ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১২:৩৮:৫৬

মানবসম্পদ উন্নয়নে ১২০ কৃষি বিজ্ঞানীকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে বিএআরসি

মানবসম্পদ উন্নয়নে ১২০ কৃষি বিজ্ঞানীকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে বিএআরসি

দেশের কৃষি ও কৃষকের উন্নয়ন এবং ফসলের নতুন নতুন জাত উদ্ভাবনে বিজ্ঞানীদের বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রকল্প হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি)। বিজ্ঞানীদের স্বল্প, মধ্য এবং দীর্ঘমেয়াদী প্রশিক্ষণ ও উচ্চ শিক্ষার জন্য এরই মধ্যে মানবসম্পদ উন্নয়ন পরিকল্পনা ২০২৫ প্রণয়ন করেছে প্রতিষ্ঠানটি।যার বাস্তবায়নে দেশি-বিদেশি ১২০জন বিজ্ঞানীকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দিতে যাচ্ছে বিএআরসি। বিএআরসি সূত্র জানায়, পরিকল্পনা অনুযায়ী রাজস্ব ও বৈদেশিক অর্থায়নে পরিচালিত এনএটিপি প্রকল্পের আওতায় কৃষি বিজ্ঞানীদের পিএইচডি অর্জনের সুযোগসহ বিভিন্ন মেয়াদে প্রশিক্ষণ দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরইমধ্যে প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারীদের নাম তালিকাভূক্তি শুরু হয়েছে। তালিকায় দেশী ৬০জন কৃষি বিজ্ঞানী ও বিদেশী ৬০জন কৃষি বিজ্ঞানী অংশ নিতে পারবেন। যেখানে বিজ্ঞানীরা নিজেদের দক্ষতা বাড়াতে বিদেশেও যেতে পারবেন। বিএআরসি’র ফসল বিভাগের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা হারু নুর রশিদ বলেন, কৃষি বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি। উৎপাদনশীলতা ও আয় বৃদ্ধি ও গ্রামীণ এলাকায় কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বিশাল জনগোষ্ঠির সমৃ্দ্ধির জন্য কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই। তাই কৃষিকে আরো এগিয়ে নিতে নতুন নতুন জাত উদ্ভাবনে বৈজ্ঞানিকদের প্রয়োজনীয় দক্ষতা বাড়াতে বিএআরসি বিশেষ মানবসম্পদ উন্নয়ন পরিকল্পনা ২০২৫ হাতে নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে আগামীতে কৃষি বিজ্ঞানীদের প্রশিক্ষণ বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মাঠ পর্যায় ও অঞ্চলভিত্তিক চাহিদা নিরুপণ করে দেশের চাহিদা ও বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তন প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে গবেষণা অগ্রাধিকার ও ভিশন ডকুমেন্ট ২০৩০ প্রণয়ন করা হয়েছে।কৃষির ১২টি সাব সেক্টরের জন্য প্রনীত এ ভিশন ডকুমেন্ট দেশের ভবিষ্যৎ কৃষি গবেষণার দিক নির্দেশক হিসেবে কাজ করবে। বিএআরসি’র কৃষি তথ্য সেন্টারের পরিচালক রফিক মোস্তফা কামাল জানান, দেশের কৃষিকে এগিয়ে নিতে বিএআরসি কৃষি গবেষণার উপর সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। কৃষি যান্ত্রিকীকরণ, সেচ ও পনি ব্যবস্থাপনা, ফসল সংগ্রহোত্তর প্রযুক্তি বিষয়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, নার্সভুক্ত গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিজ্ঞানীদের দিক নির্দেশনা, পরামর্শ ও কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে।এ ছাড়া কৃষি যান্ত্রিকীকরণ রোডম্যাপ ২০২১, ২০৩১ ও ২০৪১ প্রণয়ন করেছে। তিনি বলেন, রোডম্যাপ অনুযায়ী আগামীতে কৃষি ক্ষেত্রে একটি বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে।গবেষণার মাধ্যমে উন্নত মানের উচ্চ ফলনশীল বীজ উদ্ভাবন হলে দেশ এগিয়ে যাবে।এরই মধ্যে বারি গম ৩৩ উদ্ভাবন হয়েছে।  আরো নতুন একটি উন্নত জাতের গমের বীজ উদ্ভাবনে কাজ করছে বৈজ্ঞানিকরা।যা পর্যবেক্ষণের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ৪ থেকে ৫ বছরের মধ্যে এ জাত আমরা কৃষকের হাতে পৌঁচাতে পারবো।    / আরকে /  
ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকসে উদ্যোক্তা তৈরীর শীর্ষক সেমিনার  

দেশে উদ্যোক্তা তৈরী ও কর্মস্পৃহ মানবসম্পদ তৈরী শীর্ষক একটি সেমিনারের আয়োজন করেছে ঢাকা স্কুল অব ইকোনোমিক।    সম্প্রতি মাষ্টার্স ইন এন্ট্রিপিউনারশীপ ইকনোমিক্স প্রোগ্রাম-এর আওতায় এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস-এর গভর্ণিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ।   অনুষ্ঠানের সমন্বয়ক ছিলেন উদ্যোক্তা তৈরীর বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ড. মুহম্মদ মাহবুব আলী। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এমটিসি গ্লোবালের সভাপতি প্রফেসর ড. ভোলানাথ দত্ত। অন্যান্যদের মধ্যে প্রফেসর ড. জাহেদা আহমদ এবং রেহানা পারভীন বক্তব্য রাখেন।   এসময় ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ মাষ্টার্স ইন এন্ট্রিপিউনারশীপ ইকনোমিক্স প্রোগ্রাম-এর উদ্যোগটির প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, দেশে স্বয়ং সম্পূর্ণ মানব সম্পদ তৈরীর জন্য প্রোগ্রামটি নিবিড়ভাবে পরিচালিত হলে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে। (সংবাদ বিজ্ঞপ্তি) এমএইচ/এসি                    

রাশিয়া-ফ্রান্স-জাপানে নতুন শ্রম বাজার সৃষ্টির উদ্যোগ(ভিডিও)

রাশিয়া-ফ্রান্স-জাপানে নতুন শ্রম বাজার সৃষ্টির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এছাড়া, খরচ কমিয়ে প্রবাসী কর্মীদের হয়রানি বন্ধেও পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। বিশ্লেষকরা বলছেন, কর্মী পাঠাতে দূতাবাসগুলোর সমঝোতার দক্ষতা বাড়ানোর পাশাপাশি ভিসা ফি কমাতে হবে। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রায় ৭০ লাখ বাংলাদেশী কর্মরত রয়েছেন। ভিটে-মাটি বিক্রি করে বিদেশে গেলেও, শেষ পর্যন্ত নিঃস্ব হয়ে দেশে ফেরেন কেউ কেউ। দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসে থাকা অনেকেই বলছেন, পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ, অতিরিক্ত ভিসা ফি আর দূতাবাসগুলোর সমঝোতার অভাবে অনেক ক্ষেত্রেই জনশক্তি রপ্তানিতে কাঙ্খিত সুফল মিলছে না। বিশ্লেষকরা বলছেন, জনশক্তি বাড়াতে এ’ খাতকে শিল্প হিসাবে দেখতে হবে। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী বলছেন, রাশিয়া-ফ্রান্স-জাপানে নতুন শ্রম বাজার সম্প্রসারণের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।   এছাড়া, জনশক্তি রপ্তানি খাতে মধ্যসত্ত্বভোগীদের দৌরাত্ম কমানো হয়েছে বলেও জানিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

বিনা খরচে ভাতাসহ প্রশিক্ষণ, সঙ্গে চাকরির সুযোগ

দেশের বেকার যুবকদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও স্বল্প শিক্ষিতদের কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ জনবল তৈরিতে কাজ করছে সরকার। এ লক্ষ্যে স্কিলস অ্যান্ড ট্রেনিং অ্যানহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্ট (স্টেপ) চালু করেছে সরকার। বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা অধিদফতররের এ প্রকল্পের আওতায় ২০১০ সাল থেকে অনুমোদিত প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলো কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর কারিগরি শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরমধ্যে বাংলাদেশ-জার্মান কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র অন্যতম। এখানে বিভিন্ন মেয়াদি বিনা খরচে ভাতাসহ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। শিক্ষার্থীরা প্রতি মাসে প্রতিষ্ঠান থেকে এক হাজার টাকা এবং প্রশিক্ষণ শেষে ১৫০০টাকা দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণ শেষে প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরির সুবিধা দিচ্ছে সরকার। চলতি মাসে নতুন কোর্সে ভর্তি আবেদন চলছে। আগামী মাসে কোর্সের ক্লাস শুরু হবে। যে সব বিষয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় : চার মাস মেয়াদি ৭টি ট্রেস কোর্সে ভর্তি হয় যাবে। ১ কোয়ালিটি কন্ট্রোল সুপারভাইজর ২ মিড লেভেল গার্মেন্টস সুপারভাইজর ৩ গ্রাফিক্স ডিজাইন ৪ ইলেকট্রিক্যাল ৫ রেফ্রিজারেশন এ্যান্ড পাইপ ফিটিং ৬ প্লাম্বিং এ্যান্ড ফেব্রিকেশন ৭ ওয়েল্ডি এ্যান্ড ফেব্রিকেশন যারা ভর্তি হতে পারবেন: জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও অস্বল্প শিক্ষিত লোকেদের জন্যই বাংলাদেশ-জার্মান কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ভর্তির জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতার তেমন বাঁধাধরা নেই। অধিকাংশ কোর্সের জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পাস পর্যন্ত হলেই হয়। তবে কিছু কিছু কোর্সের জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা মাধ্যমিক পাস চাওয়া হয়। প্রশিক্ষণের জন্য নির্বাচনের আগে লিখিত, মৌখিক কিংবা প্রাক্যোগ্যতা পরীক্ষা নেওয়া হয়। প্রশিক্ষণের সময়: বছরজুড়ে বাংলাদেশ-জার্মান কারিগরি প্রশিক্ষণে কেন্দ্র প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। ধরাবাঁধা সময় নেই। সাধারণত একটি প্রশিক্ষণ শেষ হওয়ার পর আরেকটি প্রশিক্ষণ শুরু হয়। কোনো কোর্স শুরু হওয়ার আগে সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। ওই সময় কোন কোন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে, প্রশিক্ষণ শুরুর তারিখ, কোর্সের মেয়াদ কত দিন, খরচ কত ইত্যাদি বিষয়ের বিস্তারিত বিবরণ দেওয়া থাকে বিজ্ঞাপনে। কোর্সের মেয়াদ: সাধারণত কোর্স ভেদে ছয় সপ্তাহ থেকে শুরু করে এক বছর মেয়াদি প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে। প্রশিক্ষণ গ্রহণে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা তাঁদের প্রয়োজন অনুযায়ী কোর্স বেছে নিতে পারেন। কী ধরনের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়: স্বল্পশিক্ষিত ব্যক্তিদের কথা বিবেচনা করেই প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ- জার্মান ট্রেনিং সেন্টারের অধ্যক্ষ রানী আখতার জাহান একুশে টিভি অনলাইনকে জানান, দেশে মানুষকে করে গড়ে তুলতেই কাজ করছে বাংলাদেশ জার্মান কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র কাজ করছে। বিশেষ করে যারা বিদেশে যান কাজের জন্য। তাদের কথা মাথায় রেখেই  এখানে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়। তবে শুধু বিদেশে নয়, এখানে প্রশিক্ষণ নিয়ে যে কেউ দেশেও স্বাবলম্বী হতে পারেন। কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোতে হাউস কিপিং, গার্মেন্টস শিল্পের বিভিন্ন ধরনের কাজ, রেফ্রিজারেশন, এয়ারকন্ডিশনিং, টাইলস ফিটিং, ওয়েল্ডিং ও ফেব্রিকেশন, ভাষা, তথ্যপ্রযুক্তি ও অটোমোবাইল এবং ইলেকট্রনিকসের বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।     ভর্তির জন্য আবেদন: ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে। www.bgttc.gov.bd এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করা যাবে। আবেদন শুরু হয়েছে ২৮ জুলাই। আগামী ২৮ আগস্ট পরীক্ষা নেওয়া হবে। ফলাফল প্রকাশ করা হবে ২৯ আগস্ট। নতুন ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে ক্লাসশুরু হবে। তবে ইতোমধ্যে যারা SEIP কোর্সে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছে। তারা এই কোর্সের জন্য আবেদন করতে পারবে না। আবেদন-এর সাথে কাগজপত্র জমা দিতে হবেঃ ৮ম শ্রেনী /JSC/SSC/HSC পাশ সনদের ফটোকপি। জাতীয় পরিচয় পত্র / জন্ম সনদের ফটোকপি। ০৪(চার) কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি । নারী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে । কোর্স শেষে চাকুরি/কর্মসংস্থানের জন্য সর্বাত্মক সহায়তা প্রদান করা হবে। ক্লাসঃ সপ্তাহে ৫দিন। শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার। ক্লাসের সময়ঃ সকাল ৯টা থেকে ১২.৩০ এবং বিকাল ৩টা থেকে ৬টা পর্যন্ত। টিআর/ এআর            

৬ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেবে মহিলা অধিদফতর

মহিলা বিষয়ক অধিদফতরাধীন জাতীয় মহিলা প্রশিক্ষণ ও উন্নয়ন একাডেমিতে চার মাস মেয়াদী প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। সেপ্টেম্বর-ডিসেম্বর ২০১৮ সেশনে ৬ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। ১. কোর্সের নাম দর্জি বিজ্ঞান যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পাস হতে হবে। ২. কোর্সের নাম এমব্রয়ডারী যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পাস হতে হবে। ৩. কোর্সের নাম ব্লক বাটিক এন্ড টাইডাই যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পাস হতে হবে। ৪. কোর্সের নাম কম্পিউটার বেসিক, উইন্ডোজ অপারেশন এন্ড অনলাইন আউটসোরসিং টেকনিক যোগ্যতা এসএসসি অথবা এ লেভেল অথবা সমমানের পাস হতে হবে। ৫. কোর্সের নাম গ্রাফিক ডিজাইন এন্ড অনলাইন আউটসোরসিং টেকনিক যোগ্যতা এইচএসসি পাস হতে হবে। সাধারণ উইন্ডোজ অ্যাপলিকেশন ও ইন্টারনেট সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে। ৬. কোর্সের নাম ওয়েবসাইট ডিজাইন উইথ এইচটিএমএল, সিএসএস, ওয়ার্ডপ্রেস এন্ড অনলাইন আউটসোরসিং টেকনিক যোগ্যতা এইচএসসি পাস হতে হবে। সাধারণ উইন্ডোজ অ্যাপলিকেশন ও ইন্টারনেট সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে। আবেদনের নিয়ম ভর্তি ফরমের সঙ্গে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র  কপি, পাসপোর্ট সাইজের ছবি ১ কপি, স্ট্যাম্প সাইজের ছবি ১ কপি, জাতীয় পরিচয়পত্র/জন্ম নিবন্ধনপত্র ১ কপি অবশ্যই সংযুক্ত করতে হবে। জাতীয় মহিলা প্রশিক্ষণ ও উন্নয়ন একাডেমি (৪র্থ তলা প্রশিক্ষণ কক্ষ) হতে ১-২ নং ক্রমিকের ভর্তি ফরম এবং ৪-৬ নং ক্রমিকের কোর্সসমূহের ভর্তি ফরম ৯ম তলা হতে সংগ্রহ করতে হবে। ভর্তির সময়সীমা আগামী ১ আগস্ট ২০১৮ তারিখ হতে ৩০ আগস্ট ২০১৮ তারিখের মধ্যে প্রশিক্ষণার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে। সূত্র:  ইত্তেফাক, ২৪ জুলাই ২০১৮, পৃ.১২ একে//

বিনামূল্যে গেমস অ্যাপস ডেভেলপ প্রশিক্ষণ পাবে ১৬ হাজার শিক্ষার্থী

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের জন্য মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশন উন্নয়ন প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে।  তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের উদ্যোগে এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু হয়। মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারের সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশনের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্পের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন আইসিটি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। এ প্রকল্পের আওতায় দেশের ১৬ হাজার ১০০ তরুণ ডেভেলপারকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। উদ্বোধনকালে আইসিটি মন্ত্রী বলেন, আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর প্রশিক্ষিত মানবসম্পদ তৈরি করতে মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশন দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। তিনি বলেন, প্রাথমকিভাবে পাঁচ মাসব্যাপী এ প্রশিক্ষণে প্রথম দফায় বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৩০ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। পর্যায়ক্রমে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, দেশে প্রচলিত শিক্ষায় শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের সুযোগ কম থাকায় প্রচলিত শিক্ষার পাশাপাশি তরুণদের মেধা ও সৃজনশীলতা কাজে লাগাতে বর্তমান সরকার তথ্য প্রযুক্তিনির্ভর বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে। ডিজিকন টেকনোলজিস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়াহিদুর রহমান শরীফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মোবাইল গেম ও অ্যাপ্লিকেশনের পকল্প পরিচালক, কেএম আবদুল ওয়াদুদ এবং উপপ্রকল্প পরিচালক শেখ খলিলুর রহমানও বক্তব্য দেন। একে//

থাকা খাওয়ার সুবিধাসহ পাঁচ বিষয়ে ফ্রি প্রশিক্ষণ

জনসংখ্যাকে জনসম্পদে রুপান্তর করার লক্ষ্যে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে বিভিন্ন কারিগরি প্রতিষ্ঠান হাতে কলমে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নিয়েছে। এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা প্রশিক্ষণ একাডেমি নারীদের জন্য বিনামূলে  পাঁচ বিষয়ে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থ্যা করেছে। গাজীপুরের জিরানীতে অবস্থিত এই একাডেমি প্রশিক্ষানার্থী ভর্তির করার জন্য বাংলাদেশের যেকোনো এলাকার ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী নারীদের দরখাস্ত করার জন্য আহবান করেছে। প্রতিষ্ঠানটি মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়াধীন মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তর কর্তৃক পরিচালিত এবং বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক অনুমোদিত।আবাসিক প্রশিক্ষণার্থীদের নিরাপত্তাসহ  সুশৃঙ্খল পরিবেশে বিনামূল্যে থাকা ও খাওয়ার সু-ব্যবস্থা আছে। মাসিক ৩০০ টাকা হারে ভাতাও দেওয়া হবে। যেসব কোর্সে প্রশিক্ষণ দেবে- ১) কম্পিউটার অফিস অ্যাপ্লিকেশন। আসন সংখ্যা ৬০ টি।কোর্সের মেয়াদ ৩ মাস। যোগ্যতা এইচ.এস.সি/ সমামান পাশ হতে হবে। ২) ড্রেস মেকিং এন্ড টেইলারিং। আসন সংখ্যা ৩০ টি।কোর্সের মেয়াদ ৩ মাস। যোগ্যতা ন্যূনতম এস.এস.সি/ সমমান পাশ হতে হবে। (বিশেষ ক্ষেত্রে শিথিলযোগ্য) ৩) ইন্ডাস্ট্রিয়াল সুইং মেশিন অপারেটর ও মেইনটেনেন্স। আসন সংখ্যা ৩০  টি। কোর্সের মেয়াদ ৩ মাস। যোগ্যতা ন্যূনতম এস.এস.সি/ সমমান পাশ হতে হবে। ৪) বিউটিফিকেশন।আসন সংখ্যা ৩০  টি। কোর্সের মেয়াদ ৩ মাস। যোগ্যতা ন্যূনতম এস.এস.সি/ সমমান পাশ হতে হবে।(বিশেষ ক্ষেত্রে শিথিলযোগ্য) ৫) মোবাইল ফোন সার্ভিসিং এন্ড ইন্টারনেট। আসন সংখ্যা ১০ টি। কোর্সের মেয়াদ ৩ মাস। যোগ্যতা ন্যূনতম এস.এস.সি/ সমমান পাশ হতে হবে।(বিশেষ ক্ষেত্রে শিথিলযোগ্য) ভর্তি পরীক্ষার গ্রহণের তারিখ ৩ জুলাই, ২০১৮। যা যা প্রয়োজন *আবেদনের সাথে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র, জন্ম নিবন্ধনের সনদপত্র, আবেদনকারীর তিনি কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি এবং অভিভাবকের (যিনি হোষ্টেলে অবস্থান কালে দেখাশুণা করবেন) এক কপি ষ্ট্যাম্প ও ১ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সত্যায়িত করে জমা দিতে হবে। *ভর্তির ১০ দিনের মধ্যে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের রেজিস্ট্রেশনের জন্য নির্ধারিত ফি বাবদ ৪৫০ টাকা কর্তৃপক্ষের নিকট জমা দিতে হবে (সরকারী বাজেট প্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রশিক্ষণ শেষে ফেরত দেওয়া হবে।    যোগাযোগের ঠিকানা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা প্রশিক্ষণ একাডেমি, জিরানী, গাজীপুর। এছাড়াও বিস্তারিত জানতে ০১৭১২৯০০০৭৮, ০১৭৭৭৫৭৪৮০৯, ০১৭৯৯৩৩৬৯১৩ এবং ০১৭১১৮৬৯১১৪ নম্বরগুলোতে যোগাযোগ করতে পারেন।  এমএইচ/ এআর

বিনামূল্যে নারীদের জন্য প্রশিক্ষণ

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়াধীন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর কর্তৃক পরিচালিত ‘মহিলা কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট’ নারীদের জন্য বিনামূল্যে প্রশিক্ষণের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। প্রশিক্ষণের পাশাপাশি প্রার্থীকে সরকারি সার্টিফিকেট এবং ভাতা প্রদান করা হবে। বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ তুলাতলায় অবিস্থত মহিলা কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ৪ টি বিষয়ে এ প্রশিক্ষণ দেবে।   কোর্সের নাম ১) ড্রেস মেকিং এন্ড টেইলরিং শিক্ষাগত যোগ্যতা জে.এস.সি/জে.ডি.সি/সমমান ২) কম্পিউটার অফিস এ্যাপ্লিকেশন শিক্ষাগত যোগ্যতা কমপক্ষে এস.এস.সি পাস/সমমান ৩) বিউটিফিকেশন (বিউটি পার্লার) শিক্ষাগত যোগ্যতা জে.এস.সি/জে.ডি.সি/সমমান ৪) আধুনিক গার্মেন্টস (সুইং মেশিন মেইনটেনেন্স ও অপারেশন) শিক্ষাগত যোগ্যতা জে.এস.সি/জে.ডি.সি/সমমান যোগাযোগের ঠিকানা মহিলা কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, তুলাতলা, পো: পোলেরহাট, উপজেলা: মোড়েলগঞ্জ, জেলা: বাগেরহাট। আগ্রহী প্রার্থীরা এই ঠিকানায় আবেদনপত্র সরাসরি/হাতেহাতে জমা দিতে পারবেন। আবেদনপত্র প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট www.watibagerhat.gov.bd থেকে সংগ্রহ করা যাবে। আবেদনের সময়মীমা আগ্রহী প্রর্থীরা ৩০ জুন, ২০১৮ তারিখের মধ্যে অফিস চলাকালিন সময়ে আবেদনপত্র পাঠাতে পারবেন। এছাড়াও বিস্তারিত তথ্যের জন্য-০১৭৮৪৩১৩৪৯৯, ০১৭১১০৫৯৮০৭, ০১৭১৮৬৬৪৯৯৮, ০১৭১৭৮১০৪০৬ এবং ০১৭২১৮৫৪৭৭১ নাম্বারে যোগাযোগ করুন। এমএইচ/এসি      

নারীদের বিনামূল্যে চার বিষয়ে প্রশিক্ষণ

জনসংখ্যাকে জনসম্পদে রুপান্তর করার লক্ষ্যে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে বিভিন্ন কারিগরি প্রতিষ্ঠান হাতে কলমে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নিয়েছে।এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নারীদের জন্য বিনামূলে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থ্যা করেছে। প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো কর্তৃক পরিচালিত। প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের স্কিলস এন্ড ট্রেনিং এনহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্ট STEP এর সহায়তায় এ প্রশিক্ষণ দেবে। ৬ মাস মেয়াদী এ প্রশিক্ষণ চলবে চলতি বছরের জুলাই-ডিসেম্বর সেশনে। যে সব কোর্সে প্রশিক্ষণ দেবে- ১) আর্কিটেকচারাল ড্রাফটিং উইথ অটোক্যাড(2D, 3D) সময়: বিকাল যোগ্যতা এস.এস.সি/ সমামান পাশ হতে হবে। বিস্তারিত জানতে: ০১৬৭২৯৯৫২৫৪ ২)  কনজ্যুমার ইলেকট্রনিক্স সময়: বিকাল বিস্তারিত জানতে:০১৯৭৫৬১৮৮৩১ ৩)ডাইং, প্রিন্টিং এন্ড ব্লক বাটিক সময়: সকাল ৮টা এবং বিকাল বিস্তারিত জানতে: ০১৮৭৪০৪১২০১ ৪) গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারিং সময়:সকাল ৮টা ও বিকাল বিস্তারিত জানতে: ০১৬৮০১৫০৮১৬ ভর্তির যোগ্যতা ৮ম শ্রেণি/ জে.এস.সি/ সমমান পাশ। ভর্তি ফরম সংগ্রহ ও জমাদান- আগ্রহী প্রার্থীরা ২৬ জুন, ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত ভর্তি ফরম সংগ্রহ ও জমা দিতে পারবেন। পরীক্ষা, ফলাফল ও ক্লাস পরীক্ষা নেওয়া হবে ১ জুলাই, ২০১৮ তারিখ এবং ফলাফল দেওয়া হবে ২ জুলাই, ২০১৮ তারিখ ১২ টার পর।ক্লাস শুরু হবে ৫ জুলাই, ২১০৮ তারিখ। যোগাযোগের ঠিকানা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, টেকনিক্যাল মোড়, মিরপুর রোড, দারুস সালাম রোড, ঢাকা-১২১৬।   এমএইচ/ এআর            

বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দেবে বিটাক  

মেশিনশপ প্র্যাকটিস, ওয়েল্ডিং ও ইলেকট্রিক্যাল মেইনটেন্যান্স এসব বিষয়ে আমাদের দেশে প্রশিক্ষিত তেমন কোন দক্ষ কর্মী নেই বললেই চলে। যদিও দেশের অনেক যুবক এই ধরণের কাজের সাথে যুক্ত রয়েছে। অভিজ্ঞতার অভাবে অনেক সময় ওয়েল্ডিং এবং ইলেকট্রিক্যাল কাজ করতে যেয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায়। আমাদের দেশের বেকার যুবকদের এসব বিষয়ে যদি স্বচ্ছ ধারণা থাকতো তাহলে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হতো। এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে একদিকে বেকারত্বের অভিশাপ থেকে যেমন মুক্তি পাওয়া যেত, তেমনি এই প্রশিক্ষণ নিয়ে বিদেশে গিয়ে ভালো উপার্জন করতে পারতো। বিশ্ববাজারে এ সব খুঁটিনাটি কাজের বিপুল চাহিদা রয়েছে। সে লক্ষে সরকার সমাজের অনগ্রসর তরুণদের জন্য এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।  বাংলাদেশ ব্যাংকের স্কিলস ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট কর্মসূচী (সেপ) এর অর্থায়নে মেশিনশপ প্র্যাকটিস, ওয়েল্ডিং ও ইলেকট্রিক্যাল মেইনটেন্যান্স বিষয়ে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।      বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তাকেন্দ্র (বিটাক) ঢাকা ও বগুড়া কেন্দ্র এ প্রশিক্ষণ দেবে।   প্রকল্প পরিচালক ড. এহসানুল করিম বলেন, ‘স্কিলস ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট কর্মসূচী (সেপ) অর্থায়নে মেশিনশপ প্র্যাকটিস, ওয়েল্ডিং ও ইলেকট্রিক্যাল মেইনটেন্যান্স বিষয়ে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। আমাদের দেশে এখন অনেক কর্মক্ষম শিক্ষিত- অর্ধশিক্ষিত বেকার যুবক রয়েছে যারা কর্ম সংস্থানের অভাবে তারা বিপথে যাচ্ছে। যদি এদের কে এসব প্রশিক্ষণের আওতায় আনা যায় তবে দেশের অর্থনীতি আরও বেগবান হবে। সরকার তরুণদের প্রশিক্ষিত করতে অনেক গুলো উদ্যোগ নিয়েছে তাঁর মধ্যে এই প্রকল্প অন্যতম।’   শিক্ষাগত যোগ্যতা এই তিনটি বিষয়েই ভর্তির যোগ্যতা ন্যূনতম অষ্টম শ্রেণি বা জেএসসি পাস। ঢাকা কেন্দ্রের প্রার্থীদের বয়স ন্যূনতম ১৫ বছর এবং বগুড়া কেন্দ্রের প্রার্থীদের বয়স কমপক্ষে ১৭ বছর হতে হবে। ভর্তিতে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে সমাজের দরিদ্র, অনগ্রসর, সুবিধাবঞ্চিত, প্রতিবন্ধী ও মহিলা প্রার্থীদের। প্রশিক্ষণের মেয়াদকাল   চার মাস মেয়াদি এ প্রশিক্ষণ কোর্সে প্রতি ট্রেডে প্রশিক্ষণ পাবেন ৩০ জন প্রশিক্ষণার্থী। আবেদন করবেন যেভাবে প্রশিক্ষণার্থীকে অবশ্যই বিটাকের নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে। ফরম পেতে বিটাকের ওয়েবসাইট (www.bitac.gov.bd) এবং ফেসবুক পেইজ www.facebook.com/bitachq থেকে সংগ্রহ করা যাবে। কেন্দ্র দুটির ভর্তি শাখায়ও ফরম পাওয়া যাবে।  তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮ কেন্দ্রের ভর্তি ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ৩ জুন। ভর্তি সংক্রান্ত তথ্য একই দিনে সকাল ৯টায় নেওয়া হবে মৌখিক পরীক্ষা। সান্তাহার রোড, কারবালা, নিশিন্দারা, বগুড়া-৫৮০০ কেন্দ্রের ভর্তি শাখা থেকে ভর্তি ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়া যাবে।  আগামি ২৯ মে বিকেল ৫টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে ৩০ মে এবং একই দিন ফল প্রকাশ করা হবে। সাপ্তাহিক ছুটির দিন বাদে অন্যান্য দিন ক্লাস নেওয়া হবে।   ভাতা ও সনদ কোর্সে অংশ নিতে কোনো ফি দিতে হবে না। ক্লাসে উপস্থিতির ভিত্তিতে দেওয়া হবে ভাতা। ঢাকা কেন্দ্রের প্রার্থীদের তিন মাসের থিওরিটিক্যাল ক্লাস শেষে তিন হাজার টাকা এবং এক মাসের প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস শেষে দেওয়া হবে এক হাজার ৫০০ টাকা। এছাড়া পাওয়া যাবে আবাসন সুবিধা। তবে আবাসন সুবিধা না দিতে পারলে কোর্স শেষে এককালীন ৩৫০০ টাকা দেওয়া হবে । বগুড়া কেন্দ্রের প্রার্থীদের উপস্থিতি হিসাবে প্রতিদিন ১০০ টাকা হারে ভাতা দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণ শেষে দেওয়া হবে সনদ। কোর্স শেষে চাকরির বিষয়েও বিটাক থেকে সহযোগিতা করা হবে। যোগাযোগ : প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য ঢাকা কেন্দ্র ০২-৮৮৭০৫৬২ এবং বগুড়া কেন্দ্রের ০১৭২৮৬২১৪৩৮ নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। কেআই/এসি       

সরকারিভাবে জর্দান নেবে ১৪০০ কর্মী

বাংলাদেশ থেকে জনবল নেবে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ জর্দান। স্বল্প খরচে ১৪৪৭ জনকে নেবে। বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের (বোয়েসেল) মাধ্যমে গার্মেন্ট খাতে এ জনবল নেওয়া হবে। এসব লোকবল নেবে জর্দানের পাঁচটি পোশাক প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান। কোন কাজে কতজনমেশিন অপারেটর পদে ১২৭১ জন, লিংকিং অপারেটর পদে ১২৫ জন, সুইং মেশিন অপারেটর পদে ৫০ জন, ওয়েলফেয়ার অফিসার পদে একজনসহ মোট ১৪৪৭ জন কর্মী পাঠানো হবে। জর্দানের পোশাক প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেল ইন্ডাস্ট্রি, সেঞ্চুরি মিরাকেল, রেইনবো টেক্সটাইল, গ্যালাক্সি অ্যাপারেল ও এটাটেকস ফরেন ট্রেড বাংলাদেশ থেকে এসব কর্মী নেবে।বাছাইয়ের দিনবোয়েসেলের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা গেছে, বাছাই পরীক্ষায় হাজির হওয়ার দিন সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে জীবনবৃত্তান্ত, সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডে চার কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি, মূল পাসপোর্ট এবং পাসপোর্টের ছবিযুক্ত অংশের এক সেট রঙিন ও চার সেট সাদা-কালো ফটোকপি। রেইনবো টেক্সটাইল এলএলসির জন্য দুই কপি রঙিন ছবি হলেই চলবে। এ ছাড়া শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, অভিজ্ঞতার সনদ (যদি থাকে), বর্তমানে কর্মরত অফিসের পরিচয়পত্র, পরিচয়পত্র না থাকলে হাজিরা কার্ড সঙ্গে নিতে হবে।যোগ্যতা মেশিন অপারেটর পদে অক্ষরজ্ঞানসম্পন্ন হতে হবে। থাকতে হবে যেকোনো তৈরি পোশাক কারখানায় সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কাজের অভিজ্ঞতা। লিংকিং অপারেটর পদে আবেদন করতে এ পদেও চাওয়া হয়েছে একই যোগ্যতা। ওয়েলফেয়ার অফিসার পদে স্নাতক হতে হবে। সঙ্গে ইংরেজিতে কথা বলা, লেখা ও কম্পিউটারে দক্ষতা থাকা চাই। সব পদে বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৩০-এর মধ্যে। প্রার্থীকে বাংলাদেশের পাসপোর্টধারী হতে হবে এবং থাকতে হবে পাসপোর্টের মেয়াদ।বেতনপ্রায় সবগুলো প্রতিষ্ঠানেই নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মীদের কমপক্ষে ২০ হাজার টাকা বেতন দেওয়া হবে। নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান কর্মীদের থাকা-খাওয়া, প্রাথমিক চিকিত্সাসহ প্রয়োজনীয় সব সুযোগ-সুবিধা দেবে। চাকরিতে যোগদানের বিমানভাড়া এবং চাকরি শেষে দেশে ফেরার বিমানভাড়া নিয়োগকারী কম্পানি বহন করবে।যোগাযোগএ বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করুন বোয়েসেল, প্রবাসী কল্যাণ ভবন (পঞ্চম তলা), ৭১-৭২ ইস্কাটন গার্ডেন রোড (রমনা থানার পশ্চিম পাশে), রমনা, ঢাকা-১০০০।ফোন : ০২-৯৩৩৬৫০৮, ৯৩৬১৫১৫ ও ৯৩৬১১২৫ওয়েব : www.boesl.org.bd/ এআর /

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি