ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৮ আগস্ট ২০২২

একইদিনে একুশে ফেব্রুয়ারি আর ৮ ফাল্গুন পালন (ভিডিও)

স্মৃতি মণ্ডল

প্রকাশিত : ১২:২৯, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২

১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি দিনটি ছিলো ৮ ফাল্গুন। আর এটি ঠিক রাখতে ২০২০ সালে বাংলা বর্ষপঞ্জিতে সংস্কার আনে বাংলা একাডেমি। ইংরেজি ও বাংলা তারিখের ব্যবধান দূর করে সেই থেকে একুশে ফেব্রুয়ারি আর ৮ ফাল্গুন একইদিনে পালন হচ্ছে।

১৩৫৮ সালের ৮ ফাল্গুন। এদিন ভাষার জন্য শহিদ হয়েছিলেন রফিক, শফিক, বরকত, জব্বার, সালামসহ অনেকে। 

ভাষার জন্য ১৪৪ ধারা অমান্য করে শোষকের গুলিতে প্রাণ দিয়েছিলো বাংলার দামাল ছেলেরা।

ইংরেজি ক্যালেন্ডারে ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি দিনটি ছিলো ৮ ফাল্গুন। আর বাংলায় ১৩৫৮ বঙ্গাব্দ। খ্রিস্টাব্দ ও বঙ্গাব্দের তারিখগুলো সমন্বয় করে ২১ ফেব্রুয়ারিকে ৮ ফাল্গুন করার লক্ষ্যে গেলো বছর বাংলা বর্ষপঞ্জিতে সংস্কার আনে বাংলা একাডেমি।

বাংলা একাডেমী উপ-পরিচালক ড. তপন কুমার বাগচী বলেন, ‘ইংরেজি মাস সারা পৃথিবীতে নির্ধারণ করা আছে। কিন্তু বাংলায় কিছু হেরফের রয়েছে। তবে সরকারের সহায়তায় বাংলা একাডেমি এটি সমন্বয় করেছে।’

৮ ফাল্গুন বাঙালি চেতনার অমর একুশে। বাংলা বর্ষপঞ্জির এই সংস্কার বিশেষ দিনগুলোতে বাংলা ও ইংরেজি তারিখের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হবেনা দাবি করছে বাংলা একাডেমি।

তপন কুমার বাগচী বলেন, ‘বাংলাদেশের হিন্দুরা যে দিনে পূজা পালন করতো, মুসলিমরা সেই বাংলা দিনটা অন্য তারিখ মনে করতো। একটি ঐতিহ্যের বিভাজন, ধর্মের বিভাজন করতে ছিল। সেই জিনিসটা বিলুপ করার উপায় হিসাবে আমরা বাংলা ও ইংরেজি তারিখের সমন্বয় করেছি। আমার দেশের যে ৮ ফাল্গুন ২১ ফেব্রুয়ারি তার দেশেরও ২১ ফেব্রুয়ারি। অর্থাৎ একই দিনে এই ২৪ ঘণ্টাটা সমান হচ্ছে।’

৮ ফাল্গুন আগুনরাঙা পলাশ আর রক্তিম শিমুলের বসন্ত প্রভাতেই হবে প্রভাতফেরি।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি