ঢাকা, বুধবার   ২৫ মে ২০২২, || জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৯

শীতে এই বদঅভ্যাসগুলো অ্যাজমার সমস্যা বাড়ায়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:০৪, ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | আপডেট: ১১:১২, ৩০ ডিসেম্বর ২০২১

অ্যাজমা হল শ্বাসের রোগ। এই রোগে আক্রান্ত মানুষের শ্বাসতন্ত্রের নালীগুলো ছোট হয়ে যায়। পাশাপাশি সেখানে দেখা দেয় প্রদাহ। এই দুই কারণে বুকে জমে যায় কফ। এরফলে শ্বাস নিতে কষ্ট হয়। শ্বাস নেওয়ার সময় বাঁশির মতো শব্দ হয়। এছাড়া থাকতে পারে কাশি। এই হল মোটামুটি অ্যাজমার প্রাথমিক বিবরণ।

অ্যাজমা রোগটি বড় জটিল একটি অসুখ। এই রোগ সম্পূর্ণ সারিয়ে তোলা সম্ভব নয়। তবে চেষ্টা করলে মানুষ এই রোগে অনায়াসে ভালো থাকতে পারেন। সে ক্ষেত্রে চিকিৎসা ও জীবনযাত্রায় বদলই এই রোগে ভালো থাকার অন্যতম হাতিয়ার।

শীত ও অ্যাজমা

শীত উপভোগের ঋতু হলেও সবাই এই সময়টাতে ভালো থাকতে পারেন না। কোনও কোনও মানুষ শীতের দিনে ভয়েও থাকেন। এমনই একদল মানুষ হলেন অ্যাজমা আক্রান্তরা। কারণ এই সময়টায় অনেক ক্ষেত্রেই বাড়ে অ্যাজমার সমস্যা।

শীত পড়া মাত্রই বেশকিছু রোগজীবাণু জেগে ওঠে। শুরু হয়ে যায় সংক্রমণ। আর এই সংক্রমণ থেকে অ্যাজমা আক্রান্ত মানুষের শরীরে দেখা দিতে পারে মারাত্মক সমস্যা। 

শীতের দিনে বাতাসে থাকে ধুলা-বালি, পরাগসহ বহু অ্যালার্জেন। আর এই ধরনের অ্যালার্জি থেকে হতে পারে অ্যাজমা রোগীর সমস্যা। পাশাপাশি ঠাণ্ডা আবহাওয়া থেকেও শ্বাসতন্ত্রে দেখা দিতে পারে প্রদাহ।

কোন কোন অভ্যাসে শীতে অ্যাজমার সমস্যা বাড়ে?

> এক্সারসাইজ করা ভালো। কিন্তু শীতের দিনে বাড়ির বাইরে ঠাণ্ডায় এক্সারসাইজ করা অন্তত অ্যাজমা রোগীদের জন্য ঠিক নয়। এ ক্ষেত্রে ঠাণ্ডা আবহাওয়া আপনার সমস্যা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে।

>অ্যাজমা রোগীদের এক্সারসাইজের সময় শ্বাসকষ্ট হতে পারে। সে ক্ষেত্রে চিকিৎসকরা বুঝেশুনে বহু রোগীকে এক্সারসাইজের আগে ইনহেলার নিতে বলেন। তবে অনেক মানুষ বিশেষজ্ঞের এই পরামরর্শ কর্ণপাত করেন না। তখন দেখা দেয় সমস্যা।

> শীতের দিনে এমনিই বাইরের আবহাওয়া ঠাণ্ডা থাকে। তার উপর আবার চলন্ত গাড়িতে জানালা খোলা থাকলে হু হু করে ঢোকে হাওয়া। ফলে ড্রাইভ করার সময় বা গাডিতে চড়ার সময় কোনভাবেই জানলা খোলা রাখা উচিত হবে না।

> একজন অ্যাজমা রোগীর পরিষ্কার জায়গায় থাকা উচিত। কারণ ধুলা-ময়লা অ্যাজমার সমস্যা বাড়াতে পারে। তাই আজ থেকেই নিজের আশপাশ পরিষ্কার রাখুন। বিশেষত, বিছানার চাদর, জানলা-দরজার পর্দা ইত্যাদি পরিষ্কার করুন।

> আমাদের মধ্যে অনেকেই ঘর পরিষ্কার করেন। সে ক্ষেত্রে আপনি যদি এমন কোনও ক্লিনার ব্যবহার করেন যেখানে রয়েছে ক্ষতিকর কেমিক্যাল, তাহলে বাড়বে আপনার সমস্যা। তাই আজ থেকেই সাবধান থাকুন।

সূত্র: এই সময়
এমএম/এসবি


 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি