ঢাকা, রবিবার   ০৪ ডিসেম্বর ২০২২

ফাস্ট ফুড বড় রোগের মতোই ক্ষতিকর

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:২৪, ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ১৭:৫৭, ১৯ জানুয়ারি ২০১৮

নিয়মিত বার্গার, পিৎজা, ফাস্ট ফুড, যা খুশি খেয়েও আপনি দারুণ সুস্থ থাকলেই ভাববেন না আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্দান্ত। এই ধরনের খাবার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ততটাই কমিয়ে দিতে পারে, ঠিক যতটা কমিয়ে দেয় বড় কোনও সংক্রমণ। এমনটাই বলছেন জার্মানির বন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। সম্প্রতি এই গবেষণার ফল সেল জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

এই গবেষণার জন্য ইঁদুরদের টানা এক মাস ‘ওয়েস্টার্ন ডায়েট’ দেওয়া হয়। যে ডায়েটে থাকে শুধুই হাই স্যাচুরেটেড ফ্যাট, চিনি, নুনযুক্ত খাবার। সম্পূর্ণ বাদ দেওয়া হয় তাজা ফল, সব্জি ও ফাইবার। যাতে শরীরে রোগ প্রতিরোধকারী কোষ বাড়তে না পারে।

গবেষক অ্যানেট ক্রিস্ট জানিয়েছেন, এই অস্বাস্থ্যকর ডায়েট ইঁদুরদের শরীরে গ্রানুলোসাইট ও মোনোসাইট শ্বেতকণিকার বৃদ্ধি ঘটায়। দেখা যায়, এক মাস পর ইঁদুরদের তাদের নিয়মিত ডায়েটে ফিরিয়ে আনা হলে রোগ প্রতিরোধক কোষের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া সত্ত্বেও তারা যে কোনও সংক্রমণের প্রতি অনেক বেশি স্পর্শকাতর হয়ে পড়েছে। এবং ভবিষ্যতে টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়েছে। সাধারণত কোনও বড় সংক্রমণের পর আমাদের শরীরে এই ধরনের সমস্যা হয়। গবেষকেরা জানাচ্ছেন, ফাস্ট ফুড ডায়েটে দীর্ঘ দিন থাকলেও আমাদের শরীর ঠিক একইভাবে প্রতিক্রিয়া জানায়।

এই গবেষণার অন্য এক গবেষক ইকি লাতজ জানান, আমাদের শরীরে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ হলে যে ক্ষতি হয়, সংক্রমণ কমে যাওয়ার পর যদি আমরা শরীরের যত্ন না নিই, ক্রমাগত ফাস্ট ফুড খেতে থাকি, এক্সারসাইজ না করি, তা হলে শরীর কোনও দিনই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ফিরে পাবে না।

সূত্র: আনন্দবাজার।

একে//এসএইচ


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি