ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ২০ ১৪২৭

দেড় বছরেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি ছাত্রদলের (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৩৪, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | আপডেট: ১৫:৩৫, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১

২৭ বছর পর ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৬ষ্ঠ কাউন্সিল হয়। এতে কাউন্সিলরদের ভোটে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ফজলুর রহমান খোকন এবং ইকবাল হোসেন শ্যামল। 

কাউন্সিলের ৩ মাস পর একই বছরের ২১ ডিসেম্বর ৬০ সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। ওই কমিটিতে পরীক্ষিত নেতাদের রাখা হয়নি বলে অভিযোগ ওঠে। তবে দ্রুত পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার আশ্বাস দেয়া হলেও কেটে গেছে দেড় বছরেরও বেশি সময়। কিন্তু এখনো কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে পারেনি ছাত্রদল।  

পূর্ণাঙ্গ কমিটির দাবিতে নয়া পল্টনে কেন্দ্রিয় কার্যালয়ের সামনে প্রতীকি অনশনও করেছে পদপ্রত্যাশীরা। তারা বলছেন, ‘গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বর্তমান কমিটির মেয়াদ আছে ৬ মাসেরও কম। কিন্তু অজানা কারণেই কমিটি পূর্ণাঙ্গ করছেন না সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক।’

পদপ্রত্যাশীরা বলছেন, ‘আজ দেব, কাল কিংবা বিজয় দিবসের পরে দেয়া হবে এমন প্রতিশ্রুতি দিয়ে  ১৬ মাস চলে গেলেও কি কারণে পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয়া হচ্ছে আমরা আসলে বুঝতে পারছি না। পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে বারবার দাবি তোলার পরও তারা আমাদেরকে স্পষ্ট কিছু বলতেছে না।’

দ্রুত কমিটি দেয়া না হলে আবারো আন্দোলনে যাওয়ারও ঘোষণা দেয় পদবঞ্চিত এসব নেতাকর্মীদের। তারা বলছেন, ‘আমরা যারা পদপ্রত্যাশী তাদের দাবি যাতে একটা পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়। সভাপতি-সম্পাদক অবিলম্বে একটা পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করবেন, আমাদেরকে কাজের স্বীকৃতি দিবেন। যদি তারা আরও বিলম্ব করেন, তাহলে আমরা সাংগঠনিক প্রক্রিয়া অনুযায়ী শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি অব্যাহত রাখবো।’

তবে ছাত্রদল সভাপতি  ফজলুর রহমান বলেছেন, ‘সব কমিটি প্রায় শেষের দিকে চলে আসছে। আমাদের চিন্তা ছিল যে ঢাকা মহানগর, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, ও মহানগরের কমিটি গঠনের পরই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা। কেননা, এখান থেকে অনেকে বাদ যাবে।’

যোগ্যদের মূল্যায়ন করা বলে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কমিটি তো হবেই, না হওয়ার তো কিছু নেই। সব কাজ প্রায় শেষ, সামনের মাসের ভিতরে পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়ে যাবে।’
দেখুন ভিডিও :

এআই/ এসএ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি