ঢাকা, মঙ্গলবার   ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৭ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

কমরেড ফরহাদের ৩২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৪৩ ৯ অক্টোবর ২০১৯

বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদের ৩২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ বুধবার। ১৯৮৭ সালের ৯ অক্টোবর তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের রাজধানী মস্কোতে তিনি ইন্তেকাল করেন।

১৯৩৮ সালের ৫ জুলাই পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার জমাদারপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। পড়াশোনা করেছেন দিনাজপুর শহরে। তার পিতা আহমেদ সাফাকাত আল বারি ছিলেন একজন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ। ইংরেজি, আরবি, ফার্সি ও উর্দু প্রভৃতি ভাষায় তার দখল ছিল। কমরেড ফরহাদরা মোট ৬ ভাই-বোন।

তিনি ১৯৫২ সালে মহান রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে দিনাজপুর জেলা স্কুলের ছাত্র হিসেবে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন। ভাষা আন্দোলনের পরপরই এদেশের ছাত্র সমাজের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন ‘পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়ন’ ঢাকায় গঠিত হলে দিনাজপুর জেলায় ওই সংগঠনের মূল উদ্যোক্তাদের মধ্যে তিনি ছিলেন অন্যতম। ১৯৫৩-৫৪ সালে বোদা-পঞ্চগড় প্রভৃতি এলাকায় তিনি প্রথম ছাত্র সংগঠন গড়ে তুলেন। ১৯৫৮ সালে তিনি পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য (কোষাধ্যক্ষ) নির্বাচিত হয়েছিলেন।

১৯৬২ সালে আইয়ুব খানের সামরিক আইনের বিরুদ্ধে যে জঙ্গি ছাত্র আন্দোলন গড়ে উঠেছিল মোহাম্মদ ফরহাদ ছিলেন সেই আন্দোলনের মূল নেতা। তাকে আইয়ুববিরোধী আন্দোলনের ‘মস্তিষ্ক’ বলে অভিহিত করা হয়। অল্প সময়ের মধ্যে তিনি একজন প্রধান বিপ্লবী ছাত্রনেতা হিসেবে প্রগতিশীল ছাত্র সমাজের সমাদর লাভ করেন।

১৯৭৭ সালে জিয়াউর রহমান সরকার তাকে গ্রেফতার করে এবং বিনা বিচারে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক রাখে। ১৯৮৩ সালে স্বৈরাচারী এরশাদের সামরিক সরকার আবার তাকে গ্রেফতার করে এবং ক্যান্টনমেন্ট জেলে অন্ধকার কক্ষে ১৪ দিন আটক রাখে।

১৯৮৬ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি পঞ্চগড়-২ আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন।

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কমরেড ফরহাদের পরিবারসহ বিভিন্ন দল ও সংগঠন আজ বিস্তারিত কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ সকাল ৮টায় বনানী কবরস্থানে পুষ্পমাল্য অর্পণ করবে সিপিবি। এ ছাড়া তার জন্মস্থান বোদা উপজেলার বলরামহাটে জাপানি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ড পরিচালিত কমরেড মোহাম্মদ ফরহাদ কমিউনিটি হাসপাতাল দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি পালন করবে।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- তার বর্ণাঢ্য জীবনের ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, স্মরণসভা এবং দিনব্যাপী বিনামূল্যে স্বাস্থ্য ক্যাম্প। এ ক্যাম্পে ঢাকায় বারডেম হাসপাতালের বিশেষ মেডিকেল টিমের সহযোগিতায় ব্রেস্ট ক্যান্সার বিষয়ক সচেতনতামূলক আলোচনা সভা, বিনামূল্যে ব্রেস্ট ক্যান্সার স্ট্ক্রিনিং, জরায়ুমুখের ক্যান্সার স্ট্ক্রিনিং, ইসিজি, লিপিড প্রোফাইল টেস্ট, ডায়াবেটিক টেস্ট, হৃদরোগ টেস্ট করানো হবে। এ ছাড়া সকাল ১০টা থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা চর্ম, যৌন, গাইনি ও মেডিসিন বিষয়ে পরামর্শ দেওয়াসহ বাত-ব্যথা ও প্যারালাইসিস রোগীদের ফিজিওথেরাপি দেবেন।
এসএ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি