ঢাকা, রবিবার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, || পৌষ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

মোটা ব্যক্তিকে ফিট বলার দিন শেষ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:১৬ ১৭ মে ২০১৭ | আপডেট: ১৫:২৪ ২১ মে ২০১৭

এতোদিন মোটা শরীরকে যারা ভালো এবং ফিট বলতেন তাদের মুখে এবার চুনকালি দিলেন গবেষকরা। ব্রিটেনের বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ১৯৯৫ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ৩৫ লাখ মানুষের উপর চালানো এক জরিপের উপর ভিত্তি করে এ কথা বলেছেন। ইউরোপিয়ান ওবেসিটি কংগ্রেসে এ গবেষণাটির সারসংক্ষেপ উপস্থাপন করা হয়েছে।

গবেষণার সারসংক্ষেপে দেখা গেছে, মোটা ব্যক্তিদের জীবনের প্রথমদিকে কোনো রোগ না থাকলেও পরবর্তী সময়ে তারা নানা শারীরিক জটিলতায় আক্রান্ত হয়েছেন। জীবনের প্রথম দিকে হৃদরোগ, ডায়াবেটিস এবং উচ্চ মাত্রার কোলেস্টরেল না থাকলেও পরবর্তী সময়ে তাদের শরীরে জটিলতা দেখা দেয়।

একটা সময় ধারণা করা হতো, রক্তচাপ এবং রক্তে সুগারের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে থাকলে মোটা ব্যক্তিও শারীরিকভাবে ফিট। এসব বিষয় নিয়ন্ত্রণে থাকলে মোটা হওয়া কোনো সমস্যা নয়। কিন্তু সাম্প্রতিক গবেষণায় এটি ভুল প্রমাণিত হয়েছে।

এ গবেষণার শুরুতে যে ব্যক্তিদের বয়স এবং উচ্চতার অনুপাতে অতিরিক্তি ওজন ছিল তাদের সম্পর্কে তথ্য নেওয়া হয়। যখন এ তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছিল তখন তাদের বয়স ছিল ত্রিশ কিংবা তার চেয়ে কিছুটা বেশি। তখন তাদের কোনো হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, উচ্চ কোলেস্টরেল এবং ডায়াবেটিস ছিল না।

কিন্তু পরবর্তী সময়ে দেখা গেছে, তারা হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকিতে পড়েছেন। কিন্তু যাদের ওজন নিয়ন্ত্রণে ছিল তাদের ঝুঁকি তুলনামূলকভাবে কম ছিল।

ব্রিটিশ হার্ট ফাউন্ডেশনের মাইক ক্ন্যাপটন বিবিসিকে জানান, এ গবেষণাটিকে খুবই গুরুত্ব সহকারে নেওয়া উচিত।

"এ গবেষণায় আমার কাছে যে বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে তা হলো - অতিরিক্ত ওজন এবং মোটা ব্যক্তিদের হৃদরোগের ঝুঁকি বেশি। অন্য দিক থেকে তারা স্বাস্থ্যবান থাকলে হৃদরোগের ক্ষেত্রে তাদের তাদের ঝুঁকি আছে," –বলেন মাইক ক্ন্যাপটন।  

ধুমপান না করা, সুষম খাবার গ্রহণ, প্রতিদিন ব্যায়াম করা, এবং পরিমিত মাত্রায় অ্যালকোহল পান মানুষকে স্বাস্থ্যবান রাখতে সাহায্য করে।

এর আগে ২০১২ সালে এক গবেষণায় বলা হয়েছিল, কোনো ব্যক্তির ওজন বেশি এবং মোটা হলেও তিনি শারীরিকভাবে ফিট থাকতে পারেন। এবং সেক্ষেত্রে অন্যদের তুলনায় তার হৃদরোগ এবং ক্যান্সারের ঝুঁকি নেই।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি