ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪

আসছে বাজেটে সর্বোচ্চ গুরুত্ব পাচ্ছে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ

মেহেদী হাসান

প্রকাশিত : ১১:১৪, ৪ জুন ২০২৪

আসছে বাজেটে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণকেই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। প্রায় ৩০টি ভোগ্যপণ্যে কমছে উৎসেকর। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এসব পদক্ষেপের পাশাপাশি নিম্নআয়ের মানুষকে স্বস্তি দিতে সামাজিক সুরক্ষা বেষ্টনীর আওতা বাড়াতে হবে। ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্যমান স্থিতিশীলের পাশপাশি কমাতে হবে অপচয়ও। আর প্রকল্প বাছাইয়ে হতে হবে আরও যত্নশীল। 

দীর্ঘদিন ধরেই মূল্যস্ফীতি ১০ শতাংশের কাছাকাছি। কষ্টে সাধারণ মানুষ। বাজারে অর্থের সরবরাহ কমাতে সংকোচনমূলক মুদ্রানীতি অনুসরণ করছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তবুও বাগে আসছে না নিত্যপণ্যের বাজার। এমন বাস্তবতায় আসছে বাজেটে প্রায় ৩০টি ভোগ্যপণ্যের কমছে উৎসেকর।  

প্রাথমিক তথ্যানুযায়ী, চাল, ডাল, গম, ভোজ্যতেল, চিনি, গুড়োদুধ, বিভিন্ন ধরণের মসলা ও ফল আমদানিতে উৎসেকর কমছে। বাজেটে এসব পণ্যের উৎসেকর ২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১ শতাংশ করা হচ্ছে।  

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এসব পদক্ষেপ ছাড়াও মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে ডলারের বিপরীতে টাকার মূল্যমান স্থিতিশীল রাখতে হবে। সরকারকে সরে আসতে হবে নোট ছাপিয়ে ঋণ গ্রহণের মতো প্রবণতা থেকে। পাশাপাশি বড় ঘাটতি না রেখে বাজেট হতে হবে আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ তথা বাস্তবধর্মী।

সাবেক গভর্নর ও অর্থনীতিবিদ ড. আতিউর রহমান বলেন, “বাজেটের ঘাটতি যাতে না বাড়ে, বাজেট যেন খুব বড় আকার না নেয়- সেই দিকে নজর দেবে বলে আমার মনে হয়। প্রতিবছরই বাজেটে প্রায় ১৭-১৮ শতাংশ বাড়ানো হয়। কিন্তু শুনতে পাচ্ছি, এবার বাজেট বাড়বে মাত্র ৪ শতাংশ। তার মানে বাজেটে আয় বুঝে ব্যয় করার একটা প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে।”

এদিকে, উচ্চমূল্যস্ফীতি থেকে দরিদ্র জনগোষ্ঠিকে স্বস্তি দিতে সীমিত সাধ্যের মধ্যেই সামাজিক নিরাপত্তা বলয় ও খাদ্যবান্ধব বিভিন্ন কর্মসূচিতে সরকারকে আরও জোড় দিতে হবে বলেও মত তাদের। 

ড. আতিউর রহমান বলেন, “সামাজিক নিরাপত্তা আরও বাড়বে। কিন্তু বাড়লেও একজন বিধবাকে আমরা কতই টাকা দিতে পারি, ৮ থেকে ১ হাজার। এই টাকা দিয়ে তার সংসার কিভাবে চলে।”

অর্থনীতিবিদ ড. জালাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, “যদি খাদ্য জাতীয় পণ্য দেওয়া হয় তাহলে চুরি হবে। সুতরাং তাকে নগদ টাকা দিয়ে দেওয়া উচিত, সে কিনে নিবে।”

এসব কর্মসূচির সুবিধা যাতে প্রকৃত নিম্নআয়ের মানুষ পায়, সেটিও নিশ্চিত করার পরামর্শ অর্থনীতিবিদদের।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি