ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

শোয়ার ঘরকে মনোরম করে তুলুন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২২:৪০ ১৮ আগস্ট ২০১৭ | আপডেট: ২০:৫৯ ২১ আগস্ট ২০১৭

সারা দিনের কর্মব্যস্ততা শেষে শোবার ঘরকেই স্বর্গ বলে মনে হয়। তবে সে ঘর যদি শান্তির পরশ বুলিয়ে দিতে না পারে, তাহলে তাকে স্বর্গ ভাবা কঠিন হবে। শোবার ঘরের সাজসজ্জার আগে ভাবা উচিত আরামের কথা। কেননা পুরো বাড়ির এ ঘরটাতেই আপনি নিজের মতো কিছুটা সময় কাটাতে পারেন। অন্যদিকে আরামের কথা ভাবতে গিয়ে চলতি ফ্যাশন কিংবা পুরো ঘরের সাজসজ্জার দিকে নজর না দিলেও কিন্তু ষোলোকলা পূর্ণ হয় না। তাই নিখুঁত সাজ ও আরামের কথা চিন্তা করে শোবার ঘর সাজানোর সময় খেয়াল রাখুন কয়েকটি বিষয়—

শুরু হোক বিছানা থেকেই

শোবার ঘর বা বেডরুমের নামই হয়তো বদলে যেত, যদি এখানে বিছানা না রাখা হতো। তাই একটি পরিপাটি সাজানো-গোছানো শোবার ঘরের জন্য প্রথমেই নজর দিন বিছানার দিকে। বিছানায় বিছানো ম্যাট্রেস থেকে শুরু করে বালিশ সবকিছুতেই আরামের কথা মাথায় রাখুন। অন্যদিকে বিছানার চাদর, বালিশের কভার, কুশন কভার যাতে হয় এমন রঙের, যা চোখকে স্বস্তি এনে দেয়; সে বিষয়েও নজর দিন।

দেয়ালের রঙ প্রভাব ফেলে মনের ওপর। তাই দেয়াল সাজানোর আগে আরো একটু ভেবে নিন কোন রঙে রাঙাবেন চারটি দেয়াল। অন্যদিকে শোবার ঘর মানেই একটু স্নিগ্ধভাব না থাকলে যেন হয় না। তাই যেকোনো হালকা রঙ বেছে নেয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে। হালকা গোলাপী, ঘিয়ে, সাদা, হলুদ কিংবা এ জাতের রঙগুলো ঘরের ভেতরে স্বস্তিভাব এনে দেবে নিমেষেই। তবে যদি হয় আপনার ছোট্ট সোনামণির শোবার ঘর, তাহলে এর রঙে একটু পরিবর্তন আসতেই পারে। সেক্ষেত্রে বেছে নিন উজ্জ্বল কোনো রঙ।

ছোট কুশন কিন্তু বড় কাজের  

বিছানায় বালিশের পাশাপাশি কুশন এখন শুধু সৌন্দর্যের কথা বিবেচনা করেই রাখা হয় না। বরং সেসঙ্গে ভাবতে হয় আরামের কথাও। ঘুমানোর সময় অনেকেরই অভ্যাস পায়ের নিচে আলাদা বালিশ দিয়ে ঘুমানো। সেক্ষেত্রে ভালো সমাধান কিন্তু ছোট্ট কুশনটিই। অন্যদিকে বিছানায় কয়েকটি কুশন রেখে দিলে দেখতেও ভালো লাগে। অনেকেই শোয়ার ঘরে আলাদা ডিভান রাখতে পছন্দ করেন। তারা চাইলে ডিভানের ওপর রাখতে পারেন রঙ-বেরঙের বেশ কয়েকটি কুশন।

ঘরের আলো ভেতরের পরিবেশ দ্রুত বদলে দিতে সক্ষম। শোয়ার ঘরে আলো ব্যবহারের ক্ষেত্রে হালকা আলো বেছে নেয়া ভালো। সৌন্দর্য কিংবা আলোর ব্যবস্থা করতে বিছানার পাশে সাইড টেবিলে রাখতে পারেন সুদৃশ্য টেবিল ল্যাম্প। সারা রাত জালিয়ে রাখার জন্য বেছে নিতে পারেন হালকা নীল, বেগুনি কিংবা হলুদ রঙের বাতি।

নজর দিন মেঝেতে

পুরো ঘরের সাজসজ্জা শেষে একটু আলাদা নজর দিন মেঝেতে। মেঝেতে রাখতে পারেন রাগস কিংবা ছোট কার্পেট। রঙ নির্বাচনের ক্ষেত্রে বেছে নিন এমন ধরনের রঙ, যা ঘরের সাজের সঙ্গে মানিয়ে যাবে, আবার ময়লা হলেও সহজে চোখে পড়বে না। অথবা শোয়ার ঘরে অনেকেই শীতল পাটি ব্যবহার করে থাকেন। সেক্ষেত্রে ঘরের কোণে শীতল পাটি বিছিয়ে এর ওপর কয়েকটি কুশন রাখতে পারেন। দেখতেও ভালো লাগবে আবার আয়েশি সময়ের কিছুটা এখানে কাটাতেও মন্দ লাগবে না।

কেআই/ডব্লিউএন


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি