ঢাকা, রবিবার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

গণপরিবহনে নারী সহিংসতা প্রতিরোধে ডিএসই’র প্রচারণা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:৩৬ ৯ মার্চ ২০১৮ | আপডেট: ০৯:৫২ ১০ মার্চ ২০১৮

গণপরিবহনে নারীদের ওপর সহিংসতা প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রচারণা কার্যক্রম পরিচালনা করছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি গ্রুপ ড্যু সামথিং এক্সেপশনা বা ডিএসই। ই-কমার্স শপ নাইওরি এবং মিস মিসসান ইন্টারন্যাশনাল এর পৃষ্ঠপোষকতায় এই গণসচেতনামূলক প্রচারণা চালাচ্ছে ফেসবুক ভিত্তিক গ্রুপ এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ডিএসই।

গতকাল বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে নারীদের প্রতি হওয়া সহিংসতা প্রতিরোধে সচেতনামূলক এই কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয় বলে সংগঠনটির পক্ষ থেকে জানানো হয়।

“নাইওরি-হোক প্রতিরোধ” শিরোনামের এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে রাজধানীর বিভিন্ন রুটে চলমান গণপরিবহনে সচেতনতামূলক স্টিকার লাগায় সংগঠনটির স্বেচ্ছাসেবীরা।

স্টিকারগুলোতে যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে গণসচেতনতা বৃদ্ধিতে এবং হয়রানির শিকার কোন নারীকে তাৎক্ষণিক সাহায্যের জন্য বার্তা দেওয়া হয়েছে। যেকোন ধরণের সহিংসতা বিশেষ করে গণপরিবহনে যৌন হয়রানির শিকার নারীকে বাংলাদেশ পুলিশের হটলাইন ‘৯৯৯’-এ ফোন করার জন্য প্রচারণা চালানো হচ্ছে স্টিকারগুলোতে।

ডিএসই এর অ্যাডমিন জেবিন ইসলাম ইটিভি অনলাইনকে বলেন, “সাম্প্রতিক সময়ে গণপরিবহনে নারীদের বিরুদ্ধে হওয়া বিভিন্ন সহিংসতা বিশেষ করে যৌন হয়রানির মত ঘটনা আমরা দেখতে পাই। ধর্ষণ অথবা ধর্ষণের পর হত্যার মত গুরুতর অপরাধও গণপরিবহনে হচ্ছে। এই সবকিছুর বিষয়ে সবাইকে সচেতন করতে এবং ভুক্তভোগী বা তার আশেপাশের কেউ যেন তাতক্ষণিকভাবে সাহায্যের জন্য পুলিশের দ্বারস্থ হতে পারেন সে বিষয়েই আমরা প্রচারণা চালাতে এই স্টিকারগুলো গণপরিবহনে স্থাপন করছি”।

সংগঠনটির আরেক অ্যাডমিন ইমন খান বলেন, “মহান স্বাধীনতার মাসের পুরোটা সময় জুড়েই আমাদের এই প্রচারণা কার্যক্রম চলবে। ঢাকা মহানগরীকে ১০টি জোনে ভাগ করে প্রতিটি জোনে যাতায়াত করা গণপরিবহনে স্টিকার স্থাপন করবে আমাদের স্বেচ্ছাসেবকেরা। এখন পর্যন্ত ১০ হাজার স্টিকার লাগানোর প্রস্তুতি নিয়েছি আমরা”।

//এস এইচ এস//টিকে

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি