ঢাকা, রবিবার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বিশ্বের সবচেয়ে দামি পাদুকা!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:০০ ১৬ আগস্ট ২০১৮ | আপডেট: ১৩:০৬ ১৮ আগস্ট ২০১৮

গায়ে সুন্দর একটি পোশাক বাড়িয়ে দেয় মানুষের সম্মান বা মর্যাদা। সে মর্যাদাকে বহুগুণে বাড়িয়ে দেয় গায়ের সবচেয়ে দামি গহণা। মার্যাদা বাড়ানোর মিছিলে যোগ দেয় দুই পায়ে পরিহিত পাদুকাও। তাই পোশাক ও গহণার পাশাপাশি বিশ্বের সবচেয়ে দামি পাদুকার দাম সম্পর্কে জানতে কৌতুহলের শেষ নেই সাজ পিয়াসুদের। তাদের সেই আগ্রহের খোরাক যোগাতে বিলাসবহুল ফ্যাশন ব্র্যান্ডগুলো বছরের বিভিন্ন উপলক্ষ ও সময় ধরে হাজির হয় নতুন নতুন সংগ্রহ নিয়ে। যার ধারাবাহিকতায় ২০১৮ সালেও তুলে ধরা হয়েছে সবচেয়ে দামি কয়েকটি পাদুকা।

লুই ভিশন: অনেকের ধারণা, বহুমূল্যের জুতা সরবরাহকারী ব্র্যান্ডগুলো কেবল নারীদের জন্যই পসরা সাজায়। তবে সে ধারণা একেবারেই মুছে ফেলে ম্যানহাটন রিশেলিউ মেন’জ জুতা বিক্রি হয়েছে ১০ হাজার ডলারে। ২০১০ সালে পুরনো নকশায় তৈরি চামড়ার লাইনিং ও হ্যান্ড পেইন্ট চামড়ার সোলের এ জুতা আনে লুই ভিশন।

স্টুয়ার্ট ওয়াইজম্যান: এ ব্র্যান্ড সাধারণত ৩০০-৪০০ ডলারে জুতা বিক্রি করে। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় তারা এনেছে বহু দামি কিছু পাদুকা, যা কিনা কখনো কখনো ধনকুবেরদের কাছেও অতিমূল্যের বলে মনে হতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে ৫ লাখ ডলারের ডায়মন্ড ড্রিম স্টিলেটো, ১০ লাখ ডলারের মেরিলিন মনরো সু রেট্রো রোজ পাম্প। ২০ লাখ ডলারের সিনড্রেলা স্লিপার ও ৩ মিলিয়ন ডলারের রিটা হেইওয়ার্থ হিল।

মানোলো ব্লানিক: মূল্যবান জুতার সংগ্রহ রয়েছে এমন ব্র্যান্ডগুলোর মধ্যে মানোলো ব্লানিক অন্যতম। এ ব্র্যান্ডের ব্লিক্সা এলিগেটর পাম্পের দাম ৪ হাজার ৬০০ ডলার।

ক্রিস্টিয়ান লুবোটান: লাল সোলের হাইহিলের সুন্দর একটি জুতা এনেছে ক্রিস্টিয়ান লুবোটান। বর্তমানের আধুনিক নারীকে উৎসর্গকৃত এ জুতা একই সঙ্গে বহিঃপ্রকাশ ঘটাবে শক্তি, উদ্যম ও নারীত্বের। এমন একটি জুতা পায়ে গলাতে চাইলে খরচ করতে হবে ৩ হাজার ৯৫ ডলার।

গুচি: স্বকীয়তা, ভিন্ন ঘরানা ও কাঁচামালের জন্য গুচি ফ্যাশনপ্রেমীদের কাছে অন্যতম প্রিয় ব্র্যান্ড। গুচির এ-যাবৎ বিক্রি করা দামি জুতাগুলোর অন্যতম হলো বুনন করা চামড়ার তৈরি বুট, যার মূল্য ৩ হাজার ৭৫০ ডলার। তাছাড়া এদের সোফিয়া এটলি জুতার মূল্য ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ১৯৫ ডলার।

সূত্র: ফিন্যান্সেস অনলাইন

আরকে//

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি