ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ মে ২০২২, || জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯

যে চারটি অভ্যাসে বেড়ে যায় স্ট্রোকের ঝুঁকি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:১৬, ১৬ জানুয়ারি ২০২২

স্ট্রোকের ঝুঁকি এখন প্রবল। গড়ে প্রতি চার জন ২৫ বছরের বেশি বয়সি মানুষের মধ্যে এক জন আক্রান্ত হন স্ট্রোকে। এছাড়া প্রতি বছর বিশ্বজুড়ে অসংখ্য প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে এই মারণ রোগ।

তবুও অসচেতনতার অন্ত নেই জনমানসে। দেখে নিন কী কী অভ্যাস বাড়িয়ে দেয় স্ট্রোকের ঝুঁকি।

১। অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাস

স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস আশি শতাংশ কমাতে পারে স্ট্রোকের ঝুঁকি। অতিরিক্ত লবণ, চিনি ও স্নেহপদার্থ যুক্ত খাবার বাড়ায় স্ট্রোকের আশঙ্কা। অনিয়ন্ত্রিত রক্তচাপ ও কোলেস্টেরল ডেকে আনতে পারে বড় বিপদ। যাঁরা আগে থেকেই ঝুঁকি সম্পন্ন, তাদের ডিমের কুসুম ও মাংস খাওয়া ছাড়তে হতে পারে।

২। অলসতা

শরীরচর্চার অভাব ও সারাদিন শুয়ে-বসে থাকা ডেকে আনে এই রোগ। অলস জীবনযাপনে বাড়ে ওজন, কমে পেশী ও হাড়ের সক্ষমতা। বিপাকের হারেও এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে।

৩। ধূমপান

ধূমপানের ফলে শরীরে অসংখ্য ক্ষতিকর পদার্থ প্রবেশ করে। এমনকি, পরোক্ষ ধূমপানেও প্রবল ক্ষতি হয় শরীরের। রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা যায় কমে। ফলে ফুসফুসের পাশাপাশি ক্ষতি হয় সংবহনতন্ত্রেরও।

৪। মদ্যপান

অতিরিক্ত মদ্যপান অনিয়ন্ত্রিত রক্তচাপের অন্যতম কারণ। অ্যালকোহল শিরা ও ধমনীর স্থিতিস্থাপকতাকে মারাত্মক ভাবে প্রভাবিত করতে পারে। যা স্ট্রোকের অন্যতম প্রধান কারণ।

তবে এই চারটি কারণ ছাড়াও স্ট্রোকের অন্যতম কারণ হল সচেতনতার অভাব ও নিজের স্বাস্থ্যের প্রতি অবহেলা করা। যাঁদের উচ্চ রক্তচাপ, কোলেস্টেরল বা ডায়াবিটিসের মতো সমস্যা আছে, বা সংবহনতন্ত্রে রয়েছে কোনও গোলযোগ তাদের নিয়মিত শরীরের খেয়াল রাখা দরকার। অনেক ক্ষেত্রেই এই উপসর্গগুলিকে উপেক্ষা করাই ডেকে আনতে পারে মহা বিপদ। সূত্র: আনন্দবাজার

এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি