ঢাকা, শনিবার   ১৯ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

কেন জিদান সেদিন ঢুস মেরেছিল? (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:২৩ ২ জুন ২০১৮ | আপডেট: ১১:৪২ ১৩ জুন ২০১৮

ঘটনার ১২ বছর অতিবাহিত হতে চললেও এখনো স্মৃতিতে ভাস্মর ২০০৬ বিশ্বকাপের কথা। এমনকি শতবর্ষ পরও কেউ যদি ২০০৬ বিশ্বকাপের দিকে তাকায়, তাহলে নিঃসন্দেহে সব ছাপিয়ে একটা দৃশ্যই বড় হয়ে ভাসবে তার চোখের সামনে। ইতিহাসের পৃষ্ঠা থেকে মূর্ত হয়ে উঠবে ছবিটা—মার্কো মাতেরাজ্জিকে ঢুস মেরে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন জিনেদিন জিদান!

অনেকের কাছে আজও প্রশ্ন জিনেদিন জিদানের মতো সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় বিশ্বকাপ ফুটবলের ফাইনাল ম্যাচে এমন কাজ করতে গেলেন কেন? অনেকেই বলছেন, তার অন্যতম কারণ ইতালির গোলে খেলায় ফেরা। তবে জিদান অবশ্য দাবি করেছিলেন, মাতেরাজ্জি তাকে এমন একটি গাল দিয়েছিলেন, যাতে তিনি নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে পারেননি। এ কারণেই তিনি ঢুস মেরেছিলেন। অবশ্য এর জন্য আজও পুড়ায় জিনেদিন জিদানকে।

অনাকাঙ্ক্ষিত হলেও ফুটবল-ইতিহাসেই ঢুকে গেছে ছবিটা। ইতালির মধ্যমাঠের খেলোয়াড় মাতেরাজ্জিকে ঢুস মারার দৃশ্যটি অবশ্য আজও ভুলতে পারেননি ফুটবল প্রেমীরা। তখন ফ্রান্স ও ইতালি দুই দলের গোল সংখ্যা-ই সমান। কিছুক্ষণ পরই খেলা গড়াবে টাইব্রেকারে। এমন সময় মাতেরাজ্জি জিদানকে আক্রমণ করে কিছু বলায় নিজের নিয়ন্ত্রণ হারায় জিদান। সঙ্গে সঙ্গেই লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বিদায় করে দেওয়া হয় জিদানকে।

এরপরই টাইব্রেকারে পরাজয় ঘটে ফ্রান্সের। ইতালি চতুর্থবারের মতো বিশ্বকাপ জেতে। ২০১৩ সালে ওই ফাইনাল খেলা পরিচালনা করা আর্জেন্টাইন রেফারি এলিজোন্দো অবশ্য বলেছিলেন, ‘খেলোয়াড় যত বড়ই হোক, খেলাটির চেয়ে সে বড় নয়। ওকে মাঠ থেকে বের করে দেওয়া অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত ছিল। কিন্তু কেউ বলতে পারবে না আমি ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

এমজে/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি