ঢাকা, রবিবার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ছাত্রলীগ ইস্যুতে কাল বৈঠকে বসছে আওয়ামী লীগ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:২৭ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মাদকাসক্ত, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সংবাদে ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্বের ওপর বিরক্ত হয়ে পড়েছে আওয়ামী লীগ। ফলে ছাত্রলীগের লাগাম টেনে ধরতে শীর্ষ নেতৃত্বে পরিবর্তন আনা হচ্ছে- এমনটি আভাস পাওয়া গেছে। এরই মধ্যে রাজনৈতিক মহলেও ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দেয়ার ব্যাপারে জোরালো আলোচনা চলছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আগামীকাল শনিবার আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে অব্যাহতি দিয়ে শীর্ষ দুই পদে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ।

আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী এখনো ছাত্রলীগের সাংগঠনিক নেত্রী হিসেবে আছেন। খোদ তিনিই ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের ওপর বিরক্ত। নেত্রী বেশ কয়েকবার তাদের সতর্ক করেছেন। তারা কোনোভাবেই তোয়াক্কা করেনি। 

এর আগে গত শনিবার বিতর্কিত কর্মকাণ্ড এবং অযোগ্যতার কারণে গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার ও সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভায় ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সেই সভায় তিনি শোভন-রাব্বানীর নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় কমিটি ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বলেও বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে খবর ছড়িয়েছিল।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে বিবাহিত, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী, চাকরিজীবীসহ বির্তকিতদের পদ দেওয়া, ত্যাগী নেতাকর্মীদের বঞ্চিত করা, কমিটি দিতে অর্থনৈতিক লেনদেনসহ বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ রয়েছে এই দুজনের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেরিতে যাওয়া এমনকি আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতাদের পরে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

সর্বশেষ গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি শোভনের গাড়িতে ওঠাকে কেন্দ্র করে মারামারিতে জড়ান ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা। এ সময় দায়িত্বরত এক সাংবাদিককে শোভনের গাড়িতে তুলে নেওয়া হয় এবং সাংবাদিকের মোবাইল ফোন থেকে ভিডিও ডিলিট করা হয়।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১১ ও ১২ মে ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সম্মেলনের আড়াই মাস পর গত বছরের ৩১ জুলাই রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে সভাপতি ও গোলাম রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক করে দুই বছর মেয়াদী আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর পর দীর্ঘ প্রায় এক বছর পর গত ১৩ মে ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি