ঢাকা, শনিবার   ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, || পৌষ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সড়ক দুর্ঘটনা এড়ানোর ৮ উপায়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১১ ১০ জুলাই ২০১৮

প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন জায়গায় সড়ক দুর্ঘটনায় ঝড়ে যাচ্ছে অনেক তাজা প্রাণ। দুর্ঘটনা আকস্মিক এবং তা প্রতিদিন ঘটে না, এমন কথা এখন আর খুব একটা মানসই না। এসব দুর্ঘটনায় প্রাণহানি হচ্ছে, আবার কেউবা পঙ্গুত্ব বরণ করছে। একটি দুর্ঘটনা একটি পরিবারের সারা জীবনের কান্না। কোনোভাবেই দুর্ঘটনা রোধ করা যাচ্ছে না। এ বিষয়ে সভা, সেমিনার, মানববন্ধন, মিছিল-মিটিং, তদন্ত কমিটি সবকিছু হলেও কার্যত ফলাফল শূন্য। এভাবে সড়ক দুর্ঘটনা মৃত্যুর মিছিল আর কত দীর্ঘ হবে, তা আমরা কেউ বলতে পারি না। এবার ঈদে সর্বোচ্চ দুর্ঘটনায় মৃত্যু বরণ করেছে কয়েক শতাধিক মানুষ। সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুজনিত কারণে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণও কম না। যাইহোক, এমন পরিস্থিতিতে কয়েকটি বিষয় গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করলে সড়ক দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।

মনোযোগ

গাড়ি চালানোর সময় খেয়াল রাখতে হবে মনোযোগ যেন গাড়ি এবং রাস্তার দিকেই থাকে। মনে রাখবেন একটু অমনোযোগী ড্রাইভিংয়ের কারণে ঘটতে পারে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

রোড স্ক্যানিং বা রাস্তা বিশ্লেষণ

রাস্তা বিশ্লেষণ বা রোড স্ক্যানিং নিরাপদ ড্রাইভিংয়ের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। গাড়ি চলানোর সময় অবশ্যই চলার রাস্তাটিকে ভালোভাবে বিশ্লেষণ করতে হবে। গাড়ি চালানোর সময় রাস্তা-সম্পর্কিত যে বিষয়গুলো অবশ্যই খেয়াল করতে হবে সেগুলো হলো- রাস্তায় গাড়ির পরিমাণ, রাস্তার লেনের পরিমাণ, রাস্তার গঠনগত অবস্থা, রাস্তার প্রশস্ততা।

সিট বেল্ট বাঁধা

নিরাপদে গাড়ি চালানোর জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। মনে রাখবেন, শুধু আপনি নন আপনার সঙ্গে থাকা যাত্রীদেরও সিট বেল্ট বাঁধতে বাধ্য করবেন। কারণ সিট বেল্ট বেঁধে গাড়ি চালানো এবং গাড়িতে চড়া দুটোই নিরাপদ ড্রাইভিংয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

গাড়ির গতিসীমা

গাড়ি চালানোর সময় কখনই হুটহাট করে গাড়ির গতিসীমা বাড়ানো বা কমানো যাবে না। কারণ হুটহাট গাড়ির গতি বাড়ানো বা কমানো প্রায়শই বড় দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

প্রতিযোগিতা থেকে বিরত থাকুন

অনেক সময় প্রতিযোগিতা করে অনেক ড্রাইভার গাড়ি চালিয়ে থাকেন। মনে রাখবেন এটি একটি বিকৃত চিন্তা। এটি সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ। তাই ঠাণ্ডা মাথায় গাড়ি চালাতে হবে।

কথা বলা থেকে বিরত থাকা

গাড়িতে চড়ে অনেক যাত্রীকেই দেখা যায় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ড্রাইভারের সঙ্গে কথা বলা থেকে শুরু করে দেয়। এটি কোনোভাবেই ঠিক নয়।

নেশাগ্রস্ত অবস্থায় গাড়ি না চালানো

গাড়ি চালানোর সময় চালক নেশাগ্রস্ত থাকার কারণে দুর্ঘটনা ঘটে। তাই নেশাগ্রস্ত অবস্থায় কখনোই গাড়ি চালাবেন না।

অল্প দক্ষ চালক দিয়ে গাড়ি না চালানো

অল্প দক্ষ চালক দিয়ে কখনোই গাড়ি চালানো ঠিক নয়। কারণ বেশি দুর্ঘটনা ঘটে থাকে অদক্ষ চালকের জন্য। তাই এক্ষেত্রে গাড়ির মালিদের সচেতন হতে হবে।

একে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি