ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৮ ৫:১৫:৫৩

জাপানের যে শহর দেবী লক্ষ্মীর নামে

জাপানের যে শহর দেবী লক্ষ্মীর নামে

বৌদ্ধ ধর্মের জাপান৷ বৌদ্ধদের জাপান৷ সে জাপানে একটা শহরের নামই রাখা হয়েছে হিন্দুদের দেবী লক্ষ্মীর নামে৷ টোকিওর অদূরেই একটি ছোট্ট শহর কিছিজোজি৷ এই শহরের নামকরণ করা হয়েছে দেবী লক্ষ্মীর নামে৷ এমনই জানিয়েছেন কনসাল জেনারেল টাকাইউকি কিটাগাওয়া৷ তবে অবাক হওয়ার কিছু নেই৷ জাপানের সঙ্গে হিন্দু ধর্মের ওতপ্রোত সম্পর্ক, এমনই জানান কনসাল জেনারেল৷ তিনি বলেন টোকিও শহরের কাছে অবস্থিত একটা মন্দির লক্ষ্মী মন্দিরের আদলে তৈরি হয়েছে। জাপানি ভাষায় কিছিজোজি কথার অর্থ হল লক্ষ্মী মন্দির৷ তিনি আরও বলেন, এক জাপানি পণ্ডিতের মতে প্রায় ৫০০ জাপানি শব্দের উৎপত্তি হয়েছে তামিল এবং সংস্কৃত শব্দ থেকে। বিশেষজ্ঞরা বলেন, জাপানীরা ৭ জন দেবতাকে সৌভাগ্যের দেবতা হিসেবে পুজা করেন৷ তার মধ্যে ৪ জনই হিন্দু ধর্ম প্রভাবিত৷ তাই কিছিজোজিতে যে দেবী লক্ষ্মীর মন্দির রয়েছে, সেখানে জাপানীরাই প্রার্থনা করেন৷ ভারতের বেঙ্গালুরুতে এক অনুষ্ঠানে জাপানের কনসাল জেনারেল বলেন, জাপানের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিতে ভারতের সরাসরি প্রভাব রয়েছে৷ তাই জাপানের বহু মন্দিরেই ভারতীয় দেবদেবীর পুজা হয়। এছাড়াও তিনি জানান, জাপানি ভাষাতেও বহু শব্দ ভারতীয় ভাষা থেকে অনুপ্রাণিত। জাপানি স্ক্রিপ্টে সংস্কৃত শব্দ থেকে গৃহীত বহু শব্দের নিদর্শন পাওয়া গেছে। উদাহরণ দিতে গিয়ে কনসাল জেনারেল বলেন, জাপানী খাবার সুশি ভাত ও ভিনিগার দিয়ে তৈরি হয়৷ সুশির সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে যুক্ত সারি শব্দটি৷ এই সারি সংস্কৃত শব্দ জালি থেকে এসেছে, যার অর্থ ভাত৷ সূত্র: কলকাতা ২৪x৭ একে//
আরও তিনটি হজ ফ্লাইট বাতিল

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস আজ শুক্রবারের তিনটি হজ ফ্লাইট বাতিল করে দিয়েছে। হজযাত্রী সংকটের কারণে ফ্লাইটগুলো বাতিল করা হয়েছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ এ তথ্য জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত, এর আগে যাত্রী সংকটের কারণে গত ২৭ জুলাই দুটি, ৩১ জুলাই একটি, ১ আগস্ট দুটি ও গতকাল দুটি হজ ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করেছিল বিমান বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ। অর্থাৎ এ নিয়ে মোট ১০টি হজের বিশেষ ফ্লাইট বাতিল করা হল। হজ ফ্লাইটগুলো বাতিলের জন্য সরাসরি হজ এজেন্সিগুলো দায়ি বলে জানিয়েছেন বিমানের মুখপাত্র শাকিল মেরাজ। তিনি জানন, হজ এজেন্সিগুলো যথাসময়ে টিকিট না কেনায় একের পর এক ফ্লাইট বাতিল করতে হচ্ছে। অথচ এসব এজেন্সিকে বারবার তাগাদা দেওয়া হচ্ছিল। তাই এজেন্সিগুলো দ্রুত এগিয়ে না এলে সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীরা বিপদে পড়বেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বিমানের এ মুখপাত্র। উল্লেখ্য, চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ হজযাত্রী পবিত্র হজ পালনে সৌদি আরব যাচ্ছেন। গত ২৪ জুলাই থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হয়েছে। হজ শুরুর আগে ২৬ আগস্ট পর্যন্ত হজ যাত্রীরা সৌদি আরবে যাবেন। সেপ্টেম্বরের শুরুতে হজ পালনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। একে//

বিশ্বে সবচেয়ে পবিত্র ৭ গাছ

বিশ্বের অনেক ধর্মীয় বা আধ্যাত্মিক প্রথার গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসাবে অনেক গাছ বা উদ্ভিদ রয়েছে, যা শক্তিদায়ক, রোগমুক্তি এবং কখনো কখনো ঐশ্বরিক জগতের মাধ্যম হিসাবেও দেখা হয়। সংগীত শিল্পী জাহ্নবী হ্যারিসন এ রকম সাতটি পবিত্র গাছের সম্মিলন ঘটিয়েছেন, যেখানে প্রাচ্যের পদ্মফুল থেকে শুরু করে পাশ্চাত্যের পুদিনা রয়েছে। কিন্তু পবিত্র বলে বিবেচিত এসব উদ্ভিদের বিশেষত্ব কি? অতীতে মানুষ এসব গাছকে যতটা আবশ্যক বলে মনে করতো, এখনো কি সেরকম ভাবে? এসব গাছের প্রভাবই বা কি? সবচেয়ে বড় কথা, এসব গাছের এতো গুরুত্ব কেন? সবচেয়ে পবিত্র বলে মনে করা হয়, এরকম সাতটি গাছ বা উদ্ভিদের অতীত ও বর্তমান বিশ্লেষণ করে সেই উত্তর খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে- পদ্ম ফুল পদ্ম ফুল হচ্ছে এমন একটি উদ্ভিদ, যেটির একেক স্তরের পাপড়ি প্রাচ্যের ধর্মীয় শিক্ষা বা সংস্কারে বিভিন্ন অর্থ বহন করে। হিন্দুদের কাছে চমৎকার এই ফুলটি জীবন, উর্বরতা আর পবিত্রতার প্রতীক। ফুলটিকে পবিত্র বলে মনে করে বৌদ্ধরাও। কাদা ও ময়লার ওপর জন্ম নেওয়া এই সুন্দর ফুলটি যেন নির্লিপ্ততারও প্রতীক। যদিও এই উদ্ভিদের শেকড় কাদার ভেতর, কিন্তু ফুলটি পানির ওপরে ভেসে থাকে। গল্পগাথাঁ প্রচলিত রয়েছে যে, ভগবান বিষ্ণুর নাভির ভেতর থেকে পদ্মের জন্ম আর ব্রক্ষ্মা এর কেন্দ্রে বসে থাকেন। অনেকে বিশ্বাস করেন, ঈশ্বরের হাত আর পা পদ্ম ফুলের মতো এবং তার চোখ ফুলের পাপড়ির মতো। ফুলের কুঁড়ি যেমন কোমল, ঈশ্বরের স্পর্শ আর দর্শনও সেরকম। হিন্দু ধর্মে বলা হয়, প্রত্যেক মানুষের মধ্যেই পদ্মের পবিত্র আত্মা রয়েছে। মিসলটো বর্তমান কালে মিসলটো ক্রিসমাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হিসাবে বিবেচিত হয়, কিন্তু প্রাচীন কেল্টিক ধর্মীয় নেতাদের ক্রিয়াকর্মে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান ছিল এই উদ্ভিদ। তারা বিশ্বাস করতো, সূর্য দেবতা টারানিসের সংস্পর্শ রয়েছে মিসলটোর মধ্যে, ফলে যে গাছে মিসলটো জন্ম নেবে বা যে ডালে সেটি ছড়াবে, সেটিও পবিত্র বলে বিবেচিত হবে। শীতের সময় যখন সূর্য সবচেয়ে দূরে থাকে, সেদিন প্রধান ধর্মযাজক সাদা কাপড় পড়ে একটি সোনার কাস্তে দিয়ে ওক গাছ থেকে পবিত্র মিসলটো কেটে সংগ্রহ করতেন। এই বিশেষ গাছ এবং তার ফল ধর্মীয় ক্রিয়াকর্ম বা ওষুধ হিসাবে ব্যবহৃত হতো। তখন বিশ্বাস করা হতো যে এর জাদুকরী ক্ষমতা রয়েছে। মিসলটোর একটি অংশই রোগ সারাতে পারে, যেকোনো বিষের বিরুদ্ধে কাজ করতে পারে, মানব শরীরে উর্বরতা বৃদ্ধি করতে পারে এবং ডাইনির ক্ষতি থেকে রক্ষা করতে পারে। তবে সত্যি কথা হল, এটা পুরোটাই ভুল ধারণা। বরং পেটে গেলে মিসলটো বিষাক্ত হয়ে ওঠে। পেয়টে পেয়টে হলো ছোট, কাণ্ডহীন একপ্রকার ক্যাকটাস, যেটি টেক্সাস এবং মেক্সিকোর মরুভূমিতে জন্মে থাকে। সহস্রকাল ধরে প্রাচীন গোত্র বা আদিবাসী মানুষজন এই গাছটিতে তাদের ধর্মীয় কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করে আসছে। মেক্সিকোর হুইকোল ইন্ডিয়ান আর অনেক আদিবাসী আমেরিকান গোত্র বিশ্বাস করতো যে, পেয়টে একটি পবিত্র উদ্ভিদ যা তাদের ঈশ্বরের সঙ্গে যোগাযোগে সাহায্য করবে। ধর্মীয় অনুষ্ঠানে এর ব্যবহার একধরণের মোহ বা আবেশ তৈরি করে, ফলে অনেকেই কল্পনা জগতে বা অলৌকিক জগতে বিচরণ করছেন বলে মনে করেন। তবে পেয়টের আধ্যাত্মিক ক্ষমতার ভক্ত শুধু মাত্র আদিবাসী গোত্রের সদস্যরাই নন। পেয়টের এই মাদকতার কারণে সেটি ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলোর বাইরে শিল্পী, সংগীত শিল্পী আর লেখকদের কাছেও জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। বিশেষ করে ১৯৫০ সালের পর থেকে এই ক্যাকটাসটির খবর তারা পায়। তুলসী হিন্দু ধর্মে বলা হয়, কৃষ্ণ এবং তার ভক্তদের সেবা করার জন্য বৃন্দাবনের একজন অভিভাবক হিসাবে দেবী বিরিন্দাই তুলসী পাতা হিসাবে জন্ম নেন। আবার প্রাচীন গ্রন্থে বলা হয়, কৃষ্ণ নিজেই তাকে তুলসী আকারে গ্রহণ করেছেন। ফলে যেখানেই এই গাছটির জন্ম হোক না কেন, সেটিকে পবিত্র বলে বিবেচিত বৃন্দাবনের মাটি বলেই মনে করা হয়, যেখানে এই গাছটি প্রচুর পরিমাণে জন্মে থাকে। সারা পৃথিবী জুড়ে লাখ লাখ হিন্দু তাদের প্রতিদিনের ধর্মীয় কর্মকাণ্ডে, মন্দিরে বা বাসায়, তুলসী গাছের পাতা ব্যবহার করেন। ইয়ু গাছ সারা বছর ধরে সবুজ থাকে এমন একটি দেবদারু জাতের গাছ ইয়ু, যেটি হাজার বছর ধরে বেঁচে থাকতে পারে। অনেকেই এই গাছটিতে পুনর্জন্ম এবং অনন্ত জীবনের প্রতিচ্ছবি হিসাবে দেখেন। এর কারণ এই গাছের ভেঙ্গে বা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া ডালপালা থেকে নতুন গাছের জন্ম হতে পারে। এমনকি পুরনো গাছের গুড়োর ভেতর থেকেও নতুন একটি ইয়ু গাছের জন্ম হতে পারে। তাই অনেকে একে পুনর্জন্মের উদাহরণ হিসাবেও মনে করেন। খৃস্টান ধর্মাবলম্বীদের কাছে ইয়ু একটি প্রতীকী গাছ, মারা যাওয়া স্বজনদের কফিনে ইয়ু গাছের অঙ্কুর দেওয়া হয় এবং অনেক চার্চের পাশে এই গাছটি দেখা যায়। তবে খৃস্টান ধর্মেরও আগে থেকে অনেক আদিবাসী গোষ্ঠী এই গাছটিকে পূজা করে আসছে। তারা সেসব স্থানে তাদের প্রার্থনা কেন্দ্র নির্বাচন করতো, যেখানে আগে থেকেই ইয়ু গাছ রয়েছে। গাজা রাস্তাফারি ধর্মীয় গোষ্ঠীর কাছে গাজার বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। এই গোষ্ঠীর সদস্যরা বিশ্বাস করে, বাইবেলে যে জীবনের গাছের কথা বলা হয়েছে, গাজা গাছ হচ্ছে সেই গাছ, এ কারণে এটি পবিত্র। যদিও গাজার অনেক নাম রয়েছে। তবে এই ধর্মের লোকজন এটিকে `পবিত্র ভেষজ` বলে ডেকে থাকে। যেমন বাইবেলের ২২:২ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, `জাতিদের মুক্ত করার জন্যই এই ভেষজ`। তারা মনে করে, এই ভেষজ তাদের ঈশ্বরের কাছাকাছি নিয়ে যায় আর তাদের ভেতরের আধ্যাত্মিক শক্তিকে বাড়িয়ে দেয়। তাদের ভাষায়, এই জ্ঞান উদ্ভিদ অনেক রীতিনীতির সঙ্গে গ্রহণ করা হয়। সিগারেট বা পাইপের ভেতর ঢুকিয়ে এর ধোয়া নেওয়ার সময় নানা ধর্মীয় আচার পালন করা হয়। পুদিনা আমাদের পিৎজা বা পাস্তা সসে যে জিনিসটা সবচেয়ে আগে পাওয়া যাবে, তা হলো এই পুদিনা পাতা। কিন্তু অর্থোডক্স খৃস্টান সম্প্রদায়ের মধ্যে এবং গ্রীক চার্চে এটি একটি পবিত্র ভেষজ হিসাবে গণ্য করা হয়। পুদিনা ইংরেজি নাম `বাসিল` এসেছে গ্রিক শব্দ `রাজকীয়` থেকে। অর্থোডক্স খৃস্টানরা বিশ্বাস করেন, যেখানে যিশু খৃষ্টের রক্ত পড়েছিল, সেখানেই এই গাছটির জন্ম হয়েছিল। এ কারণেই খৃষ্ট ধর্মের অনেক অনুষ্ঠানে পুদিনা পাতার উপস্থিতি দেখা যায়। পবিত্র পানি পরিশোধন করতে যাজকরা পুদিনা পাতার ব্যবহার করেন এবং ধর্মসভায় পুদিনা গাছ ভেজানো পানি ছিটানো হয়। চার্চের বিশেষ ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ক্রসের সঙ্গে পুদিনা গাছ থাকে এবং ছোট ছোট ডালপালা হাতে হাতে দিয়ে দেওয়া হয়। অনেকে এসব ডালপালা পানিতে ভিজিয়ে রাখেন, যাতে সেটি নতুন শেকড় ছাড়ে, যাতে পরে তারা সেগুলো আশীর্বাদ হিসাবে নিজেদের বাড়িতে লাগিয়ে রাখতে পারেন। সূত্র: বিবিসি একে//

হজ যাত্রায় অধিকাংশ ফ্লাইট বিলম্ব, যাত্রীদের ভোগান্তি(ভিডিও)

হজ যাত্রার এগারতম দিনে অধিকাংশ ফ্লাইট বিলম্ব হওয়ায় ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে যাত্রীদের। থাই এয়ারওয়েজের একটি উড়োজাহাজ অবতরণের সময় চাকা ফেটে গেলে দুই ঘন্টা ফ্লাইট উঠানামা বিঘিœত হয়। তবে দুই ঘন্টা পর রানওয়ে সচল হলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। হজ্ব পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি আরব যেতে আশকোনা হজ্ব ক্যাম্পে নিদিষ্ট সময়ের আগে উপস্থিত হাজীরা। কোন রকমের ঝামেলা ছাড়াই নিদিষ্ট সময়ে ইমিগ্রেশন কাজ শেষে হযরত শাহজালাল অঅন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে চলে যাচ্ছেন তারা। তবে, সর্তকতার অভাবে হজ ক্যাম্পে টাকাসহ বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র হারিয়েছেন ফেলেছেন অনেকেই। কন হাজীদের মূল্যবান জিনিস পত্র হারিয়ে যাচ্ছে এমন প্রশ্ন ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কাছে। এদিকে মঙ্গলবার সকালের দিকে ফ্লাইট ঠিক থাকলেও থাই এয়ার ওয়েজের একটি উড়োজাহাজের চাকা ফেটে যাওয়ায় দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিমান উঠানামা বিঘিœত হয়। সব ফ্লাইট ছেড়ে যায় বিলম্বে। এর কবলে পড়েন হজ যাত্রীরাও। প্রায় দুই ঘন্টা পর ফ্লাইট চলাচল স্বাভাবিক হয়। অন্যদিকে এবার বাড়তি কোন স্লট না থাকায় এজেন্সীগুলোকে নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে হাজীদের যাবার সব ধরনের ব্যবস্থা করতে হবে বলে জানান হজ কর্মকর্তা। তবে হাব বলছে, হজ যাত্রায় কোন সমস্যা হবে না। এ পর্যন্ত ৪৫ হাজার ৫ শত ৪২জন হাজী সৌদি আরব পৌঁছেছেন। এবছর হজ পালন করবেন ১ লাখ ২৬ হাজার ৭ শত ৯৮ জন বাংলাদেশী। 

জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা অনুষ্ঠিত (ভিডিও)

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে রাজধানীর স্বামীবাগের ইসকন মন্দির থেকে শুরু হয় রথযাত্রা। অংশ নেয় হাজারো পূণ্যর্থী। নানা সাজে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে রথ টেনে নিয়ে যায় ভক্তরা। উৎসব থেকে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় জানান আয়োজকরা। ঢাকা ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রাচীনতম উৎসব রথযাত্রা। পুরানে আছে, কৃষ্ণের বৃন্দাবণ থেকে মথুরা গমনকালে তার ভক্তরা রথের রশি টেনে তাকে মথুরা পৌঁছে দিয়েছিলেন। মানব মুক্তি, সাধনা আর শান্তির পথে তিনটি কাঠের রথে তিন দেবতা শ্রীকৃষ্ণ, বলরাম ও শুভদ্রাকে মথুরা পৌঁছে দেয়া আবার উল্টা রথে ফিরিয়ে আনার এই ইতিহাসই উৎসবের মূল। দুপুরে স্বামীবাগের ইসকন মন্দির থেকে রথযাত্রার শুরু। নেচে-গেয়ে, আনন্দ উল্লাসে রথের রশি টেনে নেন ভক্তরা। অনেকেই নানা সাজে নিজেকে সাজান।   মঙ্গল, মুক্তি আর শান্তি-সমৃদ্ধির এই যাত্রা মানব জাতির জন্য আর্শীবাদ বলে জানান তারা। প্রতিবছরের মতো এই যাত্রা মানুষের চাওয়া-পাওয়ার সন্নিবেশ ঘটায় বলে জানালেন আয়োজকরা। রথযাত্রাকে নির্বিঘ্ন করতে তৎপর ছিলো আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী। বর্ণাঢ্য এই শোভাযাত্রা শেষ হয় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে গিয়ে শেষ হয়। নয়দিন পরে এখান থেকেই উল্টা রথে ফিরবেন শ্রী শ্রী জগন্নাথ। দেশের বিভিন্ন স্থানেও নানা আচাওে উদযাপিত হয়েছে হয়েছে রথযাত্রা উৎসব। দুপুরে দিনাজপুরের রায় সাহেব দেবোত্তর এস্টেট’র শ্রীশ্রী গিরিধারীজিউ যুগল বিগ্রোহের ঐতিহ্যবাহি রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্যে দিয়ে রথটানের শুভ সূচনা হয় বাগেরহাটে। খুলনায় শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব হয়েছে। মানিকগঞ্জেও শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানিকগঞ্জে শ্রী শ্রী আনন্দময়ী কালীবাড়ি মন্দির থেকে রথ টেনে নেয়া হয় রাধামাধব মন্দিরে।

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুসলমানদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান(ভিডিও)

ইসলামী চিন্তাবিদ ও ইমামরা বলেছেন, শান্তির ধর্ম ইসলামের প্রচার এবং প্রসারে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ’জন্য শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুসলমানদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তারা। জাতীয় প্রেসক্লাবে আলোচনা সভায় ইসলামী চিন্তাবিদরা এ’সব কথা বলেন। বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে আলোচনা সভায় যোগ দেন দেশের আলিয়া, কাওমি মাদ্রাসার আলেম, বিভিন্ন মসজিদের ইমাম এবং পীর মাশায়েখরা। এ’সময় ইসলামের প্রচার ও প্রসারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের প্রসংশা করেন তারা। ভেদাভেদ ভুলে এক কাতারে দাঁড়ানোর প্রত্যয় জানান ইসলামী চিন্তাবিদরা। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিচারপতি ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া বলেন, ইসলাম ধর্মে বৈষম্যের ঠাঁই নেই। ইসলাম ধর্মের প্রসারের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি। ভবিষ্যতে আলেমদের নিয়ে বৃহৎ পরিসরে সম্মেলন করার পরিকল্পনার কথা জানান ইসলামিক ইন্সটিটিউটের চেয়ারম্যান এইচ.এম.জি মোস্তফা ওয়াহিদ।

হজ ফ্লাইট শুরু আজ

হজ ফ্লাইট আজ শনিবার শুরু হচ্ছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম হজ ফ্লাইট সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে ৪১৯ জন যাত্রী নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যাবার কথা রয়েছে।বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল ও ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ  মতিউর রহমান হজযাত্রীদের আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায়  জানাচ্ছেন বলে জানা গেছে।এরপর বেলা ১১টা ৫৫ মিনিট ও দুপুর ৩টা ৫৫ মিনিটে আরও দুটি হজ ফ্লাইট যাত্রীদের নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বে। এ ছাড়া রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে নিয়মিত ফ্লাইটে হজযাত্রী পরিবহন করবে বিমান। এ বছর চট্টগ্রাম থেকে ৯টি এবং সিলেট থেকে ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।এর আগে গত বুধবার রাজধানীর আশকোনা হজ ক্যাম্পে চলতি হজ মৌসুমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এ বছর হজে যাচ্ছেন ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন। এর মধ্যে ৬৩ হাজার ৬৫১ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বাকি হজযাত্রী পরিবহন করবে সৌদিয়া এয়ারলাইন্স। বিমান নির্ধারিত ১৫৫টি হজ ফ্লাইট ও নিয়মিত ৩২টি ফ্লাইট মিলে মোট ১৮৭ ফ্লাইটে হজযাত্রী পরিবহন করবে। হজ শেষে হাজিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে ১৪৩টি ফিরতি ফ্লাইট পরিচালনা করবে প্রতিষ্ঠানটি।বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ বলেন, মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে হজ ফ্লাইট নির্বিঘ্ন রাখতে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। হজযাত্রীরা বিনা দুর্ভোগে বিমানে আসা-যাওয়া করতে পারবেন। এবার বিমান নিজস্ব বোয়িং উড়োজাহাজে হজ ফ্লাইট পরিচালনা করবে। হজ মৌসুমে নিয়মিত ফ্লাইট সিডিউল ঠিক রাখতে তিনটি উড়োজাহাজ লিজ নেওয়া হয়েছে।তিনি জানান, প্রত্যেক হজযাত্রী বিনামূল্যে ত্রিশ কেজি মালপত্র এবং কেবিন ব্যাগেজে সাত কেজি সঙ্গে নিতে পারবেন। এ ছাড়া প্রত্যেক হজযাত্রীর জন্য ১০ লিটার জমজমের পানি ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রামে ফিরতি ফ্লাইটে নিয়ে আসা হবে।এসএ/    

রাজধানীতে বিনামূল্যে হজ্ব প্রশিক্ষণ

রাজধানীর শ্যামলি বাদশা ফয়সাল ইন্সটিটিউটে আগামী ১৩ জুলাই থেকে বিনামূল্যে হজ্ব প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু হবে। প্রতিদিন বেলা সাড়ে ৩ টা থেকে সন্ধ্যা পৌনে ৭টা পর্যন্ত এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, আগামী শুক্রবার (১৩ জুলাই) পর্যায়ক্রমে ‘হজ্জ্ব প্রস্তুুতি ও ধাপে ধাপে ওমরা পালন’ এবং পরের দিন শনিবার পর্যায়ক্রমে ‘হজ্ব পালন, মদিনা জিয়ারাত ও হজ্ব পরবর্তী করণীয়’ বিষয়ের ওপর প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, প্রশিক্ষণ সবার জন্য উন্মুক্ত এবং এতে অংশগ্রহণের জন্যে কোনো প্রকার ফি দিতে হবে না। এ ছাড়া প্রশিক্ষণে পুরুষ ও মহিলাদের জন্য পৃথক ব্যবস্থা রয়েছে। স্থানঃ বাদশা ফয়সাল ইন্সটিটিউট (স্কুল ও কলেজ), (শিক্ষা ভবন-১, তৃতীয় তলা, শ্যামলি, রিং রোড, আদাবর, ঢাকা) যোগাযোগ: মোহাম্মাদ ফরহাদ হোসেন মোবাইল: ০১৮৬৪-৮৬৪৮৬৪ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।  

ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে পবিত্র লাইলাতুল ক্বদর পালন (ভিডিও)

ইবাদত-বন্দেগী আর ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য পালিত হয়েছে পবিত্র লাইলাতুল ক্বদর। এই রাতেই নাজিল হয় পবিত্র কোরআন শরীফ। মহিমান্বিত এই রাতের ইবাদত হাজার রাতের চেয়ে বেশি হওয়ায় গোটা রাত ইবাদত বন্দিগীতে ব্যস্ত থাকেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা। আরবি শব্দ ‘লাইলাতুল’ অর্থ রাত এবং ‘ক্বদর’ শব্দের অর্থ মর্যাদা। ধর্মীয়মতে, লাইলাতুল কদর অর্থ মহিমান্বিত রাত। রমজান মাসের শেষ দশ দিনের বে-জোড় রাত্রিগুলোর যেকোন একটি লাইলাতুল ক্বদর বা মহিমান্বিত রাত। এই রাতে মানুষের জন্য সৌভাগ্য বয়ে আনে। লাইলাতুল কদর, ২৭ রমজানের রাত্রিতে হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে বলে, রাতে মুসল্লীরা নফল নামাজ, কোরআন তেলাওয়াত, জিকির-আসকার দুরুদ পাঠ করেন আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায়। মহান আল্লাহ সন্তুষ্টি লাভের আশায় বৃষ্টি উপেক্ষা করে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ছিলো ধর্মপ্রান মুসুল্লিদের ভীড়। রাতভর আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনায় মুশগুল ছিলেন। মহিমান্বিত এই রাতে আল্লাহ রাব্বুল আলামীন মুসলিম উম্মাহর শান্তি সমৃদ্ধি বয়ে আনবে এমন প্রত্যাশা মুসুল্লিদের।

আজ পবিত্র লাইলাতুল কদর (ভিডিও)

পবিত্র লাইলাতুল কদর আজ। মুসলিম উম্মার কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন রাত। আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় মসজিদে মসজিদে ইবাদত বন্দেগীতে মুশগুল  ধর্মপ্রান মুসলমানরা। এই রাতে পবিত্র কোরান শরীফ অবতীর্ন হয়। আল্লাহ ঘোষণা দিয়েছেন মহিমান্বিত এই রাতের ইবাদত, এক হাজার মাস ইবাদতের চেয়েও উত্তম। রমজান মাসের শেষ  দশ দিনের বেজোড় রাতগুলোর মধ্যেই যেকোনো একটি রাত হতে পারে লাইতুল কদরের রজনী। এই রাতকে সৌভাগ্যের রজনী হিসেবে বিবেচনা করেন আলেম-ওলামারা। এই রাতকে ঘিরে ধর্মপ্রান মুসলমানরা মসজিদে  রাতভর নফল নামাজ, জিকির-আসগারে আল্লাহ’র শোকরিয়া আদায় করবেন মুসুল্লিরা। মহান আল্লাহ সন্তুষ্টি লাভের আশায় বৃষ্টি উপেক্ষা করে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ছিলো ধর্মপ্রান মুসুল্লিদের ভীড়। রাতভর আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনায় মুশগুল ছিলো। মহিমান্¦িত এই রাতে আল্লাহ রাব্বুল আলামীন মুসলিম জাহানে শান্তি সমৃদ্ধি বয়ে নিয়ে আসবে এমন প্রত্যাশা মুসুল্লিদের।

আজ পবিত্র লাইলাতুল কদর  

আজ মঙ্গলবার দিবাগত রাত পবিত্র লাইলাতুল কদরের রজনী। ‘হাজার মাসের চেয়েও উত্তম’ পবিত্র লাইলাতুল কদর সমগ্র মানবজাতির জন্য অত্যন্ত বরকত ও পুণ্যময় রজনী। পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ আল কোরআন লাইলাতুল কদরে নাযিল হয়। পবিত্র কুরআনে আল্লাহ তা’য়ালা বলেন, ‘আমি কদর রাতে কোরআন নাযিল করেছি’। তাই মুসলিম উম্মাহ’র কাছে শবে কদরের গুরুত্ব, তাৎপর্য ও ফজিলত অত্যধিক। যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যময় পরিবেশে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সারাদেশে পবিত্র শবে কদর পালন করবে। এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ পৃথক বাণী প্রদান করেছেন। এ দিকে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মঙ্গলবার দুপুর ২টায় (বাদ যোহর) বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদে ‘পবিত্র লাইলাতুল কদরের গুরুত্ব ও তাৎপর্য’ শিরোনামে ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এতে ওয়াজ করবেন রাজধানীর মিরপুরস্থ বায়তুল মামুর জামে মসজিদের খতিব ড. মাওলানা আবদুল মুকিত আল আজহারী। সোমবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। তথ্যসূত্র: বাসস। কেআই/ এসএইচ/

নামাজ সম্পর্কিত কুরআনের ৯ আয়াত ও ৬ হাদিস

১. তোমরা ধৈর্য ও নামাজের মাধ্যমে সাহায্য প্রার্থনা করো। আর নিঃসন্দেহে তা বড়ই কঠিন- বিনীতদের জন্যে ছাড়া । ( সুরাহ বাকারাহ ২: ৪৫) ২. বল, নিশ্চয় আমার সালাত, আমার কুরবানি, আমার জীবন ও আমার মরণ জগৎ সমূহের প্রতি পালক আল্লাহর জন্যে। (সুরাহ আনয়াম ৫:১৬২) ৩. তোমরা সালাত সমূহের প্রতি এবং ( বিশেষ করে ) মধ্যবর্তী সালাতের প্রতি যত্ন বান হও, এবং আল্লাহর (সন্তুষ্টির)  জন্যে একান্ত অনুগত অবস্থায় দাড়াও। (সুরাহ বাকারাহ ২:২৩৮) ৪. আমি যদি তাদেরকে পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠিত করি (ক্ষমতা ওঁ সম্পদ দ্বারা) তাহলে তারা সালাত কায়েম করবে, সৎ কাজের নির্দেশ দেবে ও অসৎ কাজ  হতে নিষেধ করবে, আর সব কাজের পরিণাম আল্লাহর (নিকট) (সুরাহ হাজ ২২:৪১) ৫.( হে নারী) তুমি পাঠ করো তোমার প্রতি যে কিতাব ওহী করা হয়েছে তা থেকে এবং সালাত কায়েম করো। নিশ্চয় সালাত অশ্লীল ও মন্দ কাজ থেকে নিষেধ করে। এবং আল্লাহর স্মরণই সর্বশ্রেষ্ঠ। আর তোমরা যা করো আল্লাহ তা জানেন। (সুরাহ ‘আনকাবুত ২৯: ৪৫)    ৬. এবং তুমি সালাত কায়েম কর দিনের দুই দিনের দুই প্রান্তে ও রাতের প্রথমাংশে। নিশ্চয় ভালো কাজ মন্দ কাজকে মিটিয়ে দেয়। উপদেশ গ্রহণকারীদের জন্যে এটি এক উপদেশ। (সুরাহ হুদ ১১: ১১৪) ৭. অতঃপর যখন তোমরা সালাত সমাপ্ত  করবে তখন দাঁড়িয়ে, বসে এবং শুয়ে আল্লাহ কে স্মরণ করো, অতঃপর যখন তোমরা নিরাপদ বোধ করবে তখন পুরনাঙ্গ)  সালাত কায়েম কর, নিশ্চয় সালাত মু’মিনদের ওপর একটি সময় নির্ধারণ ফরয। (সুরাহ নিসা ৪:১০৩) ৮. সূর্য হেলে পড়ার পর থেকে রাতের ঘন অন্ধকার পর্যন্ত কায়েম করো এবং কায়েম কর ফরজের কুরআন পাঠও (অর্থাৎ সালাতুল ফরজ)। নিশ্চয় ফজরের পাঠ ( সালাতুল ফরজ) প্রত্যক্ষ করা হয়। (সুরাহ বানী ইসরাইল ১৭:৭৮) ৯. ওহে যারা ঈমান এনেছ! জুমু‘আর দিনে যখন তোমাদের কে সালাতের জন্যে ডাকা হয় তখন তোমরা  আল্লাহর স্মরণের দিকে ধাবিত হও এবং ক্রয় বিক্রয় পরিত্যাগ কর। এটি তোমাদের জন্যে উত্তম –যদি তোমরা জানতে। (সুরাহ জুমু‘আ ৬২: ৯) রাসুলুল্লাহ সা. এর ৬ হাদিস ১) হজরত উম্মি ফারওয়াহ রা. হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নাবী কারিম (সা.) কে জিজ্ঞাসা করা হলো যে, সবচেয়ে  মর্যাদাবান ‘আমল কোনটি? তিনি বলেন, ওয়াক্তের প্রারম্ভে সালাত আদায় করা। (সুনানু আবী দাঊদ: ৪২৬, জামি’উত তিরমিযী:১৭০) ২) হযরত আবূ হুরাইরা রা. হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, মুনাফিকদের কাছে ফজর ও ইশা অপেক্ষা অধিক ভারী কোনো সালাত নেই। আর যদি তারা জানত যে, এতদুভয়ের মধ্যে কী (ফযীলাত) রয়েছে, তাহলে অবশ্যই তারা হামাগুড়ি দিয়ে হলেও এর জন্যে আসত।  (সহীহ বুখারী: ৬৫৭, সহীহ মুসলিম: ৬৫১) ৩) হযরত জাবির (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, বান্দা (আনুগত্য) ও কুফরীর মধ্যে (পার্থক্য) হলো সালাত ত্যাগ করা। (সহীহ মুসলিম:৮২) ৪)  হযরত আবূ হুরাইরা (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, তোমাদের অভিমত কী, যদি তোমাদের কারো দরজায় একটি পানির নহর থাকে যাতে সে দৈনিক পাঁচ বার গোসল করে, তার শরীরে কি কোনো ময়লা অবশিষ্ট থাকতে পারে? তারা (সাহাবীগণ) উত্তরে বললেন, তার শরীরে কোনো ময়লা থাকতে পারে না। রাসূল (সা.) বললেন, পাঁচ ওয়াক্ত সালাতের উদাহরণ এরূপই। বিনিময়ে আল্লাহ তায়ালা তার অপরাধসমূহ মিটিয়ে দেন। (সহীহ বুখারী: ৫২৮, সহীহ মুসলিম: ৬৬৭) ৫) হযরত আবূ হুরাইরা (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, পাঁচ ওয়াক্ত সালাত, এক জুমার সালাত থেকে অপর জুমার সালাত এবং এক রমযান মাসের সিয়াম হতে অপর রমজান মাসের রোজা সেসব গুনাহের জন্যে কাফফারা হয়, যা এর মধ্যবর্তী সময়ে হয়ে থাকে; যখন কবীরা গুনাহ থেকে বেঁচে থাকা হয়। (সহীহ মুসলিম:২৩৩) ৬) হযরত ‘আমর ইবনে শুয়াইব রহ. হতে বর্ণিত। তিনি তার পিতা হতে, তার পিতা তার দাদা হতে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেছেন, তোমরা তোমাদের সন্তানদেরকে সালাতের জন্যে আদেশ কর, যখন তারা সাত বছর বয়সে পৌঁছাবে। আর যখন তারা দশ বছর বয়সে পৌঁছবে, তখন তাদেরকে সালাতের জন্যে প্রহার কর এবং তাদের শোয়ার স্থান পৃথক করে দাও। (সুনানু আবী দাঊদ: ৪৯৫) (লেখকের ‘কুরআন মাজীদের আদেশ ও নিষেধ’ বই থেকে সংকলিত)। এমএইচ/ এসএইচ/  

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি