ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ১৩ ১৪২৭

ইউনিসেফ করোনার টিকার প্রায় ২ বিলিয়ন ডোজ পরিবহন করবে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২২:১০, ২৩ নভেম্বর ২০২০

টিকা পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বের ৯২ টিরও বেশি দেশে তা সরবরাহের প্রচেষ্টা ত্বরান্বিত করতে শীর্ষ আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থা এবং পণ্য পরিবহন প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে কাজ করছে ইউনিসেফ।

প্রস্তুতি শুরু করতে, প্যান আমেরিকান হেল্থ অর্গানাইজেশন (পিএএইচও) এবং ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের (আইএটিএ) সঙ্গে ইউনিসেফ গত সপ্তাহে শীর্ষ আন্তর্জাতিক বিমান সংস্থাগুলোকে প্রত্যাশিত সামর্থের বিষয়ে অবহিত করেছে এবং ২০২১ সালে প্রায় ২ বিলিয়ন ডোজ কোভিড-১৯ টিকা পরিবহনের উপায় নিয়ে আলোচনা করেছে।

সোমবার নিউ ইয়র্ক থেকে ইউনিসেফের ওয়েবসাইটে আপলোড করা এক বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়।

এ লক্ষ্যে এর বাইরেও অতিরিক্ত ১ বিলিয়ন সিরিঞ্জ সমুদ্র পথে পরিবহন করতে হবে। এই ভার্চুয়াল বৈঠকে ইউনিসেফ কোভিড-১৯ টিকা পরিবহন নিয়ে সিদ্ধান্তে এসেছে। এই আলোচনায় এয়ার ফ্রেইট অপারেটর, শিপিং লাইন এবং গ্লোবাল লজিস্টিক অ্যাসোসিয়েশনসহ ৩ শ’ ৫০ টিরও বেশি লজিস্টিক পার্টনার অংশগ্রহন করেছে।

ইউনিসেফের সরবরাহ বিভাগের পরিচালক এতলেভা কাদিলি বলেন, যখন কোভিড-১৯ টিকা তৈরীর কাজ চলছে, তখন ইউনিসেফ সম্ভাব্য দ্রুত সময়ে নিরাপদে টিকা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে এয়ারলাইন্স, মালবাহী অপারেটর, শিপিং লাইন এবং অন্যান্য লজিস্টিক অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এই সহযোগিতা ও বিশাল কাজের জন্য পর্যাপ্ত পরিবহন ক্ষমতা নিশ্চিত করতে অনেক দূর এগিয়ে যেতে হবে উল্লেখ করে কাদিলি বলেন, আমরা কোভিড-১৯ টিকার ডোজ ও সিরিঞ্জ সরবরাহ করতে প্রস্তুত এবং এ কাজে আমাদের সবার হাত তোলা দরকার।

আগামী সপ্তাহগুলোতে, ইউনিসেফ বিদ্যমান পরিবহন ক্ষমতা মূল্যায়ন করবে। কোভিড-১৯ টিকা ক্রয়, সরবরাহ এবং বিতরণ প্রক্রিয়া এযাবৎ গৃহীত বৃহত্তম দ্রুততম কর্মকাণ্ড হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

কোভাক্স এর সঙ্গে চুক্তি রয়েছে এমন উৎপাদনকারীদের কাছ থেকে টিকা ক্রয় এবং বিতরণের প্রয়াসে ইউনিসেফ নেতৃত্ব দিচ্ছে। পিএএইচও-এর সহযোগিতায় ইউনিসেফ ৯২টি নিম্ন ও নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে টিকা ক্রয় ও সরবরাহ সমন্বয় করবে।

জানুয়ারি মাস থেকে ইউনিসেফ ১৯০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশী মূল্যের কোভিড-১৯ সুরক্ষা সরঞ্জাম যেমন মাস্ক, গাউন, অক্সিজেন কনসেনট্রেটর এবং ডায়াগনস্টিক টেস্ট কিট সরবরাহ করেছে।

বিশ্বের বৃহত্তম একক টিকা ক্রেতা হিসেবে ইউনিসেফ সাধারণত প্রায় ১০০টি দেশের পক্ষ থেকে নিয়মিত এবং মহামারীর জন্য বার্ষিক ২ বিলিয়ন ডোজের বেশি টিকা ক্রয় করে।

এই অতুলনীয় দক্ষতার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন কোল্ড চেইন ব্যবস্থায় হাজার হাজার জাহাজের সমন্বয়। ফলে, ইউনিসেফ তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রিত পণ্যের সরবরাহ ব্যবস্থাপনায় বিশেষ দক্ষতা অর্জন করেছে যা এই মহামারীর সময় বিশেষভাবে প্রয়োজন।

কোভিড-১৯ টিকা ও সিরিঞ্জ সরবরাহ করার কারণে রুটিন টিকাদান কর্মসূচিতে বিঘ্ন কমাতে, ইউনিসেফ ও অংশীদাররা বিশ্বব্যাপী সময়মত সরবরাহের জন্য লজিস্টিক অপারেটরদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে সমন্বয় অব্যাহত রাখবে।

কাদিলি বলেন, হাম, ডিপথেরিয়া ও টিটেনাসের মতো মারাত্মক রোগের জন্য টিকা পরিবহনের পাশাপাশি কোভিড-১৯ টিকা সরবরাহে সরকার, অংশীদার ও বেসরকারী খাতে সহায়তা খুবই কার্যকর হবে।

ইউনিসেফ কোভিড-১৯ টিকার আসার আগে প্রাথমিক সরবরাহ এবং প্রাক-অবস্থান নিশ্চিত করতে ২০২১ সালের মধ্যে ১ বিলিয়নেরও বেশি সিরিঞ্জ মজুদ করার জন্য গত মাসে প্রক্রিয়া শুরু করেছে।- বাসস

এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি