ঢাকা, রবিবার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

হিলিতে টিসিবিকে পেয়াঁজ দিতে ৩ প্রতিষ্ঠানের দরপত্র দাখিল 

হিলি প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১২:৪৯ ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

দেশের বাজারে পেয়াঁজের দাম স্বাভাবিক রাখতে সারাদেশে সুলভ মূল্যে খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রির উদ্দেশ্যে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরসহ দেশের চারটি স্থলবন্দরের আমদানিকারকদের কাছ থেকে পেয়াঁজ কিনতে দরপত্র আহ্বান করেছ ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এরই ধারাবাহিকতায় টিসিবিকে পেয়াঁজ দিতে হিলি স্থলবন্দরে দরপত্র দাখিল করেছেন ৩টি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান।

বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে দরপত্র গ্রহণের কার্যক্রম চলে। এসময় হিলি স্থলবন্দরের মেসার্স খান ট্রেডার্স, সততা বাণিজ্যালয় ও সিপিং লাইন নামে ৩টি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান পেঁয়াজ সরবরাহের উদ্দেশ্যে দরপত্র দাখিল করেন।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন, রংপুর টিসিবি’র আঞ্চলিক কার্যালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সুজাউদ্দৌলা সরকার, হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও হিলি স্থলবন্দর আমদানি রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশীদসহ অন্যান্য আমদানিকারকগণ। 

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, আমরা হিলি স্থলবন্দরের যেসকল আমদানিকারক রয়েছি তারা সর্বাত্মকভাবে সরকারকে সহযোগীতা করি, যেন দেশের মানুষ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজসহ যেসকল পণ্য আসে সেগুলো যেন সুলভ মূল্যে পেতে পারে। এজন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

বিগত কয়েক বছর ধরে আমরা হিলি স্থলবন্দর থেকে টিসিবিকে পণ্য সরবরাহ করে সহযোগীতা করে আসছি। সরকারকে কম দামে পেয়াঁজ দিতে আজকে আমরা দরপত্র দাখিল করেছি। আশা করছি টিসিবি যে পেয়াঁজ ক্রয় করবে, তা হয়তো হিলি থেকেই সরবরাহ করা হতে পারে।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান বলেন, পেঁয়াজের অব্যাহত মূল্যবৃদ্ধি রুখতে ও পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক পর্যায়ে আনতে টিসিবি সরকারিভাবে সারাদেশে তাদের ডিলারদের মাধ্যমে সুলভ মূল্যে খোলাবাজারে পেঁয়াজ বিক্রির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ১ম পর্যায়ে ১শ টন পেঁয়াজ ক্রয়ের উদ্দেশ্যে দরপত্র আহ্বান করেছিলেন, তার প্রেক্ষিতে হিলিতে ৩টি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান দরপত্র দাখিল করেছে। যা আমরা টিসিবির প্রধান কার্যালয়ে পাঠিয়ে দিয়েছি। এরপর তারা দরপত্র যাচাই বাছাই করে সিদ্ধান্ত দেবেন কারা কার্যাদেশ পাবেন।

টিসিবি’র রংপুর আঞ্চলিক কার্যালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সুজাউদ্দৌলা সরকার জানান, দেশের চারটি স্থলবন্দর থেকে একযোগে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছিল। তারই অংশ হিসেবে হিলিতে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছিল। এখানে ৩টি প্রতিষ্ঠান দরপত্র দাখিল করেছে। যে বন্দরের আমদানিকারকরা কম দামে টিসিবিকে পেয়াঁজ দিতে পারবেন তাদের থেকেই পেয়াঁজ ক্রয় করা হবে। কোন প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে পেয়াঁজ ক্রয় করা হবে, আগামী শনিবার সেটা আমরা জানাতে পারব। এরপরই সারাদেশে টিসিবির ডিলারদের মাধ্যমে সুলভ মূল্যে সেসব পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হবে।

আই/ টিআর

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি