ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯, || আশ্বিন ৩০ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

শিক্ষায় সবচেয়ে বড় পুরস্কার পাচ্ছেন ফজলে হাসান আবেদ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:০৭ ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

শিক্ষাক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি ‘ইদান’ পুরস্কার পাচ্ছেন ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ার অ্যামেরিটাস স্যার ফজলে হাসান আবেদ।

বৃহস্পতিবার চলতি বছরে এ পুরস্কারের জন্য স্যার ফজলে হাসান আবেদের নাম ঘোষণা করে হংকংভিত্তিক ইদান প্রাইজ ফাউন্ডেশন।

শিক্ষা উন্নয়নে যুগান্তকারী অবদান রাখায় তাকে এ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। এ পুরস্কারের অর্থমূল্য প্রায় ৩৩ কোটি টাকা, যা নগদ ও প্রকল্প তহবিল হিসেবে সমান দুই ভাগে দেওয়া হবে।

আসছে ডিসেম্বরে হংকংয়ে আয়োজিত হবে ইদান প্রাইজের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। সেখানে স্যার ফজলে হাসান আবেদকে একটি স্বর্ণপদক এবং পুরস্কারের অর্থমূল্য বাবদ ৩০ মিলিয়ন হংকং ডলার (৩ দশমিক ৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বা ৩৩ কোটি টাকা) দেওয়া হবে।

গত প্রায় পাঁচ দশকে ব্র্যাকের প্রাক-প্রাথমিক ও প্রাথমিক স্কুলগুলোতে শিক্ষা গ্রহণ করেছে অন্তত ১ কোটি ২০ লাখ শিশু। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একটি সমন্বিত পদ্ধতিতে আনন্দময় পরিবেশে খেলাধুলার মধ্য দিয়ে পাঠদান করা হয়। একে বলা হয় প্লে-বেইজড এডুকেশন।

ব্র্যাক পরিচালিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে আর্লি চাইল্ড হুড ডেভেলপমেন্ট সেন্টার, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল, কিশোর-কিশোরীদের জন্য বিশেষায়িত শিক্ষাকেন্দ্র এবং ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়।

বর্তমানে বাংলাদেশ, উগান্ডা ও তানজানিয়ায় ব্র্যাকের অধীনে পরিচালিত হচ্ছে মোট ৬৫৬টি প্লে-ল্যাব, যেখানে প্রতি দিন নানা কর্মকাণ্ডে অংশ নিচ্ছে অন্তত সাড়ে ১১ হাজার কর্মী।

ইদান প্রাইজ ফাউন্ডেশনের অপর পুরস্কারটি হলো শিক্ষা গবেষণা। এ বছর এ পুরস্কারটি পাচ্ছেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের কগনিটিভ ডেভেলপমেন্টাল নিউরোসায়েন্সের অধ্যাপক ঊষা গোস্বামী।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি