ঢাকা, রবিবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ১০ ১৪২৭

ভারতে একদিনে আরও ৪৮৫ মৃত্যু 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:৪৭, ২৮ নভেম্বর ২০২০

বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ করোনাক্রান্ত দেশ ভারতে সংক্রমণ কিছুটা কমলেও থামছে না প্রাণহানি। গত একদিনে ৪১ হাজারের বেশি ভারতীয়র করোনা শনাক্ত হয়েছে। এতে করে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৯৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। থেমে নেই প্রাণহানিও। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৪৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে সেখানে। তবে আশা জাগাচ্ছে সুস্থতা। 

দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৪১ হাজার ৩২২ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত হলেন ৯৩ লক্ষ ৫১ হাজার ১০৯ জন। 

অন্যদিকে, গত একদিনে প্রাণহানি ঘটেছে ৪৮৫ জনের। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৩৬ হাজার ২শ’ জনের মৃত্যু হলো করোনায়। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৩ কোটি ৮২ লাখ ২০ হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ লাখ ৫৭ হাজারের বেশি। 

বিশ্ব তালিকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরেই বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ করোনাক্রান্ত দেশ হলো ভারত। 

দেশটির অধিকাংশ রাজ্যেই দৈনিক সংক্রমণ গত এক মাসে কমেছে। গত দু’সপ্তাহ ধরে দিল্লি এবং কেরলে তা বেশি থাকার পর শনিবার একটু কমেছে। কিন্তু মহারাষ্ট্রেও দৈনিক সংক্রমণ গত দুদিন ধরেই ৬ হাজার ছাড়িয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে রাজস্থান, হিমাচল প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাটের মতো রাজ্যগুলোতে শীত পড়ার সঙ্গে সঙ্গে খুব ধীরে হলেও ধারাবাহিকভাবে বাড়ছে আক্রান্ত। বেশ কিছু দিন কম থাকার পর উত্তরপ্রদেশেও তা বাড়ছে।

পশ্চিমবঙ্গের দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা হলেও আগের থেকে কম। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ৪৮৯ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এ রাজ্যে। এ নিয়ে রাজ্যে মোট আক্রান্ত হলেন ৪ লাখ ৭৪ হাজারে দাঁড়িয়েছে। 

অন্যদিকে, ভারতে মোট মৃত্যুর এক তৃতীয়াংশই মহারাষ্ট্রে। সেখানে প্রাণ গিয়েছে ৪৬ হাজার ৮৯৮ জনের। দেশের মৃত্যু তালিকায় দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে থাকা কর্নাটক এবং তামিলনাড়ুতে তা সাড়ে ১১ হাজার ছাড়িয়েছে। এর পর ক্রমান্বয়ে রয়েছে দিল্লি, পশ্চিমবঙ্গ, উত্তরপ্রদেশ, অন্ধ্রপ্রদেশ। এ মাসে সংক্রমণ বৃদ্ধির সঙ্গে দিল্লিতে বেড়েছে দৈনিক মৃত্যু সংখ্যা। ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৯৮ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা। যা গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ।

এছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায়ও ৪১ হাজার ৪৫২ জন রোগী সুস্থতা লাভ করেছেন। এতে করে বেঁচে ফেরার সংখ্যা বেড়ে ৮৭ লাখ ৫৯ হাজার ৯৬৯ জনে পৌঁছেছে। দেশটিতে বর্তমানে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কমে ৪ লাখ ৫৪ হাজার ৯৪০ জনে দাঁড়িয়েছে।
এআই/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি