ঢাকা, রবিবার   ০৭ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ২২ ১৪২৭

রক্তে আঁকা ছবি

চিন্ময় রায় চৌধুরী

প্রকাশিত : ২০:৪২, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রক্ত দিয়ে ছবি আঁকার 
ছিল ওদের সাধ
হোক না যত পয়মাল
হোক বরবাদ।

জল রঙ্গে তেল দ্রবনে
তুলি হয়না খুশি
রক্ত চাই আঁকতে ছবি
হোকনা দোষাদুষি।

মানব রক্ত ওদের চাই
জেগেছে পিপাসা
নতুন ছবি এঁকে দেবে
জল্লাদের আশা।

একুশ থেকে রক্ত নিতে
করেছিল শুরু
বছর বছর রক্ত নিল
জল্হ্বাদের গুরু।

ছাব্বিশে এসে ওরা
রাতের অন্ধকারে
ডুবিয়ে দিল রক্ত-স্রোতে
ঢাকা শহরটারে।

আরও আরও আরও চাই
ওদের চাওয়ার শেষ নাই
মানুষ মেরে রক্ত দিয়ে
ওরা ছবি আঁকে তাই।

নয় মাস এমনি কলে
উন্মত্ত পশুর দলে
আঁকলো ছবি প্রতি পলে
নর পিশাচ সদলবলে।

মারলো মানুষ নির্বিচারে
হাহাকার ঘরে ঘরে
একটি ছবি আঁকার তরে
এতো রক্ত কেনো ঝরে?

দিয়াবলের জলসা ঘরে
রক্তপান সবেই করে
একটি ছবি আঁকার তরে
গোয়াড় মাতাল গোঁ ধরে।

ষোল তারিখ ডিসেম্বর
হঠাৎ এলো তারপর
হতাশাটা ঘোরতর
এসে পড়লো ওদের উপর।

পন্ড হলো পাল্টে গেলো
খুনিরা সব জবাব পেলো
ছঁবি আঁকা শেষও হলো
ভাগ্য সেদিন ঘুরে দাঁড়ালো।

বিধাতা তো জানতো সবই
আমার রক্তে আঁকা ছবি
স্বাধীনতার নব রবি
ভবিতব্য জানে কবি।

মানচিত্র স্বাধীনতা
চির ধন্য জাতির পিতা
বাঙ্গালীর আত্মকথা
সেই ছবিটির এই কবিতা।

আমরা দিলাম রক্ত ঢেলে
ছবি এঁকে দিল মেলে
পালিয়ে গেল ছবি ফেলে
ওরা সব দলে দলে।

কুকর্ম ফল ভাল নয় 
পাপের কথা পাপীই কয়
রক্ত দিয়ে ছবি হয়
তোমারও হয় পরাজয়।

আমার দেশ মানচিত্র
কত রুপে কি বিচিত্র
বুঝবে তুমি নেই চরিত্র
মগজটাতে খুব দারিদ্র।

সব খেলাতে হার মেনেছো
রক্ত রঙ্গে ছবি এঁকেছো
নিজের পতন নিজে দেখেছো
পেয়েছো কি, যা চেয়েছো? 

            


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি