ঢাকা, বুধবার   ২৪ জুলাই ২০১৯, || শ্রাবণ ৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

পেশায় সাফল্য পেতে চৌকশ হোন

প্রকাশিত : ১১:৪১ ১১ জুলাই ২০১৯

সফল ক্যারিয়ার তখনই হবে যখন আপনার কর্ম জীবন সফল্যের স্তরে নিয়ে যাবেন।  শতকরা ৯০ জন ক্যারিয়ারিস্ট জীবন শুরু করেছেন শূন্য থেকে। নিরলস শ্রম ও সুবিবেচনাপ্রসূত সিদ্ধান্ত তাদেরকে ধাপে ধাপে এগিয়ে নিয়েছে। তাই প্রতিটি যুক্তিসঙ্গত চাওয়াকে নিজের সামর্থ্যই দিয়ে অর্জন করার নামই হলো সাফল্য। সাফল্য হচ্ছে ক্রমাগত এগিয়ে চলা। প্রতিটি অর্জনই হচ্ছে নতুন শুরু, নতুন যাত্রার প্রস্তুতি।

এবার জেনে নেই চৌকশ হবার উপায় :

বিশ্বাস রাখুন আস্থায়

নিজের প্রতি আস্থা রাখুন। কাজের প্রতি বিশ্বস্ত থাকুন। কাজই হোক আপনার প্রেম। পেশাকে পরিপূর্ণরূপে গ্রহণ করুন। যখন যে পেশায় থাকবেন, সে পেশার কাজের সঙ্গে একাকার হয়ে যাবেন। কাজকে অবহেলা করবেন না। গোঁজামিল বা ফাঁকি দেবেন না। কোনো অপারগতায় অজুহাত দেবেন না। যুক্তিসঙ্গত কারণ দেখিয়ে সরল স্বীকারোক্তি করুন। ভান বা অভিনয় নয়, মনের আনন্দে কাজ করবেন। যতদিন যে প্রতিষ্ঠানে চাকরি করবেন, ততদিন তার স্বার্থরক্ষায় সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখুন।

কাজের ক্ষেত্রে কৌশলী হন

সিদ্ধান্ত নিতে সাহসী থাকুন। প্রজ্ঞাপূর্ণ সিদ্ধান্ত পরিস্থিতিকেই বদলে দিতে পারে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সবচেয়ে কম ক্ষতি স্বীকার করে সবচেয়ে বেশি লাভবান হতে সচেষ্ট থাকুন। যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করেই সমস্যা সমাধানের কৌশল ঠিক করুন। কাজের প্রয়োজনে অন্যদের সঙ্গে সুসম্পর্ক ও যোগাযোগ বজায় রাখুন। কাজের ব্যাপারে আবেগপ্রবণ হবেন না। অভিমান- অভিযোগ না করে সমস্যা সমাধানে পদক্ষেপ নিবেন।

পেশাদারিত্ব বজায় রাখুন

অফিসকে বাসায় বা বাসাকে অফিসে নিয়ে আসবেন না। অর্থাৎ অফিসের কাজ অফিসেই করবেন, পারিবারিক কাজগুলো অফিস সময় করবেন না। পেশাগত বা পারিবারিক দুশ্চিন্তা ও সমস্যা যেন একটি অপরটির শান্তিকে বিঘ্নিত না করে। কোনো মন্তব্য বা আচরণের প্রেক্ষিতে বস বা সহকর্মীর সঙ্গে বিরোধে জড়াবেন না। প্রকাশ্যে কাউকে অপমান বা হেয় করবেন না। কর্মক্ষেত্রে সম্পর্কের জটিলতা বা ভুল বোঝাবুঝিকে ব্যক্তিগতভাবে নিবেন না। কোনো ভুল হয়ে গেলে যুক্তি খণ্ডন করবেন না। অন্যেরা বলার আগে নিজেই তা নিঃসংকোচে স্বীকার করুন।

আনুগত্য প্রদর্শন করুন

চেয়ার/ বসের প্রতি আন্তরিক আনুগত্য প্রদর্শন করুন। তাহলে আপনিও আপনার অধীনস্থদের আনুগত্য লাভ করবেন। প্রাতিষ্ঠানিক প্রতিটি কাজে বসকেই সবচেয়ে নির্ভুল মডেল মনে করুন। চাকরির কাজে বসের কথা ও সিদ্ধান্তকে সব সময় হ্যাঁ বলুন। তার প্রতি মনে কোনো ক্ষোভ রাখবেন না। মনে ক্ষোভ থাকলে বাস্তবেও দূরত্ব বেড়ে যাবে। বসের যুক্তিসঙ্গত প্রশংসা করতে কখনোই কার্পণ্য করবেন না। যে কোনো ছোট আনুকূল্যের জন্যেও তাকে ধন্যবাদ দিন।

কর্ম দক্ষতা বৃদ্ধি করুন

পেশাভিত্তিক যোগ্যতা-দক্ষতা অর্জনের মাপকাঠিতে প্রতিদিন নীরবে আত্মপর্যালোচনা করুন। ব্যবস্থাপকীয় গুণাবলি ও সাংগঠনিক দক্ষতা বাড়ান। তাহলে অন্যদের শক্তিকে সহজেই কাজে লাগাতে পারবেন। চাকরি সংক্রান্ত ব্যবহারিক জ্ঞান অর্জনে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ গ্রহণ করুন। সহকর্মীকে সহযোগী, বসকে অভিভাবক এবং নিজেকে নিজের প্রতিযোগী মনে করুন। সুস্থ প্রতিযোগিতা আপনার কর্ম দক্ষতাকে বেগবান করবে।

উপরোক্ত পদ্ধতিগুলো আপনার ভেতর প্রতিফলিত হলেই আপনি হবেন একজন চৌকশ পেশাজীবী। সাফল্য আপনার হাতের মুঠোয়। আপনাকে আর কোন ব্যাপারে পেছনে ফিরতে হবে না। আপনি থাকবেন সাফল্যের চূড়ায়।

এএইচ/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি