ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২০:১১:৫১

Ekushey Television Ltd.

নীলা বাজারের গরম মিষ্টির স্বাদ নিতে চাইলে…

সাদ্দাম উদ্দিন আহমদ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৫:০৯ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার | আপডেট: ০৭:১৩ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার

ভোজনবিলাসী বাংলাদেশিদের খাবারের প্লেটে একটা মিষ্টি যেন অমৃত। খুশির সংবাদ কিংবা কোনো আনন্দের সংবাদে মিষ্টির কোন বিকল্প নেই। বিভিন্ন  ধরনের মিষ্টি পাওয়া যায় বিভিন্ন  বাজারে। তবে বিভিন্ন জনের ভিন্ন ভিন্ন পছন্দ।

আপনি যদি মিষ্টি পছন্দ করেন কিংবা মিষ্টির প্রয়োজন পড়ে তাহলে যেতে পারেন পূর্বাচলের বালু ব্রিজের নীলা বাজারে। মিষ্টির জন্য নীলা বাজারের বিকল্প এখনও নেই বলে অনেকেই মনে করেন।

শুধু রসগোল্লা না, এখানে আপনি পাবেন আপনার পছন্দের সব রকমের মিষ্টি , চমচম, সন্দেশ, কালোজাম, লাড্ডু, বাতাসা, জিলাপি, রসমালাই , পানিতোয়া, বালিশ মিষ্টি, দইসহ আরও অনেক রকমের মিষ্টি রয়েছে এখানে।

পূর্বাচলে গড়ে উঠেছে নীলা বাজার। এখানে রয়েছে গ্রামীণ পরিবেশে। এ বাজারের প্রধান আকর্ষণ গরম গরম বিভিন্ন রকমের মিষ্টি। সারি বদ্ধভাবে অনেকগুলো মিষ্টির দোকান পাবেন এখানে।

মিষ্টির কারিগররা এখানেই তৈরি করছেন এই মনোমুগ্ধকর মিষ্টি। পছন্দ মতো মিষ্টি খেতে পারবেন খুব সহজেই। তুলনামূলকভাবে দামও কম। যা হাতের লাগালেই। মাত্র ২০ টাকা খরচ করে আপনিও খেতে পারেন। রসোগোল্লা, রসমালাই , কালোজাম , লাল মোহন, সাদা মিষ্টি, নেত্রকোনার বালিশ মিষ্টিসহ নানা স্বাদের মিষ্টি পাওয়া যায়। বাসার জন্য কেজি দরে কিনে নিয়ে যেতে পারবেন এখানের মিষ্টি। ১৮০ থেকে ৩৫০ টাকার মধ্যেই মিষ্টি পাওয়া যায় এখানে।

যেভাবে যাবেন: নিজের গাড়ি থাকলে কুড়িল থেকে  ৩০০ ফিটের রাস্তা ধরে সোজা চলে যাবেন বালুর ব্রিজ হয়ে পূর্বাচলের নীলা বাজার।

যদি বাস বা সিএনজিতে যেতে চান তবে প্রথমে আসতে হবে কুড়িল বাস স্ট্যান্ড। সেখান থেকে বিআরটিসি বাসে নীলা বাজার ভাড়া নিবে জন প্রতি ১৫ টাকা করে। যেতে যেতে আপনি উপভোগ করবেন চারপাশের মনোমুগ্ধকর প্রাকৃতিক দৃশ্য। এ যাত্রায় আপনাকে এনে দিতে পারে গ্রামীণ আবেশ। হয়ে যেতে পারে মন উৎফুল্ল। চাইলে আপনি খেয়ে আসতে পারেন এই মিষ্টি বাজারের মিষ্টি।

 

এসএইচ/

 

 



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি