ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

যেসব অভ্যাসে হয় কোষ্ঠকাঠিন্য

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৩৪ ১৭ জুলাই ২০১৯

যাদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা আছে তাদের কষ্টের শেষ নেই। এ থেকে উপশম পাওয়ার আশায় কতই না করছেন। ইসাবগুলের ভুঁষি ও অ্যালোভেরার শরবত, শাক-সবজি, ফলমূল নানা কিছু খেয়ে থাকেন। কিন্তু আপনি কি জানেন, আপনার কি কি অভ্যাসের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য শরীরে বাসা বাঁধে?

চিকিৎসকরা বলছেন, অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাস আর অপরিকল্পিত ডায়েটের কারণে দেখা দেয় কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা। তবে বংশগতভাবেও এই সমস্যা অনেকের মধ্যে থাকতে পারে।

সময় মতো কোষ্ঠকাঠিন্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারলে বেড়ে যেতে পারে কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি। আসুন জেনে নেয়া যাক কোষ্ঠকাঠিন্যের জন্য দায়ী কোন কোন কারণ:

১. ফাইবার বা আঁশজাতীয় খাবার, শাকসবজি ও ফলমূল কম পরিমাণে খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দিতে পারে।
২. ছানা, পনির ইত্যাদি দুগ্ধজাত খাবার অতিরিক্ত পরিমাণে খেলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা বাড়াতে পারে।
৩. কোষ্ঠকাঠিন্যের প্রধান কারণ হতে পারে কম পরিমাণে পানি খাওয়া। যারা কম পানি খান তাদের এই সমস্যায় পড়ার সম্ভাবনা বেশি।
৪. মানসিক অবসাদ বা অতিরিক্ত দুশ্চিন্তাও এই সমস্যার একটি কারণ।
৫. কোন অসুস্থতার কারণে দীর্ঘদিন বিছানায় শুয়ে থাকার ফলেও এটি হতে পারে।
৬. হাঁটা-চলা, পরিশ্রম বা শরীরচর্চার অভ্যাস না থাকাতেও কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দিতে পারে।
৭.  ডায়াবেটিসের কারণেও হতে পারে কোষ্ঠকাঠিন্য।
৮. মস্তিষ্কে টিউমার হলে বা মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের ফলেও এই সমস্যা হতে পারে।
৯. অন্ত্রনালীতে ক্যান্সার, দীর্ঘমেয়াদি থাইরয়েডের সমস্যা বা কিডনির সমস্যা থাকলেও কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

এ ছাড়াও নানা রকম ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ফলেও কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দেখা দিতে পারে। সময় মতো চিকিৎসা শুরু করতে পারলে কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থেকে সহজেই মুক্তি পাওয়া যায়। তবে ঘরোয়া উপায়েও কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় উপকার পাওয়া সম্ভব। মধু, পালং শাক, পাতি লেবুর রস, আঙ্গুরের রস ইত্যাদি আমাদের হজম শক্তি বাড়ানোর পাশাপাশি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাও দূর করতে সাহায্য করে।

এএইচ/
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি