ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

শিরোপার দাবিতে মাঠে ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়া

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:৪৩ ১৫ জুলাই ২০১৮ | আপডেট: ২১:২৫ ১৫ জুলাই ২০১৮

দীর্ঘের দিনের অপেক্ষার পর এক সুযোগ। চার বছরের ধারাবাহিকতা। এক মাসের লড়াই। শিরোপা আর বেশি দূরে নেই। মাঠের পাসে সাদা ডায়েসের ওপর রাখা আছে সোনালী কাপ। গৌরব আর মর্যাদার প্রতীক। আর সেই গৌরব আর মর্যাদার দাবিতে মাঠে নেমেছে ফ্রান্স ও ক্রোয়েশিয়া।

রাশিয়ার মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামের সবুজ ঘাসে মুখোমুখি হয় দুই দল। শেষের শুরুর বাঁশি বাঁজে বাংলাদেশ সময় ঠিক রাত নয়টায়। বিশ বছর পর দ্বিতীয় বারের মতো শিরোপার হাতছানি ফ্রান্সের সামনে। আর ইতিহাস গড়ার সুবর্ণ সুযোগ ক্রোয়েশিয়ার সামনে।

ফাইনালের দ্বৈরথে নিজেদের দলে পরিবর্তন আনেনি কোন দলই। সেমিফাইনালের একাদশের ওপরই আস্থা টিম ম্যানেজমেন্টের।

রক্ষণভাগের নিরাপত্তায় ফ্রেঞ্চ কোচ দিদিয়ের দেশচ্যাম্পসের আস্থা পল পগবা আর নিগোলো কান্তের ওপর। মধ্যম-আক্রমণ দিদিয়েরের ভরসা প্লে-মেকার অ্যান্টোইন গ্রিজম্যান এবং অলিভার জিরাউড। ডান দিক থেকে আক্রমণের দায়িত্বে থাকবেন গতিময় এমবাপে আর বাম দিকের দায়ভার মাতুদি’র ওপর।

ফ্রান্সকে আরেকটি যে বিষয় অনুপ্রেরণা দিতে পারে তা হলো পরিসংখ্যান। এর আগে একবারের সাক্ষাতে ক্রোয়েশিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল ‘লেস ব্লুস’রা  

ফ্রান্সের বিপক্ষে অনেকটাই নির্ভার ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচের আগে এক সংবাদ সম্মেলনে কোচ লাতকো ডালিক বলেন যে, জয় বা পরাজয় দুটোই তাদের জন্য গৌরবের। আর হবেই না কেন? যুদ্ধ বিধ্বস্ত অবস্থা থেকে উঠে আসা দেশ ক্রোয়েশিয়া নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফাইনালে। এই তো অনেক!

তবুও ফ্রান্সের মাথা ব্যথার কারণ হতে পারে ক্রোয়েশিয়ান অধিনায়ক লুকা মড্রিক আর মিডফিল্ডার ইভান র‍্যাকিটিক। এছাড়াও স্টেডিয়ামের ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা মুহুর্তে বাড়িয়ে দিতে পারেন ফরওয়ার্ডার মারিও মাদজুকি।   

এতকিছুর পরে রেকর্ডের পুনরাবৃত্তি হবে নাকি নতুন ইতিহাস রচিত হবে তা জানতে আরও কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতেই হবে।

লাইন আপ

ফ্রান্স-

লোরিস (গোলরক্ষক, অধিনায়ক), প্যাভার্ড, ভারানে, উমিতি, পগবা, গ্রিজম্যান, জিরাউড, এমবাপ্পে, কান্তে, মাতুদি, হার্নানেজ।

কোচ: দিদিয়ের দেশচ্যাম্পস

ক্রোয়েশিয়া

সুবাসিক (গোলরক্ষক), সালজকো, ত্রিনিক, পেরিসিক, লভরেন, র‍্যাকিটিক, মড্রিক (অধিনায়ক), ব্রোজভিচ, মান্দজুভিচ, রেবিক, ভিদা।

কোচ: লাতকো ডালিক

//এস এইচ এস// এসএইচ/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি