ঢাকা, রবিবার   ২৫ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ১০ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

যে কারণে রোজা মাকরূহ হয়

প্রকাশিত : ১৭:৩৯ ১৫ মে ২০১৯

রমজানের রোজা পালন করা মানুষের জন্য ফরজ ইবাদাত। কিন্তু কিছু কিছু কাজ রয়েছে যাতে রোজাদারের রোজা মাকরূহ হয়ে যায়। এ সব কাজে রোজাদারকে সতর্ক থাকতে হবে।
যে সব কাজে রোজা মাকরূহ হয়ে যায়, তা জানে নিন-

- কোন জিনিসের স্বাদ গ্রহণ করলে রোজা মাকরূহ হবে। (তবে যদি কোন মহিলা বাধ্য হয়ে খাবার জিনিস চেখে দেখে অথবা বাজার থেকে খরিদ করার সময় এ জন্য চেখে দেখে যে, তার স্বামী বড় বদমেজাজী এবং কঠোর অথবা কোন চাকরানী তার মনিবের ভয়ে চেখে দেখে, তাহলে রোযা মাকরূহ হবে না।)

- রোজা রেখে এমন কোন কাজ করা মাকরূহ যার দ্বারা শরীর এতোটা দূর্বল হয় যে রোযা ভেঙে ফেলার আশঙ্কা হয়।

- কুলি করার সময় বা নাকে পানি দেয়ার সময় প্রয়োজনের অতিরিক্ত পানি ব্যবহার করা।

- বিনা কারণে মুখে থুথু জমা করে গিলে ফেলা।

- অস্থিরতা প্রকাশ করা, ঘাবড়িয়ে যাওয়া এবং মানসিক ভারসাম্যহীনতা প্রকাশ করা।

- গোসল ফরয হবার পর সুযোগ থাকা সত্ত্বেও বিনা কারণে সুবেহ সাদিকের পর পর্যন্ত গোসল করলো না তাহলে রোযা মাকরূহ হবে।

- মাজন, পেস্ট অথবা কয়লা প্রভৃতি চিবিয়ে দাঁত মাজলে রোযা মাকরূহ হবে।

- রোযা রেখে গীবত করলে, মিথ্যা বললে, গালিগালাজ ও মারপিট অথবা কারো প্রতি বাড়াবাড়ি করলে রোযা মাকরূহ হবে।

- ইচ্ছা করে মুখের মধ্যে ধোয়া অথবা ধূলাবালি গ্রহণ করলে রোযা মাকরূহ হবে।

তথ্যসূত্র : মাওলানা মোফাজ্জল হকের রোজা ইতিকাফ ফিদইয়া ফিতরা গ্রন্থ।

এএইচ/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি