ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:১১:৫৩

Ekushey Television Ltd.

ব্রাজিল-বেলজিয়াম পরিসংখ্যানে যে এগিয়ে  

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৭:৪৩ পিএম, ৬ জুলাই ২০১৮ শুক্রবার | আপডেট: ১০:৩৭ পিএম, ৬ জুলাই ২০১৮ শুক্রবার

রাশিয়া বিশ্বকাপের সোনালি ট্রপিটা নিজেদের করে নেওয়ার জন্য পাগলপারা হয়ে আছে ব্রাজিল। আর এ জন্য তাদেরকে আরও দুইটা ধাপ পার হতে হবে। এখন কোয়ার্টারে তাদের মুখোমুখি বেলজিয়াম। অতীত পরিসংখ্যানে ব্রাজিলকেই সবাই এগিয়ে রাখছে। অন্যদিকে ইতিহাস গড়তে মুখিয়ে আছে বেলজিয়াম। এবারের বিশ্বকাপে তারা চমক দেখিয়ে যাচ্ছে।   

বেলজিয়ামের বিপক্ষে আগের চারবারের দেখায় সেলেসাওরা হেরেছে কেবল একবার, জিতেছে বাকি সবগুলো। বিশ্বকাপে খুব বেশি দেখা হয়নি দুই দলের, এনিয়ে দ্বিতীয়বার মুখোমুখি হচ্ছে তারা।

২০০২ সালের বিশ্বকাপে লুই ফিলিপে স্কলারির ব্রাজিল কোবেতে ২-০ গোলে জিতেছিল। দ্বিতীয়ার্ধে গোল করেছিলেন রোনালদো ও রিভালদো।

শেষ ষোলোর ওই ম্যাচে বেলজিয়ামের আক্রমণভাগের সামনে বেশ কয়েকবার পরীক্ষা দিতে হয়েছিল গোলরক্ষক দিদাকে। শেষ পর্যন্ত গোলপোস্ট অক্ষত রেখেছিলেন তিনি। তারপর ৬৭ মিনিটে ডিবক্সের প্রান্ত থেকে গোল করে ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন রিভালদো। তিন মিনিট বাকি থাকতে নিখুঁত ফিনিশে দলের জয় সুনিশ্চিত করেন রোনালদো। তারপর ইংল্যান্ড, তুরস্ক ও জার্মানিকে হারিয়ে পঞ্চম ও শেষ শিরোপা জেতে দলটি।

প্রথমবারের মতো ১৯৬৩ সালে ব্রাজিল ও বেলজিয়াম মুখোমুখি হয়েছিল। তখনকার দুইবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল গিয়েছিল ব্রাসেলসে, স্বাগতিকদের কাছে তারা হারে ৫-১ গোলে। তার তিন দিন আগে পর্তুগালের সঙ্গে ম্যাচ খেলে ক্লান্ত পেলে হননি দলের সফরসঙ্গী। প্রীতি ম্যাচ হলেও ব্রাজিলের এই হার হয়েছিল সমালোচিত।

অবশ্য দু্ই বছর পর সেই হারের প্রতিশোধ ব্রাজিল নিয়েছিল মারাকানায়। পেলের হ্যাটট্রিকে ৫-০ গোলে বেলজিয়ানদের উড়িয়ে দিয়েছিল তারা।

তারা আর একবার মুখোমুখি হয়েছিল ১৯৮৮ সালে। জিওভানির জোড়া গোলে অ্যান্টওয়ার্পে ২-১ গোলে বেলজিয়ামকে হারায় ব্রাজিল।  

তবে সবকিছু ছাপিয়ে ব্রাজিল ও বেলজিয়ামের কোয়ার্টার ফাইনালের এই লড়াই রোমাঞ্চ ছড়াচ্ছে বেশি। দুই দলই সমান আত্মবিশ্বাসী। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল রাশিয়াতে প্রত্যেক ম্যাচে উন্নতি করে যাচ্ছে। বেলজিয়ামও কম নয়, গ্রুপের সবগুলো ম্যাচ জিতে নকআউটে জাপানের বিপক্ষে ২ গোলে পিছিয়ে পড়ে জিতেছে। ১৯৮৬ সালের পর প্রথম সেমিফাইনাল হাতছানি দিচ্ছে তাদের।

তাই অতীত অনুপ্রাণিত করলেও ব্রাজিলকে সতর্ক থাকতে হচ্ছে কাজান অ্যারেনার কোয়ার্টার ফাইনালে। গোল ডটকম

এসি        

 



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি