ঢাকা, সোমবার   ১৮ অক্টোবর ২০২১, || কার্তিক ২ ১৪২৮

অঙ্কুর গজানো আলু খাবেন না কেন?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:৩২, ৮ অক্টোবর ২০২১ | আপডেট: ১৫:০৫, ৮ অক্টোবর ২০২১

বাড়িতে অনেক দিন আলু জমিয়ে রেখে দিলে তার গায়ে অঙ্কুর গজাতে শুরু করে। কিন্তু এই অঙ্কুর গজানো আলু কি খাওয়া উচিত? চলুন জেনে আসি এ বিষয়ে বিজ্ঞান কি বলছে?

জীববিজ্ঞানীরা বলছেন, আলুর অঙ্কুর চেষ্টা করে, যাতে কোনও পোকা বা জীবাণু আলুর ক্ষতি করতে না পারে। 

তাই আলুতে অঙ্কুর হলে নিজেই সোলানাইন নামক বিষ তৈরি করে। যা আলুতে পোকা লাগায় বাধা দেয়। 

তবে সাধারণত আমরা যে অবস্থায় আলু খাই, তাতে সোলানাইন তৈরি হতে শুরু করে না। তাই কোনও ক্ষতি হয় না। 

কিন্তু যখনই এতে অঙ্কুর গজাতে শুরু করে, সঙ্গে সঙ্গে তৈরি হতে থাকে এই বিষ।

অনেকে আলুর অঙ্কুর কেটে ফেলে দিয়ে বাকিটা রান্না করেন। এটিও নিরাপদ নয়। কারণ সোলানাইন শুধু মাত্র অঙ্কুরে তৈরি হয় না, গোটা আলুতেই তৈরি হয়। 

কী হতে পারে অঙ্কুর গজানো আলু খেলে?

অঙ্কুর গজানো আলুতে সৃষ্ট সোলানাইন অল্প পরিমাণে শরীরে গেলে তেমন কোন সমস্যা হয় না। বড় জোর পেটের হাল্কা গণ্ডগোল হতে পারে। কিন্তু বেশি পরিমাণে খেলে অনেকের মাথাব্যথা শুরু হয়। 

বিপুল পরিমাণে এই আলু পেটে গেলে মৃত্যুও হতে পারে। তবে সাধারণত এতটা আলু মানুষ খেতে পারে না। 

তবে দীর্ঘ দিন ধরে শরীরে অল্প অল্প করে সোলানাইন গেলে স্নায়ুর ক্ষতি হতে পারে। এটিই ভাববার বিষয়। 

খাওয়ার জন্য সংরক্ষিত আলুর অঙ্কুরোদ চাইলেই বন্ধ করা সম্ভব। এজন্য শুধু অন্ধকার এবং ঠান্ডা জায়গায় সংরক্ষণ করতে হবে।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা
এমএম//এসবি


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি