ঢাকা, রবিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৮ ১:৪৯:৫৮

Ekushey Television Ltd.

ঝগড়ার পরও যেভাবে গড়বেন মিষ্টি সম্পর্ক

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৪:৪৩ পিএম, ১২ এপ্রিল ২০১৮ বৃহস্পতিবার

সম্পর্ক থাকলে দুজনের মধ্যে ঝগড়া হবে, এটাই স্বাভাবিক। সেটা স্বামী-স্ত্রী কিংবা প্রেমিক-প্রেমিকার সম্পর্ক হতে পারে। তবে কথায় আছে, যত ঝগড়া তত প্রেম। কেননা ঝগড়া করার সময় ঠিকই ঝগড়া করলেন। এরপর যখন কথা বলা বন্ধ থাকে তখন দুজন দুজনের মধ্যে আবেগ অনেকটাই বেড়ে যায়। এ সময় সম্পর্ক হয় আরও গাঢ়। তবে কিছু কিছু সময় দুজনের কেউ একজন ঝগড়ার পর মধুর সম্পর্কে ফিরে আসতে পারেন না। সেক্ষেত্রে কিছু কৌশল অবলম্বন করলে মিষ্টি সম্পর্ক তৈরি করা সম্ভব।

ঝগড়ার বিষয়টি মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করুন

বুকের ভিতর অভিমান জমিয়ে রেখে কষ্ট পাওয়া কি দরকার। বরং ঝগড়ার পরও সম্পর্ক আবার নতুন করে মধুরতা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করুন। ঝগড়ার বিষয়টি যেটাই হোক না কেন মিটিয়ে ফেলবেন। এর রেশ টেনে পরবর্তীতে আর ঝগড়া করবেন না।

ক্ষমা চাইতে হবে

ক্ষমা চাইলে কেউ ছোট হয়ে যায় না, বরং এতে উদার ও বড় মনের পরিচয় মেলে। এতে করে দুজনের প্রতি শ্রদ্ধাও বাড়বে, সম্পর্কও হবে দীর্ঘস্থায়ী। তাই ভুল যারই হোক না কেন একজন অপরজনের কাছে ক্ষমা চয়ে নিন।

অতীতে মধুর সম্পর্ক মনে করুন

ঝগড়ার পর মন অশান্ত থাকে। ঠিক এ সময় অতীতে আপনাদের একসাথে কাটানো মধুর সম্পর্ক মনে করেন এবং সঙ্গীর সাথেও শেয়ার করুন। দেখবেন তারও মন ভালো হয়ে যাবে।

কথা শুনুন

সম্পর্ক ঠিক রাখতে হলে ঝগড়ার সময় যে কোন একজনকে ঠাণ্ডা থাকতে হবে। তা না হলে ঝগড়ার পরবর্তীতে সম্পর্ক বজায় থাকবে না। তাই ঝগড়া করার সময় আপনি থেমে যান, তার কথাগুলো শুনুন।

ঝগড়ার সময় জোর করবেন না

মনে রাখবেন জেদ করে কিংবা জোর করে কোনো কিছুই হয় না। যদি সঙ্গী আপনার মতো চিন্তা না করতে পারেন তবে আপনি তাকে জোর করে নিজের মতো করে ভাবতে বাধ্য করবেন না। তিনি ঝগড়ার পর যখন শান্ত হবেন তখনই তার সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি সহজ করে নিন। নতুবা পরবর্তীতে আবারও ঝগড়ার সূচনা হবে।

সূত্র : আজকাল।

কেএনইউ/ এআর

  



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি