ঢাকা, মঙ্গলবার   ০২ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ১৭ ১৪২৭

বাজারে সাশ্রয়ী’ মূল্যে কেভিনকেয়ারের হেয়ার কালার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:৪৮, ১৭ জানুয়ারি ২০২১

চুলের যত্নে সাশ্রয়ী মূল্যে দেশের বাজারে হেয়ার কালার এনেছে এফএমসিজি পণ্য প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান কেভিনকেয়ার বাংলাদেশ। পাউডার ভিত্তিক এই ‘চিক হারবাল হেয়ার কালার’ আমলকি, মেহেদী ও জবার নির্যাসের মিশ্রণে তৈরি, যা চুলের যত্নে ব্যবহৃত অত্যন্ত সুপরিচিত উপাদান।

প্রতিষ্ঠানটির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৫ গ্রাম ওজনের নতুন এই হারবাল পণ্যটি সাশ্রয়ী ও চুলের জন্য নিরাপদ, যা চুলকে দিবে দীর্ঘস্থায়ী শতভাগ গ্রে কভারেজ ও প্রাকৃতিক কালো রং। হেয়ার কালারটিতে চুলের জন্য ক্ষতিকর রাসায়নিক অ্যামোনিয়া ব্যবহার সম্পূর্ণরূপে পরিহার করা হয়েছে। ‘জিরো অ্যামোনিয়া’র এই হারবাল হেয়ার কালারটির ব্যবহারে চুলে আসবে দারুণ পরিবর্তন। সুন্দর চুলে ব্যক্তিত্বে যোগ হবে নতুন মাত্রা। 

এ প্রসঙ্গে কেভিনকেয়ার বাংলাদেশের বিজনেস হেড অরুণ চাকো বলেন, ‘মাত্র ১০টাকা মূল্যে চিক হারবাল হেয়ার কালার নিয়ে আসার মাধ্যমে আমি কেভিনকেয়ার বাংলাদেশ-এর গ্রাহকদের অত্যন্ত আনন্দ ও গর্বের সাথে জানাতে চাই যে, কেভিনকেয়ার বাংলাদেশ স্বকীয়তা বজায় রেখেছে এবং সাশ্রয়ী মূল্যে সেরা মানের নিরাপদ পণ্য সরবরাহের ঐতিহ্য ধরে রেখেছে। নিশ্চিত নিরাপত্তার সঙ্গে অসাধারণ কভারেজ ও স্থায়ীত্বের নিশ্চয়তা দিতে পণ্যটি বাজারে নিয়ে আসার আগে ব্যবহারভিত্তিক জরিপ এবং পরীক্ষা করা হয়েছে।’

‘মেকিং লাইফস হ্যাপিয়ার’ মূলমন্ত্রটিকে সামনে রেখে ভারতের শীর্ষস্থানীয় এফএমসিজি কোম্পানি কেভিনকেয়ার সবসময় নতুন নতুন উদ্ভাবন নিয়ে এসেছে এবং এর সৌন্দর্য ও সুস্বাস্থ্য সেগমেন্টের পণ্য সমাহার দিয়ে ইতোমধ্যে নিজেদের সফল প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে। 

পার্সোনাল কেয়ার প্লেয়ার হিসেবে যাত্রা শুরু করা কেভিনকেয়ার দক্ষতার সাথে ডেইরি, স্ন্যাকস, ফুড, বেভারেজ, প্রফেশনাল কেয়ার ও সেলুন বিজনেস নিয়ে একটি সফল বহুমুখী প্রতিষ্ঠান হয়ে উঠেছে। উল্লেখিত ক্যাটাগরিতে ২১ টি ব্র্যান্ড ও একটি শক্তিশালী সেলস নেটওয়ার্ক নিয়ে কেভিনকেয়ার নামটি সুপরিচিত হয়ে উঠেছে। ভারত ছাড়াও, কেভিনকেয়ার এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের একাধিক দেশে সফলভাবে তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে ও সম্প্রসারণ করে আসছে। 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি