ঢাকা, সোমবার   ১৮ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

প্লট চাওয়া নিয়ে যা বললেন রুমিন ফারহানা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৩৮ ২৬ আগস্ট ২০১৯

সরকারের কাছে প্লট চেয়ে পাঠানো চিঠি ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ায় বেজায় চটেছেন বিএনপির সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। 

এ বিষয়ে তিনি বলেন,  ‘ফেসবুকে আমার যেই চিঠিটা ভাইরাল হয়েছে সেটা- না অবৈধ, না অনৈতিক। কোনোটাই না। এই্ কারণেই নয় যে, এই সুবিধাটা রাষ্ট্রীয় সুযোগ বা রাষ্ট্রীয় অধিকার। একজন সংসদ সদস্য রাষ্ট্র থেকে জায়গার জন্য এপ্লাই করতে পারেন সেই সুযোগ তার আছে, তিনি একটি ট্যাক্স ফ্রি গাড়ি আনতে পারেন সেই সুযোগ তার আছে, তিনি বেতন-ভাতা পান এবং তিনি পাঁচ বছরের জন্য একটা এ্যাপার্টমেন্ট পান-এই চারটি জিনিস হচ্ছে রাষ্ট্রীয় সুযোগ। এই রাষ্ট্রীয় সুযোগ যেই সংসদ সদস্য হবেন সেই রাষ্ট্র থেকে পাবেন। সেই সুবাধে আমি একটি আবেদনপত্র দিয়েছি। শুধু আমি একা নই, অন্তত তিন‘শ থেকে সাড়ে তিন‘শ এমপি এপ্লিকেশন দিয়েছেন।’

তিনি বলেন ‘আমার প্রশ্ন হলো- আমারটার চিঠিটা মন্ত্রণালয়ের থেকে বেরুলো কি করে? যেখানে আমার ব্যক্তিগত টেলিফোন নম্বর দেয়া আছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি স্পষ্টভাষায় বলতে চাই, আমি এই সরকারের কাছ থেকে এক সুতা জমিও আশা করি না, আমি চিন্তাও করি না। এটা একটা প্রসিডিউর, একটা ফরমালিটিজ যেটা সব এমপি করেছেন, আমিও করেছি।’

‘এই চিঠি আমি ড্রাফটও করি নাই, আমার পিএস ড্রাফট করে দিয়ে দিয়েছে। সব পিএসরা যখন তাদের এমপিদের চিঠি ড্রাফট করেছে, আমরা পিএসও ড্রাফট করে দিয়ে দিয়েছে; কিন্তু আমার চিঠিটা কেনো ভাইরাল হলো? এটা ভাইরাল কেনো হলো তার উত্তর আমি নিজেই দিচ্ছি।’

রুমিন ফারহানা বলেন, ‘গত দুইদিন আগে আবুল মাল আবদুল মুহিত(সাবেক অর্ধমন্ত্রী) কোনো পদে না থাকা অবস্থায় শুল্কমুক্ত গাড়ি এনেছিলেন। সরকার তার সেই নোংরামী ও অসততাকে চাপা দেয়ার জন্যে আমার যে বৈধ এপ্লিকেশন সেটাকে তারা নোংরাভাবে পাবলিক করেছে। একটা সরকারি নথি কখন পাবলিক হয় তখন সেখানে সরকারের মদদ থাকে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রশ্ন হলো আমার চিঠিটা কি অবৈধ? কোন আইনে অবৈধ? এটা কি অনৈতিক কোন আইনে অনৈতিক?। এটা তো রাষ্ট্রীয় চিঠি। আমি তো সরকারের কাছ থেকে কিচ্ছুই চাইনি। আমার বেতনটা যেমন রাষ্ট্রীয়, আমার এই এপ্লিকেশনও রাষ্ট্রীয়।’

তিনি বলেন, ‘আমি এখন চ্যালেঞ্জ করব- যতজন এমপি এপ্লিকেশন করেছেন সব প্রকাশ করা হোক। রুমিন কেনো একলা?’

প্রসঙ্গত, গত ৩ আগস্ট জাতীয় সংসেদের প্রতিক যুক্ত ব্যক্তিগত প্যাডে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের কাছে একটি চিঠি লেখেন রুমিন ফারহানা। চিঠিতে রাজধানীর পূর্বাচলে সরকারের কাছে ১০ কাঠার প্লট চেয়েছেন তিনি।

চিঠিতে তিনি লেখেন, ‘ঢাকাস্থ পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠার প্লটের প্রয়োজন। ঢাকা শহরে আমার কোন জায়গা/ফ্ল্যাট, জমি নাই। ওকালতি ছাড়া আমার অন্য কোন ব্যবসা/পেশা নাই। আমার নামে ১০ কাঠা প্লট বরাদ্দের জন্য সুব্যবস্থা করে দিতে আপনার মর্জি হয়।’

তবে মন্ত্রণালয় থেকে বিষয়টি জানানো হলেও আবেদনটি এখনও পাননি বলে জানিয়েছেন গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

একাদশ জাতীয় সংসদে বাংলাদেশ জাতীয়বাদী দলের (বিএনপি) নির্বাচিত এমপিরা শপথ নেওয়ার পর সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে মনোনয়ন পান রুমিন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসন থেকে মনোনয়ন চান টেলিভিশন টকশোর পরিচিত মুখ ব্যারিস্টার রুমিন। তবে তিনি ওই আসনে মনোনয়ন পাননি। তার পরিবর্তে মনোনয়ন দেওয়া হয় উকিল আবদুস সাত্তারকে।

এরপর অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসার ঘটিয়ে সংরক্ষিত আসন থেকে এমপি হন রুমিন ফারহানা। এমপি হিসেবে শপথ নিয়েই সেই সংসদকে অবৈধ বলে দাবি করে আলোচনায় আসেন তিনি।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি