ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৮ ৫:৩২:২৫

Ekushey Television Ltd.

ইফতারি ও সেহরির জন্য যেতে পারেন এই রেস্টুরেন্টগুলোতে  

শাওন সোলায়মান

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৫৯ পিএম, ১৭ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার

আজ থেকে শুরু হয়েছে ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের সিয়াম সাধনার মাস মাহে রমজান। সারাদিন রোজা রাখার আগে সেহরি ও পরে ইফতারির খাবার কেমন হবে তা গুরত্বপূর্ণ। অনেকেই আবার পরিবার পরিজন নিয়ে ইফতারি ও সেহরি আদায় করতে যান রেস্টুরেন্টে। বিশেষ করে রেস্টুরেন্টে সেহরী আদায় করা রাজধানীবাসীর কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের খাবার বিষয়ক গ্রুপ ফুডব্যাংকে ইতোমধ্যে ঘুরে ফিরছে রেস্টুরেন্টগুলোর সর্বশেষ অফার। তাই এবারের রমজানে ইফতার বা সেহরির জন্য পছন্দের তালিকায় রাখতে পারেন এই ১০টি রেস্টুরেন্ট।

১) চিলার্স

ইফতারির জন্য বিশেষ প্ল্যাটার সাজিয়েছে মিরপুরবাসীদের কাছে পরিচিত নাম চিলার্স। মূলত বিভিন্ন ধরণের পানীয় পাওয়া গেলেও এবারের ইফতারিতে চিলার্সের থাকছে দুইটি বিশেষ ইফতারি প্ল্যাটার। ২৯৯ টাকার প্ল্যাটারে থাকছে রাইস, ভেজিটেবল, তেরইয়াকি চিকেন, মিনি বার্গার, আলুর চপ, বেগুনী, পিয়াজু, খেজুর, ছোলা ও জিলাপি। আর ১৯৯ টাকা মূল্যের প্ল্যাটারটিতে থাকছে চিকেন চিজ বার্গার ও বার্বিকিউ সসেজ। আর দুইটি প্ল্যাটারের সাথেই থাকছে মিন্ট ড্রিংক্স, পানি ও ইফতারিতে বাঙ্গালীর চিরচেনা খাবার চপ, বেগুনী,পিয়াজু,খেজুর, ছোলা ও জিলাপি।

২) প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও

রাজধানীর তারকা হোটেল প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও রমজান মাস জুড়ে রেখেছে বুফে ইফতার ও ডিনারের ব্যবস্থা। মধ্যপ্রাচ্যের আরব অঞ্চলের কিছু ঐতিহ্যবাহী খাবারের সাথে পাওয়া যাবে আরও সুস্বাদু ও মজাদার অনেক ধরনের খাবার। প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও-তে এই ইফতারি ও ডিনারে অংশ নিতে প্রতিজন গ্রাহকের খরচ হবে সাড়ে তিন হাজার টাকা। আর স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকের সিগনেজচার, প্ল্যাটিনাম ও টাইটেনিয়াম ক্রেডিট কার্ডধারীরা পাবেন একজনের সাথে আরেকজনের জন্য এই বুফে ইফতার ও ডিনার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে।

৩) স্টার লাউঞ্জ

পান্থপথের বসুন্ধরা সিটি শপিং মল ঈদ কেনাকাটার জন্য অনেকের কাছেই পছন্দের তালিকার শীর্ষে থাকে। কেনাকাটার সময় যদি ইফতারির সময় হয়ে যায় তাহলে চিন্তা নেই। লেভেল-৮ এর স্টার লাউঞ্জে আছে ইফতারির বিশেষ খাদ্য তালিকা।

প্রতিজন ৩৭০ টাকা থেকে ৫৫০টাকার মধ্যে বেশ কয়েকটি ইফতারি প্ল্যাটারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে এখানে।

৪) কোল্ডস্টোন ক্রিমারি 

কোল্ডস্টোন ক্রিমারি রেস্টুরেন্টের ধানমন্ডি ও গুলশান আউটলেটে ইফতারির আয়োজনে থাকছে স্টেক। মেক্সিকান স্টেকের স্বাদ নিয়ে দুইটি ইফতারি প্ল্যাটার রেখেছে এই রেস্টুরেন্ট। দুইটি প্ল্যাটারের মূল্য পরবে ৭৪৫ টাকা ও ৮৪৫ টাকা। এর সাথে যুক্ত হবে ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন করো (ভ্যাট)।

৫) দ্য রুফটপ খিলগাঁও

খিলগাঁও বাসীদের ইফতারিতে ভিন্ন স্বাদ এনে দিতে দ্য রুফটপ খিলগাঁও এবারের ইফতারিতে সংযোজন করেছে দুইটি প্ল্যাটার। পানি, খেজুর আর ইফতারির অন্যান্য পদের সাথে এতে থাকছে ফ্রাইড রাইস ও বারবিকিউ চিকেন। আর অন্য প্ল্যাটারটিতে রাইসের সাথে থাকবে শাসলিক। প্ল্যাটার দুইটির মূল্য যথাক্রমে ৪০০ টাকা ও ৫০০ টাকা। যুক্ত হবে ভ্যাট।

৬) দাওয়াত ই ইফতার

রেস্টুরেন্টের নামের সাথেই আছে ইফতার। বোঝাই যাচ্ছে, এই রমজানে রেস্টুরেন্টির থাকবে বিশেষ আয়োজন। আছেও তাই। ৪ জনের কথা বিবেচনায় নিয়ে বিশেষ এক প্ল্যাটার রেখেছে রেস্টুরেন্টটি। এতে থাকছে- আফগানি বিরিয়ানি রাইস, হায়দ্রাবাদী বিরিয়ানি রাইস, কাশ্মিরী পোলাও, চিকেন রেশমী কাবাব, চিকেন টিক্কা কাবাব, চিকেন বটি কাবাব, চিকেন টাংরী কাবাব, মাছের কাবাব ও স্পেশাল চিকেন কারাই মাসালা। এছাড়াও চার জনের থাকছে ড্রিংকস, সালাদ, খেজুর ও ফিন্নী। প্ল্যাটারটির দাম পরবে ১৪৯৯ টাকা।

৭) নান্দুস

বিশ্ববিখ্যাত চেইন শপ নান্দুসও এবারের ইফতারিতে আয়োজন করেছে বিশেষ ডিশের। দুই জনের জন্য একটি ডিশ রমজান মাস জুড়ে গ্রাহকদের জন্য রেখেছে তারা। ডিশটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘ভেরি হাংরী’ অর্থ্যাত খুবই ক্ষুধার্ত।

এই ডিশে দুই জনের প্রতি জনের জন্য থাকছে কোয়ার্টার পেরি পেরি চিকেন, ফ্রাইড রাইস, পেরি পেরি ওয়েজেস, কলস্লো, কর্ণ, নান্দুস চিকেন বার্গার, ব্রাউনিসহ আইসক্রীম, পানি, ফ্রেশ ফ্রুটস ও খেজুর।

সাধারণভাবে এই ডিশটির দাম দুই হাজার টাকা হলেও রমজান মাস জুড়ে এর দাম থাকবে ১৫৯৯ টাকা। আর হ্যাঁ, ভ্যাট কিন্তু থাকছে।

৮) রিক্সা ক্যাফে

ঢাকা শহরের রেস্টুরেন্টগুলোর মধ্যে বেশ ব্যতিক্রমী একটি রেস্টুরেন্ট রিক্সা ক্যাফে। ঢাকার শতবর্ষী ঐতিহ্য রিক্সাকে থীম করে তৈরি করা হয়েছে রেস্টুরেন্টটি। এর ইফতার প্ল্যাটারেও আছে বৈচিত্র্য। চারটি কোর্সে সাজানো হয়েছে তাদের ইফতারি প্ল্যাটার। 

স্টারটার হিসেবে থাকছে চিকেন মিক্সড সালাদ, আলু পাকোরা, ছোলা বুট, ক্রিসপি চিকেন ও হালিম। মেইন কোর্সে থাকছে নুডলস, ফ্রাইড রাইস, সবজি এবং সাথে লেমন পিপার চিকেন অথবা বীফ সিজামে এর মধ্যে যে কোন একটি।

এমন ভারী খাবারের পর মুখে মিষ্টি স্বাদ এনে দিতে থাকছে গুলাম জামুন বা সহজ বাংলায় লাল চমচম।

সবশেষে পানি এবং তাজা তরমুজ বা আমের জুসের সাথে থাকছে খেজুর, আনারস এবং মাল্টা।

৯) ফিল্মী ক্যাফে

মোহাম্মদপুরের ফিল্মী ক্যাফে তাদের ইফতার মেন্যু সাজিয়েছে পিজ্জা দিয়ে। যদিও রেস্টুরেন্টের অন্যসব আইটেমও পাওয়া যাবে। পিজ্জায় আকর্ষণীয় অফার দিচ্ছে ফিল্মী ক্যাফে। ৪৮০ টাকা মূল্যের ১২ ইঞ্চির একটি পিজ্জা অর্ডার করলে ক্রেতা সাথে পাবেন আরও ৮ ইঞ্চির একটি পিজ্জা। চারজন আরামসে ইফতার সেরে ফেলতে পারবেন এই পিজ্জা দিয়ে। 

১০ ) কাজী-অ্যাস্পারাগাস ফুড আইল্যান্ড  

মিরপুরের কালশীতে কাজী-অ্যাস্পারাগাস ফুড আইল্যান্ডে থাকছে ইফতার ও সেহরির ব্যবস্থা। ২৭ রোজা পর্যন্ত প্রতিদিন সেহরী পর্যন্ত খাবার পরিবেশন করবে কাজী-অ্যাস্পারাগাসের প্রায় অর্ধশতাধিক খাবারের দোকান।

এখানে শিশুদের জন্য খেলাধূলার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পাশাপাশি রাখা হয়েছেন মাগরিব, এশা ও ফজরের নামায আদায় করার ব্যবস্থাও। রেস্টুরেন্টগুলোর প্রতিটি প্ল্যাটারের সাথে গ্রাহকের জন্য থাকবে ২৫০ মিলিলিটারের প্রাণ-ফ্রুটো জুস। 

এসি 

 

 



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি