ঢাকা, সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

এসডিজি অর্জনে সরকার নিরলস প্রয়াস চালাচ্ছে : রাষ্ট্রপতি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২২:২০ ১৩ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০০:১৫ ১৪ জানুয়ারি ২০১৮

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের মাধ্যমে দেশকে আরো এগিয়ে নিতে সরকার নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে।

ন্যাশনাল হাউসহোল্ড ডাটাবেজ (এনএইচডি) উপলক্ষে এক বাণীতে এ কথা বলেন। আগামীকাল থেকে এনএইচডি প্রকল্পের উদ্যোগে ২য় পর্বে মাঠ পর্যায়ে তথ্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর ‘ন্যাশনাল হাউসহোল্ড ডাটাবেজ (এনএইচডি) প্রকল্পের উদ্যোগে দ্বিতীয় পর্বে মাঠ পর্যায়ে তথ্যসংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে জেনে রাষ্ট্রপতি সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি এ প্রকল্পের সঙ্গে সম্পৃক্ত সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।

আবদুল হামিদ বলেন, ‘সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশ প্রশংসনীয় সাফল্য দেখিয়েছে। বাংলাদেশকে বলা হয়ে থাকে এমডিজি বাস্তবায়নের রোলমডেল। এটা বাংলাদেশের জন্য গৌরবের বিষয়। এ সুনাম অক্ষুন্ন রেখে আগামীতে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের মাধ্যমে দেশকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে সরকার নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে।’

‘প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো বিভিন্ন পরিসংখ্যান প্রণয়নের মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন পরিকল্পনায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে আসছে। দারিদ্র দূরীকরণ, খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টি উন্নয়ন, সকলের জন্য সুস্বাস্থ্য ও মানসম্পন্ন শিক্ষার সুযোগ নিশ্চিতকরণ, জেন্ডার সমতা এবং নারীর ক্ষমতায়নসহ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সরকার বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির পাশাপাশি বহুবিধ উন্নয়ন কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।’

রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, এরই ধারাবাহিকতায় পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধীনে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো দেশের সকল খানার তথ্য নিয়ে তৈরি করছে খানাভাণ্ডার। এ তথ্য ভাণ্ডারে খানার জনমিতিক তথ্য ছাড়াও থাকবে আর্থসামাজিক অবস্থার তথ্য যার উপর ভিত্তি করে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে খানার আর্থসামাজিক অবস্থা সহজেই চিহ্নিত করা যাবে।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, এ ডাটাবেজ তৈরির মাধ্যমে সরকারের সামাজিক নিরাপত্তামূলক কর্মসূচির সফল বাস্তবায়ন সম্ভব হবে।

সূত্র: বাসস

কেআই/টিকে

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি