ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২০:২৭:৪২

Ekushey Television Ltd.
অরিত্রীর আত্মহত্যা

আটক এড়াতে হোটেলে ছিলেন শিক্ষিকা হাসনা হেনা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৫৬ এএম, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ০৬:২১ পিএম, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার

গ্রেফতারের ভয়ে বাসা ছেড়ে হোটেলে আত্মগোপন করেছিলেন ভিকারুননিসা স্কুল অ্যান্ড কলেজের বরখাস্তকৃত শিক্ষিকা হাসনা হেনা। বুধবার রাতে উত্তরার একটি হোটেল থেকে তাকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।

গোয়েন্দা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ভিকারুননিসার শিক্ষিকা হাসনা হেনা থাকেন মগবাজার এলাকার ডাক্তারের গলিতে। কিন্তু অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার মামলায় গ্রেফতারের ভয়ে আত্মগোপন করেছিলেন উত্তরার একটি হোটেলে।

মামলা হওয়ার পর পরিস্থিতি প্রতিকূলে ভেবে হাসনা হেনা ঢাকার বাইরে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন। সেটা সম্ভব না হওয়ায় উত্তরার একটি হোটেলে আত্মগোপন করেন তিনি।

পরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ভিকারুননিসা নূন স্কুলের প্রভাতী শাখার বরখাস্তকৃত এ শিক্ষিকাকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার রাতে উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টরের হোটেল উত্তরা ইনের একটি কক্ষ থেকে তাকে গ্রেফতার করে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পূর্ব জোনের একটি টিম।

ওই স্কুলের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যায় প্ররোচণার ঘটনায় দায়ের করা মামলার তিন নম্বর আসামি হাসনা হেনা। মামলা হওয়ার পর থেকেই তিনি পলাতক ছিলেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপকমিশনার খন্দকার নুরুন্নবী বলেন, বুধবার রাত ১১টার দিকে উত্তরা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রসঙ্গত, নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রির বিরুদ্ধে স্কুল কর্তৃপক্ষ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে পরীক্ষায় নকল করার অভিযোগ এনেছিল। এ জন্য অরিত্রির মা-বাবাকে ডেকে নেন ভিকারুননিসার অধ্যক্ষ।

তাদের ডেকে মেয়ের সামনেই অপমান করে বলেন, সিদ্ধান্ত হয়েছে অরিত্রিকে নকলের অভিযোগে প্রতিষ্ঠান থেকে বের করে দেয়া হবে। এ অপমান সইতে না পেরে বাসায় এসে অরিত্রি আত্মহত্যা করে।

আরকে//

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি