ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ডেঙ্গুসেবা মনিটরিংয়ে মাঠে ১০ টিম

আজাদুল ইসলাম আদনান

প্রকাশিত : ১১:০১ ২৮ জুলাই ২০১৯

অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়েছে এবারের মশাবাহিত রোগের প্রকোপ। হাসপাতালগুলোতে রোগীদের উপচে পড়া ভিড়। সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে দেশের সরকারি ও বেসরকারি সকল চিকিৎসা কেন্দ্রকে। এর মাঝে আবার চিকিৎসা সেবা নিয়ে উঠেছে নানা অনিয়মের অভিযোগ। তাই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা সেবা সুনিশ্চিত করতে আজ থেকেই মাঠে নামছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ১০টি মনিটরিং টিম। অধিদপ্তরের কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকদের সমন্বয়ে গঠিত এ টিম ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে রাজধানীর সকল চিকিৎসা কেন্দ্র তথা হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সেবা কার্যক্রম পরিদর্শন ও পর্যবেক্ষণ করবেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ একুশে টিভি অনলাইনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে, তা সঠিকভাবে মেনে চলা হচ্ছে কিনা তা দেখার জন্যই এ টিম গঠন করা হয়েছে। প্রতিটি টিমে অন্তত তিনজন কর্মকর্তা থাকবেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃ্দ্ধি পাওয়ায় এ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এ রোগে আক্রান্তরা যাতে চিকিৎসা ও বিভিন্ন পরীক্ষা বিনামূল্যে কিংবা কম খরচে করতে পারেন সে উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে।

এদিকে, বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে যাতে ডেঙ্গুতে আক্রান্তদের সকল পরীক্ষার ফি যাতে কমানো হয়, সেজন্য বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক মালিকদের সঙ্গে আজ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বৈঠকে বসার কথা রয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮৩ জন। চলতি বছরে (১ জানুয়ারি থেকে ২৭ জুলাই পর্যন্ত) ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৫২৮ জন। যা ২০০০ সালে ডেঙ্গুর মহামারির পর এটাই সবচেয়ে বেশি। আর চলতি মাসে (২৭ জুলাই পর্যন্ত) আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ৩৮৪ জন।

সরকারি হিসেব অনুযায়ী চলতি বছরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে মারা গেছেন ৮ জন আর বেসরকারি হিসেব মতে মৃতের সংখ্যা ৩৫ জন। দেশের ইতিহাসে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মারা গিয়েছিল ২০০০ সালে (৯৩ জন)।

এ বছর অতীতে সকল রেকর্ড ভেঙ্গেছে আক্রান্তের সংখ্যা। এমতাবস্থায় কার্যকরি পদক্ষেপ না নিতে পারলে মৃতের সংখ্যাও বড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আই/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি