ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৭ জুলাই ২০২১, || শ্রাবণ ১১ ১৪২৮

রূপচর্চায় চিনি, ফিরবে ত্বকের চাকচিক্য!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৫৫, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ওজন বাড়ায় ও ডায়াবেটিসের সমস্যা বৃদ্ধি করে চিনি। তাই অনেকে সতর্কতা হিসেবে চিনি এড়িয়ে চলেন। কিন্তু চিনির অনেক গুণ। খাবারের স্বাদ যেমন বাড়িয়ে থাকে তেমনি ত্বকের কালো দাগ তুলতে চিনির কেরামতি অনেকেরই জানা। তবে চিনি এখানেই থামছে না, এখন এটি ব্যবহৃত হচ্ছে রূপচর্চার গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে। আশ্চর্য হচ্ছেন?

হ্যাঁ, প্রাকৃতিক এই স্ক্রাবারকে ত্বকের অন্যতম সেরা যত্নের উপাদান বলে স্বীকৃতি দিচ্ছেন রূপবিশেষজ্ঞরা। শুধু লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে কনুইয়ের কালো দাগ তোলা ছাড়াও আরও অনেক ম্যাজিকাল গুণ রয়েছে এর। ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখার সঙ্গে ঠোঁটকেও নরম রাখতে, স্ট্রেচ মার্ক সরাতে চিনি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে।

এবার জেনে নেওয়া যাক চিনি রূপচর্চার কোন কোন ক্ষেত্রে কাজে লাগে-

এক্সফোলিয়েশন
ত্বকের মৃত কোষ তোলা চিনির অন্যতম কাজ। অলিভ অয়েল ও কয়েক ফোটা নারিকেল তেলের সঙ্গে এক চামচ চিনি মিশিয়ে স্ক্রাব করুন মুখে। যতক্ষণ না চিনি গলে যায়, ততক্ষণই স্ক্রাবিং করুন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন মুখ। মৃত কোষ উঠে ঝলমলে হবে আপনার ত্বক।

ঠোঁট ফাটা
চিনির কেরামতিতে আটকাতে পারেন ঠোঁট ফাটার সমস্যাও। বিটের রস ও চিনি মিশিয়ে লাগিয়ে নিন ঠোঁটে। নরম ও লালচে হওয়ার পাশাপাশি ফাটবে না ঠোঁট।

গ্লো
ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতে চিনির ভূমিকা অনেকটাই। কয়েক ফোটা অলিভ অয়েল ও এক চামচ লেবুর রসের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে লাগিয়ে রাখুন মুখে। মিনিট ১৫ পর ধুয়ে নিন মুখ। ধোওয়ার সময় স্ক্রাব করেও নিতে পারেন।

স্ট্রেচ মার্ক
হঠাৎ ওজন কমলে বা বাড়লে ত্বকে স্ট্রেচ মার্ক পড়ে। প্রেগন্যান্সির পরেও এমন দাগ দেখা যায়। তেমন সমস্যা হলে কফি, চিনি, আমন্ড তেল ও মধু মিশিয়ে নিয়মিত মালিশ করুন। ধীরে ধীরে হালকা হবে আপনার স্ট্রেচ মার্ক।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি