো নাটক-টেলিছবিতে তার উপস্থিতি মানেই দর্শক-চ্যানেল কর্তৃপক্ষের বাড়তি আগ্রহ। পজন্মের সেরা এই অভিনেত্রী হাজির এবার শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে দেবী চরিত্রে। আগামী শুক্রবার রাত ৯ টায় এটিএন বাংলায় প্রচার হবে বিশেষ নাটক ‘দেবী’। সেখানে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী। বিশ্বজিৎ দত্ত ও প্রীতি দত্ত পরিচালিত নাটকটিতে মেহজাবিন ছাড়াও আরও অভিনয় করেছেন এস এন জনি, মানস বন্দোপাধ্যায়, করভী মিজান প্রমুখ। নাটকটিতে দেখা যাবে, পূজা উপলেক্ষ দীর্ঘদিন পর বাসায় কাউকে কিছু না জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরে জয়ন্ত। হতাৎ সে দেবীকে দেখে তার প্রেমে পড়ে যায়। আর সে বুঝতে পারে দেবীও তার প্রেমে মশগুল। কিন্তু হঠাৎ করেই ভুল ধারণা নিয়ে দেবী একদিন শহর ছেড়ে চলে যায়। পরে বিজয়া দশমীর দিন সেই ভুল ভাঙ্গে তার। একে//

শুরু হচ্ছে ‘মায়া মসনদ’

মানুষ রুপকথার গল্প পছন্দ করে। এক সময় সিন্দাবাদ, আলিফ লায়লার রুপকথার গল্পগুলো এদেশের দর্শক গ্রহণ করেছিল। কিন্তু এসব গল্পগুলো ছিল বিদেশি। এবার রুপকথার গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে বাংলাদেশের প্রথম ভিএফএক্স ও থ্রিডি গ্রাফিক্স নির্ভর মেগা ফ্যান্টাসি ধারাবাহিক ‘মায়া মসনদ’। মিডিয়া ইমপ্রেশন ও ঘাসফডিং প্রোডাকশনের ব্যানারে নাটকটি নির্মাণ করছে হোয়াইট ব্যালেন্স প্রোডাকশন হাউজ। নাটকটি প্রচারিত হবে এনটিভিতে।     গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নাটকটির প্রচার উপলক্ষে এনটিভির তেজগাঁও স্টুডিওতে একটি প্রিমিয়ার শোয়ের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন নাটকের সব শিল্পী, কলাকুশলী, বিজ্ঞাপনদাতা, শুভানুধ্যায়ীসহ অনেক দর্শকও। নাটকটির ট্রেলার ও প্রমো দেখানো হয় অনুষ্ঠানে।  এনটিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান মোস্তফা কামাল সৈয়দ বলেন,‘রুপকথার গল্পের প্রতি মানুষের আগ্রহ রয়েছে। ছোট বেলায় আমরা পড়েছি। রাজারানীর চরিত্রগুলোর মধ্যে একটা মজা পাওয়া যায়। তার কারণ, আমরা সবাই রাজার মতো হতে চাই, রানীর মতো হতে চাই। সেজন্যই রুপকথা ভালো লাহে, আলিফ লায়লা ভালো লাগতো। আমার মনে হয় ‘মায়া মসনদ’ও ভালো লাগবে সবার। দর্শককে ভিন্ন কিছু উপহার দিতে পছন্দ করি আমরা। ভিএফএক্স ও থ্রিডি গ্রাফিকস-নির্ভর রূপকথার গল্প করা অবশ্যই চ্যালেঞ্জিং। শুটিং শুরুর আগে আমার বিশ্বাস ছিল, কাজটা ভালো হবে। আসলেই নাটকটির নির্মাণ ভালো হয়েছে।’ ‘মায়া মসনদ’ নাটকের পরিচালক এস এম সালাহ উদ্দিন বলেন, ‘আমরা এ সিরিয়ালটি নির্মাণ করেছি শুধু বিনোদনের জন্য। দর্শক নাটকটি দেখে নিরাশ হবেন না। এটা নিশ্চিত, তারা ভরপুর বিনোদন পাবেন। বিদেশি চ্যানেল থেকে দর্শককে ঘরে ফেরাতে চাই আমরা। সেজন্যই পরিকল্পনা করে ভালো বাজেটে এই নাটকটি তৈরি করেছি।’ রূপকথার গল্প নিয়ে নির্মিত তারকাবহুল নাটকটি লিখেছেন অরিন্দম গুহ। নাটকটির পর্ব পরিচালক আতিকুর রহমান বেলাল ও দৃশ্য পরিচালনা করেছেন মাকসুদুল হক ইমু। ভিএফএক্স সুপারভাইজার তানিম শাহরিয়ার। আজ থেকে রাত ৮টা ২০ মিনিটে প্রতি রবি, সোম ও মঙ্গলবার এনটিভিতে নাটকটি প্রচারিত হবে। এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সোহেল রানা, সাবেরী আলম, শতাব্দী ওয়াদুদ, গোলাম ফরিদা ছন্দা, অবিদ রেহান, শশী, নিলয় আলমগীর, নমিরা মৌ, মৌসুমী নাগ, মোমেনা চৌধুরী, সৈয়দ শুভ্র, ইলোরা গহর, শম্পা রেজা, শিল্পী সরকার অপু, উজ্জ্বল হোসেন, দাউদ নূর, নীপা, সিফাত, সৈয়দা শিলা প্রমুখ। এসি    

‘নাটকীয় উপসংহার’ এ অপূর্ব-নাদিয়া 

আসছে পূজা। এখন চলছে জোর প্রস্ততি। তাই এখন পূজা নিয়েই নির্মিত হচ্ছে অনেক নাটক। ছোট পর্দার দুই অভিনেত্রী অপূর্ব ও নাদিয়া ‘নাটকীয় উপসংহার’ নামে একটি পূজার নাটকে অভিনয় করেছেন।        সেভেন টিউন এন্টারটেইনমেন্টের প্রযোজনায় রিফাত আদনান পাপনের গল্পে নাটকটি নির্মাণ করেছেন নাজমুল রনি। নাটকের গল্পে দেখা যাবে, সম্প্রতি বিয়ে করেছেন তূর্য ও নাবিলা। তূর্য একটা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন। স্ত্রী খুব সুন্দরী হওয়ায় তাকে নিয়ে সবসময় চিন্তায় থাকেন তূর্য। সুশিক্ষিত হওয়া সত্বেও তাকে কোনো চাকরি করতে দেয় না। স্ত্রীকে নিয়ে সারাক্ষণ উল্টাপাল্টা চিন্তা করে। নাবিলা বিষয়টা বুঝতে পারে কিন্তু এটাকে তূর্যের ভালবাসা ভেবে সহ্য করে যায়।  পরিচালক বলেন, সন্দেহ থেকেই গল্পে তৈরি হয় নতুন জটিলতা। যার পরিসমাপ্তি ঘটে নাটকের শেষে। এতে অপূর্ব-নাদিয়া ছাড়াও অভিনয় করেছেন আফজাল কবির, ইশা, তন্নী, আশরাফুল আলম সোহাগসহ আরো অনেকে। নাটকটি বুধবার রাত ১০ টায় এশিয়ান টিভিতে প্রচার হবে। এসি  

আলিয়ার আবেগঘন চিঠি (ভিডিও)

বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। তার অভিনয় কৌশল অনেককেই চমকে দিয়েছে। এতো অল্প বয়েসে এমন পরিপক্ক অভিনয় আলিয়ার ক্ষেত্রেই মানায়। সম্প্রতি তিনি একটি খোলা চিঠি লিখেছেন। যেখানে প্রকাশ পেয়েছে নায়িকার আবেগপ্রবণ কথা। ‘ওয়ার্ল্ড মেনটাল হেল্থ ডে’-তে আলিয়ার বোন শাহিন ভাটের প্রথম উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে। ‘নেভার বিন (আন) হ্যাপিয়ার’ বইতে শাহিন লিখেছেন নিজের অবসাদগ্রস্ততার কথা। বোনের সেই বই পড়ে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন আলিয়া। যা ভিডিও আকারে প্রকাশ পেয়েছে। আবেগঘন সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওটিতে দেখা গেছে, ছোটবেলায় বোন আলিয়ার সঙ্গে নাচ করছেন শাহিন। অসম্ভব হাসিখুশি দেখাচ্ছে তাকে। এর পর আলিয়া বলেন, শাহিনের মুখ থেকে এক সময় সেই হাসি মিলিয়ে গিয়েছিল। সম্পূর্ণ ভাবে হয়তো তিনি বোনের পাশে থাকতে পারেননি। সেই জন্য ক্ষমাও চাইলেন। বললেন, প্রত্যেকেই শাহিনকে অসম্ভব ভালোবাসেন। আলিয়া আরও বলেন, ‌শাহিনের এই বইটি নিয়ে রীতিমতো গর্ব হচ্ছে তার। এই চিঠি লিখতে আলিয়াকে রীতিমতো ‘স্ট্রাগল’ করতে হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। কারণ ২৫ বছর এক সঙ্গে থাকার পরেও শাহিনের কিছু সময় নীরব হয়ে থাকার মানে বুঝতে পারেননি আলিয়া।বাড়ির সবাই মিলে যখন বাইরে কোথাও খেতে যাওয়া হত, শাহিন একা থাকতে চাইলে আলিয়া ভাবতেন, বাড়িতেই হয়তো টিভি দেখতে ভালোবাসেন শাহিন। বোনের বই পড়েই ‘বেসিক হিউম্যান লেভেল’টা আসলে বুঝতে পেরেছেন ‘ব্রহ্মাস্ত্র’ নায়িকা। জীবন নিয়ে অনেকটা অন্যরকম বোধ তৈরি হয়েছে তার।‘ভোগ’ পত্রিকায় প্রথম শাহিন ভাট তার জীবনের অবসাদগ্রস্ততার দিনগুলোর কথা শেয়ার করেছিলেন। তা নিয়ে টুইটার পোস্টও করেছিলেন আলিয়া।সূত্র : আনন্দবাজারএসএ/

বিদেশগামীদের মৌসুমীর বার্তা

সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টিতে নিজের নাম লেখালেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। অভিবাসন ও কর্মসংস্থান আইনবিষয়ক ইন্টারন্যাশনাল লেবার অর্গানাইজেশনের (আইএলও) ‘জেনে মেনে বিদেশ যাই’ শীর্ষক প্রচারের কাজে অংশ নিয়েছেন তিনি।সম্প্রতি মৌসুমী নাট্যনির্মাতা রহমতুল্লাহ তুহিন এর নির্দেশনায় ৪০ মিনিটের একটি নাটকে অভিনয় করেছেন। নাটকের নাম ‘বিদেশ বাবু’। যদিও নাটকটির শেষ অংশে মৌসুমীকে দেখতে পারবে দর্শক। এতে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন- সাব্বির আহমেদ, ফারজানা রিক্তা ও নীলভ। এটি রচনা করেছেন অয়ন চৌধুরী।এ বিষয়ে মৌসুমী বলেন, ‘এটা তো আসলে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টির একটি কাজ। আমাদের দেশের অনেকেই না জেনে দেশের বাইরে যাওয়ার নানা নিয়মকানুন সম্পর্কে অবহিত না। তাদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যেই আমার এ কাজটি করা।’জানা যায়, নাটকটি আগামী মাস থেকেই বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে দেখতে পাবেন দর্শকরা।এসএ/  

মেহের আফরোজ শাওনের জন্মদিন আজ

আজ প্রয়াত কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী, অভিনেত্রী, কণ্ঠশিল্পী ও নির্মাতা মেহের আফরোজ শাওনের জন্মদিন। একুশে পরিবারের পক্ষ থেকে তার জন্য রইল অনেক অনেক শুভকামনা ও শুভেচ্ছা।  দিনটি উদযাপন প্রসঙ্গে মেহের আফরোজ শাওন বলেন, ‘জন্মদিন নিয়ে আমার বিশেষ কোনো পরিকল্পনা নেই। গত এক মাস আমি দেশের বাইরে ছিলাম। কয়েকদিন হল দেশে ফিরেছি। অনেক কাজ জমে আছে। সেগুলো শেষ করছি। এছাড়া জন্মদিনের কোনো বিশেষত্ব আমার কাছে নেই। আজকে হয়তো সন্তানদের নিয়ে কাছাকাছি কোথাও বেড়াতে যাব।’ এদিকে নিজের ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন শাওন। সেখানে তিনি লিখেছেন- [আমি ফিরেছি।বাংলাদেশে... এবং ফেসবুকে...এবারের উত্তর আমেরিকা যাত্রা ছিল আমার জন্য একটা শিক্ষা সফর। বেশকিছু বিষয়ে আগামী ২/৩ জন্মের জন্য শিক্ষা হয়ে গেছে। সবচেয়ে অস্বস্তিকর ব্যাপারটা ঘটেছে অক্টোবর ৭ এ... আমার ভার্চুয়াল বাড়ির ভেতরে ডাকাত পড়েছিল। আমি তখন নিউইয়র্কে- হুমায়ূন মেলার স্টেজে। ‘হুমায়ূন ও মুক্তিযুদ্ধ’ বিষয়ে গুণী ব্যক্তিদের চমৎকার আলোচনা চলছে- সঙ্গে স্মৃতিচারণ।আমি মুগ্ধ হয়ে সবার কথা শুনছি আর আমার হাতের ফোন থেকে অনবরত ‘টিং টিং’ শব্দ হচ্ছে। বিব্রত আমি ফোনটা নি:শব্দ করে দিলাম।তখনও বুঝিনি, আমার ফেসবুক ঠিকানার নিরাপত্তায় থাকা ইমেল থেকে সতর্কবানী আসছে। আলোচনা শেষে স্টেজ থেকে নামতেই শুরু হলো হলোসেলফি শিকারীদের ভীড়। আমি মুখখানা কিঞ্চিত বাঁকিয়ে সবার সাথে সেলফি তুলতে তুলতে ফোনে চোখ বুলালাম। ব্যাস... আমার মাথায় স্বশব্দে পাঁচটা বাজ পড়লো। আমার ফেসবুক নিরাপত্তার পাঁচ পাঁচটি বেষ্টনী পেরিয়ে জনৈক হ্যাকার (নাকি ডাকাত!) আমার প্রানপ্রিয় আইডিখানা দখলে নিয়েছে!!! সত্যি বলছি... আমি নিজেই জানতাম না এই ‘ফেসবুক’ নামক বস্তুটিতে আমি এতোখানি আসক্ত!!! সবচেয়ে হাস্যকর যে বিষয়টি আমাকে পীড়া দিতে লাগলো- এবারের জন্মদিনে অনেকেই আমাকে শুভেচ্ছা জানাতে পারবে না! নিজের বোকা বোকা চিন্তায় খুব হাসি পাচ্ছে। কিন্তু সুখের কথা হইল আমার ভার্চুয়াল বাড়ির দখল বুঝে পেয়েছি। জ্বি হ্যাঁ... আজ আমার জন্মদিন। এখন তাড়াতাড়ি শুভেচ্ছা জানানো শুরু করেন...’] উল্লেখ্য, মেহের আফরোজ শাওন প্রয়াত নন্দিত নির্মাতা হুমায়ূন আহমেদের ‘আজ রবিবার’ নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে শোবিজে নিয়মিত পথচলা শুরু করেন। তারপর তিনি হুমায়ূন আহমেদের নির্দেশনায় একেএকে বেশকিছু জনপ্রিয় প্যাকেজ এবং ধারাবাহিক নাটোকে অভিনয় করেন। এছাড়া শাওন অভিনয় করেছেন বেশ ক’টি চলচ্চিত্রে। চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’, ‘দুই দুয়ারী’, ‘চন্দ্রকথা’, ‘শ্যামল ছায়া’, ‘আমার আছে জল’। অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার পর শাওন আসেন নির্মাণে। ‘নয়া রিক্সা’, ‘স্বপ্ন ও স্বপ্নভঙ্গ’, ‘এভারেস্ট জয়’, ‘অসময়ে’, ‘বিভ্রম’, ‘আজ জরির বিয়ে’ ইত্যাদি নাটক ছাড়াও তিনি হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মাণ করেন ‘কৃষ্ণপক্ষ’ নামের একটি চলচ্চিত্র। এসএ/  

প্রথমবার বিজ্ঞাপনে সিয়াম-নাদিয়া

দুজন দুই পর্দার জনপ্রিয় তারকা। তবে শুরুর দিকে একই পর্দায় তাদের দেখা গেছে। তবে এ মূহুর্তে বড় পর্দাতেই ব্যস্ত সিয়াম আহমেদ। অন্যজন নাদিয়া, দর্শক মাতিয়ে যাচ্ছেন ছোট পর্দায়।এর আগে নাটক কিংবা টেলিফিল্মে জুটি বেঁধেছেন এই দুই তারকা। তবে কাজ করা হয়নি বিজ্ঞাপনে। এবার প্রথমবারের মত একটি বিজ্ঞাপনে জুটি হলেন তারা। সম্প্রতি রাজধানীর উত্তরার দিয়া বাড়ি ও এর আশপাশের এলাকায় এ বিজ্ঞাপন চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নেন সিয়াম-নাদিয়া। রোজ ক্যাফে কফির এই বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করেছেন পার্থিব রাশেদ। এ প্রসঙ্গে সিয়াম বলেন, ‘আমরা একসঙ্গে অনেক নাটক ও টেলিফিল্মে কাজ করলেও বিজ্ঞাপনে এটাই প্রথম। এর আগে নাদিয়ার সঙ্গে সর্বশেষ ‘আমাদের সেই প্রেম’ মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিজ্ঞাপনে কাজ করার ক্ষেত্রে আমি সবসময় প্রোডাক্ট ও কনসেপ্টের উপর গুরুত্ব দেই বেশি। এ কাজটিও ঠিক তেমনই। ভালো ব্লেন্ড কফি, মূল্যটাও সাধ্যের মধ্যে। আশা করছি সবাই পছন্দ করবে।’ নাদিয়া বলেন, ‘সিয়ামের সঙ্গে আমার কেমিস্ট্রি খুবই ভালো। আমরা দুজন খুবই ভালো বন্ধু। এজন্য আমাদের কাজ করতে আরও অনেক বেশি সুবিধা হয়। একজন আরেকজনের ভুল-ত্রুটি থাকলে সেটা ধরিয়ে দেই। যেকোনো কাজের ক্ষেত্রেই কো-আর্টিস্টের সঙ্গে কেমিস্ট্রিটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এতে করে কাজটা ভালো হয়।’ এসএ/  

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি