ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

এ রকম বিতর্কিত পেনাল্টি আপনি দিতে পারেন না: ক্রোট কোচ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:২০ ১৬ জুলাই ২০১৮ | আপডেট: ১১:২৮ ১৬ জুলাই ২০১৮

শেষ হলো রাশিয়া বিশ্বকাপ মিশন। ধারাবাহিক খেলায় সবার নজড় কাড়া ক্রোয়েশিয়াকে ফাইনালে ৪-২ গোলে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলল ফ্রান্স। প্রথমার্ধে ২-১ গোলে এগিয়ে থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে এসে ক্রোয়েশিয়ার জালে আরও দুইবার বল জড়ায় ফ্রান্স।

এবারের বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো রেফারিদের সহায়তা করার জন্য ভিডিও প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে, যেটিকে ভিএআর বলা হয়। গ্রুপ পর্যায়ে এ প্রযুক্তির ব্যবহার করা হলেও নক পর্যায়ে এটি তেমন একটা ব্যবহার করা হয়নি। কিন্তু ফাইনাল ম্যাচে ফ্রান্সকে পেনাল্টি দেওয়ার জন্য ভিএআর ব্যবহার করা হয়েছে।

ফ্রান্সের কর্নার থেকে ক্রোয়েশিয়ার ইভান পেরিসিচ এর হাতে যখন বল লাগে তখন রেফারি তাৎক্ষনিকভাবে পেনাল্টি দেননি। কিন্তু ভিডিও অ্যাসিসটেন্স রেফারির সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ আলাপের পর তিনি নিজেই ভিডিও দেখতে মাঠের বাইরে যান এবং এরপর পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন। এ পেনাল্টি নিয়ে বিতর্ক রয়েছে।

ইংল্যান্ডের সাবেক খেলোয়াড় অ্যালান শিয়েরার মনে করেন এটা একটা ‘হাস্যকর সিদ্ধান্ত’। কারণ ক্রোয়েশিয়ার ইভান পেরিসিচ ইচ্ছাকৃত হ্যান্ডবল করেননি। পেনাল্টি দেওয়ার বিষয়টিকে ‘খারাপ সিদ্ধান্ত’ হিসেবে দেখছেন আরেকজন ফুটবল বিশ্লেষক এবং ইংল্যান্ডের সাবেক খেলোয়াড় রিও ফার্ডিনান্ড।

বিশ্বকাপ মিশনে ক্রোয়েশিয়াকে ফাইনালে তুলেও শিরোপা জয়ের স্বাদ এনে দিতে পারেননি দলটির কোচ জ্লাতকো দালিচ। আর ম্যাচ শেষে সেই আক্ষেপই ঝড়লো কোচের কথায়।

বিশ্বকাপ জেতার জন্য ফ্রান্সকে অভিবাদন জানিয়ে ক্রোয়েশিয়ার কোচ বলেন, আমরা ম্যাচের প্রথম ২০মিনিট অনেক ভাল খেলেছি। এরপরই আত্মঘাতী গোলটি হল। তারপরও আমরা ম্যাচে ফিরেছিলাম। কিন্তু এরপরই পেনাল্টি দেওয়া হল। আমি রেফারির বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাই না। তবে এটুকু বলব, ফাইনাল ম্যাচে এরকম একটি বিতর্কিত পেনাল্টি আপনি দিতে পারেন না।

দালিচ বলেন, সম্ভবত এই টুর্নামেন্টে এই ম্যাচেই আমরা সেরা খেলা খেলেছি। আমরা ম্যাচটা নিয়ন্ত্রণ করলেও পরাজিত হয়েছি। ফ্রান্সের মতো শক্তিশালী একটি দলের বিপক্ষে আপনাকে অবশ্যই ভুল করা যাবে না। আমরা কিছুটা মর্মাহত হলেও যা করেছি তার জন্য গর্বিত হওয়া উচিত।

ক্রোট কোচ বলেন, আমরা খুব করে বিশ্বকাপটা জিততে চেয়েছিলাম কিন্তু এটাই ফুটবল। ফরাসিরা আমাদের বিস্মিত করেনি। আমরা দুটি ‘সফট গোল’ খেলাম, সঙ্গে একটা আত্মঘাতী ও একটা পেনাল্টি থেকে গোল। ভাগ্যের দিক থেকে আমরা এই টুর্নামেন্টে যে সাহায্য পেয়েছিলাম, আজ সেটার ঘাটতি ছিল। যখন আপনি চার গোল খেয়ে ফেলবেন, তখন আপনি জয় আশা করতে পারেন না।

একে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি