ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সুরক্ষিত হোয়াটসঅ্যাপের চ্যাট ফাঁস হয় কিভাবে?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:১৩, ২৩ অক্টোবর ২০২১

হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটে আপনার সমস্ত কথপোকথন সুরক্ষিত থাকে। কাকে কী লিখলেন, তা আপনার অনুমতি ছাড়া কাকপক্ষীও টের পায় না। হোয়াটসঅ্যাপের ভাষায় বললে, এই প্ল্যাটফর্মের সমস্ত চ্যাট এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপ্টেড। 

সম্প্রতি একটা প্রশ্ন হয়তো সবার মতো আপনার মাথাতেও ঘোরাফেরা করছে। হোয়াটসঅ্যাপ যদি এতটাই নিরাপদ হয়, তবে বলিউড তারকাদের চ্যাট কীভাবে ফাঁস হয়ে যায়।

একটু পিছনে তাকালেই মনে পড়বে রিয়া চক্রবর্তীর কথা। এই বলিউড অভিনেত্রীর হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট ছড়িয়ে পড়েছিল সর্বত্র। এরপর একে একে দীপিকা পাডুকোন, শ্রদ্ধা কাপুরদের চ্যাটের কথাবার্তাও নাকি নার্কোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)-র হাতে এসেছিল। 

উঠে এসেছে মাদক কাণ্ডে নাম জড়ানো শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের চ্যাটও। সম্প্রতি আবার চাঙ্কি পাণ্ডের মেয়ে অনন্যা পাণ্ডের চ্যাট নিয়েও আলোচনা চলছে।

কিভাবে তাহলে তারকাদের চ্যাট ফাঁস হচ্ছে? এক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় হতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে।

প্রথমত, গোয়েন্দারা ব্যবহারকারীকে ফোনটি আনলক করে দিতে বলেন পরে আনলকড ফোনটি হাতে পেলে অনায়াসে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট পড়ে নেন। নিয়ে নেন স্ক্রিন শটও।

দ্বিতীয়ত, ফোনটি যদি আনলক অবস্থায় হাতে পাওয়া যায়, তাহলে পুলিশের সাইবার শাখা অনায়াসে চ্যাট বক্সে ঢুকতে পারে। তাছাড়া একবার চ্যাটের হোম পেজে প্রবেশ করলে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে ক্লাউড থেকে তারা চ্যাটের ব্যাক-আপও পেয়ে যেতে পারে।

তৃতীয়ত, ইডি অথবা এনসিবির-র মতো সংস্থাগুলি আদালতের লিখিত অনুমতি নিয়ে গুগল কিংবা অ্যাপেলের কাছে কোনও ব্যক্তির হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের ব্যাক-আপ চাইতে পারে। সেক্ষেত্রে তদন্তের স্বার্থে টেক জায়ান্টগুলি গোয়েন্দাদের তা দিতেও পারে।

চতুর্থত, হোয়টসঅ্যাপের এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন অপশনটি আপনাকেই অন রাখতে হবে। যদি কোনও কারণে তা অন না থাকে তাহলেও কিন্তু চ্যাট ফাঁস হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন
এমএম//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি