ঢাকা, বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১, || শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮

বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক আর নেই 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:০৩, ১৫ জুলাই ২০২১ | আপডেট: ১৯:১৭, ১৯ জুলাই ২০২১

বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক (৭১) ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার রাত ১২টা ৪৫ মিনিটে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। 

তাঁর মৃত্যুতে চট্টগ্রামের আনোয়ারা-কর্ণফুলীতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মরহুমের জানাজা বৃহস্পতিবার বাদ মাগরিব গুলশান-২ আজাদ মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য, তিনি চট্টগ্রামের আনোয়ারার ভিংরোল হাইলধর চৌধুরী বাড়ির সন্তান। ১৯৭০ সালে মুশতাক বঙ্গবন্ধুর জীবনীও লেখেন। ১৯৫০ সালের ১১ আগস্ট চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা থানার ভিংরোল গ্রামের মিয়াবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক। তাঁর বাবা মরহুম নুরুল হক চৌধুরী এবং মা মরহুমা মুসলিম আরা। গ্রামের বাড়ি আনোয়ারা হলেও তিনি চট্টগ্রাম শহরের পাথরঘাটায় ছোটবেলা থেকে জীবনের একটি উল্লেখযোগ্য সময় পার করেন।

চট্টগ্রাম সরকারি মুসলিম হাই স্কুলে অধ্যয়নকালে ১৯৬৫ সালে তিনি ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। স্কুলের ছাত্র অবস্থায় তিনি ১৯৬৬-৬৭ সালে নির্বাচিত হন চট্টগ্রাম নগর ছাত্রলীগের নির্বাহী কমিটির কনিষ্ঠতম সদস্য।

মুসলিম হাই স্কুল থেকে ১৯৬৭ সালে এসএসসি পাস করার পর রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক ভর্তি হন ঢাকা কলেজে। ১৯৬৭ সালে তিনি ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘বঙ্গবন্ধু’ উপাধির প্রবক্তা হিসেবে তিনি পরিচিত। 

১৯৭০ সালে তিনি নির্বাচিত হন তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-দপ্তর সম্পাদক। একাত্তরে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন।  ছাত্রজীবন শেষে রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক ব্যবসা ও সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত হন। 

তিনি মৃত্যুর আগপর্যন্ত কে এন হারবার কনসোর্টিয়াম লিমিটেডের চেয়ারম্যান হিসেবে শিপিং, ইনডেনটিং, আমদানি ও রপ্তানি ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। 

এছাড়া তিনি ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সদস্যও। ২০১২-১৩ সালে রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক চট্টগ্রাম সমিতি, ঢাকার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

কেআই/আরকে


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি