ঢাকা, বুধবার   ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ভুল ধারণা থেকে ঘটতে পারে হার্ট অ্যাটাক

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:৫২ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

অধিকাংশ মানুষের ভাবনা- হৃদরোগ হয় মোটাসোটাদের, নয়তো বয়স বাড়ার কারণে হার্ট নষ্ট হয়৷ আবার ব্যায়াম করে ছিপছিপে থাকার পরও এই রোগ হানা দিতে পারে, যে কোনো বয়সে হতে পারে- তা ভাবতেই পারেন না অনেকে৷ কিন্তু বর্তমান সময়ে কম বয়সই মানুষও হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত হচ্ছেন।

ফিট থাকার চেষ্টা করেন অনেকে, কিন্তু ভেতরের খবর রাখেন না। তার উপর স্বাস্থ্যবানরা সচরাচর চেকআপও করান না, মনে করেন আমি তো ভাল আছি৷ হার্ট অ্যাটাকের কী কী উপসর্গ হতে পারে তা নিয়েও রয়েছে অজ্ঞতা। সবমিলেই বাড়ে বিপদ৷

অনেকে মনে করেন, বুকে ব্যথা নেই মানে হার্ট অ্যাটাক হয়নি৷ তা কিন্তু নয়৷ বয়স্ক ও ডায়াবেটিস রোগীদের এ ক্ষেত্রে ব্যথা নাও হতে পারে৷ হার্ট অ্যাটাক হলে বুকব্যথা, শ্বাসকষ্ট, বুকে চাপ ধরা বা অস্বস্তি যেমন থাকতে পারে, তেমনি থাকতে পারে ঘাম, বমি, অসম্ভব ক্লান্তি বা দুর্বলতা, হাতে-পিঠে ব্যথা, বদহজম, বুক ধড়ফড় ইত্যাদি৷ 

কাজেই মধ্যবয়সে হৃদরোগের রিস্ক ফ্যাক্টর থাকলে আর এসব লক্ষণ দেখা দিলে কষ্ট কমার অপেক্ষায় বসে না থেকে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত৷ কম বয়সেও যদি এরকম কষ্ট হয় তাদেরও ডাক্তারের চেকআপে থাকা জরুরি৷ কারণ হার্ট অ্যাটাক কোন বয়স মানে না৷ 

এ রকম ভুল ধারণায় হৃদবিশেষজ্ঞদের পরামর্শ হচ্ছে- 

সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকলে বিপদ নেই

রক্তে সুগারের মাত্রা ঠিক থাকলে হার্ট অ্যাটাক হবে না এমন নয়৷ কারণ ডায়াবেটিস এমন একটি অসুখ যার প্রভাবে রক্তনালিতে প্রদাহ দেখা দেয়৷ আর তাতেই হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা বাড়ে৷ রক্তে সুগার লেভেল ঠিক রাখার পাশাপাশি ওজন, রক্তচাপ, কোলেস্টেরল লেভেলও ঠিক মাপে না থাকলে বিপদের আশঙ্কা থেকে যায়৷ কাজেই সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকলে বিপদ নেই- এটা একদমই মনে করা যাবে না।

হার্ট অ্যাটাক মানে সব শেষ

বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে, ওষুধপত্র খেলে ও নিয়ম মেনে চললে হার্ট অ্যাটাকের পরেও দিব্যি ভাল থাকা যায়৷ অনেকে আবার ভাবেন, অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি বা বাইপাশ সার্জারি করে নিলে দুর্ভাবনার দিন শেষ হয়৷ এটিও ভুল ধারণা৷ কারণ সঠিক খাওয়া-দাওয়া ও নিয়মিত এক্সারসাইজ না করলে, নিয়ম না মানলে, ঠিক করে ওষুধ না খেলে সমস্যা আবার নতুন করে দেখা দিতে পারে৷ কাজেই নিয়মের মধ্যে থাকলে অ্যাটাকের পরেও ভালো থাকা যায়, আবার অপারেশন করিয়ে নিয়েছি বলে সব থেকে মুক্তি, তেমনটা কিন্তু নয়।

মেয়েদের হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা কম

অনেকে মনে করেন মেয়েদের হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা কম। আসলে ঘটনা কি তাই? যদিও মেনোপজের আগে আশঙ্কা কিছুটা কম থাকলেও, অনিয়মিত জীবন-যাপন, ধূমপান, ভুল খাওয়া-দাওয়া, স্ট্রেস, গর্ভনিরোধক পিল ইত্যাদি কারণে এবং কম বয়সে হাইপ্রেশার–ডায়াবেটিস জাতীয় রোগ দেখা দেওয়ার ফলেও মেয়েদের কম বয়সে হার্ট অ্যাটাক হয়৷ মেনোপজের পর এই আশঙ্কা বাড়ে তা বলাই বাহুল্য৷ 

কাজেই ভুল ধারণা লালন না করে নিয়মিত শরীরচর্চা, উদ্বেগে লাগাম টানা, খাওয়া-দাওয়ায় নিয়ম, নিয়মিত প্রয়োজনীয় চেকআপে থেকে এই রোগকে রাখুন দূরে। 

এএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি