ঢাকা, শনিবার   ২৪ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

তথ্যই ডিজিটাল বিপ্লবের মূল হাতিয়ার : প্রকৌশলী আবদুস সবুর

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:৪৯ ২২ জুলাই ২০১৯

তথ্যই ডিজিটাল বিপ্লবের মূল হাতিয়ার বলে জানিয়ে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী মো.আবদুস সবুর বলেন, তথ্যের নিরাপত্তা থাকা চাই অগ্রাধিকার তালিকার সব থেকে উপরে। তথ্যের পাশাপাশি ডিভাইস এবং তাতে ব্যবহৃত সফটওয়্যার ও ইন্টারনেটের সুরক্ষাও নিশ্চিত করতে হবে। দক্ষ মানব শক্তি গঠনের পাশাপাশি জনসচেতনতাতেও গুরুত্ব দিতে হবে। তথ্য বিভ্রাটের কারণে ইতোমধ্যে আমরা অনেকগুলো বাজে ঘটনার সাক্ষ্য পেয়েছি। তাই তৃণমূল থেকে এ সকল বিষয়ে উদ্যোগ নেয়া উচিৎ বলে আমি মনে করি।

সোমবার (২২ জুলাই) বিকেলে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) মিলনায়তনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটি আয়োজিত 'চতুর্থ শিল্প বিপ্লব ও ডিজিটাল নিরাপত্তা' শীর্ষক সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক বলেন, একবিংশ শতাব্দীতে আমরা যাত্রা শুরু করছি ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের। যার ভিত্তি হল ইন্টারনেট ভিত্তিক উন্নত প্রযুক্তির সকল সেক্টরে ব্যবহার। আজ বাংলাদেশের অনেক মানুষই আছেন যারা বিশ্বাস করেন যে বাংলাদেশ একদিন ৪র্থ শিল্প বিল্পবে নেতৃত্বদানকারী দেশ হিসেবে মাথা উঁচু করবে। এর কারণ হল, আমাদের প্রস্তুতি সঠিক পথে আগাচ্ছে।

দেশের প্রায় সব ক্ষেত্রেই ডিজিটালাইজ হয়েছে জানিয়ে প্রকৌশলী আবদুস সবুর বলেন, আমাদের দেশের সিএনজি চালকেরাও আজকাল গুগল ম্যাপ দেখে ট্র্যাফিক জ্যাম থেকে মুক্ত সহজ রাস্তাগুলো ব্যবহার করে।কৃষকেরা ইন্টারনেট অফ থিংস এর মত উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করছে। আমাদের দেশের ছেলেমেয়েরা দেশে বসেই কাজ করছে আমেরিকা, ইংল্যান্ড, ইত্যাদি দেশের ডাক্তারদের সাথে, যেটার জন্য তাদের কোনো এমবিবিএস ডিগ্রি লাগছে না। ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের শুরুটা আমরা বেশ ভালোভাবেই করেছি বলেই এই বিশ্বাসটা আমাদের মনে জেগেছে যে একটা সময় আমরাও পারবো পুরো বিশ্বকে অবাক করে দিতে। এর জন্য প্রয়োজন আমাদের তরূন-তরুণীদের উদ্ভাবনী দক্ষতার চর্চা, ইনোভেশন কালচার গড়ে তোলা, সার্টিফিকেট নিয়ে ব্যস্ত না থেকে কারিগরি দক্ষতাগুলোতে গুরুত্ব প্রদান করা।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইঞ্জিনয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি)-এর কম্পিউটার কৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের উপাচার্য অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী মুহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম।

তিনি বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ফলে দেশে অনেক পরিবর্তন হবে। রোবট সুফিয়ারা মানুষের স্থান গুলো আস্তে আস্তে দখল করবে। দেশে যখন ৫জি চলে আসবে তখন ইন্টারনেটের গতি অনেক বেড়ে যাবে। যার ফলে জীবন যাত্রার মান অনেক পরিবর্তন আসবে। এই পরির্বতনের সাথে সাথে আমাদের অনেক কিছু গোপনীয়তা থাকবে না।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য প্রকৌশলী শাহাদাৎ হোসেন শিবলুর সঞ্চালনায় উপকমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর হোসেন মনসুরের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক মুনাজ আহম্মেদ নূর, আইইবির সম্মানী সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ, ভাইস- প্রেসিডেন্ট প্রকৌশলী নুরুজ্জামান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির সদস্য সুফি ফারুক প্রমুখ।

কেআই/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি