ঢাকা, রবিবার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, || পৌষ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সেলুনে ঘাড় ফুটানোতে বিপদ আছে!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৫৮ ১৩ নভেম্বর ২০১৯

সেলুনে চুল কাটা কিংবা দাড়ি-গোঁফ ছাঁটা শেষ হলে ঘাড়-মাথা মাসাজ করিয়ে নেওয়ার অভ্যাস রয়েছে অনেকের। এই আরামের লোভ থেকে হতে পারে স্ট্রোক! রয়েছে প্রাণের ঝুঁকিও! পাড়া-মহল্লায় নতুন নতুন সেলুন গড়ে উঠছে, আর এতে যারা কাজ করছেন তাদের শরীর সম্পর্কে কোন ধারণা নেই। তাই এদের কাছে মাসাজ বা ঘাড়ের আরাম নিতে গেলে বিপদ আছে!

স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞের মতে, মানুষের শরীর ও শিরা-ধমনী সম্পর্কে সেলুনের লোকদের ধারণা না থাকাটাই স্বাভাবিক। তাই এই ধরনের লোকেরা মাথা এদিক ওদিক করতে গিয়ে মস্তিষ্কে রক্ত সরবরাহকারী প্রধান ধমনীটি ছিঁড়ে ফেলতে পারে। তখন স্ট্রোকের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ডায়াবেটিস, হাইপারটেনশনের মতো এই স্বভাবকেও জীবনযাপনের অন্যতম একটি ‘দোষ’ হিসাবে চিহ্নিত করের বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা বলেন, এমনিতে স্ট্রোক হওয়ার অনেক কারণ আছে। তার মধ্যে জীবনযাপনের এই স্বভাবও অন্যতম। সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য ঘাড় ফুটানোর স্বভাব বাদ দিতে হবে।

সেলুনে নেওয়া মাসাজের অভ্যাস বন্ধ তো করতেই হবে, নিজে নিজেও করা য়াবে না এসব। তবে এই আরাম পেতে চাইলে যেতে হবে প্রশিক্ষিত কোন  ফিজিওথেরাপিস্ট বা মাসাজ বিশেষজ্ঞের কাছে। কারণ শরীর ও শিরা-ধমনী সম্পর্কে এদের ধারণা রয়েছে, তাই এদের কাছে মাসাজ নিলে বিপদের আশঙ্কা কম। 

স্ট্রোক সম্পর্কিত আধুনিক নানা গবেষণায় উঠে এসেছে সেলুনে মাসাজের বিষয়টিও। এই গবেষকরাও স্ট্রোকের মতো বিপদ ডেকে আনার অন্যতম কারণ হিসেবেই সেলুনে ঘাড় ফুটানোকে চিহ্নিত করেছেন। তাই সাবধান! সুস্থ ও স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকার জন্য এখনই সেলুনের এই আরামকে বাদ দিন।

এএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি