ঢাকা, রবিবার   ২৫ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ১০ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ডায়াবেটিস নিয়ে চারটি শ্রুতি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৭:২৮ ১৮ মে ২০১৭ | আপডেট: ১১:০৭ ২২ মে ২০১৭

বর্তমান যুগে ডায়াবেটিস অতি পরিচিত একটি রোগ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, পৃথিবীজুড়ে ৪২২ মিলিয়ন মানুষ বেঁচে আছেন ডায়াবেটিস নিয়ে। ১৯৮০ সাল থেকে ২০১৪ সালের মাঝে এ রোগে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। এতো বিপুল সংখ্যক মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলেও এটি নিয়ে অনেকের ভুল ধারণা রয়েছে, রয়েছে নানা শ্রুতি। চলুন দেখে নিই ডায়াবেটিস নিয়ে মানুষের কিছু শ্রুতি ও তার পেছনের সত্যটি।

ডায়াবেটিস অগ্ন্যাশয়ের রোগ

ডায়াবেটিস হলে অগ্ন্যাশয় বা প্যানক্রিয়াসের কার্যক্রম বড় ধরণের বাধাগ্রস্ত হয় সত্যি, তবে সেটা অগ্ন্যাশয়ের কোনো রোগ নয়। তবে ডায়াবেটিসের ক্ষতি শুধু সেখানেই সীমাবদ্ধ নয়। ডায়াবেটিসের কারণে জীবনযাত্রায় অনেক নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। বিশেষ করে এর কারণে অনেকের ডিপ্রেশন (বিষন্নতা) দেখা দেয়। এমনকি শুধুই ডায়াবেটিসের সাথে জড়িত ‘ডায়াবেটিস ডিসট্রেস’ আছে। পরিষ্কার চিন্তা করা, মনোযোগ ধরে রাখা এবং স্মৃতি মনে করার ক্ষমতা ব্যহত হতে পারে। আরও চিন্তার ব্যাপার হলো, স্বাস্থ্যকর খাওয়ার ক্ষমতাতেও ব্যাঘাত ঘটায় ডায়াবেটিস।

স্থূলতার সঙ্গে ডায়াবেটিসের সম্পর্ক

স্থূলতার সঙ্গে ডায়াবেটিসের সম্পর্ক রয়েছে ঠিক। তবে তার মানে এই নয় যে বেশি ওজন হলেই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হতে হয়।

ইংল্যান্ডের একটি পাবলিক হেলথ রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়, ইংল্যান্ডের স্থূল প্রাপ্তবয়স্করা স্বাভাবিক ওজনের প্রাপ্ত বয়স্কদের তুলনায় ৫ গুণ বেশি টাইপ-২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকিতে রয়েছে। আর টাইপ-১ ডায়াবেটিস স্থূলতার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত নয়। এটা হলো অটোইমিউন ডিসঅর্ডার অর্থাৎ শরীরের নিজস্ব প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে আক্রমণ করে এ রোগের জীবানুগুলো অগ্ন্যাশয়ে ইনসুলিন উৎপাদন ব্যহত করে। অনেকে মনে করেন টাইপ-১ ডায়াবেটিস বংশগত রোগ। তবে প্রমাণ রয়েছে এটা একটা ভাইরাসজনিত কারণে হয়ে থাকে।

নিয়মিত ইনসুলিন ইনজেকশন নিতে হয়

টাইপ-১ ডায়াবেটিসে ইনসুলিন থেরাপি নিতে হয় বটে। তবে ইনসুলিন পাম্প করেও দেওয়া যায়। এভাবে ইনসুলিন দিলে প্রতিদিন ইনজেকশন দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। গর্ভকালীন এবং টাইপ টু ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে বেশ কয়েক ধরণের চিকিৎসার সুযোগ আছে। জীবনযাত্রায় পরিবর্তন এবং কিছু ওষুধ যেমন মেটমরফিন, ব্রোমোক্রিপটিন ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ব্যবহার করা হতে পারে।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ সহজ

অনেকক্ষেত্রে প্রমাণ রয়েছে যে কম ক্যালোরিযুক্ত খাবার খেলে ব্লাড সুগার লেভেল স্বাভাবিক মাত্রায় চলে আসে টাইপ-২ ডায়াবেটিসে। এবং এভাবে চলতে থাকলে ডায়াবেটিস থেকে এক সময় আরোগ্য লাভ করা যায়। তবে এর কোনো বৈজ্ঞানিক ব্যাখা নাই। বরং ডাক্তাররা বলেন যে ডায়াবেটিস জীবনের বাকি সময়ের সঙ্গী। এর কারণে অঙ্গহানিও হতে পারে। সূত্র : আইএফএল সায়েন্স।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি